রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   জাতীয়
  মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  শর্তের বেড়াজালে প্রত্যাবাসন
  25, August, 2019, 10:58:43:AM

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতিগত রোহিঙ্গাদের উপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্মম হত্যাযজ্ঞ এবং জাতিগত নিধন অভিযান থেকে প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে শরণার্থীর জীবন বেছে নেয়ার দু’বছর অতিক্রান্ত  হলেও পারস্পরিক আস্থাহীনতায় নিজ মাতৃভূমিতে তাদের কাঙ্খিত প্রত্যাবাসন শুরু করা যায়নি। রোহিঙ্গারা রাখাইন রাজ্যে ফিরে যাওয়ার ব্যাপারে মিয়ানমার সরকারের পদক্ষেপের ওপর কোনো আস্থা রাখতে পারছে না। অপরদিকে, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারও দৃশ্যমান কোন আন্তরিকতা দেখাতে পারেনি।

এ পরিস্থিতিতে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে নিরাপত্তার জন্যে মিয়ানমারের উপযুক্ত পদক্ষেপ নেয়া জরুরি বলে কূটনৈতিক বিশ্লেষকরা অভিমত ব্যক্ত করেছেন। রোহিঙ্গা সংকটের দু’বছর পূর্তির ঠিক পূর্বমুহূর্তে তাদের প্রত্যাবাসনের দ্বিতীয় উদ্যোগটিও ব্যর্থ হয়ে যাওয়ার পর বিশ্লেষকরা এমন অভিমত ব্যক্ত করেন। মিয়ানমারের ওপর প্রবল চাপ সৃষ্টি করে রোহিঙ্গাদের নিরাপদে ফিরিয়ে নিতে বাধ্য করা এখন আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দায়িত্ব বলেও মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

দ্বিতীয়বার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ব্যর্থ হয়ে যাওয়ায় মিয়ানমারকে দায়ী করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। মিয়ানমারের অনীহা এবং সঠিক পদ্ধতি অনুসরণ না করায় দ্বিতীয়বার দিনক্ষণ ঠিক করেও রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো সম্ভব হয়নি বলে জানান মন্ত্রী। তবে রোহিঙ্গাদের ফিরে যেতেই হবে এবং মিয়ানমারও রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। গতকাল শনিবার সিলেটে একটি অনুষ্ঠানে যোগদানের আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে মন্ত্রী কথা বলছিলেন।

আবদুল মোমেন বলেন, সব প্রস্তুতি থাকা সত্ত্বেও রোহিঙ্গারা ফেরত যেতে রাজি না হওয়ায় বৃহস্পতিবার দ্বিতীয়বারের মতো প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ভেস্তে যায়। প্রত্যাবাসনে ব্যর্থতার দায় মিয়ানমারের। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা মিয়ানমারকে আগেই প্রস্তাব দিয়েছিলাম রোহিঙ্গাদের ১০০ জন নেতাকে সেখানে নিয়ে যেতে। তাদের প্রত্যাবর্তনের জন্য সেখানে কী কী করা হয়েছে সেগুলো দেখে এসে তারা অন্যদের বোঝাবে। সেখানে চীন ১০০টি এবং ভারত ২৫০টি বাড়ি বানিয়ে দিয়েছে। সেগুলো দেখে এসে তারা যখন অন্য রোহিঙ্গাদের বলতো তখন তারা আশ্বস্ত হতো। প্রত্যাবর্তনে রাজি হতো। কিন্তু মিয়ানমার সেটা করেনি। তাই প্রত্যাবর্তনের ব্যর্থতার দায় তাদেরই।

মিয়ানমারের একটি নিরাপত্তা চৌকিতে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট হামলায় নিরাপত্তা বাহিনীর কয়েকজন সদস্য নিহত হন মর্মে দাবী করে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের নির্বিচারে হত্যা, নারীদের ধর্ষণ ও তাদের বাড়িঘরে আগুন দেয়া হয়। এ অবস্থায় নির্যাতিত রোহিঙ্গারা সীমান্ত পেরিয়ে দলে দলে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া শুরু করে। বাংলাদেশে আগে থেকে অবস্থান করা পৌণে চার লাখ রোহিঙ্গার সঙ্গে নতুনরা যুক্ত হওয়ার ফলে বর্তমানে শরণার্থী রোহিঙ্গার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ১২  লাখ।

রোহিঙ্গা সংখ্যালঘু মুসলিমদের চিরতরে বিতাড়িত করতে মিয়ানমার সেনাবাহিনী সব ধরনের নিষ্ঠুরতা চালিয়েছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চাপের মুখে ও চীনের বিশেষ উদ্যোগে রোহিঙ্গা সংকটের দু’বছর পূর্ণ হওয়ার লগ্নে মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে আগ্রহ প্রকাশ করে। বাংলাদেশ সরকারের দেয়া তালিকা থেকে প্রাথমিকভাবে তিন হাজার ৪৫০ জন রোহিঙ্গার নাম বাছাই করে পাঠায় মিয়ানমার। বাংলাদেশ চায় রোহিঙ্গারা স্বেচ্ছায় মিয়ানমারে ফিরে যাক। সে জন্য সরকারের ত্রাণ, পুনর্বাসন ও প্রত্যাবাসন কমিশন এবং জাতিসংঘ উদ্বাস্তু সংস্থা ইউএনএইচসিআরের যৌথ কমিটি ফেরত পাঠানোর তালিকায় থাকা রোহিঙ্গাদের মতামত গ্রহণ করে।

কিন্তু কোনো রোহিঙ্গাই মিয়ানমারে ফিরে যেতে আগ্রহী হয়নি। ফলে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর দ্বিতীয় প্রচেষ্টাও ব্যর্থ হয়। এর আগে গত নভেম্বরে একবার রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছিল সরকার। তখনও কোনো রোহিঙ্গা ফিরে যেতে চায়নি। রোহিঙ্গারা তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ রোহিঙ্গা স্বীকৃতি দিয়ে নাগরিকত্ব প্রদান, ভিটে-বাড়ি ও জমি-জমা ফেরত, আকিয়াব জেলায় এডিবি ক্যাম্পে আশ্রয়ে থাকা রোহিঙ্গাদের নিজ বাড়িতে ফেরত যাবার সুযোগ প্রদান, বুচিদং ও মংডু জেলায় বিভিন্ন কারাগারে বন্দি রোহিঙ্গাদের মুক্তি, হত্যা-ধর্ষণের উপযুক্ত বিচার ও রাখাইনে জাতিসংঘ রক্ষী মোতায়েন দাবি করে আসছে। এসব দাবি  পূরণ করলেই রোহিঙ্গারা নিজ বাসভূমে ফিরে যাবে বলে তারা জানিয়ে আসলেও মিয়ানমার এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় তা পূরণে এগিয়ে আসেনি।

এর সাথে সম্প্রতি সরকারের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে যে, দেশি-বিদেশি কতিপয় এনজিও রোহিঙ্গাদের ফিরে না যাওয়ার জন্যে উদ্বুদ্ধ করেছে। এসব এনজিও রোহিঙ্গা শিবিরে প্রত্যাবাসনবিরোধী লিফলেট বিতরণ করেছে বলেও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন অভিযোগ করেন। তিনি মন্তব্য করেন, এসব এনজিওকে চিহ্নিত করা হবে। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায় রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের জন্যে নির্ধারিত ২২ আগস্টের আগের দিন রোহিঙ্গা শিবিরে কর্মরত ৬১ এনজিওর যুক্ত বিবৃতিতে। তারা বিবৃতিতে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু না করার জন্য বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানায়।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও সাবেক পররাষ্ট্র সচিব সিএম শফি সামি বলেন, রোহিঙ্গারা ফিরে যেতে অনাগ্রহী কারণ তারা নিরাপত্তার নিশ্চয়তা পাচ্ছে না। তাদের আরও কয়েকটি দাবি রয়েছে তবে সবচেয়ে বড় দাবি, নিরাপত্তার নিশ্চয়তা। তিনি আরও বলেন, আমি মনে করি, রোহিঙ্গাদের টেকসই প্রত্যাবাসনের জন্য আন্তর্জাতিক প্রয়াস আরও শক্তিশালী করতে হবে। চীন ও ভারতকে এই উপলব্ধিতে আনতে হবে যে, রোহিঙ্গা সংকট সমস্ত অঞ্চলের জন্য বিপদ ডেকে আনতে পারে।

সাবেক রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জমির বলেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে কালক্ষেপণ করা হচ্ছে। নিরাপত্তার প্রশ্নে রোহিঙ্গারা যাবে কি যাবে না- এ দ্বিধায় আছে। এনজিওগুলো তাদের প্রত্যাবাসনবিরোধী প্রচারণা করেছে। রোহিঙ্গা আমাদের জন্য বিরাট এক সমস্যা। দু’বছরে প্রায় এক লাখ শিশু জন্ম নিয়েছে। মিয়ানমার সেনাদের ওপর যুক্তরাষ্ট্র তাদের দেশে প্রবেশে যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে তাতে কাজ হচ্ছে না। কারণ মিয়ানমারের সেনারা যুক্তরাষ্ট্রে যায় না। মিয়ানমারের ওপর যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে হবে।



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 58        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     জাতীয়
কারাগারে বসেই মাদক ব্যবসা
.............................................................................................
শৃঙ্খলা এখনও অধরা
.............................................................................................
পরিবেশ দূষণের দায়ে ডিএনসিসিকে জরিমানার সুপারিশ
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে গুরুত্ব পাবে আসামের নাগরিক তালিকা
.............................................................................................
সমুদ্রবন্দরে তিন নম্বর বিপদ সংকেত জারি
.............................................................................................
‘বর্তমানে গেজেটভুক্ত মুক্তিযোদ্ধা ২ লাখ ৩৫ হাজার ৪৬৭ জন’
.............................................................................................
পুলিশের কমিউনিটি ব্যাংকের যাত্রা শুরু
.............................................................................................
স্মার্টকার্ড বিতরণে ধীরগতি
.............................................................................................
সচেতনতা বাড়ানোর তাগিদ
.............................................................................................
পুলিশের অপরাধ রোধে নজরদারি
.............................................................................................
শিশু-নারী নির্যাতন থামছেই না
.............................................................................................
বিদ্রোহীদের শোকজ নোটিশ
.............................................................................................
সমুদ্র বন্দরে তিন নম্বর সংকেত জারি
.............................................................................................
জিপি-রবিকে বিটিআরসির নোটিস
.............................................................................................
নতুন ব্রিজ নির্মাণে ১৮০ কোটি টাকা ঋণ দেবে এডিবি
.............................................................................................
মনুষ্য-সৃষ্ট কারণে সাগর আজ ভয়াবহ হুমকির সম্মুখীন: প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
কর্মসংস্থান না বাড়ায় কমছে না বেকারত্ব
.............................................................................................
টোলের আওতায় আসছে মহাসড়ক
.............................................................................................
আলোআভা নিউজের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন
.............................................................................................
মহাসড়ক থেকে টোল আদায় করা হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী
.............................................................................................
আজ উত্তর আয়ারল্যান্ড যাচ্ছেন ভূমিমন্ত্রী
.............................................................................................
মহাসড়ক রক্ষার উদ্যোগ
.............................................................................................
কৃষ্ণাকে চাপা দেওয়া বাসের চালক গ্রেপ্তার
.............................................................................................
বড় ধরনের হামলা ঘটনোর ‘টেস্ট কেস’ হতে পারে : ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
ট্রেনে মাদক পাচার থামছে না
.............................................................................................
ট্রেনের ছাদে চড়লে সর্বোচ্চ শাস্তি ১ বছরের কারাদন্ড
.............................................................................................
১০ টাকার টিকিটে চোখের চিকিৎসা নিলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
তিন জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩
.............................................................................................
জিপি-রবির লাইসেন্স বাতিলের দিকে যাচ্ছে সরকার
.............................................................................................
সরকারি প্রতিষ্ঠানের দখলে রেলের জমি
.............................................................................................
দশম সংসদে কোরাম সংকটে ক্ষতি ১৬৪ কোটি টাকা : টিআইবি
.............................................................................................
শ্রমবাজারে দুয়ার খুললো
.............................................................................................
টিকে থাকার লড়াইয়ে বেসরকারি এয়ারলাইনস
.............................................................................................
নজরদারিতে আসছে মোবাইল অপারেটরদের কার্যক্রম
.............................................................................................
ভারতে বিদ্যুৎ রপ্তানি করতে চায় বাংলাদেশ
.............................................................................................
এহছানে এলাহী বিআরটিসির নতুন চেয়ারম্যান
.............................................................................................
ওএসডি হলেন জামালপুরের সেই ডিসি
.............................................................................................
শর্তের বেড়াজালে প্রত্যাবাসন
.............................................................................................
ওএসডি হচ্ছেন জামালপুরের সেই ডিসি, ভিডিও আন্তর্জাতিক পর্ন সাইটে
.............................................................................................
মোজাফফর আহমদের ১ম জানাজা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
মোজাফফর আহমদের মরদেহে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
.............................................................................................
অক্টোবরে ভারত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী, অমীমাংসিত সমস্যা সমাধানের প্রত্যাশা
.............................................................................................
১ দিনে ১৪৪৬ রোগী হাসপাতালে ভর্তি
.............................................................................................
গাড়ি ছিনতাইয়ে অভিনব কৌশল
.............................................................................................
সেনাবাহিনীর গাড়িতে গুলি, পাল্টা গুলিতে সন্ত্রাসী নিহত
.............................................................................................
সৌদি আরবে এরও এক বাংলাদেশি হাজির মৃত্যু
.............................................................................................
ভাষাসৈনিক ডা. এম এ গফুর আর নেই
.............................................................................................
এনজিওদের তৎপরতা রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাধা: পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়
.............................................................................................
ডাক্তারসহ ৩০০ স্বাস্থ্যকর্মী ডেঙ্গু আক্রান্ত
.............................................................................................
ড্রিমলাইনার ‘গাঙচিল’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Nytasoft