শনিবার, ২৪ জুলাই 2021 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজনীতি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
করোনায় মারা যাওয়া খুররম খানের মৃত্যুতে বিএনপির শোক

তানভীর হোসাইন:
৪ বার নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য ও রাজনীতিক বীরমুক্তিযোদ্ধা খুররম খান চৌধুরী আর নেই। তিনি করোনো পজেটিভ ছিলেন। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছে বিএনপি।

তিনি বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও ময়মনসিংহ উত্তর জেলা বিএনপির আহবায়ক ছিলেন। এছাড়াও ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) থেকে তিনবার ও ময়মনসিংহ-৮ (ঈশ্বরগঞ্জ) আসন থেকে একবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।  

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ্ প্রিন্স। তিনি জানান, শনিবার (১৭ জুলাই) বিকেল পৌনে ৬ টায় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এর আগে অসুস্থতার কারণে গত ৮ জুলাই সাবেক এমপি খুররম খান চৌধুরীকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে করোনা পরীক্ষায় তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে পরদিন তাকে হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়। পরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থান শনিবার বিকেলে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।  

পারিবারিক সূত্র জানায়, মরহুমের নামাজে জানাজা (১৯ জুলাই) সোমবার ঈশ্বরগঞ্জ খেলার মাঠে দুপুর ১টা ৪৫ মিনিটে প্রথম জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন বেলা আড়াইটায় নান্দাইল শহীদ স্মৃতি আদর্শ ডিগ্রী কলেজ মাঠে দ্বিতীয় জানাযা এবং বিকেল ৩টায় ৩০মিনিটে খররুম খান চৌধুরী ডিগ্রী কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। অবশেষে নিজ গ্রাম মোয়াজ্জেমপুর সাহেব বাড়ী ঈদগাহ মাঠে জানাযা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে মরহুমের দাফন করা হবে।

বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন :
বীলমুক্তিযোদ্ধা খুররাম খান চৌধুরী নান্দাইলের একটি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য থেকে ইউপি চেয়ারম্যান হয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এরপর মোট চারবার জাতীয় সংসদ সদস্য নিবাির্চত হন। তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও ময়মনসিংহ উত্তর ইউনিটের অহ্ববায়ক ছিলেন। এর আগে তিনি জাতীয় পার্টির রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন।

জানা যায়, ১৯৭৯ সালের দ্বিতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বিএনপির প্রার্থী হিসাবে তৎকালীন ময়মনসিংহ-৫ (নান্দাইল) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এরপর ১৯৮৮ সালের চতুর্থ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসন থেকে পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। ১৯৯১ সালের প ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে ময়মনসিংহ-৮ (ঈশ্বরগঞ্জ) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে আবার বিএনপিতে যোগ দেন। সর্বশেষ ২০০১ সালের অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি ধানের শীষের প্রার্থী হিসাবে ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এছাড়াও ১৯৯৬ সালের সপ্তম ও ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রার্থী হিসাবে ময়মনসিংহ-৯ আসন থেকে পরাজিত হয়ে ছিলেন।

শোক প্রকাশ :
সাবেক এ সংসদ সদস্যের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ্ প্রিন্স। একই সাথে মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও পৃথক বিবৃতিতে শোক প্রকাশ করেছেন ময়মনসিংহ মহানগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক- আবু ওয়াহাব আকন্দ, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টারদা সূর্যসেন হলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম সরকার, ময়মনসিংহ উত্তর জেলা যুবদলের সভাপতি ভিপি শামসুল হক শামছু, সাধারণ সম্পাদক রবিউল করিম বিপ্ল­ব।

করোনায় মারা যাওয়া খুররম খানের মৃত্যুতে বিএনপির শোক
                                  

তানভীর হোসাইন:
৪ বার নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য ও রাজনীতিক বীরমুক্তিযোদ্ধা খুররম খান চৌধুরী আর নেই। তিনি করোনো পজেটিভ ছিলেন। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছে বিএনপি।

তিনি বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও ময়মনসিংহ উত্তর জেলা বিএনপির আহবায়ক ছিলেন। এছাড়াও ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) থেকে তিনবার ও ময়মনসিংহ-৮ (ঈশ্বরগঞ্জ) আসন থেকে একবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।  

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ্ প্রিন্স। তিনি জানান, শনিবার (১৭ জুলাই) বিকেল পৌনে ৬ টায় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এর আগে অসুস্থতার কারণে গত ৮ জুলাই সাবেক এমপি খুররম খান চৌধুরীকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে করোনা পরীক্ষায় তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে পরদিন তাকে হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়। পরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থান শনিবার বিকেলে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।  

পারিবারিক সূত্র জানায়, মরহুমের নামাজে জানাজা (১৯ জুলাই) সোমবার ঈশ্বরগঞ্জ খেলার মাঠে দুপুর ১টা ৪৫ মিনিটে প্রথম জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন বেলা আড়াইটায় নান্দাইল শহীদ স্মৃতি আদর্শ ডিগ্রী কলেজ মাঠে দ্বিতীয় জানাযা এবং বিকেল ৩টায় ৩০মিনিটে খররুম খান চৌধুরী ডিগ্রী কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। অবশেষে নিজ গ্রাম মোয়াজ্জেমপুর সাহেব বাড়ী ঈদগাহ মাঠে জানাযা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে মরহুমের দাফন করা হবে।

বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন :
বীলমুক্তিযোদ্ধা খুররাম খান চৌধুরী নান্দাইলের একটি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য থেকে ইউপি চেয়ারম্যান হয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এরপর মোট চারবার জাতীয় সংসদ সদস্য নিবাির্চত হন। তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও ময়মনসিংহ উত্তর ইউনিটের অহ্ববায়ক ছিলেন। এর আগে তিনি জাতীয় পার্টির রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন।

জানা যায়, ১৯৭৯ সালের দ্বিতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বিএনপির প্রার্থী হিসাবে তৎকালীন ময়মনসিংহ-৫ (নান্দাইল) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এরপর ১৯৮৮ সালের চতুর্থ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসন থেকে পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। ১৯৯১ সালের প ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে ময়মনসিংহ-৮ (ঈশ্বরগঞ্জ) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে আবার বিএনপিতে যোগ দেন। সর্বশেষ ২০০১ সালের অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি ধানের শীষের প্রার্থী হিসাবে ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এছাড়াও ১৯৯৬ সালের সপ্তম ও ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রার্থী হিসাবে ময়মনসিংহ-৯ আসন থেকে পরাজিত হয়ে ছিলেন।

শোক প্রকাশ :
সাবেক এ সংসদ সদস্যের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ্ প্রিন্স। একই সাথে মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও পৃথক বিবৃতিতে শোক প্রকাশ করেছেন ময়মনসিংহ মহানগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক- আবু ওয়াহাব আকন্দ, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টারদা সূর্যসেন হলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম সরকার, ময়মনসিংহ উত্তর জেলা যুবদলের সভাপতি ভিপি শামসুল হক শামছু, সাধারণ সম্পাদক রবিউল করিম বিপ্ল­ব।

শেখ হাসিনাকে রাজনীতি থেকে মাইনাস করার ষড়যন্ত্র দেশবাসী রুখে দিয়েছিলো: বাহাউদ্দিন নাছিম
                                  

স্বাধীন বাংলা অনলাইন :
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, আজকের এই দিনে ২০০৭ সালে গণতন্ত্রের মানসকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে কারাবন্দী করে রাজনীতি থেকে মাইনাস করার যে অপচেষ্টা করা হয়েছিলো সেই স্বপ্ন লাখো বাঙ্গালীর আন্দোলনের মুখে পরাস্ত হয়। এই অবস্থায় মহানগর আওয়ামী লীগ নেত্রীর মুক্তির দাবিতে ২৫ লক্ষ স্বাক্ষর সংগ্রহ করে সামরিক জান্তার ভিত নাড়িয়ে দেয়। লুটতারাজকারী অপশক্তির করা বঙ্গবন্ধু কন্যার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বেশিদিন স্থায়ী করতে পারেনি। আমাদের নেত্রী দেশ ও জনগণের সেবা করতে মুক্ত হয়েছেন এবং তিনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর দেশ উন্নয়নের ধারায় এগিয়ে চলছে।

১৬ জুলাই বাঙালি জাতির ইতিহাসে কালো অধ্যায়। এ দিন বঙ্গবন্ধুকন্যা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে কারাবন্দী করে মাইনাস ফর্মূলার অপচেষ্টা করেছিলো দেশ বিরোধী অপশক্তি। তবে তাদের এই অপচেষ্টা আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীরা জনগণকে সাথে নিয়ে রুখে দিয়েছিলো। শুক্রবার দুপুরে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ভাটারা থানার সোলমাইদ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শেখ হাসিনার এক-এগারোর কারাবন্দি জীবন স্মরণে মানবিক আয়োজনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এ কে এম রহমতুল্লাহ এমপি, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক জনাব এস এম মান্নান কচি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা-১৮ আসনের এমপি হাবীব হাসান, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বশির উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক রানা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, দপ্তর সম্পাদক উইলিয়াম প্রলয় সমদ্দার বাপ্পি, শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক খসরু চৌধুরী, সহদপ্তর সম্পাদক  আওয়াল শেখ সহ স্থানীয় থানা ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড এর নেতৃবৃন্দ।

এসময় ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ১০০০ অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের মাঝে ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি আলু, ১ কেজি তেল, ১ কেজি লবণ বিতরণ করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার খাবার ও ঈদ সামগ্রী তুলে দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে চলেছে। তা নস্যাৎ করতে বিএনপি জামায়াত ষড়যন্ত্রের জাল বুনে চলেছে, যা এর আগেও বহুবার কার্যকর করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে। ওরা মিথ্যাবাদী লোভী সাম্প্রদায়িক রাজনীতিবিদ। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাকে বিএনপি লুটতরাজের দেশে পরিণত করেছিলো।

বগুড়ায় কর্মহীনদের মাঝে জেলা বিএনপির খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
                                  

বগুড়া প্রতিনিধি :
বগুড়া জেলা বিএনপির আজ শুক্রবার বিকালে বগুড়া শহরের চাম্পা মহলে ৩য় দিনের মতো মহামারি করোনায় কর্মহীন ৬০০ পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে। উক্ত খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে ভিডিও করফারেন্স মাধ্যমে ভাচুর্য়ালি বক্তব্য রাখেন রাখেন- বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক ও বগুড়া-৬ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মাদ সিরাজ।

খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সাবেক এমপি মোঃ হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য ও পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম বাদশা, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি সদস্য আলী আজগর তালুকদার হেনা, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও বগুড়া জেলা মহিলা দলের সভাপতি লাভলী রহমান, বগুড়া বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য মনিরুজ্জামান মনি, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী রিগ্যান, ১২নং ওয়ার্ড বিএনপির আহবায়ক ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর এনামুল হক সুমন, ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিল ইকবাল হোসেন রাজু, ৩নং ওয়ার্ড বিএনপির আহবায়ক জহুরুল ইসলাম ডালু, ১৮নং ওয়ার্ড বিএনপির আহবায়ক মোরর্শেদ মিলটন প্রমূখ।

জিএম কাদেরকে বাদ দিয়ে জাপার নতুন কমিটি প্রস্তাব
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট :
জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদেরকে বাদ দিয়ে দলের নতুন কমিটি প্রস্তাব করেছেন দলটির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছোট ছেলে এরিক এরশাদ।

তার প্রস্তাবিত কমিটিতে জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেত্রী রওশন এরশাদকে দলের চেয়ারম্যান করা হয়েছে। আর নিজের মা বিদিশা সিদ্দিকীকে জাপার কো-চেয়ারম্যান ঘোষণা করেছেন এরিক। এছাড়া বড় ভাই রাহগির আল মাহি সাদকে কো-চেয়ারম্যান ও কাজী মামুনুর রশীদকে ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব করা হয়েছে।

বুধবার (১৪ জুলাই) হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কে এক দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে নতুন এ কমিটির প্রস্তাব করেন এরিক।

এরিক বলেন, ‘আমার বাবা যখন অসুস্থ ছিলেন, তখন রাতের আঁধারে আমার চাচা জিএম কাদের বাবাকে জিম্মি করে অবৈধভাবে পার্টির চেয়ারম্যান পদে স্বাক্ষর করিয়েছিলেন। এগুলো আটকাতে হবে, প্রতিহত করতে হবে।’

এরিক বলেন, ‘জাতীয় পার্টি আজ ধ্বংসের মুখে। তিনি (জিএম কাদের) অবৈধভাবে চেয়ারম্যান পদটি নিয়েছেন, আমরা তাকে মানি না।’

বিদিশা বলেন, ‘আমরা এরিক এরশাদের ঘোষণা মেনে চলব। এরশাদ সাহেবের স্বপ্ন আমরা বাস্তবায়ন করব। আমাদের কেউ থামাতে পারবে না। দুই সন্তানকে পাশে নিয়ে নতুন প্রজন্মের কাছে বার্তা দেব। এরশাদ সাহেব কী করেছেন, সবাইকে সেটা মনে করিয়ে দেব।’

অনুষ্ঠানে সাদ এরশাদ বলেন, ‘আমরা জঞ্জালমুক্ত থাকতে চাই। এই দিনে বাবার জন্য দোয়া করতে চাই। সবার কাছে দোয়া চাই।’

স্মরণ সভায় কাজী মামুনুর রশীদের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন দলের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন খান, জাফর ইকবাল সিদ্দিকী প্রমুখ।

মানিকগঞ্জে কেন্দ্রের নির্দেশ অমান্য করে শ্রমিক দলের কমিটি গঠনের অভিযোগ
                                  

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি :
কাউকে না জানিয়ে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা শ্রমিক দলের পকেট কমিটি গঠন করেছেন মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সভাপতি আব্দুল কাদের মিয়া। দলের দুঃসময়ে আওয়ামীলীগে যোগ দেওয়া নেতাকর্মীদের পরামর্শ নিয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ছাড়া কমিটি গঠনে অর্থ লেনদেনের অভিযোগও রয়েছে। এ নিয়ে চলছে নানা বিতর্ক।

কমিটি গঠন করে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হলেও সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটিকে জানানো হয়নি। তবে জেলার বিভিন্ন নেতা-কর্মীর মাধ্যমে কেন্দ্র বিষয়টি অবগত হয়েছে। অগঠনতান্ত্রিকভাবে গঠিত এই কমিটিকে বিলুপ্ত করা হবে বলে কেন্দ্রীয় একাধিক নেতা এই প্রতিবেদককে জানিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০১৪ সালের ২৭ জুলাই আব্দুল কাদের মিয়াকে সভাপতি ও মাসুদ রানাকে সাধরাণ সম্পাদক করে ৭১ সদস্যবিশিষ্ট মানিকগঞ্জ জেলা শ্রমিক দলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়। কিন্তু ২০১৬ সালের দিকে সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানাসহ ১৯ জন নেতা-কর্মী শ্রমিক দিবসে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রীর উপস্থিতে আওয়ামী লীগে যোগ দেন এবং ২০১৭ সালে কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে যায়। এরপর আর কোনো সম্মেলন হয়নি। কমিটির মেয়াদদোত্তীর্ণ হওয়ার কারণে কাদের মিয়া গোপনে আওয়ামীলীগে যোগদানকৃত সদস্যদের নিয়ে পুনরায় ৭১ সদস্য বিশিষ্ট একটি পূর্ণাঙ্গ পকেট কমেটি গঠন করে। ফলে কমেটির ৩১ জন নেতা-কর্মী পদত্যাগ করেন।

২০১৯ সালের ৩০ মার্চ অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের কার্যনির্বাহী সভায় ঢাকা বিভাগের অন্তর্ভূক্ত জেলা ও মহানগর কমিটি গঠন/পুনঃগঠন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কমিটি গঠনে প্রতিটি জেলার জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা-কর্মীদের নিয়ে সমন্বয় কমিটি গঠন করা হয়। সমন্বয় কমিটিকে ২০ জুন ২০১৯  তারিখের মধ্যে কমিটি গঠনের সময়সীমা বেধে দেওয়া হয়। এরপর ওই বছরের ৫ ডিসেম্বর মানিকগঞ্জ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক, সিনিয়র যুগ্ন আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব ১০১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অনুমোদনের জন্য কেন্দ্রে পাঠান। কিন্তু একবছর অতিক্রান্ত হওয়ার পর  গত বছরের ৬ ডিসেম্বর জেলা বিএনপি আবারও শ্রমিক দলের কমেটি অনুমোদনের জন্য কার্যকারী সভাপতিকে চিঠি প্রদান করেন। এর মধ্যে মহামারি করোনাভাইরাস সবকিছু উলট পালট করে দেয়। ফলে স্থগিত হয়ে যায় সেই কার্যক্রম।

এরই মধ্যে গত বুধবার হঠাৎ মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা শ্রমিক দলের একটি কমিটি ফেসবুকে প্রচার করা হয়। সেখানে দেখা যায় ব্যাকডেটে (১ এপ্রিল ২০২১) কমিটি অনুমোদন করা হয়েছে। কিন্তু এতে মেয়াদোত্তীর্ণ কমেটির সভাপতি আব্দুল কাদের মিয়া ও আব্দুর রাজ্জাক লিটন সাধারণ সম্পাদক হিসেবে স্বাক্ষর করেছেন।

মানিকগঞ্জ জেলা শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রাজা মিয়া বলেন, এই কমিটির ব্যাপারে আমি কিছু জানি না। আব্দুর রাজ্জাক লিটন নামে শ্রমিক দলে কোন সাধারণ সম্পাদক নেই। ২০১৪ সালে দেয়া কমিটিতে মাসুদ রানা সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তিনি এখন আওয়ামী লীগ করেন। তবে লিটন শ্রমিক দলের কোন কমিটিতে ছিলেন না। তিনি মাংসের ব্যবসা করতেন। এলাকায় লিটন কসাই নামে পরিচিত।
 
জানতে চাইলে আব্দুল কাদের মিয়া বলেন, জেলা বিএনপির সভাপতি আফরোজা খান রিতা ও সাধারণ সম্পাদক এস এ জিন্নাহ কবিরের সম্মতি নিয়েই কমিটি গঠন করা হয়েছে। জেলা কমিটির মিটিং ডেকে রেজুলেশন করে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এতে ৬০ থেকে ৬২ জন নেতাকর্মী স্বাক্ষর নিয়ে করেছেন। জেলা শ্রমিক দলের দু’জন সাংগঠনিক সম্পাদক ও একজন যুগ্ম সম্পাদক মিথ্যা অপপ্রচার করছেন বলে দাবি করেন আব্দুল কাদের মিয়া।

এ বিষয়ে জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক এস এ কবির জিন্নাহ বলেন, গত ০১/০৪/২১ ইং তারিখের সদর উপজেলা শাখার শ্রমিকদলের পুর্নাঙ্গ কমিটির বিষয়ে আমি কিছু জানিনা।
 
মানিকগঞ্জ জেলার সমন্বয়কারী ও কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, কমিটি গঠনের ব্যাপারে আমাদের কিছু জানানো হয়নি। তবে জেলার বিভিন্ন নেতাকর্মীর মাধ্যমে আমরা বিষয়টি অবগত হয়েছি। কেন্দ্রের কাউন্সিলের নির্দেশে সকল কমিটির কার্যক্রম স্থগিত। তাই এটা অ-রাজনৈতিক কার্যক্রম এবং বিতর্কিত কমিটি। এ বিষয়ে দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে শ্রমিকদলের কার্যকরী সভাপতি সালাহউদ্দিন সরকার বলেন, মানিকগঞ্জ জেলার শ্রমিকদলের বিভিন্ন নেতাকর্মীর কাছ থেকে সদর থানা কমিটির বিষয়ে শুনেছি। তবে কেন্দ্রীয় কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত মোতাবেক নতুন কমিটি গঠন ও পুরাতন কমিটি ভাঙ্গা যাবে না। সে হিসেবে মানিকগঞ্জ সদর থানা কমিটি অবৈধভাবে গঠন করা হয়েছে । এ কমিটি গ্রহনযোগ্য নয়।

‘শেখ হাসিনা শুধু সেরা প্রধানমন্ত্রীই নন, সেরা কুটনীতিকও’
                                  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু সেরা প্রধানমন্ত্রীই নন, সেরা কুটনীতিকও। তাঁর সফল কুটনৈতিক দক্ষতার কারণেই গতবছর উন্নত বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে করোনা ভাইরাসের টিকা বাংলাদেশে এনেছেন, তখন অনেক ধনী দেশ টিকা নিতে পারেনি। এখন দেশে গণটিকাদান কর্মসূচি চালু করা হয়েছে। বিএনপি দেশের ভাবমূর্তি বর্হিবিশ্বের কাছে নষ্ট করতে মরিয়া। তারা সংকটে দেশের পাশে না দাঁড়িয়ে সরকার ও আওয়ামীলীগের সমালোচনায় ব্যস্ত। বিএনপি নেতাদের দেশ বিরোধীদের ষড়যন্ত্র সহ নানান ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবেই।

“ডাক্তারের কাছে রোগী নয়, রোগীর কাছে ডাক্তার” এই শ্লোগানে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলা-সখিপুর থানায় উপমন্ত্রীর নিজস্ব অর্থায়নে গঠিত ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিমের তৃতীয় পর্যায়ে মঙ্গলবার সখিপুর থানার দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউনিয়নের আফা মোল্যার বাজারে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে তিনি তাঁর বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

এনামুল হক শামীম আরও বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা করোনা সংকট মোকাবিলায় দিনরাত নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। অসহায়দের বাড়ি বাড়ি খাদ্য সামগ্রী ও বস্ত্র পৌঁছে দিচ্ছেন। সর্বোপরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার ও আওয়ামী লীগ করোনা সংকট মোকাবিলায় যা যা করণীয় সকল কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। পাশাপাশি দেশের সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে। এছাড়াও উপমন্ত্রী শরীয়তপুরের সবাইকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে এবং সচেতন থাকার আহবান জানান।

উল্লেখ্য, পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীমের উদ্যোগে গঠিত এই ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিম গত বছর করোনা মহামারীর প্রথম থেকে নড়িয়া-সখিপুরের বিভিন্ন ইউনিয়ন ও বাজারে বাজারে ঘুরে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে আছে। ওই টিমের পক্ষ থেকে ঔষধ ও নগদ অর্থও প্রদান করা হচ্ছে। এই দুইজন পুরুষ চিকিৎসক ও এক মহিলা চিকিৎসক এবং দুই জন স্বাস্থ্যকর্মী রয়েছে। এছাড়াও মেডিক্যাল টিমের হটলাইন নম্বরে ফোন করলেই রোগীর কাছে ছুটে যাচ্ছে তারা। একারণে স্থানীয়রা উপমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও এই টিম ব্যাপক প্রশংসিত হচ্ছে তাদের মানবিক কর্মকান্ডের জন্য।

সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপি’র উদ্যোগে করোনা হেল্প সেন্টার উদ্বোধন
                                  

সিরাজগঞ্জ পতিনিধি :
মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু ভয়াবহ আকার ধারণ করায় করোনা রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের জন্য সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপি উদ্যোগে করোনা হেল্প সেন্টার উদ্বোধন  করা হয়েছে।

সোমবার (১২ জুলাই)বেলা ১১টার দিকে জেলা বিএনপির এক ভার্চুয়াল  আলোচনা  সভার মাধ্যমে করোনা হেল্প সেন্টার উদ্বোধন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির  সদস্য, দলের জাতীয় করোনা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ কমিটির  কমিটির  আহবায়ক ও সাবেক বিদুৎ প্রতিমন্ত্রী ইকবাল হাসান মাহমুদ  টুকু।

বক্তব্যে তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু ঊর্ধ্বগতিতে সারা দেশে বিএনপির জেলা কার্যালয়গুলোকে কেয়ার সেন্টার হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে। তিনি বলেন, গত বছর দুই কোটি মানুষের কাছে আমরা সাহায্য পৌঁছে দিতে পেরেছিলাম। এবারও আগের মতোই ব্যবস্থা নিয়েছি। প্রতিটি জেলায় আমাদের দলের অফিসে হেল্প সেন্টার করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের  অক্সিজেন, প্রয়োজনীয় ওষুধ, স্বাস্থ্য সামগ্রী  দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমরা যে যা পারি সীমিত সামর্থের মধ্যে মানুষজনকে সহযোগিতার ব্যবস্থা করেছি। একটা বিরোধী দল হিসেবে এত কষ্টের মধ্যেও আমরা করোনা রোগীদের পাশে আছি এবং কাজ করে যাচ্ছি।
 
সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির  সহ-সভাপতি ডাঃ আব্দুল লতিফের সভাপতিত্বে ও বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর  রহমান বাচ্চুর সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় বিশেষ  অতিথির  বক্তব্য  রাখেন, জিয়াউর  রহমান ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ ফরহাদ হালিম ডোনার ও ড্যাবের সভাপতি ডাঃ হারুন আল রশিদ।

হেল্প সেন্টার উদ্বোধনের সময় উপস্থিত ছিলেন- সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান দুলাল, আনিসুজ্জামান পাপ্পু, নাজমুল হাসান তালুকদার রানা, অমর কৃষ্ণ দাস, রকিবুল হাসান রতন, জেলা বিএনপির উপদেষ্টা ও রায়গঞ্জ উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক শামসুল আলম, সিনিয়র যুগ্ম-সম্পাদক ও সাবেক ভিপি শামীম খান, যুগ্ম-সম্পাদক রাশেদুল হাসান রঞ্জন, যুগ্ন  সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক হারুনুর রশিদ  খান হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা মোস্তফা জামান।
 
স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন রাজেশ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার চৌধুরী মিঠু, সহ-দপ্তর সম্পাদক শেখ মোঃ এনামুল হক, সহ-প্রচার সম্পাদক রেজাউল করিম খান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মিলন হক রঞ্জু, সহ সাধারণ সম্পাদক আকাশ খন্দকার, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শাকিল শেখ, পৌর ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক আকাশ  সহবিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের  নেতৃবৃন্দ ও সিরাজগঞ্জ জেলা ড্যাবের  নেতৃবৃন্দ  উপস্থিত  ছিলেন।

সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপি’র উদ্যোগে করোনা হেল্প সেন্টার উদ্বোধন

বিএনপির সাবেক এমপি নাসের রহমান সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত
                                  

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি :
মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি প্রয়াত অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র এম নাসের রহমান ও তাঁর সহধর্মিণী মৌলভীবাজার  জেলা বিএনপির সহ সভাপতি রেজিনা নাসের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।
 
জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক  মিজানুর রহমান মিজান এ তথ্য নিশ্চত করেছেন।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) রাতে রাজধানী ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে তাদেরকে আইসোলেশনে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

সাবেক এমপি এম নাসের রহমান তাঁর স্ত্রী রোজিনা রহমান এবং এক সন্তানও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। গেল কয়েক দিন থেকে তিনি, তাঁর স্ত্রী ও এক সন্তান করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন। পরবর্তীতে টেস্টে করোনা পজিটিভ আসে। বর্তমানে তাদের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে।

এদিকে জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি  সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় তাদের আশু সুস্থতা কামনা করে পরিবারের পক্ষ থেকে দেশবাসীর কাছে  দোয়া প্রার্থনা করা হয়েছে।

বরিশালের কর্মহীনদের পাশে নেই রাজনৈতিক নেতারা
                                  

বরিশাল ব্যুরো :
চলমান কঠোর লকডাউনের এক সপ্তাহে বরিশালের সর্বত্র স্থবির হয়ে পরেছে। সরকার থেকে প্রথম পর্যায়ে এক সপ্তাহের পর পূর্ণরায় আরও সাতদিনের কঠোর লকডাউনের সময় বৃদ্ধি করা হয়েছে। এতে করে দৈনিক আয়ের উৎস বন্ধ থাকায় অসহায় ও হতাশাগ্রস্থ হয়ে পরেছেন দৈনিক মজুরি ভিত্তিক শ্রমজীবীদের পরিবার।

গত বছর করোনা সংক্রমণের শুরুতে লকডাউন চলাকালে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, জনপ্রতিনিধিসহ ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠান খাদ্য সহায়তা নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ালেও এবার এখনও তাদের দেখা মেলেনি। চলমান কঠোর লকডাউনের মধ্যে শুধুমাত্র ইউএনডিপি’র অর্থায়নে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের বাস্তবায়নে ও উন্নয়ন সংস্থা আভাসের সহযোগিতায় কোভিড-১৯ হিউম্যান রাইটস রেসপন্স’র খাদ্য সহায়তা এবং বৃহস্পতিবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে মানবিক খাদ্য সহায়তা বিতরণ করা হলেও পরিবার তুলনায় তা সীমিত। এছাড়া অন্যকোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে এখনও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করতে দেখা যায়নি।

অসহায় ও কর্মহীন পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেওয়ার ব্যাপারে বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট একেএম জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, সহায়তা করার মতো পরিস্থিতি এখনও সৃষ্টি হয়নি, যদি হয় তখন আমরা সিদ্ধান্ত নেবো। সিনিয়র সহসভাপতি এ্যাডভোকেট আফজালুল করীম বলেন, করোনা ইস্যুতে অতিসম্প্রতি একটি সভায় সাধ্যমতো সকল নেতৃবৃন্দকে অসহায় মানুষের পাশে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও মহানগর সভাপতি মজিবর রহমান সরোয়ার বলেন, অন্যান্য দেশে ক্ষতিগ্রস্তদের সরকার সহায়তা দিচ্ছে। আমাদের দেশে সরকার বা আওয়ামী লীগ জনগণকে কোনো সহায়তা দিচ্ছে না। সরকারের ভুলত্রুটি ধরে সমালোচনা করলে তারা ক্ষুব্ধ হন। খাদ্য সহায়তা দিতে বরিশালে তার দলের উদ্যোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সরোয়ার বলেন, বিএনপি যতটুকু পারছে তা করছে। আগে কিছু সহায়তা করা হয়েছে, লকডাউন শেষ হলে আবার অসহায় কর্মহীনদের জন্য কিছু করবেন বলেও উল্লেখ করেন।

জাতীয় পার্টির জেলার সদস্য সচিব ইকবাল হোসেন তাপস বলেন, কর্মহীন মানুষের জন্য দায়িত্ব সরকারেরই বেশি। পাশাপাশি যে যার মতো করে সহায়তা করা উচিত। তিনি আরও বলেন, ব্যবসায়ী হিসেবে আমি ব্যক্তিগতভাবে আমার প্রতিষ্ঠানে কর্মরতদের সহায়তা করছি।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের জেলা সভাপতি চরমোনাই পীরের ভাই ইউপি চেয়ারম্যান মুফতি সৈয়দ এছাহাক মোহাম্মদ আবুল খায়ের বলেন, পরিস্থিতি এখনও সেরকম হয়নি, তবে তাদের প্রস্তুতি নেওয়া আছে। প্রয়োজন হলে খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে।

বাসদের জেলা শাখার সদস্য সচিব ডাঃ মনিষা চক্রবর্তী বলেন, করোনা সংক্রমণ বাড়ার হারে বর্তমান সময়টা খুব খারাপ যাচ্ছে। এ অবস্থায় খাদ্য সহায়তা দেওয়া শুরু করলে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করা হবে। এ কারণে বাসদ আপাতত খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে না। তবে ঈদ-উল আযহার আগেই তারা নগরীতে খাদ্য সহায়তা দেওয়া শুরু করবেন। তিনি আরও বলেন, ২৬টি অক্সিজেন সিলিন্ডার ও চারটি অক্সিজেন কনসেনট্রেটর ও একটি এ্যাম্বুলেন্স দিয়ে বাসদের চিকিৎসাসেবা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। প্রতিদিন ৫/৬ জন রোগীকে তারা সিলিন্ডার সরবরাহ করছেন। মেডিকেল টিম গড়ে প্রতিদিন পাঁচজন রোগীর বাসায় গিয়ে চিকিৎসা দিচ্ছেন। এছাড়া ফোনে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন ৪০ থেকে ৫০ জন। তালিকা করে প্রত্যেক রোগীর কাছে ফোন দিয়ে তাদের খোঁজখবর ও চাহিদা অনুযায়ী সেবা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় হেফাজতের বেঠক: নেতাকর্মীদের মুক্তি ও মাদ্রাসা খুলে দেয়ার দাবি
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট :
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের বাসায় বৈঠক মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। গতকালা সোমবার রাতের বৈঠকে হেফাজতে পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন, আল্লামা বাবুনগরী, নুরুল ইসলাম জিহাদী ও প্রয়াত শাহ আহমদ শফীর একান্ত সহকারী শফিউল আলম।

বৈঠকে হেফাজতের নেতারা দেশব্যাপী গ্রেফতার হওয়া তাদের সংগঠনের নেতাকর্মীদের মুক্তি এবং দেশের কওমি মাদ্রাসাগুলো খুলে দেয়ার দাবি জানান। একই সাথে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে কওমি মাদ্রাসাগুলোকে নিবন্ধনের আওতায় আনা এবং মাদ্রাসার শিক্ষা কার্যক্রমের ব্যাপারে সমন্বিত নীতিমালা তৈরির উদ্যোগের বিষয়েও কথা বলেন তিনি।

সোমবার রাত ৮ টা ৩৭ মিনিটে মহাসচিব নুরুল ইসলাম জিহাদীকে নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ধানমণ্ডির বাসায় প্রবেশ করেন তিনি। রাত ১০ টা ৩০ মিনিটের দিকে বের বের হয়ে যান তারা। তবে বের হওয়ার পরে সাক্ষাতের বিষয়ে কোনো কথা বলেননি হেফাজত নেতারা।

এর আগে দুপুরে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় পৌঁছান জুনায়েদ বাবুনগরী। খিলগাঁওয়ে জামিয়া ইসলামিয়া মাখজানুল উলুম মাদ্রাসায় তিনি বিশ্রাম নেন।

দেশের সব সঙ্কটে আ.লীগই মানুষের পাশে থাকে: এনামুল হক শামীম
                                  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, দেশের সকল সংকটে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগই মানুষের পাশে থাকে। বিএনপি ও অন্যান্য রাজনৈতিক দল মুখে বড় বড় কথা বললেও সংকটে মানুষের পাশে থাকে না। আওয়ামীলীগের জন্মই হয়েছে মানুষের কল্যাণের জন্য। আর জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার ও দল সর্বাত্মক ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তাই সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।

“ডাক্তারের কাছে রোগী নয়, রোগীর কাছে ডাক্তার” এই শ্লোগানে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার- সখিপুর থানায় উপমন্ত্রীর নিজস্ব অর্থায়নে গঠিত ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিমের তৃতীয় পর্যায়ে রবিবার নড়িয়ার চামটা ইউনিয়নে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এনামুল হক শামীম এসব কথা বলেন।

চামটা ইউপি চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন রাড়ীর সভাপতিত্বে ও নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের কোষাধ্যক্ষ আলমগীর হোসেনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মাস্টার আবু বকর, সাধারণ সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম, সিবিএ নেতা গোলাম মহিউদ্দিন বাবুল রাড়ী, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক শিমুল হাওলাদার, ছাত্রলীগ নেতা কবির বেপারী, রফিক খান প্রমূখ।

এনামুল হক শামীম আরও বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা করোনা সংকট মোকাবিলায় দিনরাত নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তার নির্দেশে আওয়ামী লীগের সকল সহযোগী সংগঠনগুলো বর্তমানে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছে। এই মহামারী করোনার মধ্যেও দেশের সকল উন্নয়ন কাজ এগিয়ে চলছে। তিনি করোনাকালীন গত এক বছরে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করছেন। অসহায়দের বাড়ি বাড়ি খাদ্য সামগ্রী ও বস্ত্র পৌঁছে দিচ্ছেন। সর্বোপরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার ও আওয়ামী লীগ করোনা সংকট মোকাবিলায় যা যা করণীয় সকল সবই করছে। পাশাপাশি দেশের সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে দূর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে। এছাড়াও উপমন্ত্রী শরীয়তপুরের সবাইকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে এবং সচেতন থাকার আহবান জানান।

উল্লেখ্য, পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীমের উদ্যোগে গঠিত এই ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিম গত বছর করোনা মহামারীর প্রথম থেকে নড়িয়া-সখিপুরের বিভিন্ন ইউনিয়ন ও বাজারে বাজারে ঘুরে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে আসছে। ওই টিমের পক্ষ থেকে ঔষধ ও নগদ অর্থও প্রদান করা হচ্ছে। এ টিমে দুইজন পুরুষ চিকিৎসক, এক মহিলা চিকিৎসক এবং দু’জন স্বাস্থ্যকর্মী রয়েছে। এছাড়াও মেডিক্যাল টিমের হটলাইন নম্বরে ফোন করলেই রোগীর কাছে ছুটে যাচ্ছে তারা।

নোয়াখালী আ.লীগে পরিবর্তনের আভাস: সেক্রেটারী পদে আলোচনায় শাহীন-সোহেল
                                  

নোয়াখালী প্রতিনিধি :
নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে পরিবর্তনের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। গত এক সপ্তাহ থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি পরিবর্তন করে অধ্যক্ষ খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিমকে সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক পদে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীন ও নোয়াখালী শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদ উল্যাহ খাঁন সোহেলের নাম আসছে।

সভাপতি পদে আলোচনায় নিরবতা দেখা গেলেও জেলা জুড়ে সাধারণ সম্পাদক পদে এডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীন ও শহিদ উল্যাহ খাঁন সোহেলের নাম সরব আলোচনায় রয়েছেন। জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি পরিবর্তনের আভাসটি টক অব দি নোয়াখালীতে পরিণত হয়েছে।

গত সোমবার (২৮ জুন) নোয়াখালী আওয়ামী লীগের চলমান সংকটের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে স্বাক্ষাৎ করেন জেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম। প্রধানমন্ত্রীর সাথে অধ্যক্ষ খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিমের স্বাক্ষাতের পর থেকেই জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে পরিবর্তনের আভাস প্রকাশ্যে আলোচনায় আসে।

অন্যদিকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে স্ব-পদে বহাল থাকছেন সাংসদ একরামুল করিম চৌধুরী এমনটাই জানান দিচ্ছেন তাঁর কর্মী-সমর্থকরা। তার সমর্থকরা বলছেন, একরামুল করিম চৌধুরী নোয়াখালী আওয়ামী লীগকে জাগিয়ে তুলেছেন। তাই একরামুল করিম চৌধুরীর প্রতি দলীয় হাইকমান্ডের সুদৃষ্টি রয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তিনিই থাকছেন।

২০১৯ সালের ১৯ নভেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে অধ্যক্ষ খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিমকে সভাপতি ও সাংসদ একরামুল করিম চৌধুরীকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এক সময়ে একরামুল করিম চৌধুরীর ঘনিষ্ঠজন ছিলেন বর্তমান শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদ উল্যাহ খাঁন সোহেল। ২০১৯ সালের সম্মেলনকে ঘিরে একরামুল করিম চৌধুরীর সাথে শহিদ উল্যাহ খান সোহেলের দুরত্ব সৃষ্টি হয়।

২০২০ সালের অক্টোবরে দলীয় প্রধানের দপ্তরে জেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত পুর্ণাঙ্গ কমিটি জমা দেওয়া হলে জেলা আওয়ামী লীগ কমিটি নিয়ে শুরু হয় বির্তক।  
চলতি বছরের ১৬ জানুয়ারি নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পান দলীয় সাধারণ সম্পদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা। এরআগে গত ৩১ ডিসেম্বর সংবাদ সম্মেলন করে কাদের মির্জা তার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেন। ওই সংবাদ সম্মেলনে তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী, ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারীসহ জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে অপরাজনীতি, দুর্নীতি, টেন্ডারবাজি, চাকুরি বাণিজ্য ও লুটপাটের অভিযোগ এনে বক্তব্য দেন। এরপর তিনি জেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত কমিটিতে ত্যাগী নেতাদের স্থান না হওয়া নিয়েও বক্তব্য দেন। পরবর্তীতে তিনি তার বড় ভাই ওবায়দুল কাদের, ওবায়দুল কাদেরের স্ত্রী, আওয়ামী লীগের একাধিক মন্ত্রী ও এমপিদের নৈতিকতা নিয়েও বক্তব্য দেন।

কাদের মির্জার এই বক্তব্যের পরপরই জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। এর কয়েকদিন পর নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী তার ফেসবুক এ্যাকাউন্টে লাইভে এসে ওবায়দুল কাদেরকে রাজাকার পরিবারের সদস্য হিসাবে আখ্যায়িত করে কয়েকদিনের মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি দেওয়া না হলে তিনি এটা নিয়ে আন্দোলন শুরু করবেন বলে মন্তব্য করেন।

কাদের মির্জা ও একারমুল করিম চৌধুরীর পরস্পরবিরোধী বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে আসে। কাদের মির্জার বিচার ও মেয়র পদ থেকে বহিষ্কার চেয়ে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির ও শ্রমিক আলা উদ্দিন। এ নিয়ে সারাদেশে সমালোচনা ও নিন্দার ঝড় ওঠে। এসব ঘটনায় নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় শৃঙ্খলা ভেঙ্গে পড়েছে। দলের নেতাকর্মীরাও দ্বিধাবিভক্ত হয়ে গেছেন। সংকট নিরসনে কেন্দ্রীয় নেতাদের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারা। তারা বলছেন, দুই নেতার দ্বন্দ্বের বলি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। দল ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় এই দুই নেতার পরস্পরবিরোধী বক্তব্য ও কর্মসূচি নেতাকর্মীদের মধ্যে হতাশার সৃষ্টি করেছে। খুব শিগগির এর অবসান করা না হলে স্থানীয় সরকার নির্বাচনসহ দলীয় কর্মকান্ডে ব্যাপক প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
দ্বিধাবিভক্ত নোয়াখালী আওয়ামী লীগের সংকট নিরসনসহ চট্রগ্রাম বিভাগীয় পর্যায়ে দলের সাংগঠনিক কাঠামো সুশৃঙ্খলভাবে পরিচালিত করার জন্য জাতীয় সংসদের হুইপ সাবেক ছাত্রনেতা আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপিকে দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আওয়ামী লীগের বিভাগীয় পর্যায়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদকদের দায়িত্ব পুনর্বণ্টন করা হয়।

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সিনিয়র এক নেতা (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) জানান, নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের অবসান ঘটতে পারে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে। তবে চমক দিয়েই নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষণা হতে পারে। যারা ইতিমধ্যে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছে, বিভিন্ন অনিয়ম দুর্নীতির সাথে জড়িত হয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে কঠোর পদক্ষেপ নিতে দলীয় হাইকমান্ডের নির্দেশ রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে অনেককে বাদ দেওয়া হবে। ক্লিন ইমেজের নতুন ব্যক্তি এই কমিটিতে স্থান পাবে।

জেলা আওয়ামী লীগের কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় থাকা- মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবদুল মালেক উকিলের ভাতুস্পুত্র এডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীনের কর্মী-সমর্থকরা জানান, ক্লিন ইমেজের ব্যক্তি হিসেবে শিহাব উদ্দিন শাহীনই জেলা আওয়ামী লী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ পাওয়ার যোগ্য দাবিদার। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে চাচা আবদুল মালেক উকিলের অনুপ্রেরণায় ১৯৮০ থেকে ৮২ সালে নোয়াখালী জিলা স্কুল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক থেকে তার রাজনীতি শুরু। পরবর্তীতে নোয়াখালী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক, বৃহত্তর সদর (সদর ও কবিরহাট) উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সর্বশেষ ২০১৩ সালে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়ে অদ্যবধি দলের সকল আন্দোলন সংগ্রামে প্রথম সারিতে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন তিনি। শিহাব উদ্দিন শাহীন ২০০৯ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারী এক দলীয় নির্বাচনের চলমান অসহযোগ আন্দোলনে কারা বরণ করেন শাহীন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিসহ একাধিক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। জেলা আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের বিরুদ্ধে নানা বিতর্ক উঠলেও শিহাব উদ্দিন শাহীন ক্লিন ইমেজের ব্যক্তি হিসেবে তার স্ব-অবস্থান ধরে রেখেছেন। জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক পদে শাহীনকে পদায়িত করলে দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা একটি নিরাপদ আশ্রয়স্থল পাবে বলে মনে করেন তারা।

এদিকে নোয়াখালী শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদ উল্যাহ খাঁন সোহেলের কর্মী-সমর্থকরা জানান, তৃণমূল থেকে উঠে আসা একজন নেতা শহিদ উল্যাহ খাঁন সোহেল। ১৯৮৭ সালে হরিনারায়ণপুর উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতির পদ দিয়ে তার রাজনীতির পথ শুরু। পরবর্তীতে নোয়াখালী সরকারি কলেজের এজিএস, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সর্বশেষ নোয়াখালী শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ২০১৬ সালের পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন তিনি। দলীয় কর্মসূচিতে তার সরব অংশগ্রণ শহরবাসীর দৃষ্টি কাড়ে সব সময়। শহিদ উল্যাহ খাঁন সোহেলকে জেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্ব দেওয়া হলে তার কাছে দল এবং কর্মী দুটোই নিরাপদ বলে দাবি করেন তার কর্মী-সমর্থকরা।
জেলা আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের চলমান বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করিছি। নেত্রী আমার কথা শুনেছেন, দলীয় কর্মকান্ডের বিষয়ে খোঁজখবর নিয়েছেন। কমিটির বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, আমাদের নেগেটিভ-পজেটিভ সবই নেত্রী দেখবেন। এবিষয়ে নেত্রীর সিদ্ধান্তই চুড়ান্ত।

যুবলীগের চেয়ারম্যান পরশের জন্মদিনে শরীয়তপুরে মিলাদ ও দোয়া
                                  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের জন্মদিন উপলক্ষে তাঁর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে শরীয়তপুর জেলা যুবলীগের উদ্যোগ মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবাদ বাদ জুমা শরীয়তপুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে এ মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয়।

শরীয়তপুর জেলা যুবলীগের সভাপতি এমএম জাহাঙ্গীর ও সাধারণ সম্পাদক নুহুন মাদবরের নেতৃত্বে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন, শরীয়তপুর পৌরসভা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম সুমন, সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হোসেন সরদার, শরীয়তপুর পৌরসভা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন বেপারী, সহ-সভাপতি আব্দুল জলিল, সহ-সভাপতি রোমান আকন্দ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান অনু, সদর উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি রুবেল মৃধা, জেলা ছাত্রলীগ নেতা জাহাঙ্গীর চৌকিদার, সাবেক ছাত্রনেতা সুজন মৃধা প্রমূখ।

দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন, হাফেজ আব্দুল হালিম খান। পরে মুসল্লীদের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করা হয়।

উল্লেখ্য, স্বাস্থ্য বিধি মেনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। এছাড়াও শরীয়তপুর জেলা যুবলীগের আওতাধীন বিভিন্ন ইউনিটের উদ্যোগ মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয়।

লকডাউনে অমান্য করে সদলবলে কাদের মির্জার ত্রাণ বিতরণ
                                  

নোয়াখালী প্রতিনিধি :
সারা দেশের সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম দিনে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পুলিশের উপস্থিতিতে দলবল নিয়ে ত্রাণ বিতরণ করার অভিযোগ উঠেছে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জার বিরুদ্ধে। তবে অভিযোগটি নাকচ করা হয়েছে তার পক্ষ থেকে।

কাদের মির্জা বাংলাদেশ আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই। গত ৭মাস ধরে স্থানীয় এবং জাতীয় রাজনীতির বিভিন্ন ইস্যুতে বক্তব্য রেখে ব্যাপক আলোচিত সমালোচিত হন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের বাংলা বাজারে সামাজিক দূরত্ব ভঙ্গ করে ত্রাণ বিতরণের এই ঘটনা ঘটে।

কাদের মির্জার অনুসারী হিসেবে পরিচিত আইয়ুব আলী ফেসবুকে কাদের মির্জার লোক সমাগম করে ত্রাণ বিতরণ করার ছবি সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করলে এ নিয়ে বিভিন্ন মহলে ব্যাপক বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। ছবিতে দেখা যায়, প্রায় ২ শতাধিক মানুষ সামাজিক দূরত্ব ভঙ্গ করে ত্রাণ নিতে লাইনে দাঁড়িয়ে আছে। আরেকটি ছবিতে দেখা যায় ত্রাণ নিতে এসে বিপুল সংখ্যক মানুষ সামাজিক দূরত্ব ভঙ্গ করে জড়ো হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। অন্য একটি ছবিতে দেখা যায় খোদ কাদের মির্জা নিজেই সামাজিক দূরত্ব ভঙ্গ করে কয়েকজন অনুসারীর মাঝখানে দাঁড়িয়ে বক্তৃতা করছেন।

স্থানীয়দের অভিযোগ, আইন সকলের জন্য সমান হওয়া প্রযোজ্য। জনপ্রতিনিধি যদি কঠোর লকডাউনের প্রথম দিনে সরকারি নিষেধাজ্ঞাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে লকডাউন ভঙ্গ করে তাহলে সারা দেশের লকডাউন অচিরেই ঢিলেঢালা হয়ে পড়বে।

এ বিষয়ে জানতে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জাকে ফোন করা হলে সাহাদাত সাহেদ নামে তার এক অনুসারী ফোন রিসিভ করে দাবি করেন, ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে সামজিক দূরত্ব ভঙ্গ করা হয়নি। তিনি বক্তব্যের শুরুতেই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার আহ্বান জানান।

সংসদে হেফাজতে ইসলামকে নিষিদ্ধের দাবি জানালেন শেখ সেলিম
                                  

স্বাধীন বাংলা অনলাইন :
হেফাজতে ইসলামকে জঙ্গি সংগঠন উল্লেখ করে বাংলাদেশে এ দলটিকে নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম। আজ সোমবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ দাবি জানান।

শেখ সেলিম বলেন, ‘এটা জঙ্গি সংগঠন, এ সংগঠনকে নিষিদ্ধ করা হোক। যেভাবে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স দেখানো হয়েছে সেভাবে।’

তিনি বলেন, ‘তারা বায়তুল মোকাররমকে প্লাটফর্ম বানিয়েছে। কোরআন শরিফ পুড়িয়েছে, মানুষ পুড়িয়েছে। এই হেফাজতে ইসলাম, এরা ছিল স্বাধীনতাবিরোধী নেজামে ইসলামী। মানুষ মেরে এরা ইসলামকে হেফাজত করবে কীভাবে?

শেখ সেলিম বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে বিএনপি, জামায়াত, হেফাজত দেশের বিভিন্ন স্থানে তান্ডব চালিয়েছে। তাদের উদ্দেশ্য ছিল সরকার পতন। স্বাধীনতা দিবস ওরা সহ্য করতে পারে না, ওদের বুকে ব্যথা লাগে। কথা নাই, বার্তা নাই বায়তুল মোকাররমে জমা হয়ে তান্ডব চালায়। সেখানে মুসল্লিরা নামাজ পড়তে পারেন না। বায়তুল মোকাররমে এ ধরনের সমাবেশ নিষিদ্ধ করা উচিত।’

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারী ক্ষমতায়নে অতুলনীয়’
                                  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে ঈর্ষণীয় অবস্থানে নিয়ে গেছে। নারী ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের অগ্রগতি এখন বিশ্বস্বীকৃত। আর এই নারী উন্নয়ন, ক্ষমতায়ন ও নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় নেওয়া পদক্ষেপ ও তা বাস্তবায়নের মাধ্যমে নারী সমাজকে এগিয়ে নেওয়ার স্বীকৃতি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পুরস্কার ও সম্মানে ভূষিত হয়েছেন। এ কারণেই বাংলাদেশের নারী ক্ষমতায়নে  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বে অতুলনীয়।

সোমবার বিকালে শরীয়তপুরের সখিপুরে থানা যুব মহিলালীগ আয়োজিত বৃক্ষরোপন কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সখিপুর থানা যুব মহিলালীগের সভাপতি সোনিয়া নাছিরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক তানজিলা তৃষার সঞ্চালনায় সংগঠনের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ এতে অংশগ্রহণ করেন।

তিনি আরও বলেন, দেশের নারী সমাজের উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নে নজিরবিহীন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার আমলে সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে শুরু করে স্থানীয় প্রশাসন ও তৃণমূল পর্যন্ত নারীর ক্ষমতায়নের প্রসার ঘটেছে। নারী শিক্ষা নিশ্চিত করা, নারীকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করা, সুরক্ষা ও অধিকার নিশ্চিত করতে আইন প্রণয়ন এবং কর্মক্ষেত্র ও রাজনীতিতে নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ ও পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীসহ সামরিক বাহিনীতে নারীদের অধিক অংশগ্রহণ এবং গুরুত্বপূর্ণ ও উচ্চ পদগুলোতে নারীদের নিয়োগ শেখ হাসিনার সরকারের সময় ব্যাপকভাবে সম্প্রসারিত হয়েছে। তিনিই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম নারী উপাচার্য, উচ্চ আদালতের বিচারপতি, প্রথম সংখ্যালঘু নারী সেনাবাহিনীর মেজর করেছেন। রাজনীতি ও দেশ পরিচালনায় নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসন ৪৫ থেকে বাড়িয়ে শেখ হাসিনা ৫০ এ উন্নীত করেছেন। স্থানীয় সরকার পর্যায়ে নারীর ক্ষমতায়নে ইউনিয়ন পরিষদে নারী জনপ্রতিনিধিকে সরাসরি ভোটে নির্বাচনের ব্যবস্থা করেছেন শেখ হাসিনা। বাল্যবিবাহ রোধ ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধে কঠোর আইন করেছে সরকার। নারী নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করা হয়েছে।  


   Page 1 of 112
     রাজনীতি
করোনায় মারা যাওয়া খুররম খানের মৃত্যুতে বিএনপির শোক
.............................................................................................
শেখ হাসিনাকে রাজনীতি থেকে মাইনাস করার ষড়যন্ত্র দেশবাসী রুখে দিয়েছিলো: বাহাউদ্দিন নাছিম
.............................................................................................
বগুড়ায় কর্মহীনদের মাঝে জেলা বিএনপির খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
.............................................................................................
জিএম কাদেরকে বাদ দিয়ে জাপার নতুন কমিটি প্রস্তাব
.............................................................................................
মানিকগঞ্জে কেন্দ্রের নির্দেশ অমান্য করে শ্রমিক দলের কমিটি গঠনের অভিযোগ
.............................................................................................
‘শেখ হাসিনা শুধু সেরা প্রধানমন্ত্রীই নন, সেরা কুটনীতিকও’
.............................................................................................
সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপি’র উদ্যোগে করোনা হেল্প সেন্টার উদ্বোধন
.............................................................................................
বিএনপির সাবেক এমপি নাসের রহমান সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত
.............................................................................................
বরিশালের কর্মহীনদের পাশে নেই রাজনৈতিক নেতারা
.............................................................................................
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় হেফাজতের বেঠক: নেতাকর্মীদের মুক্তি ও মাদ্রাসা খুলে দেয়ার দাবি
.............................................................................................
দেশের সব সঙ্কটে আ.লীগই মানুষের পাশে থাকে: এনামুল হক শামীম
.............................................................................................
নোয়াখালী আ.লীগে পরিবর্তনের আভাস: সেক্রেটারী পদে আলোচনায় শাহীন-সোহেল
.............................................................................................
যুবলীগের চেয়ারম্যান পরশের জন্মদিনে শরীয়তপুরে মিলাদ ও দোয়া
.............................................................................................
লকডাউনে অমান্য করে সদলবলে কাদের মির্জার ত্রাণ বিতরণ
.............................................................................................
সংসদে হেফাজতে ইসলামকে নিষিদ্ধের দাবি জানালেন শেখ সেলিম
.............................................................................................
‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারী ক্ষমতায়নে অতুলনীয়’
.............................................................................................
হতদরিদ্র আর খেটে খাওয়া মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে: জি এম কাদের
.............................................................................................
মাদারীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতিকে মুক্তিযোদ্ধাদের উকিল নোটিশ
.............................................................................................
ঢাকা-১৪ আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হলেন আ.লীগের আগা খান মিন্টু
.............................................................................................
আ.লীগ জনগণের সঙ্গে ছিল, থাকবে : কাদের
.............................................................................................
আওয়ামী লীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ
.............................................................................................
ওবায়দুল কাদেরকে কটূক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা
.............................................................................................
সাহাবুদ্দিন মোল্লার মতো ব্যক্তিরা আ.লীগের নেতা হওয়ার যোগ্য না: শাজাহান খান
.............................................................................................
গণতান্ত্রিক, প্রাকৃতিক ও রাজনৈতিক পরিবেশ বিনষ্টের মূল কুশীলব বিএনপি: কাদের
.............................................................................................
ইসলামী বক্তা ত্বহার সন্ধানের দাবীতে বাগেরহাটে সংবাদ সম্মেলন
.............................................................................................
খালেদা জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ : ফখরুল
.............................................................................................
আবু ত্ব-হাকে অবশ্যই ফিরিয়ে দিতে হবে: সংসদে হারুন
.............................................................................................
শক্তিশালী তো দূরের কথা, কোনো বিরোধী দলই চায় না সরকার: ফখরুল
.............................................................................................
দুর্নীতির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শূন্য সহিষ্ণুতা নীতিতে অটল: ওবায়দুুল কাদের
.............................................................................................
নাসিম আজীবন নক্ষত্র হয়ে থাকবেন: নানক
.............................................................................................
শেখ হাসিনার সমকক্ষ কেউ নেই: দীপু মনি
.............................................................................................
বাবুনগরীসহ ৫০ হেফাজত নেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে দুদক
.............................................................................................
হেফাজতের কমিটিকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি: শফীপুত্র ইউসুফ মাদানী
.............................................................................................
রাঙামাটিতে পর্যটক রাখায় হোটেল মেহেদিসহ ৭ পর্যটককে জরিমানা
.............................................................................................
সরকারের সমালোচনা করতে গিয়ে বিএনপি এখন সত্য প্রকাশ করতেও ভুলে গেছে: কাদের
.............................................................................................
অগ্রীম টাকা নিয়েও ভারত কেন টিকা দিচ্ছে না, ব্যাখ্যা চাইলেন এমপি হারুন
.............................................................................................
হেফাজতের নতুন কমিটি ঘোষণা, বাদ মামুনুল হক
.............................................................................................
শুধু প্রাকৃতিক পরিবেশ নয়, রাজনৈতিক পরিবেশও দূষিত হচ্ছে: সেতুমন্ত্রী
.............................................................................................
ঝিনাইদহে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপন কর্মসূচী
.............................................................................................
ঢাকা-১৪ আসনের উপ-নির্বাচনে আ.লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন নিখিল
.............................................................................................
খালেদা জিয়াকে সিসিইউ থেকে কেবিনে স্থানান্তর
.............................................................................................
বাজেটে সাধারণ মানুষের উন্নয়নের কোনো জায়গা নেই: মির্জা ফখরুল
.............................................................................................
প্রধান রাজনৈতিক দল থেকে বিএনপি এখন ক্লাবে পরিণত হয়েছে : আসিফ
.............................................................................................
কাদের মির্জা-বাদল অনুসারীদের মধ্যে ফের গোলাগুলি, গুলিবিদ্ধ ৬
.............................................................................................
সরকার বিএনপিকে এলএসডি খাইয়ে দিয়েছে: ডা. জাফরুল্লাহ
.............................................................................................
সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা নয়, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: হানিফ
.............................................................................................
স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও স্বাস্থ্য সচিবের পদত্যাগ চাইলেন ফখরুল
.............................................................................................
গাজায় যুদ্ধাপরাধ করছে ইসরাইল: হিউম্যান রাইটস ওয়াচ
.............................................................................................
কালজয়ী রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা: কাদের
.............................................................................................
ইসরাইলী বর্বরতার নিন্দা জানালেন জিএম কাদের
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT