শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   শিল্প সাহিত্য
  গল্প : সুখ
  2, September, 2020, 10:52:36:AM

পলি তালুকদার

মায়ের যখন ৩য় বিয়ে হয় তখন আমার বয়স ১৬ বছর। আমি আমার মাকে ছোট থেকেই খুব ভালবাসতাম, কিন্তু কেন জানি না মায়ের এই ৩য় বারের বিয়েটা আমি মেনে নিতে পারিনি। এই ৩য় বারের বিয়ের জন্য আমি মা কে খুব ঘৃণা করতাম। তবে সেটা মনে মনে, মুখে খুব কমই তার প্রতিফলন হতো। এই দুনিয়াতে মা আর রাসেদ ছাড়া আমার আর কোন আপন লোক নেই। যে লোকটার সাথে মা ৩য়,বার বিয়ে করেন তার নাম রাসেদ! কেন জানি না এই লোকটাকে আমার বাবা বলে ডাকতে ইচ্ছে করে না।

আমি যখন মায়ের পেটে তখন আমার ১ম বাবা নাকি মারা যান! যদিও আমি সবটা ঠিকঠাক জানি না, কি করে বাবা মারা গেলেন। তবে লোকমুখে শুনেছি বাবা আর মা নাকি ভালবেসে বিয়ে করেছিল। পুরো ৫ বছর সম্পর্কের পর তারা গোপনে বিয়ে করেছিল, কারণটা ছিল বাবা বেকার আর দরিদ্র পরিবারের ছেলে তাই আমার নানা-নানী কেউ মায়ের সম্পর্কটা মেনে নিতে পারেন নি। মা নানার একমাত্র মেয়ে খুব আদরের ,তাদের আর্থিক অবস্থাও খুব ভাল। তাই মা আর বাবা পালিয়ে বিয়ে করে।

বিয়ের ঠিক ১ বছর পর আমি মায়ের গর্ভে আসি। শুনেছি মা যখন ৩ মাসের অন্তঃস্বত্তা, বাবা তখন কোন একটা কাজে আমাদের একা ফেলে চলে যায়, তারপর আর কখনো ফিরে আসেন নি। এর ঠিক ৫ মাস পর নাকি মায়ের কাছে খবর আসে যে বাবা বেঁচে নেই, যদিও মা বাবার মুখটাও শেষ বারের মতো দেখতে পায় নি। লোকমুখে শুনেছি খবরটা নাকি মিথ্যা ছিল। আমি কিংবা মা কথাটার সত্য মিথ্যা কতোটুকু আজও খুঁজে পাই নি, আর না তো বাবা কখনো আমাদের খোঁজ নিয়েছে।

আমার যখন ৩ বছর বয়স তখন মা ২য় বারের মতো বিয়ে করেন। যদিও এই বিয়েটা মা আমার জন্যই করেছিল। আমার ২য় বাবার নাম জাহেদ। উনি আমাকে খুব ভালবাসত। ছোট থেকে আমি ওনাকেই বাবা ডেকেছি। মা তাই আমার সুখের জন্য তাকে বিয়ে করে। আমার এই বাবাটা খুব ভাল ছিল, আমার আর আমার মায়ের খুব খেয়াল রাখত। মায়ের মুখে শুনেছি তিনি নাকি আমি মায়ের পেটে থাকা অবস্থায় মা কে অনেক সাহায্য করেছিল। মা খুব অল্প বয়সে বিয়ে করেছিল। মায়ের যখন ১ম বিয়ে হয়, তখন মায়ের বয়স ১৭ বছর। আমাকে নিয়ে মায়ের কাজ করতে খুব কষ্ট হতো! তবুও জীবন বাঁচাতে মা ছোট্ট একটা চাকরি নেয়, তাতে আমাদের সংসার কোনরকম এ চলে যেত!

আমি নাকি ছোট বেলায় আমার ২য় বাবা কে, বাবা বলে ডাকতাম। সবচেয়ে বেশি শান্ত আমি তার কোলেই থাকতাম। আমাদের ছোট্ট সংসারটা ভালই চলছিল। আমার যখন ৫ বছর বয়স তখন আমার ছোট্ট একটা ভাই আসে। আমি তার নাম রেখেছিলাম ইফতি। ইভার ভাই ইফতি। কিন্তু আমাদের এই ছোট্ট পরিবারে এত সুখ বিধাতার সহ্য হয়নি। ইফতির যখন ৩ মাস বয়স তখন সে টাইফয়েডে মারা যায়!

ইফতির মৃত্যুতে সবচেয়ে বেশি কষ্ট পেয়েছিলাম আমি। আমার সেসব স্মৃতি খুব ভাল মনে নেই তবে ইফতির মুখটা আমার স্পষ্ট মনে আছে ওর সেই হাসিটা এখনো আমার চোখে ভাসে। ইফতিকে হারিয়ে পুরো পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এলো। হাসিখুসি ভরা পরিবারটা যেন মুহূর্তে কালো মেঘে ঢেকে গেল! ইফতির মৃত্যুর ঠিক ২ মাস পরে আমার ২য় বাবা ও একটা রাস্তা দূর্ঘটনায় মারা যান। বাবার মৃত্যুতে আমি পুরো স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলাম। বাবার লাশটার সামনে এসে শুধু বাবাকে বলেছিলাম, ‘আমার আর চকলেট লাগবে না, তুমি ওঠো’ কিন্তু বাবা আর উঠল না। বাবা ও আমাদের ছেড়ে ইফতির কাছে চলে গিয়েছিল। বাবার মৃত্যুর পর বকবক করে পাগল করা এই আমিটা হয়ে যাই নিস্তব্ধ। সেই থেকে আমি চুপচাপ স্বভাবের হয়ে যাই!

এরপর আমাদের সংসারটা মায়ের বাসা বাড়িতে কাজের টাকা দিয়ে কোনরকমে চলে যায়! কখনো ৩ বেলা বা কখনো ২ বেলা খেয়ে দিন কাটাতাম। বাবার রেখে যাওয়া শেষ সম্বলটুকোও হারিয়ে ফেললাম আমার পড়াশোনার খরচ বহন করতে গিয়ে। শেষ পর্যন্ত আমার পড়াশোনা বন্ধ হবার উপক্রম। মা কে একবার বলেছিলাম নানাকে জানাতে। মা না করে দিয়েছিল, ২য় বার আমি আর মা কে এ ব্যাপারে কিছু জিঙ্গেস করিনি। আমি যখন উচ্চ মাধ্যমিকে উঠব তখন ভর্তির টাকাটাও ছিল না। মা কে বললাম থাক আর পড়াশোনা করব না। মা বলেছিল তোকে আমার মতো হতভাগী হতে দেব না, দরকার হলে কিডনি বিক্রি করব। তবে মা কে তা করতে হয় নি, রাসেদ সাহেব মা কে আমার ভর্তির টাকাটা দেন। তা দিয়েই আমি ভর্তি হই।

অনেক টাকার মালিক রাসেদ সাহেব কেন জানি না মাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। রাসেদ সাহেবের কোন সন্তান নেই, স্ত্রী গত হয়েছেন ৩ বছর হলো। মা আমাকে এসে বলল, ‘রাসেদ সাহেব আমাকে বিয়ে করতে চায়, তোকেও মেয়ে বলে মেনে নেবে, কি করব?’ কথাটা বলতে গিয়ে মায়ের মুখটা লজ্জায় নিঁচু হয়ে গেল। আমি দেখলাম মায়ের, দু’গাল বেয়ে অঝরে পানি পড়ছে। আমি বললাম, ‘বিয়েটা করো’। মা আমার দিকে একবার তাকিয়ে দৌড়ে ঘরে গিয়ে দরজা দিয়ে দিল। আমি বাইরে থেকে মায়ের কান্নার আওয়াজ পেলাম। আকাশের দিকে তাকিয়ে একটা দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে নিজের কাজে চলে গেলাম।

৩য় বার বিয়ের পর আমি মাকে কখনো আমার সামনে মাথা উঁচু করে কথা বলতে দেখিনি। যদিও রাসেদ সাহেব আমাকে যথেষ্ট ভালবাসেন তবুও লোকটাকে বাবা বলে মেনে নিতে পারি নি। আমি যখন ঘুমিয়ে থাকি তখন মা আমার পায়ের কাছে এসে রোজ রাতে কাঁদে! আমি টের পাই কিন্তু কিছু বলিনা। আমি জানি মা এই বিয়েটা করেছে আমাকে ভাল রাখতে তবুও, না আমি আর না তো মা সুখে আছি। আমরা হয়তো ভাল আছি তবে সুখে নেই। রোজ রাতে আমি আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকি আর ভাবি, ‘সুখটা কি জিনিস? কোথায় থাকে? সবার জন্য কি সুখটা নয়?’ উত্তর মেলে না। এক বুক দীর্ঘশ্বাস নিয়ে আবার চলে আসি একটু সুখের আশায়!

স্বাধীন বাংলা/এআর



   শেয়ার করুন
   আপনার মতামত দিন
     শিল্প সাহিত্য
পড়ালেখার উদ্দেশ্য কি চাকুরী জোগাড় মাত্র?
.............................................................................................
গল্পের মধ্যে গল্প
.............................................................................................
গল্প : সুখ
.............................................................................................
আজ আমার রাতের খাবার নেই
.............................................................................................
পথশিশুর স্বপ্ন
.............................................................................................
বাংলা ভাষা প্রতিষ্ঠায় মুসলমানদের অবদান
.............................................................................................
কবি নয়, কবিতা হতে চাই
.............................................................................................
হায়রে বাঙালি
.............................................................................................
চিবুকের কালো তিল
.............................................................................................
মা দিবসে কবি আলম হােসেনের অসাধারণ কবিতা
.............................................................................................
বল্টু
.............................................................................................
দানেই সুখ!
.............................................................................................
অতি চালাকের গলায় দড়ি
.............................................................................................
কোভিড-১৯ ও একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের ভাঙন
.............................................................................................
জসিম উদ্দিনের ‘কবর’ কবিতাটি করোনা ভার্সনে রূপান্তর!
.............................................................................................
ঘুমহীন হৃদয়
.............................................................................................
অনুশোচনা
.............................................................................................
জাতীয় কবি নজরুলের প্রয়াণ দিবস আজ
.............................................................................................
একাকিত্বে বহুত্ব
.............................................................................................
কাপালিকের দেশে
.............................................................................................
চলতি বছরের নোবেল সাহিত্য পুরস্কার স্থগিত
.............................................................................................
ময়মনসিংহে সাহিত্য উৎসব অনুষ্ঠিত, পুরস্কৃত হলেন ৪ গুণীজন
.............................................................................................
প্রথম মৃত্যু
.............................................................................................
শুভংকরের ফাঁকি
.............................................................................................
বউ যেভাবে ঘরে আসে
.............................................................................................
মধ্যরাতের কথা
.............................................................................................
বাঙালির রক্তের বন্ধন ও জাতি-পরিচয়
.............................................................................................
মোহময়ী পিরামিড
.............................................................................................
৮২তম জন্মদিনে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত কবি আল মাহমুদ
.............................................................................................
পাবনা বইমেলা সাহিত্যকে সম্মৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে
.............................................................................................
প্রসঙ্গ: ঐতিহাসিক জ্বীনের মসজিদ
.............................................................................................
তেহরানে প্রথম বিশ্বের স্বাধীনতাকামী আন্দোলন
.............................................................................................
একলা মানুষ
.............................................................................................
নৈশভোজে আসছিস্ তো
.............................................................................................
স্বপ্ন ছিলো
.............................................................................................
ফেরা
.............................................................................................
ডি.লিট ডিগ্রি পাচ্ছেন হাসান আজিজুল হক ও সেলিনা হোসেন
.............................................................................................
বিশ্ববিখ্যাত ১০ নারীর জীবনীগ্রন্থ
.............................................................................................
কবি রফিক আজাদ আর নেই
.............................................................................................
পরপারে চলে গেলেন একুশে পদকপ্রাপ্ত কবি রফিক আজাদ
.............................................................................................
অমর একুশে গ্রন্থমেলায় শামস সাইদ এর দুটি কিশোর উপন্যাস
.............................................................................................
ঘুম আছে স্বপ্ন নেই
.............................................................................................
নীলফামারীতে পাল আমলের নিদর্শন পাওয়া গেছে
.............................................................................................
কবি শামসুর রাহমানের ৮৭তম জন্মদিন
.............................................................................................
ম্যান বুকার পেলেন জ্যামাইকার মারলন জেমস
.............................................................................................
১৪ অক্টোবর সরদার ফজলুল করিম দর্শন পদক
.............................................................................................
স্মরণ : ছোটোলোকের বাবা ॥ মোঃ আতিকুর রহমান ॥
.............................................................................................
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর: জীবন, সাহিত্য ও দর্শন
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT