রবিবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   সিলেট -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
রাজৈর পৌরসভা নির্বাচন: আ.লীগ প্রার্থীর নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা

রাজৈর প্রতিনিধি:
সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা ও  দলীয় ৪ বিদ্রোহী প্রার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে মাদারী জেলা আওয়ামীলীগ। আজ শনিবার দুপুরে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা আ.লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহম্মেদ মোল্লার সভাপতিত্বে ইশতেহার ঘোষণা করেন নৌকার প্রার্থী উপজেলা মহিলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমা রশিদ।

এসময় তিনি রাজৈর পৌরসভাকে তৃতীয় শ্রেণী থেকে প্রথম শ্রেণীর পৌরসভায় উন্নীত করার লক্ষ্যে কাজ করা, শিশু পার্ক ও বিনোদন কেন্দ্র স্থাপন, পৌর এলাকাকে স্থানীয় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজকে সাথে নিয়ে সম্পূর্ণ মাদকমুক্ত করাসহ অর্ধশতাধিক প্রতিশ্রুতি দেন।

একই সংবাদ সম্মেলনে সংগঠন বিরোধী ও দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করে নিজের মেয়ে আ.লীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী গোপা শারমিনকে সমর্থন করায় উপজেলা আ.লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এম.এ মোতালেব মিয়া, সংগঠন বিরোধী ও দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করে মেয়র প্রার্থী হওয়ায় উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান বক্কার, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র শামীম নেওয়াজ মুন্সী এবং পৌর আ.লীগের যুগ্ম আহবায়ক গোপা শারমিনকে সাময়িক বহিষ্কারের ঘোষণা দেন। এছাড়াও একই কারনে উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক রেদওয়ানুল হক রিজন ও শ্রমিক লীগের সভাপতি সাহাবুদ্দিন শাহাকে কারন দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে, সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট সুজীত চ্যাটার্জি, সাবেক সদর উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম মাওলা, জেলা আ.লীগের দপ্তর সম্পাদক গোলাম মাওলা আকন্দ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক বাবুল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা মোস্তফা, উপজেলা আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক জমির উদ্দিন খান, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সেকান্দার আলী শেখ প্রমুখ।

রাজৈর পৌরসভা নির্বাচন: আ.লীগ প্রার্থীর নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা
                                  

রাজৈর প্রতিনিধি:
সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা ও  দলীয় ৪ বিদ্রোহী প্রার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে মাদারী জেলা আওয়ামীলীগ। আজ শনিবার দুপুরে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা আ.লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহম্মেদ মোল্লার সভাপতিত্বে ইশতেহার ঘোষণা করেন নৌকার প্রার্থী উপজেলা মহিলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমা রশিদ।

এসময় তিনি রাজৈর পৌরসভাকে তৃতীয় শ্রেণী থেকে প্রথম শ্রেণীর পৌরসভায় উন্নীত করার লক্ষ্যে কাজ করা, শিশু পার্ক ও বিনোদন কেন্দ্র স্থাপন, পৌর এলাকাকে স্থানীয় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজকে সাথে নিয়ে সম্পূর্ণ মাদকমুক্ত করাসহ অর্ধশতাধিক প্রতিশ্রুতি দেন।

একই সংবাদ সম্মেলনে সংগঠন বিরোধী ও দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করে নিজের মেয়ে আ.লীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী গোপা শারমিনকে সমর্থন করায় উপজেলা আ.লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এম.এ মোতালেব মিয়া, সংগঠন বিরোধী ও দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করে মেয়র প্রার্থী হওয়ায় উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান বক্কার, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র শামীম নেওয়াজ মুন্সী এবং পৌর আ.লীগের যুগ্ম আহবায়ক গোপা শারমিনকে সাময়িক বহিষ্কারের ঘোষণা দেন। এছাড়াও একই কারনে উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক রেদওয়ানুল হক রিজন ও শ্রমিক লীগের সভাপতি সাহাবুদ্দিন শাহাকে কারন দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে, সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট সুজীত চ্যাটার্জি, সাবেক সদর উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম মাওলা, জেলা আ.লীগের দপ্তর সম্পাদক গোলাম মাওলা আকন্দ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক বাবুল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা মোস্তফা, উপজেলা আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক জমির উদ্দিন খান, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সেকান্দার আলী শেখ প্রমুখ।

মাধবপুরে প্রাইভেটকারে চোরাই গরু: ২ যুবক আটক
                                  

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:
হবিগঞ্জের মাধবপুরে প্রাইভেটকারে চোরাই গরু পাওয়ায় দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তারা হলেন মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার মাগুরা চৌধুরী বাজার এলাকার মনির মিয়া (৩০) ও মৌলভীবাজার জেলা সদরের মোস্তফাপুর এলাকার আশিক ওরফে ইউসুফ (২৮)।

শনিবার (৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন চুনারুঘাট থানার ওসি (তদন্ত) চম্পক দাম। বিকেলে এ দুই যুবককে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। ওসি (তদন্ত) চম্পক দাম জানান, উপজেলার উবাহাটা ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার সৈয়দ আলী বাদী হয়ে থানায় গরু চুরির অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের পর বাদী জানায়, তার গরু মাধবপুরে উদ্ধার হয়েছে। এ খবরের প্রেক্ষিতে চুনারুঘাট থানা পুলিশ শুক্রবার মধ্যরাতে মাধবপুর থানার মাধ্যমে গরুসহ দুই চোরকে থানায় নিয়ে আসে। কিন্তু উদ্ধার হওয়া গরুটি অভিযোগকারী মেম্বার সৈয়দ আলীর নয়। তিনি সঠিক প্রমাণ দেখাতে পারেননি। পরে নবীগঞ্জ উপজেলার সদরঘাটের কাজী নুরুল আমিনের গরু প্রমাণিত হওয়ায় তাকে সমজিয়ে দেয়া হয়।

পুলিশের কাছে দুই যুবক জানায়, তারা গরুটি নবীগঞ্জ সদরঘাট এলাকা থেকে চুরি করে নিয়ে জনতার হাতে ধরা পড়ার পর থানায় আসে।

মাদক ব্যবসায়ী ও চাঁদাবাজদের গণপ্রতিরোধের ঘোষণা খাদিমনগর এলাকাবাসীর
                                  

সিলেট প্রতিনিধি:
মাদক ব্যবসায়ী, মাদকসেবী ও চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন সিলেটের বৃহত্তর শাহপরান এলাকার বাসিন্দারা। শুক্রবার দুপুর দুইটায় শহরতলির শাহপরাণ-খাদিম চৌমুহনী পর্যন্ত আয়োজিত মানববন্ধন থেকে ওই ঘোষণা দেয়া হয়।
আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন খাদিমপাড়া ইউনিয়নের চার নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার আনোয়ার হোসেন আনু। বক্তব্য রাখেন, খাদিম চৌমুহনী বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, ব্যবসায়ী আমির আলী, শেখর রঞ্জন দাস, খাদিম চৌমুহনী বাজার মসজিদের সাবেক মোতাওয়াল্লি জুলুবুর রাজা চৌধুরী, খাদিম চৌমুহনী বাজার মসজিদের মোতাওয়াল্লি রাজা মিয়া রাজন, মসজিদ সেক্রেটারি বেলাল আহমদ, আফতাব উদ্দিন, শাহপরান আবাসিক এলাকার বাসিন্দা সোহেল আহমদ, মোহাম্মদ আলী খোকন, আবু জাফর জাহাঙ্গির, মিঠু আহমদ, নেয়ামত আলী, আবুল কাশেম, আবুল বাতেন চৌধুরী নাদের, কামাল আহমদ, আবদুল কুদ্দুস, ফারুক আহমদ, আল আমিন, সালেহ আহমদ, হেলাল উদ্দিন মিনাল, হানিফ মিয়া, হেলাল উদ্দিন, আবদুল মুমিন, আবদুর রাজ্জাক, শুভ আহমদ, সুলতান আহমদ, জিলুক মিয়া, জিল্লু বারী, চন্দন দাস, কালাম মিয়া, কাইয়ুম, তাহির. রাজু ও তাঁতী লীগ নেতা পারভেজ আহমদ রাজু ।

মানববন্ধন চলাকালে এলাকাবাসী উত্তেজিত হয়ে সিলেট-তামাবিল সড়ক অবরোধ করেন। মাদক ব্যবসায়ী ও চাঁদাবাজদের গ্রেফতার না করায় ওই অবরোধ গড়ে তুললে রাস্তার দুই পাশে শতশত যানবাহন আটকা পরে। এসময় পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ যোগাযোগ করেন মেম্বার আনোয়ার হোসেন আনু ও সাংবাদিক মুজিবুর রহমান ডালিমের সাথে। পুলিশ থেকে জানানো হয় অবিলম্বে আসামিদের গ্রেফতার করা হবে। ওই আশ্বাস পেয়ে অবরোধ তুলে নেয়া হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, মাদক ব্যবসায়ী ও চাঁদাবাজদের কারণে বৃহত্তর শাহপরান এলাকার সামাজিক পরিবেশ হুমকীর মধ্যে পড়েছে। মাদক ব্যবসায়ী ও চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পান না। কারণ প্রতিবাদ করে সাধারণ মানুষ বিভিন্ন সময় লাঞ্ছিত হয়েছেন। শাহপরান উপশহরের বাসিন্দারা ওইসব মাদক ব্যবসায়ী ও চাঁদাবাজের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়েছিলেন। পুলিশ বরাবরে আবেদন করেছেন। এর জের ধরে সাংবাদিক মুজিবুর রহমানর ডালিমের বাসায় হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়।

বক্তারা বলেন, ওইসব দুর্বৃত্তের অপকর্ম আর মেনে নেয়া যায় না। তাদের বিরুদ্ধে এখন থেকে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে। যেকোনো মূল্যে শাহপরান এলাকাকে মাদক ও চাঁদাবাজ মুক্ত করা হবে। এই প্রেক্ষাপটে বক্তারা পুলিশি পদক্ষেপ কামনা করে বলেন, সরকার মাদক ও চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। পুলিশও মাদক এবং চাঁদাবাজীর বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। মাদক ব্যবসায়ী ও চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বক্তারা।

বক্তারা বলেন, আসামিদের গ্রেফতার না করলে রাস্তা অবরোধসহ কঠোর কর্মসূচি নেয়া হবে।

সুনামগঞ্জের ছাতকে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হেলাল হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন
                                  

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
সুনামগঞ্জের ছাতকে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হেলালকে হত্যার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

আজ শুক্রবার দুপুরে উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের নিজগাও নতুনবস্তি গ্রামের রাস্তায় মানববন্ধন করে।

মানববন্ধনে বক্তারা জানান, বীরমুক্তিযোদ্ধা সবর আলীর সন্তান হেলালকে গত ২৬ নভেম্বর রাতে ছনবাড়ী বাজারের জামেয়া কোরানিয়া নোয়াকোট মাদ্রাসার দোতলায় পূর্ব শত্রুুতার জের ধরে পিটিয়ে নৃশংসয়ভাবে হত্যা করে চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা। হত্যার দীর্ঘ দিন পেরিয়ে গেলেও রহস্যজনক কারণে ছাতক থানা পুলিশ মামলা নেয়নি এবং ঘাতকদের গ্রেফতারে কোন ধরনের তৎপরতা দেখায়নি। হেলাল হত্যার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবী করেন তারা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাওলানা কয়েছ, মুখদ্দছ আলী, তাজুল ইসলাম ও নিহত হেলালের বড় ভাই জমির উদ্দিনসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তি ও তরুণরা।

নিহত হেলালের বড় ভাই জমির উদ্দিন জানান, গত ২৬ নভেম্বর রাতে ছোটভাই হেলালকে খুঁজে না পেয়ে আশপাশ দৌড়াতে থাকেন এবং কোরানিয়া মাদ্রাসার দোতলায় হেলালের চিৎকার শুনে দৌড়াইয়া দোতলায় উঠার সময় কয়েকজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী নামতে থাকে এবং আমি উপরে উঠে আমার ভাইকে রক্তাক্ত অবস্তায় দেখতে পাই। ভাইয়ের মুখ, নাক ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম দেখে চাচাত ভাই কাউসার আহমদকে সাথে নিয়ে ছনবাড়ী বাজারের মছব্বির ডাক্তারের ফার্মেসী নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করে।

এ ব্যাপারে ছাতক থানা পুলিশকে জানালে ছাতক থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মিজানুর রহমান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আমার ভাইয়ের লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। আমার ভাই হেলাল হত্যার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে  থানায় লিখিত অভিযোগ দিলেও পুলিশ আমলে নেয়নি এবং ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করেনি। নতুন বস্তি গ্রামের লুৎফুর ও সিরাজদের সাথে আমাদের রাস্তা নিয়ে বিরোধ আছে। এর আগে আমার আরেক ভাই নুর আহমদ ও হেলালকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছিল। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় আপোষে নিস্পত্তি করেছিলেন কিন্তু তারা সর্বদায় তৎপর ছিল আমাদের খুন জখম করার জন্য। আমি ন্যায় বিচার চাই।
 
এ ব্যাপারে ছাতক থানার ওসি (তদন্ত) ও ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান, লাশের গায়ে কোন চিহ্ন না থাকায় ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আমাদের কাছে মনে হয়েছে এটি আত্মহত্যা। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর বুঝা যাবে হত্যা না আত্মহত্যা। হত্যা হলে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মৌলভীবাজারে ছোট ভাইকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় করল বড় ভাই
                                  

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:
মৌলভীবাজারে চাচাতো ছোট ভাই সোহান আহমদকে (১১) অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করেছে জাহিদ হাসান মুন্না (২৫)। মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার জায়ফরনগর ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে। একই সাথে অপহৃত সোহান আহমদকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, গত মঙ্গলবার নিজ বাড়ি থেকে হঠাৎ করে উধাও হয়ে যায় নিশ্চিন্তপুর গ্রামের ফখরুল ইসলামের ছেলে সোহান আহমদ (১১) ছেলে নিখোঁজের পর ফখরুল ইসলাম জুড়ী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। এরপর ফখরুলের মোবাইলে তার ভাতিজা জাহিদ হাসান মুন্না ফোন করে মুক্তিপণ দাবি করে। ফখরুল বিষয়টি তিনি জুড়ী থানাকে জানালে পুলিশ মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে মুন্নার অবস্থান শ্রমঙ্গল উপজেলায় নিশ্চিত করে।

শ্রীমঙ্গল থানার ওসি আবদুছ ছালেকের নেতৃত্বে পুলিশ বুধবার বিকালে শ্রীমঙ্গল রেলস্টেশন এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত শিশু সোহানসহ মুন্নাকে আটক করে। রাতে তাদের জুড়ী থানায় হস্তান্তর করা হয়।

জুড়ী থানার ওসি সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, এ ঘটনায় থানায় অপহরণ মামলা হয়েছে। আসামিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

সাংবাদিক ডালিমের বাসায় হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাব
                                  

সিলেট প্রতিনিধি:
চাঁদাবাজি ও মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় সাংবাদিক মুজিবুর রহমান ডালিমের বাসায় সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা, প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ চলছে সিলেটের বিভিন্ন উপজেলায়। এরই ধারাবাহিকতায় ন্যাক্কাজনক এ হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে।

গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাবের পক্ষে সভাপতি এম এ মতিন ও সাধারণ সম্পাদক মো. জাকির হোসেন, সিনিয়র সহসভাপতি মো. মিনহাজ উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক করিম মাহমুদ লিমন ও সুবাস দাস এক যৌথ বিবৃতিতে সাংবাদিক ডালিমের বাসায় হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

বিবৃতিতে গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ সাংবাদিক ডালিমের বাসায় হামলাকারী মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারের জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গত ২৬ নভেম্বর রাত আটটার দিকে দৈনিক সিলেটের দিনরাত পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক মুজিবুর রহমান ডালিমের শাহপরানস্থ বাসায় হামলা করে স্থানীয় কিছু সংখ্যক সন্ত্রাসী। এদের বিরুদ্ধে মাদক ও চাঁদাবাজির অভিযোগ রয়েছে বলে জানা যায়। মূলত চাঁদাবাজি ও মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ার জন্যই সাংবাদিক ডালিমের বাসায় হামলার ঘটনা ঘটে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।

হবিগঞ্জে মায়ের পরকিয়ার বলি ৩ শিশু সন্তান
                                  

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:
হবিগঞ্জের সদর উপজেলার রাজিউড়া ইউনিয়নের উচাইল-চারিনাও গ্রামে মা ফাহিমা খাতুনের পরকিয়ার বলি হয়েছে ৩ শিশু সন্তান। পরকীয়া প্রেমিককে কাছে পেতে ৩ শিশু সন্তানকে জুসের সাথে বিষপান করিয়ে মারতে চেয়েছিলেন মা। ভাগ্যক্রমে ২ সন্তান বেঁেচ গেলেও মারা যায় এক সন্তান।

গতকাল রাতে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রবিউল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
তিনি জানান, মঙ্গলবার হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলামের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে এসব তথ্য দেয় মা ফাহিমা খাতুন। আদালতে স্বীকারোক্তি প্রদান শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

ফাহিমা খাতুনের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে পাশের বাড়ির আক্তার মিয়ার পরকীয়ার সম্পর্ক চলছিল। তারা ঘর বাঁধার স্বপ্ন দেখে। কিন্তু এতে বাধা হয়ে দাঁড়ায় ফাহিমার তিন সন্তান। ২০১৯ সালের ১৮ নভেম্বর সন্ধ্যায় বাড়ির পাশের দোকান থেকে ফাহিমা দুটি লিচুর জুস ক্রয় করে এনে প্রেমিক আক্তার মিয়ার হাতে দেয়। আক্তার মিয়া জুসে বিষ মেশায়।

পরে আক্তার মিয়া ও ফাহিমা খাতুন তিন সন্তানকে উঠান থেকে ডেকে এনে জুসপান করায়। এর পরই বিষক্রিয়ায় ফাহিমার তিন শিশুসন্তান ছটফট করতে থাকে।

পরে এলাকাবাসীর সহায়তায় শিশুদের হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে ফাহিমার সাত বছরের শিশুকন্যা সাথী আক্তারকে মৃত ঘোষণা করেন দায়িত্বরত চিকিৎসক।

আর অপর শিশু তোফাজ্জল ইসলাম ও রবিউল ইসলাম সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার পর সুস্থ হয়। পরে ফাহিমা ও আক্তারের পরকীয়া প্রেমের বিষয়টি প্রকাশ পায়।

এর পর শিশুদের বাবা সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে স্ত্রী ফাহিমা আক্তারসহ তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে একটি হত্যা মামলা করেন।

অনির্দিষ্টকালের কর্ম বিরতিতে শ্রীমঙ্গলের স্বাস্থ্যকর্মীরা
                                  

আমজাদ হোসেন বাচ্চু:
বাংলাদেশ হেলথ্ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন শ্রীমঙ্গল শাখার উদ্যোগে বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্ম বিরতি পালন করছেন শ্রীমঙ্গলের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য পরিদর্শক, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীরা।

আজ (২৯ নভেম্বর) ২০২০ খৃিষ্টাব্দ রবিবার সকাল ১০ টায় শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর সামনে বাংলাদেশ হেলথ্ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন শ্রীমঙ্গল শাখার উদ্যোগে ৪র্থ দিনের মতো কর্ম বিরতি পালন করা হয়।
 
১৯৯৮ সালে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা, ২০১৮ সালে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ঘোষণা, এবং গত ২০ ফেব্রুয়ারি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর লিখিত প্রতিশ্রতি অনুযায়ী স্বাস্থ্য পরিদর্শক-১০, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক-১২ এবং স্বাস্থ্য সহকারী-১৩তম গ্রেড প্রদান করে নিয়োগ বিধি সংশোধনসহ বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্ম বিরতি পালন করা হয়।
এ দাবি বাস্তবায়নে কাজ করছেন বাংলাদেশ হেলথ্ এ্যাসিস্ট্যান্ট  এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ স্বাস্থ্য বিভাগীয় মাঠ কর্মচারি এসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ হেলথ্ ইন্সপেক্টর সেক্টোরাল এসোসিয়েশন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা হেলথ্ এ্যাসিস্ট্যান্ট  এসোসিয়েশন এর এইচ-আই মাহবুবুর রহমান, শ্রীমঙ্গল উপজেলা হেলথ্ এ্যাসিস্ট্যান্ট  এসোসিয়েশন এর সহকারী স্বাস্থ্য অফিসার অমলেস তুরকাস্ত, আতাউর রহমান, বিনয়, কাদির, তপর, সাহিন সহ শ্রীমঙ্গল উপজেলার হেলথ্ এ্যাসিস্ট্যান্ট  এসোসিয়েশন এর কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা হেলথ্ এ্যাসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন এর এইচ-আই মাহবুবুর রহমান বলেন, আমাদের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে ১৯৯৮ সালে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা, ২০১৮ সালে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ঘোষণা এবং গত ২০ ফেব্রয়ারি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর লিখিত প্রতিশ্রতি অনুযায়ী স্বাস্থ্য  পরিদর্শক-১০, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক-১২ এবং স্বাস্থ্য সহকারী-১৩তম গ্রেড প্রদান করে নিয়োগ বিধি সংশোধনসহ বেতন বৈষম্য নিরসন করার কথা। কিন্তু আজ পর্যন্ত কোন প্রতিশ্রুতি আলোর মুখ দেখেনি।

এরই প্রেক্ষিতে, গত ২০ নভেম্বর সাংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আমাদের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ঘোষণা দিয়েছিলেন, ‘যদি আমাদের দাবি না মানা হয়, তাহলে ২৬ নভেম্বর থেকে আমরা কর্মবিরতিতে যাব। সেই ঘোষণার আলোকেই সারা দেশব্যাপী এই আন্দোলন চলছে, যতদিন পর্যন্ত আমাদের দাবি বাস্তবায়ন না হবে ততদিন পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবো।’

চুনারুঘাটে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা
                                  

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:
জেলার চুনারুঘাট পৌরশহরের হাতুন্ডা এলাকায় গলায় ফাঁস দিয়ে এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছেন। তাঁর নাম অমুল্য দেব নাথ (৫৭)। ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহ হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের মর্গে নেওয়া হয়েছে। অমুল্য দেবনাথ উপজেলার রানিকোর্ট গ্রামের মৃত অশ্বীনি দেব নাথের ছেলে।

তিনি বর্তমানে পৌরসভার হাতুন্ডা এলাকার শচিন্দ্র দেব নাথের বাসায় ভাড়ায় থাকেন। খবর পেয়ে চুনারুঘাট থানার এসআই সামিউল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ লাশ উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করেন।

এদিকে তার আত্মহত্যার ঘটনায় নানা গুঞ্জন সৃষ্টি হয়েছে। কেউ বলছেন আত্মহত্যা আর কেউ বলছেন হত্যা।

এসআই সামিউল ইসলাম- অমুল্য দেব নাথের পরিবারের বরাত দিয়ে জানান, আজ দুপুরে শচিন্দ্র দেব নাথের বাড়া বাসায় সবার অগোচরে ভীমের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আতœহত্যা করেন। পরে আশপাশের লোকজন এসে থানায় খবর দিলে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

খোঁজনিয়ে জানা যায়, অমুল্য দেব নাথ এরআগেও একাধিকবার  আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। স্থানীয়রা জানান, তার প্রথম স্ত্রী মারা যাওয়ার পর তিনি দ্বিতীয় সংসার করেন। এর পর তিনি যুবতী নারীকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর ওই সুন্দরি নারীর দিকে স্থানীয় কয়েক যুবকের কু- দৃষ্টি পড়ে তাই তিনি এলাকা থেকে তার স্ত্রীকে নিয়ে চুনারুঘাট পৌরশহরে ভাড়া বাসায় থাকেন। তবে ঘটনার দিন তিনি কি কারণে (অমুল্য দেবনাথ) আত্মহত্যা করেছেন এবিষয়ে জানা যায়নি।

এবিষয়ে চুনারুঘাট থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) চম্পক দাম বলেন, লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। পিএম রিপোর্ট পেলে মৃতুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

জকিগঞ্জে স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি
                                  

জকিগঞ্জ প্রতিনিধি:

নিয়োগবিধি সংশোধন করে বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে সারা দেশের ন্যায় জকিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য পরিদর্শক, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীরা গত ২৬ নভেম্বর থেকে কর্মবিরতি এবং অবস্থান কর্মসূচি রোববারও (২৯ নভেম্বর) পালন করছেন।

দাবি পূরণের প্রজ্ঞাপন না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মবিরতি অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ হেলথ্ অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা। উপরোক্ত কর্মসূচীতে অন্যান্যদের মধ্যে অংশ নেন সিলেট জেলা দাবি বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য পরিদর্শক সঞ্জয় চন্দ্র নাথ, উপজেলা দাবি বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক মো. নূরুল হক, যুগ্ম আহ্বায়ক মো. আশরাফুল হক, খালেদ আহমদ, সদস্য সচিব মো.মঈন উদ্দিন, যুগ্ম সদস্য সচিব আহমদ মনসুর আলম, আজাদ হোসেইন, কোষাধ্যক্ষ রাশ বিহারী বিশ্বাস, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রাজিয়া বেগম, সদস্য কবির আহমদ, মো. নজমুদ্দীন প্রমূখ।

অতিরিক্ত আঘাতেই রায়হানের মৃত্যু: ভিসেরা রিপোর্ট
                                  

সিলেট ব্যুরো:
সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের বন্দরবাজার ফাঁড়িতে নির্যাতনে মারা যাওয়া রায়হান আহমদের ভিসেরা রিপোর্টে অতিরিক্ত আঘাতেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এতে বিষক্রিয়ার প্রমাণ পাওয়া যায়নি। এমন তথ্য জানিয়েছেন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. শামসুল ইসলাম।

তিনি বলেন, রায়হানের প্রথম ময়না তদন্তের ভিসেরা রিপোর্ট ২৬ নভেম্বর চট্টগ্রাম থেকে আমাদের কাছে এসেছে। এতে বিষক্রিয়ার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। অতিরিক্ত আঘাতেই তার মৃত্যু হয়েছে। মামলার তদন্তকারী সংস্থা পিবিআই কর্মকর্তাদের কাছে এই রিপোর্ট হস্তান্তর হস্তান্তর করা হয়েছে।

পিবিআই সিলেটের পরিদর্শক মো. আওলাদ হোসেন জানান, প্রথম ময়না তদন্তের ভিসেরা রিপোর্টটি আমাদের হাতে এসে পৌঁছেছে। রিপোর্ট অনুযায়ী- অতিরিক্ত আঘাতেই রায়হানের মৃত্যু হয়েছে।
 
উল্লেখ্য, গত ১১ অক্টোবর সকালে মারা যান নগরীর আখালিয়ার বাসিন্দা রায়হান আহমদ। আগের রাতে বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ধরে এনে নির্যাতন চালিয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। ওই রাতেই হেফাজতে মৃত্যু (নিবারণ) আইনে মামলা করেন রায়হানের স্ত্রী তামান্না আক্তার। ১১ অক্টোবর ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রায়হানের প্রথম ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়। ময়না তদন্ত শেষে রায়হানের শরীরে শতাধিক আঘাতের চিহ্ন পাওয়ার কথা জানিয়েছিলেন সংশ্লিস্ট চিকিৎসক। ভিসেরা রিপোর্টেও তার সত্যতা পাওয়া গেলো। তবে হেফাজতে মৃত্যু আইন অনুযায়ী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ময়নাতদন্ত করার নির্দেশনা থকলেও প্রথমদফায় তা মানা হয়নি। পরে ১৫ অক্টোবর কবর থেকে লাশ উত্তলন করে ২য় দফায় আবারও রায়হানের ময়না তদন্ত করা হয়।

হত্যার অভিযোগে স্ত্রীর মামলার পর মহানগর পুলিশের একটি অনুসন্ধান কমিটি তদন্ত করে রায়হানকে নির্যাতনের সত্যতা পায়। এই ফাঁড়ির ইনচার্জের দায়িত্বে থাকা উপপরিদর্শক (এসআই) আকবর হোসেন ভূঁঞাসহ চারজনকে ১২ অক্টোবর সাময়িক বরখাস্ত ও তিনজনকে প্রত্যাহার করা হয়। ১৩ অক্টোবর পুলিশি হেফাজত থেকে পালিয়ে যান বন্দরবাজার থানার ইনচার্জের দায়িত্বে থাকা আকবর হোসেন ভূইয়া।

গত ৯ নভেম্বর সিলেটের কানাইঘাট সীমান্ত থেকে আকবর হোসেন ভূইয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়। ভারতে পালানোর সময় তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে পুলিশ দাবি করে। যদিও সীমান্তবর্তী এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, আকবরকে কানাইঘাটের ডোনা সীমান্তের ওপারে খাসিয়া পল্লির বাসিন্দারা আটক করে বাংলাদেশে পাঠালে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। তিনি পালিয়ে ভারত চলে গিয়েছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

আকবর পালানোর পর থেকেই তাকে পালাতে কারা সহযোগিতা করেছেন তাদের চিহ্নিত করার দাবি ওঠে। ধরা পরার পর আকবরও জনতার কাছে বলেছেন, দুই সিনিয়র কর্মকর্তার পরামর্শে তিনি পালিয়ে যান। তাকে পালাতে সহযোগিতার অভিযোগে ইতোমধ্যে তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্থ করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারের পর আকবরকে ৭ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন। রিমান্ড শেষে ১৭ নভেম্বর আকবরকে আদালতে হাজির করা হলেও তিনি স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দেন। এর আগে এই ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য এএসআই আশেক এলাহি, কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাস এবং হারুনুর রশীদকে গ্রেপ্তার করে রিমান্ড নেয় পিবিআই। তবে রিমান্ড শেষে তারাও আদালতে স্বীকারোক্তিমলক জবানবন্দি দেননি।

চুনারুঘাটে ধর্ষণের চেষ্টা মামলায় যুবলীগ নেতা কারাগারে
                                  

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:
জেলার চুনারুঘাটে ধর্ষণের চেষ্টা মামলায় রুবেল মিয়া (৩৭) নামে এক যুবলীগ নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। রুবেল মিয়া উপজেলার বাসুল্লা গ্রামের মৃত আ: জব্বারে ছেলে। তিনি ওয়ার্র্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক।


মামলার বিবরণে জানা যায়, ওই এলাকার এক নারী তার স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে দুইটি সন্তান নিয়ে পিতার বাড়িতে বসবাস করছেন। স্বামী পরিত্যক্ত নারী ও রুবেলের বাড়ি পাশাপাশি হওয়ায় প্রায় সময় রুবেল মিয়া ওই নারীকে ইশারা, কু- ইঙ্গিত করতেন।

এ নিয়ে স্থানীয় মুরুব্বিয়ানদের জানালে রুবেল মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে গত ৩০ জুন রাতে ওই নারী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের পিছন দিকে বের হওয়া মাত্রই গামছা দিয়ে মুখ বেধেঁ তাকে জোড়পূর্বক ধর্ষণ চেষ্টা চালায়। তখন ওই নারী শোরচিৎকারে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে মারপিট করে পালিয়ে যায়। এ সময় প্রতিবেশীরা ওই মহিলাকে চুনারুঘাট হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় ওই নারী গত ২৭ জুলাই নারীও শিশু ট্রাইব্যুনাল -২ আদালতে মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং নারী শিশু ১১০/২০। মালাটি আদালত ওসি ডিবিকে তদন্তের নির্দেশ দেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আজাদ হোসেন ঘটনাটি সত্য মর্মে প্রতিবেদন দাখিল করেন। পরবর্তীতে গত (২৬ নভেম্বর) হবিগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক জিয়া উদ্দিন মাহমুদ এর আদালতে রুবেল মিয়া সেচ্ছায় হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে বিচারক তার জামিন আবেদনটি না মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বাদী পক্ষের আইনজীবী আহাদ আলী মীর।

সিলেটে চাঁদাবাজি ও মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় সাংবাদিক ডালিমের বাসায় হামলা: হামলাকারীদের ধরতে ৫ দিনের আলটিমেটাম
                                  

সিলেট ব্যুরো:
শহরতলীর শাহপরান এখাকায় প্রায় ৩ মাস থেকে নতুন বাড়ি নির্মাণ করে সপরিবারে বসবাস করছেন সাংবাদিক ডালিম। তিনি স্থানীয় দৈনিক সিলেটের দিনরাত পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক।  গত ২৬ নভেম্বর রাত আটটার দিকে তার বাসায় হামলা করে স্থানীয় কিছু সংখ্যক সন্ত্রাসী। এদের বিরুদ্ধে মাদক ও চাঁদাবাজির অভিযোগ রয়েছে বলে জানা যায়। মূলত চাঁদাবাজি ও মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ার জন্যই সাংবাদিক ডালিমের বাসায় হামলার ঘটনা ঘটে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।

স্থানীয় লোকজনের সাথে আলাপকালে জানা যায়, সাংবাদিক ডালিমের বাসার কাছের তিনটি বাসায় দীর্ঘ দিন ধরে মাদক ব্যবসা চলছে। মাদকের সাথে সংশ্লিষ্টরা ভয়ানক হওয়ায়  ভয়ে শক্ত প্রতিবাদ কেউ কখনো করেনি। সম্প্রতি ওই এলাকার মসজিদের মুসল্লি বৈঠক করে  মাদক আস্তানার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেন।

এ নিয়ে দফায় দফায় বৈঠকও হয়। সর্বশেষ বৈঠকে সাংবাদিক ডালিমও অংশ গ্রহণ করেন। ওই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় মাদক কারবারিদের বিরুদ্ধে লিখিতভাবে পুলিশকে অবহিত করা হবে। পুলিশের সাথে সমন্বয়ের দায়িত্ব দেয়া হয় সাংবাদিক ডালিমসহ কয়েকজনকে। দায়িত্ব পেয়েই গত ১১ নভেম্বর সাংবাদিক ডালিম পুলিশ বরাবরে একটি আবেদন করেন। ওই আবেদনে শাহপরানের বাসিন্দারা ও খাদিম চৌমুহনী বাজারের ব্যবসায়ীরা স্বাক্ষর করেন। বিষয়টি জেনে পুলিশে আবেদন না দেয়ার জন্য মাদক কারবারিরা নানাভাবে হুমকি দেয়। কিন্তু সাংবাদিক ডালিম কোন কিছু কর্ণপাত না করেই পুলিশে আবেদন দেন। আবেদন পাওয়ার পর ওই এলাকায় পুলিশি অভিযান জোরদার করা হয়। তিন দিন আগে ওই এলাকা থেকে পুলিশ ইয়াবাসহ ২ জনকে আটক করেন।

গত বৃহস্পতিবার রাত ৭ টার দিকে র‌্যাব-৯ অভিযান চালিয়ে চোলাই মদসহ কানাই নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে। র‌্যাব সদস্যরা কানাইকে নিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগের পরপরই সাংবাদিক ডালিমের বাসায় হামলা চালায় মাদক ব্যবসায়ীরা। সাংবাদিক ডালিম জানান- মাদক সন্ত্রাসী সাক্ষাত, রুনি, শাওন, শাকিল, নীতি ও শ্যামলীর নেতৃত্বে তার বাসায় হামলা চালিয়ে আসবাবপত্র ভাঙচুর করা হয়। এসময় তার বাসার  সিসি ক্যামেরাসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র লুটপাট করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। যাওয়ার সময় সন্ত্রাসীরা সাংবাদিক ডালিমের শিশু সন্তানদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যায়।

ঘটনার পরপরই রাতে সাংবাদিক মুজিবুর রহমান ডালিম বাদি হয়ে শাহপরান থানায় মামলা করেন। মামলায় শাহপরান উপশহর এলাকার মাদকের হাটের নিয়ন্ত্রক সুগা রানী তাতীসহ ৭ জনকে আসামি করা হয়। মামলা নং-২৬।

মামলার অপর আসামিরা হচ্ছে- শাহপরান উপশহরের বাসিন্দা মৃত সোনা তাতীর ছেলে সাক্ষ্যাৎ তাতী, শাকিল মিয়া, কানাই তাতীর ছেলে শাওন তাতী, শাকিল মিয়ার স্ত্রী মোছাঃ রীনা বেগম ওরফে রুনী তাতী, কানাই তাতীর মেয়ে শ্যামলী বসাত ও খাদিম চা বাগান এলাকার কালা ময়না।

মামলার এজাহারে সাংবাদিক ডালিম উল্লেখ করেছেন- তিনি সম্প্রতি সময়ে শাহপরান এলাকার শাহপরান উশপহরের রোড নং-৩/এ (৪) নং বাসা ক্রয় করে বসবাস করছেন। গত তিন মাস ধরে তিনি ওই বাসায় নির্মাণ কাজ অব্যাহত রেখেছেন। গত সোমবার বাসায় কাজ করার সময় আসামি সাক্ষাৎ, শাকিল, শাওন ও রুনি এসে তার কাছে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পূর্বে তাদের কথা মতো চাঁদা না দেয়ায় রাতে আসামি সুগা রানী তাতীর নেতৃত্বে সন্ত্রাসী ও মাদকসেবীরা তার বাসায় হামলা চালায়। আসামিরা বাসার গেইট ভেঙ্গে জোরপূর্বক ভেতরে প্রবেশ করে। তারা বন্ধ করা দরজাও ভেঙ্গে ফেলে। ড্রয়িং রুমের জানালার থাই, ঘরের বাইরে থাকা সিসিটিভি ক্যামেরা ভাংচুর করে। তারা এলোপাতাড়ি ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। আসামিরা ঘরের ভেতরে রাখা ইলেকট্রিক সামগ্রী, দুটি সিসি ক্যামেরা নিয়ে যায়।

এদিকে সাংবাদিক ডালিমের বাসায় হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের প্রতিবাদে সিলেট শহরতলির শাহপরান উপশহরসহ আশপাশ এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। ক্ষোভ বিরাজ করছে সাংবাদিক সমাজে। বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ তার বাসায় গিয়ে সহমর্মিতা জানাচ্ছেন। ন্যাক্কারজনক এ ঘটনার জন্যে তীব্র নিন্দা জানিয়ে মাদক কারবারিদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানাচ্ছেন সবাই। গতকাল শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর শাহপরান খাদিম চৌমহনী এলাকায় সর্বস্তরের নাগরিক মানববন্ধন করেছেন।

ওইদিন রাতে আবার শাহপরান উপশহরে এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়।  এতে উপস্থিত ছিলেন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি, সিলেট জেলা সভাপতি ও হযরত শাহজালাল(রহ:) কাছিমুল উলুম মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহিব্বুল হক, চৌমুহনী বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, শাহপরান উপশহরের বাসিন্দা সোহেল আহমদ, মোহাম্মদ আলী খোকন, মিটু আহমদ, আবু জাফর জাহাঙ্গির, জিলুক আহমদ, কালা মিয়া, জলিল মিয়া, মুসলেহ উদ্দিন, রকিবুল ইসলাম লস্কর, সিরাজুল ইসলাম, আব্দুল মুনিম, আব্দুল কুদ্দুস, কামাল মিয়া, মাসুক আহমদ, আবুল কাসেম, আব্দুল বাতেন চৌধুরী নাদের, ফারুক আহমদ, আল-আমীন, সালেহ আহমদ, হেলাল মিয়া, আব্দুস সামাদ ও দেলোয়ার হোসেন  প্রমুখ। জরুরী সভায় যোগদেন সিলেট জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতি কুনু মিয়া, সমাজ সেবী হুমায়ুন কবির চৌধুরী, দক্ষিণ সুরমা জাতীয় পার্র্টির সদস্য সচিব তাজ উদ্দিন আহমদ এপলু, তেতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ ফারুক মিয়া প্রমুখ। সভায় উপস্থিত বিক্ষুব্ধ জনতা সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে প্রশাসনকে ৫ দিনের আল্টিমেটাম দেন। বেধে দেয়া সময়ের মধ্যে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার না করলে সিলেট-তামাবিল রাস্তা অবরোধ সহ কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করবে বলে জানা যায়।

খেলোয়াড়দের পেঠালেন ইউএনও, অত:পর জনরোষে পালালেন
                                  

সিলেট ব্যুরো:
সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শফি উল্লাহ তার প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়কে মারধর করে জনরোষে পড়ে মাঠ ছেড়ে পালিয়ে যান। ঘটনাটি ঘটেছে আজ শুক্রবার বিকেলে দিরাই সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয় মাঠে।


জানা যায়, দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তার ছেলে রাফসানের নামানুসারে ‘রাফসান একাডেমী’র উদ্যোগে ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করেন। টুর্নামেন্টের প্রথম রাউন্ডের খেলায় আজ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার টিম ‘উপজেলা প্রশাসন’ দলের প্রতিপক্ষ ছিল ‘উপজেলা বিদ্যুৎ প্রকৌশলী দল’। খেলার শুরু থেকে উভয় টিমের মধ্যে বিবাদ চলছিল। এক পর্যায়ে একটি ফাউলকে কেন্দ্র করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চরম উত্তেজিত হয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড়কে তিনি মারধর করেন।

খেলা ফেসবুক লাইভে প্রচার করছিলেন ‘উপজেলা বিদ্যুৎ প্রকৌশলী দল’ এর এক সমর্থক। এতে ইউএনও’র মারপিটের ভিডিও প্রচার হয়ে যাচ্ছে দেখে ওই দর্শকের উপর চড়াও হন ইউএনও। তাকে মারধর করেন এবং মোবাইল ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন।

ইউএনও’র ঔদত্যপূর্ণ আচরণে ক্ষিপ্ত হয়ে পড়েন উপস্থিত দর্শকরা। এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত দর্শকরা ইউএনও’র আচরণের জোর প্রতিবাদ জানান। অবস্থা বেগতিক দেখে ইউএনও দ্রুত মাঠ ত্যাগ করেন।


এব্যাপারে দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সফি উল্লাহকে প্রশ্ন করা হলে, বিষয়টি মিটমাট হয়ে গেছে বলে জানান তিনি।

মাস্ক না পরায় কানাইঘাটে ১০ জনকে জরিমানা
                                  

কানাইঘাট প্রতিনিধি:
মহামারী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণ ও নিজেকে রক্ষার জন্য মাস্ক পরা সরকারীভাবে বাধ্যতামূলক করা হলেও সিলেটের কানাইঘাটে স্বাস্থ্যবিধি অমান্যের মহোৎসব চলছে। এবার সরকারী নির্দেশ বাস্তবায়নে কানাইঘাট উপজেলা প্রশাসন কঠোরতা অবলম্বন করেছে। এরই অংশ হিসেবে মাস্ক না পরার কারণে আজ শুক্রবার ১০ জনকে জরিমানা করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের কারেণ সৃষ্ট উদ্ভূত পরিস্থিতিতে গত কয়েকদিন থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জি উপজেলাবাসীকে মাস্ক পরতে উদ্বুদ্ধ করে আসছিলেন। তারপরও মাস্ক  না পরায় আজ শুক্রবার বিকেলে মোবাইল কোর্টে পরিচালনা করে ১০ জনকে এক হাজার পাঁচশত টাকা জরিমানা প্রদান করেন। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবিদা সুলতানা ১০ জনের কাছ থেকে ১৫’শ টাকা জরিমানা করেন।

এ সময় আবিদা সুলতানা স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, শীতের শুরুতে করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় সরকারের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেই আলোকে এখন থেকে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে প্রশাসন কঠোর থাকবে।

প্রসঙ্গত যে গত ১ সপ্তাহে কানাইঘাটে করোনায় ৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

সিলেটে বাড়ছে শীতের তীব্রতা
                                  

সিলেট ব্যুরো : দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের জনপদ সিলেটে  বাড়ছে শীতের তীব্রতা। গত কয়েকদিন ধরে কমতে শুরু করেছে তাপমাত্রা। দিনের বেলায় স্বাভাবিক থাকলেও রাতে তাপমাত্রা কমার সাথে পড়তে থাকে ঘন কুয়াশাও।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় সর্বনিম্ন ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। আর একই সময়ে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ২৭ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ২০ নভেম্বর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৮ দশমিক ৫ আর ২৩ নভেম্বর তা কমে গিয়ে হয় ১৪ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামী কয়েকদিনে রাতে তাপমাত্রা আরও কমার আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

সিলেট নগরীতে বেশি ঠাণ্ডা না পড়লেও গ্রাম এলাকায় শীতে কাঁপছে মানুষজন। জেলার জৈন্তাপুর, গোয়াইনঘাট, কানাইঘাট, জকিগঞ্জ উপজেলায় খুব বেশি শীত অনুভুত হচ্ছে।

সিলেট আবহাওয়া অফিসের সিনিয়র আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরী বলেন, ডিসেম্বরের শুরুতে তাপমাত্রা আরও কমে আসবে। তখনই পুরোপুরিভাবে শীত পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

স্বাধীন বাংলা/এআর


   Page 1 of 60
     সিলেট
রাজৈর পৌরসভা নির্বাচন: আ.লীগ প্রার্থীর নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা
.............................................................................................
মাধবপুরে প্রাইভেটকারে চোরাই গরু: ২ যুবক আটক
.............................................................................................
মাদক ব্যবসায়ী ও চাঁদাবাজদের গণপ্রতিরোধের ঘোষণা খাদিমনগর এলাকাবাসীর
.............................................................................................
সুনামগঞ্জের ছাতকে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হেলাল হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন
.............................................................................................
মৌলভীবাজারে ছোট ভাইকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় করল বড় ভাই
.............................................................................................
সাংবাদিক ডালিমের বাসায় হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাব
.............................................................................................
হবিগঞ্জে মায়ের পরকিয়ার বলি ৩ শিশু সন্তান
.............................................................................................
অনির্দিষ্টকালের কর্ম বিরতিতে শ্রীমঙ্গলের স্বাস্থ্যকর্মীরা
.............................................................................................
চুনারুঘাটে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা
.............................................................................................
জকিগঞ্জে স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি
.............................................................................................
অতিরিক্ত আঘাতেই রায়হানের মৃত্যু: ভিসেরা রিপোর্ট
.............................................................................................
চুনারুঘাটে ধর্ষণের চেষ্টা মামলায় যুবলীগ নেতা কারাগারে
.............................................................................................
সিলেটে চাঁদাবাজি ও মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় সাংবাদিক ডালিমের বাসায় হামলা: হামলাকারীদের ধরতে ৫ দিনের আলটিমেটাম
.............................................................................................
খেলোয়াড়দের পেঠালেন ইউএনও, অত:পর জনরোষে পালালেন
.............................................................................................
মাস্ক না পরায় কানাইঘাটে ১০ জনকে জরিমানা
.............................................................................................
সিলেটে বাড়ছে শীতের তীব্রতা
.............................................................................................
বীর মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিনকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন
.............................................................................................
কানাইঘাটে ২৩ বোতল ভারতীয় মদ সহ গাড়ী আটক
.............................................................................................
সৌদিতে লরি চাপায় প্রাণ হারালেন বাংলাদেশি যুবক
.............................................................................................
চোরাই চায়ে বাজার সয়লাব, হুমকির মুখে দেশীয় চা শিল্প
.............................................................................................
সিলেটে রায়হান হত্যা : পুলিশ ফাঁড়ির সামনে বিক্ষোভ
.............................................................................................
কানাইঘাটে ৩১টি মন্ডপে উদযাপিত হবে দুর্গাপূজা
.............................................................................................
মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে মিছবাউর রহমান বিজয়ী
.............................................................................................
সেই এসআই আকবর গ্রেফতার নিয়ে প্রশাসনের ধুম্রজাল
.............................................................................................
সিলেটের সেই এসআই আকবরকে ধরিয়ে দিলে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার
.............................................................................................
সাংবাদিক আজিজের মৃত্যুতে কানাইঘাট প্রেসক্লাবের শোক
.............................................................................................
শ্রীমঙ্গলে ধর্ষণবিরোধী পুলিশ-জনতা সমাবেশ ও মানববন্ধন
.............................................................................................
মিথ্যা মামলা থেকে খালাস পেলেন শ্রীমঙ্গলের চার সাংবাদিক
.............................................................................................
সিলেটের লোভাছড়া: অপার সম্ভাবনাময় পর্যটন স্পট, তবে...
.............................................................................................
কানাইঘাটে শ্রমিকলীগের ৫১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন
.............................................................................................
সিলেটের সেই এসআই আকবর লাপাত্তা
.............................................................................................
সুনামগঞ্জে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১
.............................................................................................
কানাইঘাট উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা
.............................................................................................
মৌলভীবাজারে ইয়াবাসহ আটক ৩
.............................................................................................
সিলেটে দুর্গোৎসবের প্রস্তুতি, নিরাপত্তা জোরদার
.............................................................................................
কানাইঘাটের চতুলবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, কোটি টাকার ক্ষতি
.............................................................................................
হবিগঞ্জে আটকে রেখে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ, আটক ২
.............................................................................................
সিলেটে সাংবাদিক আজিজ আহমদ সেলিমের সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল
.............................................................................................
মৌলভীবাজারে এসপি’র কাছে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর অভিযোগ
.............................................................................................
সিলেটে সিমেন্ট বোঝাই ট্রাকসহ ৩ অপহরণকারী আটক
.............................................................................................
সিলেট নগরীতে বলৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক আটক
.............................................................................................
মৌলভীবাজারে বিশ্ব বসতি দিবস পালিত
.............................................................................................
সিলেট-লন্ডন রুটে সরাসরি চালু হলো বিমান ফ্লাইট
.............................................................................................
এবার সিলেট নগরীতে কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগ
.............................................................................................
সুনামগঞ্জে বালু নিয়ে চলছে হরিলুট, রাজস্ব বঞ্চিত সরকার
.............................................................................................
নবগঠিত কানাইঘাট উপজেলা বিএনপির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
কানাইঘাটে নতুন ইউএনও হিসেবে আসছেন সুমন্ত ব্যানার্জি
.............................................................................................
মৌলভীবাজারে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালিত
.............................................................................................
এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ : ৫ দিনের রিমান্ডে মাহফুজ
.............................................................................................
এমসি কলেজে গণধর্ষণ: ২নং আসামী তারেক সুনামগঞ্জে গ্রেফতার
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT