রবিবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজনীতি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
বঙ্গবন্ধুর অবমাননা সহ্য করা হবে না, করতে পারি না: তথ্যমন্ত্রী

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:
নানা প্রসঙ্গ টেনে বিতর্ক করার অপচেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু কোনোভাবেই কোনো ইস্যুতে বঙ্গবন্ধুর অবমাননা সহ্য করা হবে না, সহ্য করতে পারি না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

আজ শনিবার সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মভিত্তিক বই বিতরণ’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে মুজিববর্ষের শেষের দিকে এসে আজকে নানাভাবে বিতর্ক তৈরি করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। নানা প্রসঙ্গ টেনে এনে বিতর্ক করার অপচেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু কোনোভাবেই কোনো ইস্যুতে বঙ্গবন্ধুর অবমাননা সহ্য করা হবে না, সহ্য করতে পারি না। আমাদেরকে এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে হাসান মাহমুদ বলেন- আপনারা দেশের মানুষকে পথ দেখাবেন। আমাদের স্বাধিকার আদায়ের আন্দোলনে যেমন সাংবাদিকদের অনন্য ভূমিকা ছিল, ঠিক একইভাবে স্বাধীনতা সংগ্রামেও সাংবাদিকদের অনবদ্য ভূমিকা ছিল। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীনতার জন্য, স্বাধিকারের জন্য এবং পরে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে মানুষের মনন তৈরি করার ক্ষেত্রে সাংবাদিকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন বলেও মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন- যারা সমাজকে পিছিয়ে দিতে চায়, সমাজকে যারা মধ্যযুগে নিয়ে যেতে চায়, যারা মধ্যযুগীয় সমাজ ব্যবস্থা কায়েম করতে চায়, মধ্যযুগীয় সমাজ ব্যবস্থা কায়েমের চেষ্টাকারীদের যারা পৃষ্টপোষকতা করে, তাদের বিরুদ্ধেও আজকে কলম নিয়ে সোচ্চার হওয়ার সময় এসেছে।

প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন দৈনিক আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক, প্রেস ক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সালাউদ্দিন মোহাম্মদ রেজা, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, প্রেস কাউন্সিলের সদস্য আব্দুল মজিদ, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী প্রমুখ।

বঙ্গবন্ধুর অবমাননা সহ্য করা হবে না, করতে পারি না: তথ্যমন্ত্রী
                                  

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:
নানা প্রসঙ্গ টেনে বিতর্ক করার অপচেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু কোনোভাবেই কোনো ইস্যুতে বঙ্গবন্ধুর অবমাননা সহ্য করা হবে না, সহ্য করতে পারি না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

আজ শনিবার সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মভিত্তিক বই বিতরণ’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে মুজিববর্ষের শেষের দিকে এসে আজকে নানাভাবে বিতর্ক তৈরি করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। নানা প্রসঙ্গ টেনে এনে বিতর্ক করার অপচেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু কোনোভাবেই কোনো ইস্যুতে বঙ্গবন্ধুর অবমাননা সহ্য করা হবে না, সহ্য করতে পারি না। আমাদেরকে এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে হাসান মাহমুদ বলেন- আপনারা দেশের মানুষকে পথ দেখাবেন। আমাদের স্বাধিকার আদায়ের আন্দোলনে যেমন সাংবাদিকদের অনন্য ভূমিকা ছিল, ঠিক একইভাবে স্বাধীনতা সংগ্রামেও সাংবাদিকদের অনবদ্য ভূমিকা ছিল। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীনতার জন্য, স্বাধিকারের জন্য এবং পরে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে মানুষের মনন তৈরি করার ক্ষেত্রে সাংবাদিকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন বলেও মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন- যারা সমাজকে পিছিয়ে দিতে চায়, সমাজকে যারা মধ্যযুগে নিয়ে যেতে চায়, যারা মধ্যযুগীয় সমাজ ব্যবস্থা কায়েম করতে চায়, মধ্যযুগীয় সমাজ ব্যবস্থা কায়েমের চেষ্টাকারীদের যারা পৃষ্টপোষকতা করে, তাদের বিরুদ্ধেও আজকে কলম নিয়ে সোচ্চার হওয়ার সময় এসেছে।

প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন দৈনিক আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক, প্রেস ক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সালাউদ্দিন মোহাম্মদ রেজা, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, প্রেস কাউন্সিলের সদস্য আব্দুল মজিদ, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী প্রমুখ।

ভাস্কর্য বিতর্ক নিয়ে ওবায়দুল কাদের: প্রধানমন্ত্রী জানেন পরিস্থিতি কীভাবে মোকাবিলা করতে হয়
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট:
সব ব্যাপারে মাথা গরম করা ঠিক নয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নিয়ে চলমান বিতর্কের বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী নিজেই দেখছেন। তিনি জানেন কিভাবে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হয় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আজ শনিবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় জাতীয় তিন নেতার মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন। আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা এ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দেশ স্বাধীন হলেও গণতন্ত্র এখনও প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পায়নি। একটি মহল মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও তারা আসলে গণতন্ত্রের শত্রু।

বাংলাদেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে, আফগানিস্তান বানানোর চেষ্টা চলছে: শামীম ওসমান
                                  

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:
বাংলাদেশের ভেতরে-বাহিরে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। দেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। ইসলামকে নিয়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। বাংলাদেশকে আফগানিস্তান বানানোর চেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ (সিদ্ধিরগঞ্জ-ফতুল্লা) আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা একেএম শামীম ওসমান।

শুক্রবার দুপুরে জুমার নামাজের আগে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি পূর্বপাড়ার মজিববাগ এলাকার মজিববাগ বাইতুর রহমান জামে মসজিদের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি শামীম ওসমান এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমাদের এ ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করতে হবে। আমাদের সমাজকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে হলে ভালো মানুষদের নিয়ে কাজ করতে হবে। ভালো মানুষদের নিয়ে কাজ না করলে সমাজকে সামনের দিকে এগিয়ে নেয়া সম্ভব নয়। আমরা চাই প্রতিটি ওয়ার্ডভিত্তিক পঞ্চায়েত কমিটি গঠন করতে; যাতে সমাজের ভালো মানুষগুলো কাজ করবেন অন্যায়ের বিরুদ্ধে। কে আওয়ামী লীগ, কে বিএনপি বা কে জাতীয় পার্টি তা দেখা হবে না; সব ভালো মানুষের সমন্বয়ে এ কমিটি গঠন করা হবে।

এ সময় সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন মিয়াসহ একাধিক নাসিক কাউন্সিলর উপস্থিত ছিলেন।

ফতোয়াবাজরা নানা ফতোয়া দিয়ে সমাজে অস্থিরতা তৈরি করছে: তথ্যমন্ত্রী
                                  

স্বাধীন বাংলা অনলাইন:
‘মৌলবাদী গোষ্ঠীগুলো যুগে যুগে দেশকে পিছিয়ে দেয়ার অপচেষ্টা চালিয়েছে। আজকেও দেশের বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র হচ্ছে, নানা বিষয়ে অপব্যাখ্যা ও ফতোয়া দেয়া হচ্ছে। এই ফতোয়াবাজরা নানা সময়ে ফতোয়া দিয়ে সমাজে অস্থিরতা তৈরি করেছে। মৌলবাদী অপশক্তিগুলো দেশকে পিছিয়ে দেবার যে অপচেষ্টায় লিপ্ত বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

মৌলবাদী অবশক্তিকে রুখে দিতে গণমাধ্যমের ভূমিকার গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

আজ শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর মিন্টু রোডের সরকারি বাসভবন থেকে অনলাইনে বাংলাদেশ বেতারের খুলনা কেন্দ্রের ৫০ বছরপূর্তি অনুষ্ঠানমালা উদ্বোধনকালে তিনি একথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বর্তমান প্রেক্ষাপটে বেতারসহ সমগ্র গণমাধ্যমের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে ড. হাছান বলেন, দেশ যাতে প্রগতির দিকে যায় এবং একই সঙ্গে দেশের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম যেন দেশপ্রেম, মেধা ও মনন সমন্বয়ে আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় নিজেদের তৈরি করতে পারে, সেই লক্ষ্য নিয়েই গণমাধ্যমের অনুষ্ঠান নির্মাণ করতে হবে।

তথ্যমন্ত্রী এ সময় সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বেতারের খুলনা কেন্দ্রসহ পুরো বেতার পরিবারকে অভিনন্দন জানান। সমুদ্র এবং পাহাড়চূড়াসহ সব প্রান্তে অবস্থিত জনমানুষের কাছে পৌঁছানোর জন্য বেতারকে অনন্য গণমাধ্যম হিসেবে অভিহিত করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য-সংস্কৃতি সবকিছুর সঙ্গে বেতার জড়িয়ে আছে।

তিনি বলেন, ‘স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র বাংলাদেশ বেতারের সবচেয়ে বড় অর্জন। ১৯৭১ সালে কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর দেয়া স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করে শুনিয়েছিলেন তৎকালীন চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ হান্নান। মুক্তিযুদ্ধের সময় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র দেশের সমস্ত মুক্তিকামী মানুষকে প্রেরণা জুগিয়েছে। স্বাধীনতার পর দেশগঠনেও ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে বেতার। খুলনা কেন্দ্রও গত ৫০ বছর ধরে এর ব্যতিক্রম নয়।’

অনুষ্ঠানে ছিলেন- তথ্যসচিব খাজা মিয়া, বাংলাদেশ বেতারের মহাপরিচালক হোসনে আরা তালুকদার অনলাইনে এবং খুলনা সিটি মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক, খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুন অর রশীদ।

আ.লীগ-বিএনপি দুর্নীতি রোধে ব্যর্থ: জাপা চেয়ারম্যান
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট:
জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের বলেছেন, গেল ত্রিশ বছরে আওয়ামী লীগ-বিএনপি দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি রোধ করতে ব্যর্থ হয়েছে। তাই দেশের মানুষ বঞ্চিত হয়েছে সুশাসন থেকে।

দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি একটি দেশের প্রত্যাশিত উন্নয়নের অন্তরায় উল্লেখ করে তিনি বলেন, পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ নয় বছরের শাসনামলে দেশে উন্নয়ন ও সুশাসন দিতে সমর্থ হয়েছিলেন। তাই দেশের মঙ্গলময় ভবিষ্যতের জন্য জাতীয় পার্টি সরকার অনিবার্য হয়ে পড়েছে।

শুক্রবার জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের উত্তরার বাসভবনে এক অনুষ্ঠানে লালমনিরহাট থেকে আসা জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন।  

লালমনিরহাট জেলা যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রবিউল ইসলাম বসুনীয়া জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের হাতে ফুল দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা শেরিফা কাদের, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি, অ্যাডভোকেট মো. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, আলমগীর সিকদার লোটন, এমরান হোসেন মিয়া, উপদেষ্টা ড. নূরুল আজাহার শামীম, যুগ্ম মহাসচিব ইকবাল হোসেন তাপস প্রমুখ।

এদেশে মৌলবাদী নীতির ঠাঁই হবে না: যুবলীগ চেয়ারম্যান
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট:
আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেছেন এতেষে কোনদিনও মৌলবাদী নীতির ঠাঁই হবে না। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য স্থাপন নিয়ে সৃষ্ট বিতর্কের প্রেক্ষাপটে তিনি এ হুশিয়ারি দেন।

আজ শুক্রবার সকালে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, শহীদ শেখ ফজলুল হক মনি’র ৮১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে এই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

পরশ বলেন, এদেশে ধর্মান্ধদের জায়গা কোনদিনও হবে না। এ সময় ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস বলেন, শেখ মনির শূন্যতা পূরণ হবার নয়।

এদিন প্রথমে ধানমণ্ডি-৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি ও পরে বনানী কবরস্থানে শহীদ শেখ ফজলুল হক মনিসহ সকল শহীদদের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন নেতারা।

পরিবারের সদস্যরাও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে ১৫ আগস্টে নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে কবরস্থান প্রাঙ্গণে মিলাদ, দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

রাজশাহী কলেজ ছাত্রশিবিরের সভাপতি রায়হান আটক
                                  

রাজশাহী প্রতিনিধি:
রাজশাহী নগরীর হেতেম খা এলাকা থেকে গোপন বৈঠককালে রাজশাহী কলেজ ছাত্রশিবিরের সভাপতি রায়হানসহ ৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে তাদের আটক করা হয় বলে জানান নগর পুলিশের মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস।

তিনি আরও জানান, হেতেম খা এলাকার একটি বাসায় তারা নাশকতার জন্য গোপন বৈঠক করছিলো এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। এসময় আটককৃতদের থেকে জিহাদী বই উদ্ধার করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা দেওয়া হবে।

এবার করোনায় আক্রান্ত বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম খান
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট:
মহমারী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। গতকাল সোমবার রাতে দলের চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সোমবার সন্ধ্যায় তার (নজরুল ইসলাম খান) করোনা পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে। বিএনপির সিনিয়র এই নেতাকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তির করা হয়েছে।

আসন্ন পৌর নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) আসন্ন ২৫ পৌরসভার নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রোববার রাতে অনুষ্ঠিত দলটির স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। আজ সোমবার দুপুরে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বর্তমানে দেশে নির্বাচনের সার্বিক পরিস্থিতি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের অনুকূলে নয় তথাপি স্থানীয় পর্যায়ে দলের সাংগঠনিক এবং রাজনৈতিক কার্যক্রম অব্যাহত রাখার স্বার্থে, নির্বাচন কমিশন ঘোষিত ২৫টি পৌরসভার মেয়র নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি। বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, স্থায়ী কমিটির বৈঠকে কোভিড-১৯ করোনাভাইরাস নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। এতে বলা হয়, কোভিড-১৯ সংক্রমণের শুরু থেকেই সরকারের উদাসীনতা ও ব্যর্থতার কারণে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। দ্বিতীয় দফায় সংক্রমণের হার ব্যাপকহারে বেড়েছে। এখনও পরীক্ষার হার অত্যন্ত সীমিত।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, পরিকল্পিতভাবে সংখ্যা কম দেখানোর ফলে সঠিক চিত্র জনগণের সামনে তুলে ধরা হচ্ছে না। অন্যদিকে হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসার সুযোগ অত্যন্ত সীমিত থাকায় মৃত্যুর হারও বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশেষ করে বয়স্ক রোগীদের অক্সিজেন সরবরাহ ও ভেন্টিলেটরসহ আইসিইউ শয্যার সংখ্যা প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম হওয়াতে পরিস্থিতির আরও অবনতি ঘটছে।

ঢাকার বাইরেও মহানগর, জেলা ও উপজেলা হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ বেড নেই বললেই চলে। কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবের পর থেকে সরকার প্রায় এক বছর সময় পেয়েও সরকারি হাসপাতলগুলোতে চিকিৎসার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। সামগ্রিকভাবে চিকিৎসাব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। সরকারের চরম ব্যর্থতা, অযোগ্যতা, উদাসীনতা, দুর্নীতি এবং জনগণের জীবনের মূল্য না দেয়ায় এই ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে সভা মনে করে।

করোনার ভ্যাকসিন বণ্টন বিষয়ে স্থায়ী কমিটি মনে করে, সুষ্ঠু বিতরণের বিষয়টিও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ব। প্রায় ১৬ কোটি মানুষের জন্য ৩২ কোটি ভ্যাকসিনের ডোজ প্রয়োজন হবে। বর্তমানে ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্ট দফতরের পক্ষে এই ব্যাপক কর্মযজ্ঞ সুষ্ঠুভাবে পালন করা সম্ভব নয় বলে এই কাজে সশস্ত্র বাহিনী ও অন্যান্য সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে দায়িত্ব দেয়া উচিত। বেশ কয়েকটি উন্নত দেশেও সশস্ত্র বাহিনীকে কাজে লাগানোর কথা বলা হয়েছে।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। তিনি লন্ডন থেকে ভার্চুয়াল এ সভায় যুক্ত হন। বিকাল থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত বৈঠক হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান,  নজরুল ইসলাম খান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

জাপানের রাজকুমারী প্রেমিককে বিয়ে করেই ছাড়ছেন রাজপ্রসাদ
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : জাপানের যুবরাজ ফুমিহিতো তার মেয়েকে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া প্রেমিকের সঙ্গেই বিয়ে দিতে রাজি হয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে স্থগিত থাকা এই বিয়ের অনুমোদন দিলেন তিনি। আজ সোমবার স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের বরাতে এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

বাগদানের পর ২০১৮ সালে রাজকুমারী মাকো প্রেমিক ‘কেই কোমুরো’কে বিয়ে করছেন বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন। এরপর কোমুরোর মায়ের এক আর্থিক জটিলতায় সেই বিয়ে আটকে যায়। রাজপরিবাোরের বাইরে কাউকে বিয়ের মধ্য দিয়ে রাজশিরোপা হারাবেন মাকো। অর্থাৎ তিনি আর রাজকুমারীর মর্যাদা পাবেন না। জাপানের রাজপরিবার আইন ১৯৪৭ অনুসারে, রাজকন্যারা সাধারণ ব্যক্তিকে বিয়ে করলে রাজপরিবার ছাড়তে হয়।

বর্তমান রাজকন্যাকে বিয়ে করার মতো রাজপরিবারে কোনো পুরুষ সদস্যও নেই। তবে সিংহাসনের উত্তরাধিকারী হিসেবে নারীদের মনোনয়ন দেওয়ার বিষয়ে জাপানে ইতিবাচক জনমত রয়েছে। জাপানের বর্তমান সম্রাট নারুহিতোর ছোটভাই যুবরাজ ফুমিহিতো মেয়ের বিয়েতে অনাপত্তি জানিয়ে বলেন, অনেক মানুষকে বোঝানো এবং বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা উদযান করতে সেই সংকটটি (আর্থিক) মোকাবিলা জরুরি।

অবশ্য নিজের পরিবারের বিরুদ্ধে অর্থনেতিক জটিলতার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নিউ ইয়র্কের ফরদাম ইউনিভার্সির ল’ স্কুলে অধ্যায়নরত কোমুরো। আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম জানায়, রাজপরিবারের নিয়ম অনুসারে বিয়ের পর মাকো হারাবেন তার রাজকীয় উপাধি। তাকে রাজপরিবার ছেড়ে চলে যেতে হবে। রাজপরিবার ছেড়ে মাকোকে স্বামীর সঙ্গে বসবাস করতে হবে দূরে কোনো স্থানে। রাজকন্যা এককালীন কিছু অর্থ পাবেন। সাধারণ নাগরিকদের মতো তাকে ভোট দিতে হবে। এই দম্পতির সন্তানেরাও রাজপরিবারের সদস্য হিসেবে বিবেচিত হবে না।

এটিই প্রথম নয়। এর আগে ২০০৫ সালে সম্রাট আকিহিতোর মেয়ে সায়াকো সাধারণ একজনকে বিয়ে করে রাজপরিবার ছেড়ে চলে যান। এককালীন ১৩ লাখ ডলার এককালীন পেয়েছিলেন সায়াকো।

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

ভাস্কর্য বিতর্ক: নিজের বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন মাওলানা মামুনুল হক
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট:
খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মুহাম্মদ মামুনুল হক বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বুড়িগঙ্গায় ভাসিয়ে দেয়া বা এ ধরনের কোন বক্তব্য তিনি দেন নি। আজ রোববার রাজধানীর পুরানা পল্টনে খেলাফত মজলিসের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি সর্বদা যে কোন ভাস্কর্য বিরোধী। তবে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে সংঘর্ষ বা যুদ্ধে জড়াবেন না তিনি। এমন কোনো পদক্ষেপ নেব না যেটা হঠকারী হয় বা জানমালের নিরাপত্তা বিঘ্নিত করে। তবে রাষ্ট্রীয়ভাবে ভাস্কর্য স্থাপন করা হয়ে নিজের সাধ্যমতো এর বিরুদ্ধে কথা বলে যাবেন তিনি, যোগ করেন।

মাওলানা মামুনুল হক বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বুড়িগঙ্গায় ভাসিয়ে দেয়া বা এ ধরনের কোনো বক্তব্য দিইনি। আমি বলেছি, আদর্শিক জায়গা থেকে কোনো ভাস্কর্য রাখা হবে না। যখন থেকে ভাস্কর্যের বিরুদ্ধে কথা বলছি, তখন থেকে দ্ব্যর্থহীনভাবে বলছি, ভাস্কর্য যারই হোক, জিয়াউর রহমানের হোক অথবা অন্য যারই হোক, আমি ভাস্কর্যের বিরুদ্ধে। সব ভাস্কর্য অপসারণের দাবি জানিয়ে আসছি।

মামুনুল হক বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের মহান নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে একজন মরহুম মুসলিম নেতা হিসেবে পরিপূর্ণ শ্রদ্ধা করি এবং তার রুহের মাগফেরাত কামনা করি। কখনও কোনোভাবেই এমন একজন মরহুম জাতীয় নেতার বিরুদ্ধাচরণ করি না এবং করাকে সমীচীনও মনে করি না।

তিনি আরও বলেন, আমাদের আইনগতভাবে, নৈতিকভাবে, রাজনৈতিকভাবে এবং রাষ্ট্রীয়ভাবে সামর্থ্য থাকলে জিয়াউর রহমানের ভাস্কর্যসহ সব ভাস্কর্যই আমরা মুসলমানদের জনপদ থেকে অপসারণ করার উদ্যোগ নেব।

সব প্রতিবন্ধকতা ও সীমাবদ্ধতাকে উপড়ে ফেলে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ: তথ্যমন্ত্রী
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট:
সব প্রতিবন্ধকতা ও সীমাবদ্ধতাকে উপড়ে ফেলে আজ এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। আইএমএফ, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের সমীক্ষায় বাংলাদেশ এগিয়ে যাবার তথ্য প্রকাশ করা হলেও আমাদের দেশের কেউ কেউ তা মানতে চান না। রাজনৈতিকভাবে প্রতিপক্ষকে মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়ে যারা মৌলবাদ-ষড়যন্ত্র-গুজবের পথ বেছে নেয়, তাদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে বলে মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

আজ শনিবার রাজধানীর কাকরাইলে তথ্য ভবন মিলনায়তনে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল পদক ২০২০ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সমসাময়িক প্রসঙ্গে তিনি এ কথা বলেন।

প্রেস কাউন্সিল চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দীন আহমেদের সভাপতিত্বে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, প্রেস কাউন্সিল সদস্যবৃন্দের মধ্যে আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য আবদুল মতিন খসরু এমপি এবং উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, প্রেস কাউন্সিল পদক জুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান ইকবাল সোবহান চৌধুরী এবং কাউন্সিল সদস্য নঈম নিজাম অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, কেউ স্বীকার করুক বা না করুক, সব প্রতিবন্ধকতা ও সীমাবদ্ধতাকে উপড়ে ফেলে বাংলাদেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। মানবিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক সব সূচকে আমরা পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছি, অনেক সূচকে পাকিস্তানকেও পেছনে ফেলেছি। আইএমএফ, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের সমীক্ষায় এর প্রতিফলনে ভারত ও পাকিস্তানে তোলপাড় হচ্ছে, অথচ আমাদের দেশে কেউ কেউ স্বীকার করতে চায় না। আমাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ রাজনৈতিকভাবে সরকারকে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে মৌলবাদকে উসকে দেয়, ষড়যন্ত্র-গুজবের পথ বেছে নেয়। এদের বিরুদ্ধে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

এ সময় প্রেস কাউন্সিলের ক্ষমতা বৃদ্ধিকল্পে আইন যুগোপযোগী করা হচ্ছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে গত একযুগে গণমাধ্যমের অভূতপূর্ব বিকাশ ও কল্যাণের ইতিহাস তৈরি হয়েছে। এই অগ্রগতির সঙ্গে সঙ্গতি রেখে প্রেস কাউন্সিলের ক্ষমতা বৃদ্ধির প্রয়োজন। এজন্য প্রচলিত আইন যুগোপযোগী করার কাজ চলছে।

গণমাধ্যমের ভূমিকাকে আরও বিস্তৃত করার আহ্বান জানিয়ে উন্নত জাতি গঠনের জন্য বস্তুগত উন্নয়নের সঙ্গে আত্মিক উন্নয়নকে অপরিহার্য বলে বর্ণনা করেন ড. হাছান। আর সেজন্য নতুন প্রজন্মের মনন গঠনে গণমাধ্যম সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে, বলেন তিনি।

তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেন, স্বাধিকার, গণতন্ত্র ও উন্নয়ন একইসূত্রে গাঁথা। আর এই যোগসূত্র স্থাপনে গণমাধ্যম রাখতে পারে অনন্য ভূমিকা।

অনুষ্ঠানে জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক তোয়াব খানকে আজীবন সম্মাননা, দি ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস সম্পাদক শাহ হোসেন ইমামকে প্রাতিষ্ঠানিক সম্মাননা, দৈনিক করতোয়া সম্পাদক মোজাম্মেল হককে আঞ্চলিক প্রাতিষ্ঠানিক সম্মাননা, দৈনিক সমকালের জাহিদুর রহমানকে গ্রামীণ সাংবাদিকতা, দৈনিক আমাদের সময়ের মোহাম্মদ ইউসুফ আরেফিনকে উন্নয়ন সাংবাদিকতা, দি ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেসের আরাফাত আরাকে নারী সাংবাদিকতা ও একই দৈনিকের আলোকচিত্রী শফিকুল ইসলামকে আলোকচিত্র সাংবাদিকতায় বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল পদক ২০২০ সম্মাননায় ভূষিত করা হয়।
বাসস

ভাস্কর্য নিয়ে অনাহুত বিতর্কের পেছনে ভিন্ন উদ্দেশ্য : ওবায়দুল কাদের
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট : আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে একটি ধর্মীয় সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী যে অনাহুত বিতর্কের সৃষ্টি করছে তার ভিন্ন কোনো উদ্দেশ্য থাকতে পারে। ভাস্কর্য নিয়ে মনগড়া ব্যাখ্যা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও দেশের সংস্কৃতির প্রতি চ্যালেঞ্জ। ওবায়দুল কাদের শনিবার সকালে নিজের সরকারি বাসভবন থেকে এক ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে একটি ধর্মীয় সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী ইসলামের অপব্যাখ্যা দিয়ে ধর্মপ্রিয় মানুষের মনে বিদ্বেষ ছড়ানোর অপচেষ্টা করছে। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে এদেশে ইসলাম সম্পর্কে গবেষণা, চর্চা এগিয়ে নিতে বঙ্গবন্ধু প্রতিষ্ঠা করেছিলেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বঙ্গবন্ধু ধর্মীয় শিক্ষা প্রসারে মাদ্রাসা বোর্ড পুনর্গঠনসহ ইসলাম প্রচারে তাবলিগ জামাতকে জমি দান করেছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা পবিত্র ধর্মের একজন নিবেদিত প্রাণ ও অনুসারী হিসেবে ইসলামের সঙ্গে জ্ঞানবিজ্ঞানের সমন্বয় করে প্রকৃত ইসলামের চর্চা এগিয়ে নিতে জনমানুষের ধর্মানুরাগের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দেশের প্রতিটি উপজেলায় নির্মাণ করেছেন মডেল মসজিদ কমপ্লেক্স। একজন ধর্মপ্রাণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন সরকার পরিচালনার দায়িত্বে তখন এদেশে ইসলামবিরোধী কোন কার্যক্রম হবে, তা বিশ্বাস করার কোনো কারণ নেই।

তিনি বলেন, ভাস্কর্যকে যারা মূর্তি বলে অপপ্রচারে নেমেছেন তারা নিজেরাই ভ্রান্তিতে আছেন। দেশের আলেম সমাজ এবং বিশেষজ্ঞগণ ইতিমধ্যেই বারবার বলেছেন, মূর্তি আর ভাস্কর্য এক নয়। ইসলাম আমাদের ধর্ম, এ ধর্মের বিধিবিধানে ধর্মীয় ইস্যুতে বাড়াবাড়ির সুযোগ নেই।  নিরুৎসাহিত করা হয়েছে ধর্মীয় বিষয়ে বিতর্ক করতে, নিষেধ করা হয়েছে ফিৎনা-ফ্যাসাদ সৃষ্টিতে।

‘বাংলাদেশের স্থপতির ভাস্কর্য টেনে হেঁচড়ে নামানো হবে’ হেফাজত নেতা বাবুনগরীর এমন বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এক ধর্মীয় নেতা ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য রাখছেন। তাদের এমন রুচি এবং ভাষা ব্যবহার দেখে তাদের ধর্মচর্চা ও ইসলামী রুচিবোধ নিয়ে জনমনে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে।

পবিত্র কোরআনের উদ্ধৃতি দিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, সূরা সাবার ১৩ নং আয়াতে বর্ণিত ‘তামাসিলা’ এবং সূরা ইব্রাহিমের ৩৫ নং আয়াতে বর্ণিত ‘আসনাম’ শব্দ দুটি এক নয়। কাজেই মুফাসসিরগণ মনে করেন তামাসিলা মানে ভাস্কর্য আর আসনাম মানে প্রতীমা-পূজা। এ`দুটি শব্দকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে ভুল ব্যাখ্যা করা হয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করা থেকে আসুন সবাই বিরত থাকি। সরকারের সরলতাকে দুর্বলতা ভাববেন না, জনগণের শান্তি বিনষ্টের যেকোন অপচেষ্টা করলে জনগণই রুখে দাঁড়াবে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, দেশের মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, সংবিধান এবং রাষ্ট্রবিরোধী যে কোনো বক্তব্য বরদাশত করা হবে না।

তিনি বলেন- সরকার প্রধান আগেই বলেছেন, ‘দেশে কোরআন-সুন্নাহবিরোধী কোনো আইন হবে না’। তাই অন্য কোনো পথ না পেয়ে ধর্মীয় ইস্যুকে সামনে এনে ধর্মীয় সহনশীলতা বিনষ্টের যেকোনো অপচেষ্টা সরকার কঠোর হস্তে দমন করবে।

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির সাথে ভারত জড়িত: জাফরুল্লাহ চৌধুরী
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, দেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির সাথে ভারত সরাসরি জড়িত। ভারতে গো মন্ত্রণালয় সৃষ্টি হয়, আর আমাদের সরকার ঘাস চাষ শিখতে বিদেশে পাঠায়। কারণ তাদের প্রভু ভারত। আমাদের একটাই কাজ, প্রতিদিন প্রতিনিয়ত পুঁজিবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম অব্যাহত রাখতে হবে। আজ শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ লেবার পার্টি আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, আজকে সরকার যেহেতু নির্বাচিত নয়, এজন্য দ্রব্যমূল্য নিয়ে পরোয়া করে না। তারা কথা বলেন এক আর কাজে করেন আরেক। এই পুঁজিতন্ত্রের সাথে যোগ দিয়েছে ভারতীয় চক্রান্ত।

এ সময় নাগ‌রিক ঐক‌্যর আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না ব‌লে‌ছেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার বিএন‌পি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কথা বলা বন্ধ করে দিতে পারে, বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের জেলে ভরে দিতে পারে কিন্তু যারা জিনিসের দাম বাড়ায় তাদের কিছু করার ক্ষমতা নেই। সিন্ডিকেটকে ধরতে পারবেন না তাই জিনিসের দাম কমাতে পারবেন না।

বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম‌্যান ডা. মোস্তা‌ফিজুর রহমান ইরা‌নের সভাপ‌তি‌ত্বে সমা‌বে‌শে আরো বক্তব‌্য রা‌খেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, লেবার পার্টির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার ফরিদ উদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব লায়ন ফারুক রহমান, কৃষক দলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন, সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন কোবির, যুব মিশনের সভাপতি মহিবুল্লাহ মেহেদি, ছাত্র মিশনের সভাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ মিলন প্রমুখ।

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

সিরাজগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা ঢাকায় গ্রেফতার
                                  

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:
সিরাজগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল কায়েসকে রাজধানীর মোহাম্মদ থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) ভোররাতে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ থানা পুলিশের একটি বিশেষ দল আজ ভোরা রাতে রাজধানী ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকার একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।

আব্দুল্লাহ আল কায়েসের বিরুদ্ধে নাশকতা ও সরকারি কাজে বাধা দেয়াসহ সর্বমোট ১৭টি মামলা রয়েছে।

আব্দুল্লাহ আল কায়েসকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে কামারখন্দ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, তার বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে ঘটে যাওয়া নাশকতা ও সরকারি কাজে বাধা দেয়াসহ ১৭টি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন পলাতক ছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভোররাতে ঢাকার একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য রুমানা মাহমুদ তার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন।

সিরাজগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা ঢাকায় গ্রেফতার
                                  

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:
সিরাজগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল কায়েসকে রাজধানীর মোহাম্মদ থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) ভোররাতে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ থানা পুলিশের একটি বিশেষ দল আজ ভোরা রাতে রাজধানী ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকার একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।

আব্দুল্লাহ আল কায়েসের বিরুদ্ধে নাশকতা ও সরকারি কাজে বাধা দেয়াসহ সর্বমোট ১৭টি মামলা রয়েছে।

আব্দুল্লাহ আল কায়েসকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে কামারখন্দ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, তার বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে ঘটে যাওয়া নাশকতা ও সরকারি কাজে বাধা দেয়াসহ ১৭টি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন পলাতক ছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভোররাতে ঢাকার একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য রুমানা মাহমুদ তার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন।


   Page 1 of 92
     রাজনীতি
বঙ্গবন্ধুর অবমাননা সহ্য করা হবে না, করতে পারি না: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
ভাস্কর্য বিতর্ক নিয়ে ওবায়দুল কাদের: প্রধানমন্ত্রী জানেন পরিস্থিতি কীভাবে মোকাবিলা করতে হয়
.............................................................................................
বাংলাদেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে, আফগানিস্তান বানানোর চেষ্টা চলছে: শামীম ওসমান
.............................................................................................
ফতোয়াবাজরা নানা ফতোয়া দিয়ে সমাজে অস্থিরতা তৈরি করছে: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
আ.লীগ-বিএনপি দুর্নীতি রোধে ব্যর্থ: জাপা চেয়ারম্যান
.............................................................................................
এদেশে মৌলবাদী নীতির ঠাঁই হবে না: যুবলীগ চেয়ারম্যান
.............................................................................................
রাজশাহী কলেজ ছাত্রশিবিরের সভাপতি রায়হান আটক
.............................................................................................
এবার করোনায় আক্রান্ত বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম খান
.............................................................................................
আসন্ন পৌর নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি
.............................................................................................
জাপানের রাজকুমারী প্রেমিককে বিয়ে করেই ছাড়ছেন রাজপ্রসাদ
.............................................................................................
ভাস্কর্য বিতর্ক: নিজের বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন মাওলানা মামুনুল হক
.............................................................................................
সব প্রতিবন্ধকতা ও সীমাবদ্ধতাকে উপড়ে ফেলে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
ভাস্কর্য নিয়ে অনাহুত বিতর্কের পেছনে ভিন্ন উদ্দেশ্য : ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির সাথে ভারত জড়িত: জাফরুল্লাহ চৌধুরী
.............................................................................................
সিরাজগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা ঢাকায় গ্রেফতার
.............................................................................................
সিরাজগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা ঢাকায় গ্রেফতার
.............................................................................................
আ.লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হলেন অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা
.............................................................................................
বিএনপি ক্ষমতাকে ভাগ্য বদলের উৎস মনে করে : ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
বিএনপি নেতা ড. মামুন করোনায় প্রাণ হারালেন
.............................................................................................
বছরব্যাপী স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করবে বিএনপি
.............................................................................................
অপচেষ্টা করলে সমুচিত জবাব দেয়া হবে : ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
সশস্ত্রবাহিনী দিবস আজ
.............................................................................................
জাতীয় শ্রমিক লীগ সভাপতি মন্টু আর নেই
.............................................................................................
তথ্যমন্ত্রীর আরোগ্য কামনায় সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের দোয়া মাহফিল
.............................................................................................
শেখ হাসিনা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছেন: কৃষিমন্ত্রী
.............................................................................................
খুলনার বিএনপি নেতা ভাষাসৈনিক নুরুল ইসলামের মৃত্যু
.............................................................................................
বগুড়ায় বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ
.............................................................................................
নওগাঁর মান্দা উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচনে বিএনপির ভোট বর্জন
.............................................................................................
রিজভী অসুস্থ: বিএনপির দফতরের দায়িত্বে প্রিন্স
.............................................................................................
বিএনপি নেতা রিজভীর সুস্থতার জন্য দোয়া চেয়েছেন স্ত্রী
.............................................................................................
বরিশালে বিভিন্ন দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোটের সড়ক অবরোধ
.............................................................................................
উপ-নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করে বিএনপির কর্মসূচি ঘোষণা
.............................................................................................
দল গঠন করছেন ‍নুরুল হক নুর, গণচাঁদা আহ্বান
.............................................................................................
আসছে নুর-রাশেদদের নতুন দল ‘গণ অধিকার পরিষদ’
.............................................................................................
ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক অকৃত্রিম ও অতুলনীয়: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
বিএনপি নেতা রিজভী সিসিইউতে
.............................................................................................
অপরাধ দমনে কঠোর অবস্থানে সরকার : কাদের
.............................................................................................
বিএনপির আমলে অন্তঃস্বত্ত্বা নারীও ধর্ষণের হাত থেকে রক্ষা পায়নি: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
মির্জা ফখরুলের বাসায় দলীয় নেতাকর্মীদের হামলা
.............................................................................................
ধর্ষণ রোধে পাহারা দেয়ার নির্দেশ দিলেন ছাত্রলীগ সভাপতি
.............................................................................................
বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক আজ
.............................................................................................
বিএনপি করোনায় আক্রান্ত, বললেন জাফরুল্লাহ চৗেধুরী
.............................................................................................
করোনায় আক্রান্ত হলেন পাবনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান
.............................................................................................
যুক্তরাজ্যের ভিসা পেতে কোনো বাধা নেই খালেদা জিয়ার
.............................................................................................
লালমনিরহাটে বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করলেন বিএনপি নেতা দুলু
.............................................................................................
ধর্ষকদের সরাসরি ক্রসফায়ার চান হানিফ
.............................................................................................
তিতাসে ছাত্রলীগের সংবাদ সম্মেলন
.............................................................................................
এই মুহূর্তে সরকার পতনের আন্দোলন নয় : নূর
.............................................................................................
পাকিস্তানি গোয়েন্দাদের সাথে দহরম-মহরম বহু পুরনো: তথ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
ঝালকাঠির আওয়ামী লীগ নেত্রী কেকাকে বহিষ্কার করা হয়েছে
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT