শনিবার, ২ মার্চ 2024 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজনীতি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
উপজেলা নির্বাচনে না আসলে বিএনপিকে ভুলের খেসারত দিতে হবে: সেতুমন্ত্রী

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি না এসে যে ভুল করেছে, উপজেলা নির্বাচনে না আসলে জাতীয় নির্বাচনের মতো সেই ভুলের খেসারত দিতে হবে বিএনপিকে।

আজ সোমবার বিকালে নিজ নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে মায়ের মৃত্যুবার্ষিকীর উপলক্ষে কাঙ্গালী ভোজ শেষে গণমাধ্যম কর্মিদের তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, উপজেলা নির্বাচন আমরা সবার জন্য উন্মুক্ত রেখেছি। এবারের জাতীয় নির্বাচনেও নৌকা মার্কা ছিল, এর বাহিরে যারা স্বতন্ত্র করতে চেয়েছে তাদেরকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে মন্ত্রী বলেন, ২৮ তারিখে তারা যেভাবে পালিয়ে গেছে, আবারো ওই রকম কিছু করতে গেলে পালাতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নোয়াখালী-২ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব মোরশে আলম, নোয়াখালী জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান প্রমূখ।

উপজেলা নির্বাচনে না আসলে বিএনপিকে ভুলের খেসারত দিতে হবে: সেতুমন্ত্রী
                                  

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি না এসে যে ভুল করেছে, উপজেলা নির্বাচনে না আসলে জাতীয় নির্বাচনের মতো সেই ভুলের খেসারত দিতে হবে বিএনপিকে।

আজ সোমবার বিকালে নিজ নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে মায়ের মৃত্যুবার্ষিকীর উপলক্ষে কাঙ্গালী ভোজ শেষে গণমাধ্যম কর্মিদের তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, উপজেলা নির্বাচন আমরা সবার জন্য উন্মুক্ত রেখেছি। এবারের জাতীয় নির্বাচনেও নৌকা মার্কা ছিল, এর বাহিরে যারা স্বতন্ত্র করতে চেয়েছে তাদেরকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে মন্ত্রী বলেন, ২৮ তারিখে তারা যেভাবে পালিয়ে গেছে, আবারো ওই রকম কিছু করতে গেলে পালাতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নোয়াখালী-২ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব মোরশে আলম, নোয়াখালী জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান প্রমূখ।

পিলখানা হত্যাকাণ্ডের বিষয় খালেদা জিয়া আগেই জানতেন: বিমানমন্ত্রী
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

পিলখানা হত্যাকাণ্ড ঘটবে এ বিষয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আগেই জানতেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী মুহাম্মদ ফারুক খান।

তিনি বলেন, আমরা জানি, সেদিন ঘটনার কিছু পূর্বে বেগম জিয়ার বাসা থেকে একটি কালো রঙের গাড়ি কোনো প্রটোকল না নিয়ে বেরিয়ে গেছে। এতে প্রমাণিত হয়ে তিনি জানতেন ঘটনা ঘটবে।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর বনানীতে সামরিক কবরস্থানে পিলখানা হত্যায় শহীদ সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

পিলখানা হত্যার মাস্টারমাইন্ডরা একেবারেই বাইরে রয়ে গেছে। তাদের কি কখনো পাওয়া যাবে না? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ফারুক খান বলেন, মাস্টারমাইন্ডদের ব্যাপারে খোঁজ-খবর নিচ্ছি আমরা। ঘটনার পেছনে যারা কুশীলব, কিছুটা তো আমরা জানি কারা ছিল।

এ ঘটনার বিচার যাতে সুষ্ঠুভাবে হয়, তার জন্য কাজ চলছে। যারা এর পেছনে আছে তাদের খুঁজে বের করা হবে, বলেন মন্ত্রী।

ফারুক খান বলেন, দুটি মামলা হয়েছে, একটি হত্যার ও একটি বিস্ফোরকের মামলা। বিচারের যে নিয়ম, সেই নিয়ম তো আমাদের পালন করতে হবে। সেটা না হলে আবার অন্য দিক থেকে ক্ষতিগ্রস্ত হবো। আমি শুনেছি, বিচারের কার্যক্রম প্রায় শেষ পর্যায়ে আছে।

তিনি বলেন, যারা হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন, তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে এবং আমাদের পার্টি- আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকেও আমরা দাবি করি, আমরা আশা করি যে, অতি দ্রুততার সঙ্গে এই মামলার মীমাংসা হবে এবং যারা দোষী তাদের কঠোর শাস্তি হবে।

এর সঙ্গে যারা যারা জড়িত সবার শাস্তি হবে এবং এই ধরনের ঘটনা যাতে আর কখনো বাংলাদেশে না ঘটতে পারে তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আগামীতেও নেওয়া হবে বলে জানান মন্ত্রী।

শেখ হাসিনা খাঁটি ঈমানদার: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী
                                  

বিশ্বনাথ(সিলেট)প্রতিনিধি :

জনেত্রী শেখ হাসিনা একজন খাঁটি ঈমানদার, খাাঁটি মুসলমান ও খাঁটি দেশ প্রেমিক। তিনি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন, তাহজ্জুদের নামাজ পড়েন, ফজরের নামাজ পড়ে এরপর কুরআন তিলাওয়াত করে রাষ্ট্রীয় কাজ শুরু করেন। যে কারণে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নে ভরপর। আল্লাহ রাব্বুল আল আমীনের উপর তার বিশ্বাস আছে আমরারও আল্লাহ রাব্বুল আল আমীনের উপর বিশ্বাস রয়েছে। আগে আল্লাহ বাদে শেখ হাসিনা।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারী) রাত সাড়ে ৯টায় ইউনিয়নের লালটেক আলহাজ্ব তাহির আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে বিশ্বনাথ অলংকারি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে এসব মন্তব্য করেন।

শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, আল্লাহ ছাড়া কোনো মালিক নেই। আল্লাহর হুকুমে সব কিছু হয়। জননেত্রী শেখ হাসিনা থাকলে বাংলাদেশ থাকবে এবং ততদিন বাংলাদেশ নিরাপদ থাকবে। সেই জন্য আমরা মনে করি যে শেখ হাসিনার সরকার বার বার দরকার।

নিজের এমপি ও মন্ত্রী হওয়া প্রসঙ্গে শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমি চিরঋণী। তিনি মনোনয়ন দিয়েছিলেন সংসদ সদস্য হিসাবে। আপনারা নির্বাচিত করেছেন। এমপি হয়ে যখন সংসদ সদস্য হিসাবে শপথ গ্রহণ করার পর নেত্রীকে কদমবুছি করে যখন দোয়া নিলাম তখনই বুঝতে পারলাম নেত্রী কতটুকু মায়া করেন, স্নেহ করেন। এরপর শুনতে পারলাম মন্ত্রী পরিষদে একজন মন্ত্রী হিসাবে আমাকে দায়িত্ব দিয়েছেন। সারা সিলেটে আমরা কাংঙ্খীত উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত ছিলাম। আমরা এখন সেই উন্নয়ন পাবো। শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ সোনার বাংলা হিসাবে রুপান্তরিত করতে চান। আমরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। তাই শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলার মানুষ ঐক্যবদ্ধ। সবাই শেখ হাসিনার পক্ষে ও উন্নয়নের পক্ষে।

অলংকারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. হীরা মিয়ার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক তফজ্জুল আলীর সঞ্চালনায় প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী আরো বলেন, আওয়ামীলীগ করলে মানুষ ত্যাগ করা শিখে। আওয়ামীলীগই একমাত্র সংগঠন যে সংগঠন করলে দেশে উন্নয়ন হয়। আওয়ামী লীগ করলে একজন মানুষ মাতা উচ্চ করো দাঁড়ায়। ত্যাগের রাজনীতি করে আওয়ামী লীগ, ভোগ বিলাসের রাজনীতি করে না আওয়ামী লীগ। বিএনপি, জামাত, জাতীয় পাটি ও অন্যান্য সংগঠনগুলো ভোগ বিলাসের রাজনীতি করে। তারা মানুষের সম্পদ লোট করে আঙ্গুল থেকে কলাগাছ আর কলাগাছ থেকে বটগাছ হয়। আজকে তারেক জিয়া বিদেশে বসে সড়যন্ত্র করছে। সেই সড়যন্ত্রের মাধ্যমে ৭ তারিখের নির্বাচন ভন্ডুল করতে চেয়েছিল। ৭ তারিখের নির্বাচন যাতে না হয় এটা চেয়েছিল। অনেক সড়যন্ত্র করে ছিলো কিন্তু বাংলার মানুষ জননেত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ৭ তারিখের নির্বাচনে তার দাঁত ভাঙা জবাব দিয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, বিশ্বনাথ ও ওসমানীনগরের মানুষ আমাকে ভোট দেয় নাই, ভোট দিয়েছে উন্নয়নের পক্ষে। যে কারণে উন্নয়নের পক্ষে বাংলাদেশ। উন্নয়নে ভরপুর বাংলাদেশ। উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। আজকে আমরা সেই উন্নয়নে মহাসড়কে চলতে চাই। যে কারণে বিশ্বনাথ ও ওসমানীনগরের মানুষ নৌকায় ভোট দিয়েছে। আমি বিশ্বাস করি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমার মায়ের সমতুল্য। তিনি আমাকে অনেক স্নেহ মমতা করেন বোনের মত, ভাইয়ের মত। আমি মনে করি আমরা উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হবো না। তিনি জানেন বিগত দশ বৎসর আমরা উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত ছিলাম। সেই উন্নয়নের পক্ষে বিশ্বনাথ ওসমানীনগরের মানুষ ভোট দিয়েছে। আমরা সবাই মনে করেছিলাম যে, উন্নয়নের পক্ষে হয়ত রাজনৈতিক কারণে আমরা অলংকারি ইউনিয়নে ভোট কম পাবো। কিন্তু অলংকারি ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ প্রমাণ করে দিয়েছে তারা উন্নয়নের পক্ষে শেখ হাসিনার পক্ষে।

 

জামিন পেলেন ফখরুল-খসরু, কারামুক্তিতে বাধা নেই
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

অবশেষে জামিন পেলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। ৫ হাজার টাকা মুচলেকায় তাদের জামিন হয়। প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার ঘটনায় রমনা থানায় করা মামলায় তারা জামিন পেলেন।

বুধবার ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ফয়সল আতিক বিন কাদের এ আদেশ দেন।

মির্জা ফখরুল ও আমির খসরুর বিরুদ্ধে আর কোনো মামলা না থাকায় এই দুজনের কারামুক্তিতে বাধা নেই বলে জানিয়েছেন তাদের আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ।

এর আগে এ মামলায় ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাদের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর হয়। ওই আদেশের বিরুদ্ধে মহানগর দায়রা জজ আদালতে গত ৬ ফেব্রুয়ারি জামিনের আবেদন করেন তাদের আইনজীবী। আদালত শুনানির জন্য ১৪ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেন।

গত ২৮ অক্টোবর রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির মহাসমাবেশ শুরুর আগেই কাকরাইলে দুপুর থেকে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এ সংঘর্ষ পরে বিজয়নগর পানির ট্যাংক ও শান্তিনগর এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে বেলা ৩টার দিকে বিএনপির মহাসমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়। এ সংঘর্ষে পুলিশের এক সদস্য ও যুবদলের ওয়ার্ড পর্যায়ের এক নেতা নিহত হন। আহত হন পুলিশের ৪১ ও আনসারের ২৫ সদস্য। এছাড়া কমপক্ষে ২০ জন সাংবাদিক আহত হন।

এ ঘটনার পর গত ২৮ অক্টোবর মির্জা ফখরুলের গুলশানের নিজ বাসা থেকে তাকে আটক করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। এরপর তাকে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের মামলায় আদালতে হাজির করা হলে আদালত তার জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এদিকে গত ২ নভেম্বর দিবাগত রাত ১টার দিকে গুলশানের একটি বাসা থেকে আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে আটক করে ডিবি। পরদিন ৩ নভেম্বর সমাবেশ চলাকালীন সংঘর্ষে পুলিশ সদস্য নিহতের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। মামলায় তার ৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। রিমান্ড শেষে ৯ নভেম্বর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গ্রেফতারের পর মির্জা ফখরুল বিরুদ্ধে ১১ মামলা ও আমির খসরুর বিরুদ্ধে ১০ মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলা ছাড়া তারা সব মামলাই জামিন পেয়েছিলেন তারা। আজ মামলাটিতে জামিন পাওয়ায় তাদের মুক্তিতে আর কোনো বাধা থাকল না।

খালেদা জিয়ার সাবেক উপদেষ্টা এখন আ.লীগ নেতা
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাবেক উপদেষ্টা ও বহিষ্কৃত বিএনপি নেতা এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দ একে একরামুজ্জামান আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছেন। মঙ্গলবার বিকালে রাজধানীর উত্তরা বোট ক্লাবে গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর সঙ্গে নাসিরনগর উপজেলার জনপ্রতিনিধিদের মতবিনিময়সভায় আনুষ্ঠানিকভাবে আওয়ামী লীগে যোগদান করেন তিনি।

এ বিষয়ে সাংসদ সৈয়দ একে একরামুজ্জামান জানান, ঘরের ছেলে ঘরে ফিরে এসেছি। আমি নাসিরনগরের সার্বিক উন্নয়নে নিবেদিতভাবে কাজ করে যেতে চাই।

জানা যায়, মঙ্গলবার বিকালে রাজধানীর উত্তরা বোট ক্লাবে গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর সঙ্গে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার সব জনপ্রতিনিধিদের মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত হয়। একরামুজ্জামান নিজেই নাসিরনগরের সব জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে এ মতবিনিময়সভার আয়োজন করেন। এতে উপজেলা পরিষদ, সব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের মিলিয়ে প্রায় ৩০০ জনপ্রতিনিধি অংশ নেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল ও আশুগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মো. মঈন উদ্দিন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি হেলাল উদ্দিন, সহসভাপতি হাজী হেলাল উদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল বারী চৌধুরী, জেলা জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুল আলম ও সাবেক দপ্তর সম্পাদক তানজিল আহমেদ।

সংরক্ষিত আসনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে আ.লীগ
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

সদ্য সমাপ্ত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর এবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত মহিলা আসনের জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়েছে। আজ (০৬ ফেব্রুয়ারি) মঙ্গলবার সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ফরম বিক্রি শুরু হয়।

আজ থেকে শুরু হওয়া এ মনোনয়ন বিক্রি চলবে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত মনোনয়ন বিক্রি করা হবে।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে আগ্রহী প্রার্থীদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নির্দিষ্ট বুথ থেকে দলীয় মনোনয়নের জন্য আবেদনপত্র সংগ্রহ এবং জমা প্রদান করতে হবে। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় ঢাকা, ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগ এবং তৃতীয় তলায় রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের মনোনয়নপত্র বিতরণ করা হবে। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচ তলায় জমা নেওয়া হবে সব বিভাগের মনোনয়নপত্র।

বিএনপি-জামাত থেকে সতর্ক থাকতে বললেন গণপূর্তমন্ত্রী
                                  

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

বিএনপি-জামাত জোটের সকল চক্রান্ত থেকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকতে সবাইকে আহ্বান জানিয়েছেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, এমপি।

শুক্রবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের জন্য আমাকে সুযোগ দিয়েছেন। আপনারা আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে এই সুযোগ পাওয়ার পথ করে দিয়েছেন। এজন্য আমি আপনাদের এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞ। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন স্বচ্ছতার সাথে নিজের দক্ষতা ও যোগ্যতা দিয়ে এলাকার উন্নয়নে কাজ করতে পারি।

সবার সহযোগিতা পেলে বিজয়নগর উপজেলাকে একটি আলোকিত, উন্নত, মডেল উপজেলা হিসেবে এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরকে এটি মডেল শহর হিসেবে গড়ে তোলার আশ্বাস প্রদান করেন।

তিনি বিজয়নগর উপজেলায় একটি সাব-রেজিস্ট্রি অফিস, টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট, একটি সরকারি কলেজ এবং গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন জাতীয় গৃহান কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে নতুন একটি আবাসন প্রকল্প গড়ে তোলার প্রদান করেন।

তিনি বিজয়নগর উপজেলায় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অধীন জেলা পরিষদের মাধ্যমে ৫০০ লোকের ধারণ ক্ষমতা সম্বলিত একটি অডিটোরিয়াম নির্মাণ করার প্রতিশ্রুতি দেন।

দেশের গ্যাস শিল্পায়ন ও সার উৎপাদনে ব্যবহার করা হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন পাইপ লাইনের মাধ্যমে বাসাবাড়িতে গ্যাস সরবরাহ পৃথিবীর অন্য কোন দেশে নেই। যেসব দেশ থেকে বাংলাদেশ তরলীকৃত গ্যাস আমদানি করে সেসব দেশেও বাসা বাড়িতে সিলিন্ডারের গ্যাস জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হয়। কৃষির উন্নয়নে সারের কোন বিকল্প নেই, এজন্য সার উৎপাদনে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া উচিত। বাসা বাড়িতে পাইপ লাইনে গ্যাস সরবরাহ নিরুৎসাহিত করে শিল্পায়ন, বিদ্যুৎ উৎপাদন ও সার উৎপাদনে গ্যাস ব্যবহার করা উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন।

নির্বাচনী প্রচারণায় তিনি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ সরবরাহের যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা বাস্তবায়নে পুনরায় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

তিনি নিজ নির্বাচনী এলাকার প্রয়োজনীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিও ভুক্তির আশ্বাস দেন এবং জেলার পত্তন, চম্পকনগর ও সিঙ্গারবিলে মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠায় প্রয়োজনীয় সহযোগিতার আশ্বাস দেন। তিনি খুব শীঘ্রই বর্জ্যমুক্ত বিজয়নগর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর প্রতিষ্ঠার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত দেন।

এর আগে মন্ত্রী উপজেলা পরিষদ চত্বরে বিজয়নগর উপজেলার অসহায়, দরিদ্র ও দুস্থ শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন।

বিজয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মোঃ হেলাল উদ্দিন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ফাহিমা খাতুন, জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি হাজি হেলাল উদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু, জেলা জজকোর্টের পিপি মাহবুবুল আলম খোকন, বিজয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর মিরধা প্রমুখ। অনুষ্ঠানে উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার প্রায় অর্ধলক্ষাধিক লোক সমাগম ঘটে। সংবর্ধনা শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

ভালো কথা বললেও আপনারা ক্ষেপে যান, সাংবাদিকদের আইনমন্ত্রী
                                  

হালিমা খানম, স্টাফ রিপোর্টার:

সাগর-রুনি হত্যার বিচার নিয়ে মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। গতকাল বৃহস্পতিবার ব্রিফিংয়ে এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছিলেন, ‘সাগর-রুনি হত্যা মামলার সঠিক তদন্তের জন্য পুলিশকে ৫০ বছর সময় দিতে হবে।’

সচিবালয়ে করা সেই প্রশ্নের সূত্র ধরে শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকালে আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশনে পাল্টা প্রশ্নের মুখোমুখি হন আইনমন্ত্রী। এসব প্রশ্নের জবাবে তিনি সাংবাদিকদের দিকেই প্রশ্ন ছুড়ে দেন, ‘ভালো কথা বললেও আপনারা এরকম ক্ষেপে যান কেন?’

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আমার কথা হচ্ছে (সাগর-রুনি হত্যার) সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া উচিত। প্রকৃত অপরাধীকে ধরা উচিত। আমাদের আইনি কাঠামোতে বলা হয়, যে অপরাধী নয়, তাকে হয়রানি করা যাবে না। প্রকৃত অপরাধীকে ধরতে হবে। সেই কারণে আমি এই কথা বলেছি। আপনারা (সাংবাদিক) গেলেন ক্ষেপে।’

এই মামলার তদন্ত ধীর গতি হচ্ছে কিনা এবং এরকম বিলম্বে তদন্তের আর নজির আছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক বলেন, ‘আমি যে কারণে সময়ের কথাটা বলেছি। বিশ্বে এমন অনেক মামলা আছে। ৪২ বছর পরে ইউনাইটেড কিংডমে (যুক্তরাজ্য) একটি খুনের মামলার আসামিদেরকে ধরতে পেরেছে। আমেরিকায় (যুক্তরাষ্ট্র) কিছুদিন আগে, ২৪ বছর আগের একটি খুনের মামলার রহস্য উদ্ঘাটন করেছে। আমার কথা হচ্ছে, পুলিশ চেষ্টা করছে। তাদের তদন্ত চলছে। প্রকৃত আসামিকে এখন পর্যন্ত তদন্তে ধরা যাচ্ছে না, এ জন্য তদন্তে সময় লাগছে।’

আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশনে ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদেরকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনারা কি চান তদন্ত বন্ধ হয়ে যাক। আমি এই কারণেই বলেছি, যতক্ষণ পর্যন্ত অপরাধীকে না ধরা হবে ততদিন পর্যন্ত তদন্ত চলবে।’

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘এটা (সাগর-রুনি হত্যার বিচার সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাব) বিতর্কের প্রশ্ন না। আমার কষ্ট হয়। আপনাদের (সাংবাদিক) জন্য ভালো কথা বললেও আপনারা অন্যভাবে নেন। আমি বলেছি, যারা সত্যিকারের এই অপরাধ করেছে তাদেরকে ধরার জন্য সবরকম চেষ্টা করেও যদি সময় লাগে ও আপেক্ষিকভাবে আমি বলেছি ৫০ বছরও যদি লাগে।’

ব্রিফিংয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল, যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মো. আতাউর রহমান নাজিম, আব্দুল মমিন বাবুল, ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাব উদ্দিন বেগ শাপলু, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন নয়ন সহ অনেকে।

বিএনপিকে নিয়ে নয়, দ্রব্যমূল্য নিয়ে চিন্তিত: কাদের
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

বিএনপি নির্বাচন নিয়ে কী বলবে ও করবে এটা নিয়ে বিচলিত নয়, বরং দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি নিয়ে সরকার চিন্তিত বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে শুক্রবার দুপুরে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের বলেন, বিএনপির বন্ধু তো দেশে আছে, বিদেশেও আছে। এখন নির্বাচনে অংশ নেয়নি, আন্দোলনে ব্যর্থ। তাদের তো বিদেশি বন্ধুদের কাছে মুখ রক্ষার বিষয় আছে।

দ্রব্যমূূল্য ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখার চেষ্টার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে আনতে সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে। মজুতদারির বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। চালের গুদামে গুদামে গিয়ে জরিমানা করা হচ্ছে। দ্রব্যমূল্য যাতে ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকে সেজন্য আমরা কাজ করছি।

এ সময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, উপ দপ্তর সায়েম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য তারানা হালিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্যে অস্বস্তিতে নেই আ.লীগ: কাদের
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচন নিয়ে মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের বক্তব্য নিয়ে আওয়ামী লীগ সামান্যতমও অস্বস্তিতে নেই। কাদের বলেন, বরং স্বস্তিতে আছে আওয়ামী লীগ।

রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে শুক্রবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির নেতৃত্বে চিহ্নিত অপশক্তি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা চালাচ্ছে। দেশি-বিদেশি অপতৎপরতা সত্ত্বেও ৪১ দশমিক ৮ শতাংশ ভোটার ভোটকেন্দ্রে এসেছে। আমি জানি আমাদের নির্বাচন কেমন হয়েছে।

দেশি-বিদেশি অপতৎপরতা এখনো রয়েছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, দেশের মানুষ অগণতান্ত্রিক কোনো সরকারকে ভবিষ্যতে মেনে নেবে না।

প্রসঙ্গত, ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত ভোটের একদিন পরেই মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর এক বিবৃতিতে জানায়, বাংলাদেশের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ-সুষ্ঠু হয়নি। যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের জনগণ, গণতন্ত্র, শান্তিপূর্ণ সমাবেশের স্বাধীনতা ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতার প্রতি তাদের আকাঙ্ক্ষাকে সমর্থন করে।

এর পর গতকাল বৃহস্পতিবার নিয়মিত ব্রিফিংয়ে স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলারও বলেন, বাংলাদেশের নির্বাচন অবাধ-সুষ্ঠু হয়নি।

আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বীকৃতি দেওয়ার বিষয়ে যা বলল যুক্তরাষ্ট্র

ম্যাথিউ মিলার জানান, বিরোধী রাজনৈতিক দলের কয়েক হাজার নেতাকর্মীকে গ্রেফতার এবং নির্বাচনের দিনে অনিয়মের খবরে তারা উদ্বিগ্ন। অন্য পর্যবক্ষেকদের সঙ্গেও তারা তাদের মতামত শেয়ার করেছে যে, এই নির্বাচন অবাধ-সুষ্ঠু হয়নি।

মির্জাপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীর উপর হামলা, থানায় অভিযোগ
                                  

মীর মঈন হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি:

সদ্য সমাপ্ত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরবর্তী দেশের বিভিন্ন জায়গায় চলছে প্রতিহিংসার রাজনীতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সাধারণ মানুষ, নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে রাজনৈতিক দলগুলোর উপর।

একই ধারায় প্রতিহিংসার শিকার হচ্ছেন হচ্ছেন টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) সংসদীয় আসন এলাকার আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা। এই আসনে একাধিক প্রার্থী থাকলেও মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে দুইজন প্রার্থী। একজন আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার প্রার্থী খান আহমেদ শুভ ও অপরজন স্বতন্ত্র প্রার্থী, সাবেক ৫ বারের ইউপি চেয়ারম্যান ও ৩ বারের উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর এনায়েত হোসেন মন্টু। এ আসনে নির্বাচনে জয়লাভ করে নৌকা মার্কার প্রার্থী খান আহমেদ শুভ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবারের নির্বাচন উন্মুক্ত করে দিলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সহ অনেক নেতৃবৃন্দ স্বতন্ত্র প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর এনায়েত হোসেন মন্টুকে সমর্থন জানান। কিন্তু নির্বাচনে জয়লাভকারী নৌকা প্রার্থী খান আহমেদ শুভ এর লোকজন পরাজিত স্বতন্ত্র প্রার্থী মীর এনায়েত হোসেন মন্টুর কর্মী সমর্থকদের উপর হামলা চালাচ্ছেন।

বুধবার (১৭ই জানুয়ারি) দুপুররে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী নজরুল ইসলাম (৪১) নামে এক ব্যাবসায়ীর উপর হামলা করেছেন এমপির কর্মী সমর্থকরা। এসময় তাকে ব্যাপক মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়। হামলাকারীরা লাঠি-সোঠা হাতে নিয়ে নিয়ে তার উপর হামলে পড়ে বলে তিনি অভিযোগ করেন। নজরুল ইসলাম বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।

এই ঘটনায় মির্জাপুর থানায় ভুক্তভোগী নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে মোট ৭ জনের নাম উল্লেখ সহ আরো ৫/৬ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ঘামলার ঘটনায় উপজেলার নেতৃবৃন্দদের মাঝে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা বলেন, এমন জঘন্যতম কাজ করা মোটেও ঠিক হয়নি। নির্বাচন যে কেউ যে কারোটা করতে পারে এটা তাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার।

পরাজিত স্বতন্ত্র প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর এনায়েত হোসেন মন্টু বলেন, এর আগেও আমার ৬-৭ জন কর্মীকে মারধর করেছে। আমার বাড়িতেও ওরা হামলা করেছে। আমি এই হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রেজাউল করিম বলেন, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষ আইন অনুযায়ী ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জাপা মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নুর চ্যালেঞ্জ
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

জাতীয় পার্টি নির্বাচন উপলক্ষ্যে ক্ষমতাসীনদের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দলটির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু বলেছেন, আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলছি বাংলাদেশের কোনো লোক যদি বলতে পারে আমি বা চেয়ারম্যান কারও কাছ থেকে টাকা নিয়েছি দলের জন্য বা পার্টিকে দেওয়ার জন্য তাহলে আমি পদত্যাগ করবো।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এ চ্যালেঞ্জ জানান চুন্নু। এর আগে রোববার নির্বাচনে ভরাডুবি, অনিয়মসহ নানা অভিযোগে জাপার পরাজিত প্রার্থীরা বিশেষ সভা করেন। সেখানে তারা অভিযোগ করেন ক্ষমতাসীনদের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে হাইকমান্ড।

এ বিষয়ে চুন্নু বলেন, এইগুলো হলো গসিপিং। অনেকেই মনে করেছে আওয়ামী লীগের সঙ্গে যেহেতু আমাদের কথাবার্তা হয়েছে, ২৬টা সিট দিয়েছে। তাদের ধারণা আমাদের অনেক টাকা দিয়েছে। শত শত কোটি টাকা দিয়েছে, প্রার্থীদের কেন আমরা টাকা দিলাম না। এটা তাদের মনের আসল ব্যথা। ইলেকশন ঠিকমত হয় নাই, তারা পাস করে নাই এইটা আসল ব্যথা না। দুই একজন ছাড়া বাকিদের আসল ব্যথা আমরা শত কোটি টাকা পেয়েছি, তাদের দেই নাই।

চুন্নুর প্রশ্ন, শত কোটি টাকা কে দেবে? সরকার আমাকে টাকা দেবে কেন? সরকার যদি আমাকে টাকা দেয় তাহলে এটা জানার বাকি থাকবে?

রোববার বিশেষ সভায় চেয়ারম্যান ও মহাসচিবের সমালোচনা করায় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য শফিকুল ইসলাম সেন্টু এবং কেন্দ্রীয় মহাসচিব ও সিলেট-২ আসনের জাপার প্রার্থী ইয়াহ হিয়া চৌধুরীকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। এ প্রসঙ্গে চুন্নু বলেন, গতকাল রাতে যে দুই জনকে অব্যাহতি দিয়েছি। তাদের বক্তব্য আপনারা শুনেছেন, জনসম্মুখে তারা বক্তব্য দিয়েছেন। একটা সংগঠনের নেতা হয়ে এ ধরনের বক্তব্য পাবলিকলি দেওয়া সংগঠন বিরুদ্ধ, অমার্জনীয় কাজ। তার জন্য চেয়ারম্যান তাদের অব্যাহতি দিয়েছে। তারা এগুলো ব্যক্তিগত ভাবে বলতে পারতো। সেখানে অনেক সিনিয়র নেতা ছিলেন তারা এই ধরনের বক্তব্য দেন নাই।

 

ডামি নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে সরকার: রিজভী
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

ডামি নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে সরকার মন্তব্য করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, আওয়ামী লীগ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্য এক সময় আগুন সন্ত্রাস করে আন্দোলন করেছিল। বর্তমানে সেই আওয়ামী লীগ বিরোধী দলকে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে দমন, পীড়নে ব্যস্ত থেকে দেশে একদলীয় শাসন কায়েম করছে। ডামি নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে সরকার।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আয়োজিত খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, বেগম খালেদা জিয়া আজ জামিন পাচ্ছেন না। চিকিৎসা পাচ্ছেন না, চিকিৎসা নেওয়ার মানবিক অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। শেখ হাসিনা এমন পাহাড় তার কাছে কোনো দাবি পৌঁছায় না, হিংসার পোশাক পরে তিনি রাজনীতি করেন।

রিজভী বলেন, আইনমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ দেশের বিচারব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। বিরোধী দলীয় হাজার হাজার নেতাকর্মীকে জেলে আবদ্ধ করে গোটা দেশকে কারাগারে পরিণত করেছে সরকার।

তিনি বলেন, সরকারের মহা দুর্নীতিতে দেশের অর্থনীতি মহা সংকটে আজ। পৃথিবীর সব স্বৈরাচারের পতন হয়েছে, বাংলাদেশের স্বৈরাচার সরকারেরও পতন হবে। জনগণের আন্দোলনে এই স্বৈরাচার সরকার পদ্মা, মেঘনা, যমুনার পানিতে ভেসে যাবে।

বিকালে আ.লীগের যৌথসভা
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

আওয়ামী লীগ আজ যৌথসভার আয়োজন করেছে। আজ সোমবার বিকাল তিনটায় বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ যৌথসভা অনুষ্ঠিত হবে।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, যৌথসভায় সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, উপদেষ্টা পরিষদ, ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনগুলোর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা যৌথসভায় অংশগ্রহণ করবেন। সংশ্লিষ্ট সবাইকে যথাসময়ে সভায় উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

 

জাতীয় পার্টির সকল পদ-পদবী থেকে পদত্যাগ করলেন নিয়াজ উদ্দিন
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

দলকে বাঁচানোর জন্য দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহন করে জাতীয় পার্টি বলে দলটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল। কিন্তু নির্বাচনে অংশ নিয়েও দলকে ঠিক রাখতে পারছেন না জিএম কাদের। এবার দল থেকে পতদ্যাগ করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও সাবেক স্বাস্থ্য সচিব এম এম নিয়াজ উদ্দিন পদত্যাগ করেছেন।

রোববার (১৪ জানুয়ারি) পার্টির চেয়ারম্যান বরাবর পদত্যাগপত্র জমা দেন বলে এম এম নিয়াজ উদ্দিন নিজেই গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

পদত্যাগপত্রে তিনি বলেন, ‘আমি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও গাজীপুর মহানগর কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি। পারিবারিক ও ব্যক্তিগত কারণে দায়িত্ব পালন ও রাজনীতি করতে এ মুহূর্তে সক্ষম নই। এমতাবস্থায় আমি চেয়ারম্যান মহোদয়ের উপদেষ্টা ও গাজীপুর মহানগরের সভাপতিসহ সব দলীয় পদ থেকে পদত্যাগ করলাম।’

এম এম নিয়াজ উদ্দিন গাজীপুর সিটি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জামানত হারান। গত ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাজীপুর-১ ও গাজীপুর-৫ আসনে থেকে লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তবে নির্বাচনে কয়েকদিন আগে তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জামিন শুনানি আজ
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদন:

৯ মামলায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জামিন শুনানির দিন আজ। আজ ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দুপুর ১২টার দিকে এ শুনানি হবার কথা রয়েছে।

গত ৩১ ডিসেম্বর আদালত শুনানির জন্য এ তারিখ ধার্য করেছিলেন। গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশ চলাকালে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগে রমনা থানায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে। মামলায় মির্জা ফখরুলসহ ৫৯ নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়।

পরদিন ২৯ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে গুলশানের বাসা থেকে মির্জা ফখরুলকে তুলে নিয়ে যায় ডিবি পুলিশ। দিনভর ডিবি কার্যালয়ে রাখার পর রাতে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর থেকে কারাগারে আটক রয়েছেন তিনি।

 


   Page 1 of 137
     রাজনীতি
উপজেলা নির্বাচনে না আসলে বিএনপিকে ভুলের খেসারত দিতে হবে: সেতুমন্ত্রী
.............................................................................................
পিলখানা হত্যাকাণ্ডের বিষয় খালেদা জিয়া আগেই জানতেন: বিমানমন্ত্রী
.............................................................................................
শেখ হাসিনা খাঁটি ঈমানদার: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী
.............................................................................................
জামিন পেলেন ফখরুল-খসরু, কারামুক্তিতে বাধা নেই
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার সাবেক উপদেষ্টা এখন আ.লীগ নেতা
.............................................................................................
সংরক্ষিত আসনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি করেছে আ.লীগ
.............................................................................................
বিএনপি-জামাত থেকে সতর্ক থাকতে বললেন গণপূর্তমন্ত্রী
.............................................................................................
ভালো কথা বললেও আপনারা ক্ষেপে যান, সাংবাদিকদের আইনমন্ত্রী
.............................................................................................
বিএনপিকে নিয়ে নয়, দ্রব্যমূল্য নিয়ে চিন্তিত: কাদের
.............................................................................................
নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্যে অস্বস্তিতে নেই আ.লীগ: কাদের
.............................................................................................
মির্জাপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীর উপর হামলা, থানায় অভিযোগ
.............................................................................................
জাপা মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নুর চ্যালেঞ্জ
.............................................................................................
ডামি নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে সরকার: রিজভী
.............................................................................................
বিকালে আ.লীগের যৌথসভা
.............................................................................................
জাতীয় পার্টির সকল পদ-পদবী থেকে পদত্যাগ করলেন নিয়াজ উদ্দিন
.............................................................................................
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জামিন শুনানি আজ
.............................................................................................
সাভার-আশুলিয়ায় চাদাবাজ রাখবেন না বলে ঘোষণা নবনির্বাচিত এমপি সাইফুলের
.............................................................................................
আইজিপির ভাইয়ের নৌকা ডুবিয়ে দিলনে জয়া সেনগুপ্তা
.............................................................................................
নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি
.............................................................................................
প্রতিমন্ত্রী এনামের নৌকাকে ডুবিয়ে দিল সাইফুলের ট্রাক
.............................................................................................
১১ আসনে ঠেকলো জাতীয় পার্টি
.............................................................................................
বিকেলে সাংবাদিক-পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর মতবিনিময়
.............................................................................................
১১টায় সংবাদ সম্মেলন বিএনপির
.............................................................................................
ভোট বর্জন করায় দেশবাসীকে চরমোনাই পীরের ধন্যবাদ
.............................................................................................
বিএনপির এবারের হরতালে রাস্তা ফাঁকা
.............................................................................................
আ.লীগ থেকে এ. কে আজাদকে অব্যাহতি
.............................................................................................
রাজধানীর কাওরান বাজারে রিজভীর নেতৃত্বে মিছিল
.............................................................................................
বিজয়ী হওয়ার আশায় ছুটছেন তৃতীয় লিঙ্গের রানী
.............................................................................................
ভোটের দিন বিএনপির হরতালের ডাক
.............................................................................................
পুলিশের হাত থেকে দুই কর্মীকে ছাড়িয়ে নিল বিএনপির নেতাকর্মীরা
.............................................................................................
নৌকা প্রতীকের সমর্থককে গু-লি করে হ-ত্যা
.............................................................................................
অ্যামনেস্টি-টিআইবি-সুজনের ভূমিকা একসূত্রে গাঁথা: কাদের
.............................................................................................
নির্বাচন নিয়ে তামাশার বক্তব্য দিচ্ছে বিএনপি : আইনমন্ত্রী
.............................................................................................
আমার ফুফু নৌকা আপনারে দেয় কিন্তু বৈঠা আমারে দেয়: নিক্সন চৌধুরী
.............................................................................................
বিকেলে রাজধানীতে আ.লীগের নির্বাচনী জনসভা
.............................................................................................
ধামরাইয়ে আচরণবিধি লঙ্ঘন করে স্বতন্ত্র প্রার্থীর মোটরসাইকেল শোডাউন
.............................................................................................
এমপিকে হুমকি দেয়ায় আ.লীগ নেত্রীকে শোকজ
.............................................................................................
সাভার-আশুলিয়ায় হবে ভোটের ত্রিমুখী লড়াই, প্রচারণায় এগিয়ে মুরাদ জং
.............................................................................................
জনগণের সম্পদ লুট করে শাদ্দাদের বেহেশত বানিয়েছে আ.লীগ: রিজভী
.............................................................................................
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দুটি আসনে আ.লীগ-স্বতন্ত্র তুমুল লড়াই
.............................................................................................
সারাদেশে জাপার প্রার্থীদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে: জিএম কাদের
.............................................................................................
টুঙ্গিপাড়ার নির্বাচনী জনসভা মঞ্চে প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
দেশের অবস্থা ভালো নেই, একেবারেই ভালো নেই: কাদের সিদ্দিকী
.............................................................................................
নৌকা প্রার্থীর নির্বাচনী ক্যাম্পে অ*গ্নিসংযোগ
.............................................................................................
দেশের মানুষ নির্বাচন বর্জন করেছে: রিজভী
.............................................................................................
নিশিরাতের প্রধানমন্ত্রীর লক্ষ্য অমল ধবল ক্ষমতা: রিজভী
.............................................................................................
জাতীয় পার্টি আসন ভাগাভাগি করেনি: জিএম কাদের
.............................................................................................
রাজধানীতে রিজভীর লিফলেট বিতরণ
.............................................................................................
নির্বাচিত হলে পুরান ঢাকাকে বাসযোগ্য করতে চান সাঈদ খোকন
.............................................................................................
বিএনপির কথা শুনে ঘোড়াও হাসে: ওয়ায়দুল কাদের
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT