বৃহস্পতিবার, ৬ মে 2021 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   অর্থ-বাণিজ্য -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
টিকা কিনতে বাংলাদেশকে ৮ হাজার কোটি টাকা দেবে এডিবি

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট :
করোনাভাইরাসের টিকা কেনার জন্য বাংলাদেশকে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) ৯৪ কোটি ডলার দেবে। যা দেশীয় মুদ্রায় প্রায় আট হাজার কোটি টাকা। এই অর্থ পাওয়া নিয়ে এডিবির সঙ্গে সরকারের আলোচনা চলছে। এডিবি ডেভেলপমেন্ট আউটলুক ২০২১ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।
 
গতকাল বুধবার সংস্থাটির ঢাকা কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ ও কর্মকর্তা সুন চাঙ হং।
 
টিকা কেনা ও বাজেট সহায়তা মিলিয়ে বাংলাদেশকে এডিবির প্রায় ১১৫ কোটি ডলার দেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। সব মিলিয়ে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) কাছ থেকে প্রায় ২০০ কোটি ডলার বা ১৭ হাজার কোটি টাকা পেতে পারে বাংলাদেশ।
 
টিকা প্রদান কর্মসূচির মাধ্যমে কোভিড–১৯–এর দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দেওয়া সম্ভব হবে বলে মনে করে এডিবি। এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে মনমোহন প্রকাশ বলেন, অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকার জন্য শুধু ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের ওপর নির্ভরশীল না হয়ে বিকল্প উৎস খোঁজা উচিত। কোরিয়া ও থাইল্যান্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা বানায়। এ ছাড়া স্পুতনিক–ভি ও সিনোভ্যাক্স নিয়েও আলোচনা এগিয়ে যাচ্ছে। কারণ, এই মুহূর্তে মূল চ্যালেঞ্জ হলো টিকা সরবরাহ।

টিকা কিনতে বাংলাদেশকে ৮ হাজার কোটি টাকা দেবে এডিবি
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট :
করোনাভাইরাসের টিকা কেনার জন্য বাংলাদেশকে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) ৯৪ কোটি ডলার দেবে। যা দেশীয় মুদ্রায় প্রায় আট হাজার কোটি টাকা। এই অর্থ পাওয়া নিয়ে এডিবির সঙ্গে সরকারের আলোচনা চলছে। এডিবি ডেভেলপমেন্ট আউটলুক ২০২১ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।
 
গতকাল বুধবার সংস্থাটির ঢাকা কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ ও কর্মকর্তা সুন চাঙ হং।
 
টিকা কেনা ও বাজেট সহায়তা মিলিয়ে বাংলাদেশকে এডিবির প্রায় ১১৫ কোটি ডলার দেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। সব মিলিয়ে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) কাছ থেকে প্রায় ২০০ কোটি ডলার বা ১৭ হাজার কোটি টাকা পেতে পারে বাংলাদেশ।
 
টিকা প্রদান কর্মসূচির মাধ্যমে কোভিড–১৯–এর দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দেওয়া সম্ভব হবে বলে মনে করে এডিবি। এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে মনমোহন প্রকাশ বলেন, অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকার জন্য শুধু ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের ওপর নির্ভরশীল না হয়ে বিকল্প উৎস খোঁজা উচিত। কোরিয়া ও থাইল্যান্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা বানায়। এ ছাড়া স্পুতনিক–ভি ও সিনোভ্যাক্স নিয়েও আলোচনা এগিয়ে যাচ্ছে। কারণ, এই মুহূর্তে মূল চ্যালেঞ্জ হলো টিকা সরবরাহ।

বাগেরহাটে চিংড়ি শিল্পে বিপর্যয়, দেখা দিয়েছে পোনা সংকট
                                  

বাগেরহাট প্রতিনিধি
দেশের মধ্যে সব থেকে বেশি চিংড়ি উৎপাদনের জেলা বাগেরহাটে প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের প্রভাবে চিংড়ি শিল্পে দেখা দিয়েছে বিপর্যয়। রপ্তানি বন্ধ থাকার কারনে চাষিরা বঞ্চিত হচ্ছে ন্যায্য মূল্য থেকে। সেই সাথে মৌসুমের শুরুতে ঘের পরিচর্যা শেষ করলেও চাহিদা অনুযায়ী পোনা ছাড়তে না পাড়ায় গত বছরের মত এবারও আর্থিক ক্ষতির মুখে পরেছেন জেলার চাষিরা। এছাড়া গত ১৪ এপ্রিল থেকে সারাদেশে কঠোর লকডাউন শুরু হওয়ায় চিংড়ি পোনা পরিবহন ব্যবস্থা অচল থাকায় চিংড়ি পোনা সংকট দেখা দিয়েছে। আর এ কারনেই গলদা-বাগদার পোনার দাম বেড়ে গেছে কয়েকগুন। অনেকে বেশি দামে পোনা কিনতে বাধ্য হচ্ছে। এমন অবস্থায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন চিংড়ি শিল্পের সাথে জড়িত লক্ষাধিক মানুষ।

সরোজমিনে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সবচেয়ে বড় চিংড়ি পোনার হাট বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার ফয়লাহাটে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিদিন কোটি টাকার গলদা-বাগদা বেচাকেনা চলা এই হাটে এখন আর নেই আগের মত কর্মব্যাস্ততা। প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের প্রভাবে পোনা পরিবহনে সংকট দেখা দেয়ায় শুন্য হাড়ি নিয়ে বসে থাকতে দেখা গেছে এই আড়তের সাথে জড়িত শ্রমিকদের।

আড়তদার ও চিংড়ি পোনা গননাকারি শ্রমিকরা জানান, গত ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া কঠোর লকডাউনের কারনে অনেকটা বেকার হয়ে পরেছে এই হাটের সাথে জড়িত ব্যবসায়ী ও শ্রমিকসহ প্রায় ৪থেকে ৫ হাজার মানুষ। অন্যদিকে এমন অবস্থা চলতে থাকলে মৌসুমের শুরুতে চাহিদা অনুযায়ী পোনা সরবারাহ করতে না পারায় জেলার চিংড়ি চাষিরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে দাবী করছেন আড়তদারা।

ফয়লাহাটের আড়তদার মোঃ মনিরুজ্জামান বলেন, চট্রোগ্রাম, ফেনি, নয়োখালী ও কক্সবাজার থেকে বাগদা ও গলদা পোনা আসে এই হাটে। সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত এই হাটে প্রায় কোটি টাকার গলদা-বাগদার পোনা বেচাকেনা হয়। তবে প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের প্রভাবে বিপর্যয় দেখা দিয়েছে হাটে। আগের মত চিংড়ি পোনার সরবরাহ না থাকায় চাষিদের চাহিদা অনুযায়ী পোনা সরবারাহ করা যাচ্ছে না। এ কারনে জেলার ৯৫ শতাংশ চাষি ক্ষতিগ্রস্ত হবে। লকডাউনের কারনে হাটে পোনা সরবরাহ কমে যাওয়ায় কারনে এই হাটের সাথে জড়িত বিভিন্ন জেলার ব্যবসায়ী ও শ্রমিকসহ প্রায় ৪ থেকে ৫ হাজার মানুষ অসহায় দিনযাপন করছে।

হাটে চিংড়ি পোনা গননাকারি তরিকুল ইসলাম বলেন, ৪ থেকে ৫ হাজার লোক পুরোপুরি জীবিকা নির্বাহ করে এই ফয়লা বাজার চিংড়ি পোনার উপর। করোনা ভাইরাসের ফলে লকডাউনের কারনে ফয়লা বাজারে মাছ আসতে পারছে না। এমন অবস্থায় আমাদের ভিক্ষার থালা নিয়ে বসতে হবে। আমি লেখাপড়া করি কিন্তু আমার ফ্যামিলিকে সাপর্ট দেয়ার জন্য আজকে আমাকে বাজারে আসতে হচ্ছে। “একহাজার মাছ গুনলি আমি বিষটা টাকা পাই। এই বিষটি টাকার জন্য আজকে আমাকে বাজারে আসতে হচ্ছে। এরপরও যদি লকডাউন দিয়ে যদি এটা বন্ধ করে দেয়া হয় তাহলে এই বিষটা টাকা কে আমাকে দেবে। আমাকে কিন্তু কেউ খাওয়াবে-পরাবে না আমার ফ্যামিলি সাপর্ট দেয়ার জন্য আমাকে আসতে হচ্ছে”।
 
চিংড়ি পোনা গননাকারি হাকিম শেখ বলেন, “পোনা-পাতি আসতিছে না, তালি আমরা কি করে বাঁচবো। বাড়ী ছেলে-মেয়ে আছে মা আছে। আমাদের তো না খেয়ে মরার পথ।
বাগেরহাট সদর উপজেলার রাধাভল্লব এলাকার চিংড়ি চাষি আতিয়ার গাজী বলেন, “আমরা ঘের রেডি করে রাইছি। মাছ ছারতি পারতিছিনা করোনার কারনে। মাছ পাওয়া যাচ্ছে না, কম কম আসে, দাম বেশি। আগে ছিলো বাগদা হাজার ৩শ টাকা এহন ৬শ টাকা ডবল দাম। নদীর বাগদা ছিলো ৭শ টাকা এহন ১২-১৪শ টাকা তাও পাওয়া যাচ্ছে না। রেনু (গলদা) হালকা-পাতলা পাওয়া যাচ্ছে ৩ হাজার ৩২শ টাকা করে হাজার”।

বাগেরহাট মৎস্য অধিদপ্তরের হিসাব মতে বাগেরহাট জেলায় চিংড়ি চাষী রয়েছে ৭৯ হাজার ৭৩৬ জন। আর ৭১ হাজার ৮৮৬ হেক্টর জমিতে ৮১ হাজার ৩৫৮টি বাগদা ও গলদা চিংড়ির ঘের রয়েছে। এসব ঘেরে ২০১৯-২০ অর্থ বছরে ১৭ হাজার ৪৮৭ মেট্রিকটন বাগদা ও ১৬ হাজার ৩৩৭ মেট্রিকটন গলদা চিংড়ি উৎপাদন হয়েছে।

বাগেরহাট জেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস,এম রাসেল বলেন, করোনা প্রভাবে বর্তমানে রপ্তানি বন্ধ থাকায় বর্তমানে মাছের দাম অনেকটা কমে গেছে। এর ফলে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে জেলার প্রান্তিক চাষিরা। রপ্তানি বন্ধ থাকায় গত এক বছরে বাগেরহাটের চিংড়ি শিল্পে ক্ষতির পরিমান ১শ ৪০ কোটি টাকা আর সব মিলিয়ে এই ক্ষতির পরিমান হবে প্রায় ২৫০ কোটি টাকা। এরই মধ্যে বাজারে পোনা সংকটও দেখা দিয়েছে। বাগেরহাটে ৭৭ কোটি বাগদা ও ২১ কোটি গলদা পোনার চাহিদা রয়েছে। করোনার প্রভাবে লকডাউন অবস্থা চলতে থাকলে কোনোভাবেই এই পরিমান পোনার চাহিদা মেটানো সম্ভব নয়। এমন অবস্থায় চলতে থাকলে সময়ের সাথে সাথে আর্থিক ক্ষতির পরিমান আরও বাড়বে। তবে চাষিদের ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সরকার বেশ কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। এর অংশ হিসাবে জেলার ২৮ হাজার মৎস্য চাষিকে আর্থিক প্রণোদনা দেয়ার পাশাপাশি সহজ শর্তে চাষিদের জন্য ব্যাংক থেকে ঋনের সুবিধা দেয়া হচ্ছে।

কাল চট্টগ্রাম বন্দরে ১৩৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, চেয়ারম্যানের শুভেচ্ছা
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
আগামীকাল (২৫ এপ্রিল) চট্টগ্রাম বন্দরের ১৩৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। এ উপলক্ষে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম. শাহজাহান, এনপিপি, বিসিজিএমএস, এনডিসি, পিএসসি, বিএন বন্দর ব্যবহারকারী, কর্মকর্তা-কর্মচারী- শ্রমিকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জ্ঞাপন করেন। গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এ শুভেচ্ছা জানান।

প্রাণঘাতী করোনা পরিস্থিতির কারণে এবছর চট্টগ্রাম বন্দরের ১৩৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনাড়ম্বরভাবে কোন আনুষ্ঠানিকতা হচ্ছে না।

বিবৃতিতে বলা হয়, চট্টগ্রাম বন্দর বাংলাদেশের আমদানী ও রপ্তানীর ৯২ শতাংশেরও অধিক পণ্য এবং ৯৮ শতাংশ কনটেইনারজাত পণ্য হ্যান্ডলিং করে থাকে। ২০২০ সনে বিশ্বব্যাপী কোভিড পরিস্থিতিতেও  এই বন্দর ২৮ লক্ষাধিক কন্টেইনার হ্যান্ডেল করেছে। ২০০৯ সালে প্রথম বারের মত চট্টগ্রাম বন্দর ১০০টি কন্টেইনার পোর্টের তালিকায়  ৯৮তম অবস্থান নিয়ে নিজের স্বীকৃতি অর্জন করে। মাত্র ১১ বছরে ৪০ ধাপ এগিয়ে ২০২০ সাথে চট্টগ্রাম বন্দর ৫৮তম অবস্থানে উন্নীত হয়। চট্টগ্রাম বন্দরের এই অর্জন বর্তমান সরকারের চলমান অর্থনৈতিক উন্নয়নেরই প্রতিফলন। জাতীয় অর্থনীতিতে চট্টগ্রাম বন্দরের গুরুত্ব অপরিসীম এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত রূপকল্প ২০২১ এবং রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নে চট্টগ্রাম বন্দর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্ম শতবর্ষে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন স্বল্প-মধ্যম ও দীর্ঘ মেয়াদী প্রকল্প বাস্তবায়নে বন্দর কর্তৃপক্ষ বদ্ধপরিকর। তাছাড়া একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বন্দরের আধুনিকায়ন, যন্ত্রপাতি সংযোজন এবং সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বে-টার্মিনাল, পতেঙ্গা কন্টেইনার টার্মিনাল, মাতারবাড়ী বন্দর নির্মান ও নিউমুরিং ওভার ফ্লো ইয়ার্ড নির্মাণসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প চলমান আছে। ইতিমধ্যে পতেঙ্গাস্থ লালদিয়াচর এলাকায় বন্দরের গুরুত্বপূর্ণ ৫২ একর ভূমি উদ্বার করা হয়েছে। উক্ত এলাকায় বন্দর সুবিধাদি বৃদ্ধির বিভিন্ন পরিকল্পনা হাতে নেয়া হচ্ছে।

২০২০  সালের  মার্চ মাসে চট্টগ্রাম বন্দরে আগত জাহাজের সংখ্যা ছিল ৩৬৬টি, কন্টেইনার হ্যান্ডলিং  ২,৪৯,৬৬৯ টিইইউস, কার্গো হ্যান্ডলিং ১০২৬৪৪০২ মে.টন। ২০২১ সালের মার্চ মাসে তা যথাক্রমে জাহাজের সংখ্যা ছিল ৩৭৬টি, কন্টেইনার হ্যান্ডলিং ২,৬৯,৪৪৬ টিইইউস, কার্গো হ্যান্ডলিং ১১০৪২৮১৮ মে.টন। কন্টেইনার ও কার্গো হ্যান্ডিলিং এ প্রবৃদ্ধি প্রায় ৭.৭% এবং জাহাজ হ্যান্ডলিং এ ২.৭%। কোভিড-১৯ এর কারণে উন্নত বিশ্বের অনেক বন্দরেরই কার্যক্রম সম্পূর্ণ বন্ধ হলেও চট্টগ্রাম বন্দর ২৪/৭ চালু ছিল। চট্টগ্রাম বন্দর কোভিড এর ১ম ঢেউয়ের সময়কালে প্রায় ডেলিভারি শূন্য অবস্থা হতে অত্যন্ত অল্প সময়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছিল। বিগত বছরের অভিজ্ঞতা কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলা এবং বন্দরের অপারেশন স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করছে।

বর্তমানে করোনাভাইরাস সংক্রমণের বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে চট্টগ্রাম বন্দর এক কঠিন সময় অতিবাহিত করছে। সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটিকালীন চট্টগ্রাম বন্দরের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং শ্রমিকগণ দেশের সাপ্লাই চেইন নির্বিঘœ রাখার স্বার্থে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ২৪/৭ কাজ করে যাচ্ছেন।

বিগত বছরে বন্দররে যে কয়েকটি বিষয় সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে সেগুলো হলো :
বন্দরের বর্হিনোঙ্গরে শূন্য পাইরেসী (দস্যুতা), লয়েড লিস্টে ৬ ধাপ এগিয়ে ৬৪ হতে ৫৮ তে উন্নীত হওয়া, পরীক্ষমূলকভাবে ভারতের কলকাতা বন্দর হতে চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করে ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যে পণ্য ট্রানজিট (পণ্য পরিবহন) চালু। সর্বোপরি ২০২০ সালে বাংলাদেশের সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনার মূল্যায়নে পরিকল্পনা কমিশন চট্টগ্রাম বন্দরের নেতৃত্ব ও ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেছে এবং বাংলাদেশের রাষ্ট্রায়ত্ব সকল প্রতিষ্ঠানের মধ্যে চট্টগ্রাম বন্দরকে অনূকরণীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে মন্তব্য করেছে। চট্টগ্রাম বন্দরের এসকল অর্জণের ভাগিদার বন্দরের সকল অংশীজনসহ সকল সরকারী ও বেসরকারি সংস্থা এবং সকল প্রতিষ্ঠান। সকলের সহায়তার বিষয়টি বন্দর কর্তৃপক্ষ কতৃজ্ঞচিত্তে স্মরণ করছে।

বন্দর ব্যবহারকারী সকল স্টেকহোল্ডারদের আন্তরিক সহযোগিতার কারণে এবং চবক কর্তৃক গৃহিত নানাবিধ পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে করোনার ২য় ঢেউ চলাকালীন বন্দরের অপারেশনাল কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে। বর্তমানে বন্দর অভ্যন্তরে কোন জাহাজ জট বা কন্টেইনার জট নেই। আমদানীকারকগণ দ্রুততম সময়ে তাদের আমদানীকৃত পণ্য খালাসের মাধ্যমে বন্দরকে করোনা ভাইরাসের এই পরিস্থিতিতেও বন্দরের কার্যক্রম আরো নির্বিঘœ রাখতে সহায়ক ভূমিকা রাখতে পারেন। ফলশ্রুতিতে বর্হিবিশ্বে দেশের ও চট্টগ্রাম বন্দরের ভাবমূর্তি উজ্বল হবে।      

চট্টগ্রাম বন্দরের ১৩৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এই শুভলগ্নে চট্টগ্রাম বন্দরকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনায় সর্বাত্মক সহায়তার জন্য বন্দরের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী, বার্থ অপারেটর, টার্মিনাল অপারেটর, শিপ হ্যান্ডেলিং অপারেটর, সিএন্ডএফ এজেন্ট, ফ্রেইট ফরোয়ার্ডার, বিকডা, শিপিং এজন্টগণ, শ্রমিকবৃন্দ, বন্দর ব্যবহারকারীগণ ও স্টেকহোল্ডারগণকে বন্দরের কার্যক্রম পরিচালনায় সার্বিক সহযোগিতার জন্য চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিন্দন জানান বন্দর চেয়ারম্যান।

বিশেষ প্রয়োজনে খোলা থাকবে ব্যাংক
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট:
বুধবার (১৪ এপ্রিল) থেকে আগামী ২১ এপ্রিল পর্যন্ত আটদিনের লকডাউনের (বিধিনিষেধের) মধ্যে বিশেষ প্রয়োজনে ব্যাংকিং সেবা নিশ্চিত করার নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) এই নির্দেশনা দিয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এই নির্দেশনা অনুযায়ী, বিশেষে প্রয়োজনে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ব্যাংক খোলা থাকবে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনায় বলা হয়, ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত ব্যাংকিং সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা জারির জন্য আদেশক্রমে অনুরোধ।

সোমবার (১২ এপ্রিল) আটদিনের লকডাউন ঘোষণা করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এই সময়ে পালনের জন্য ১৩টি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে প্রজ্ঞাপনে।

এতে বলা হয়, সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি অফিস/আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ও সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী নিজ নিজ কর্মস্থলে অবস্থান করবেন। তবে শিল্প-কারখানা খোলা থাকছে।

পরে সোমবার বিকেলে এ বিষয়ে সার্কুলার জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এতে বলা হয়, মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারের দেয়া কঠোর বিধিনিষেধে সব ব্যাংক বন্ধ থাকবে। বিধিনিষেধ চলাকালীন ব্যাংক শাখার পাশাপাশি আর্থিক সেবা দেয়া ব্যাংকের সব উপশাখা, বুথ ব্যাংকিং, এজেন্ট ব্যাংকিং সেবাও বন্ধ থাকবে। তবে খোলা থাকবে এটিএম, ইন্টারনেট ব্যাংকিংসহ অনলাইনের সব সেবা।

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে চালু থাকবে আমদানি-রপ্তানি
                                  

হিলি প্রতিনিধি : করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত সারাবিশ্ব। বাংলাদেশেও অদৃশ্য এই ভাইরাসে আক্রান্তের হার দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর ফলে ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। লকডাউনে সকল সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হলেও চালু থাকবে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন। তিনি জানান, আগামীকাল থেকে রমজান মাস শুরু হচ্ছে। রমজান মাসে বাংলাদেশের বাজারে যেন খাদ্যের ঘাটতি না হয় সেই লক্ষে সরকার বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম চালু রেখেছে। হিলি বন্দরের আমদানিকারকরা নিত্য প্রয়োজনীয় সকল পণ্য আমদানি করছে এবং সংকট যেন না হয় সেই তারা লক্ষে এলসিও করেছেন।

হিলি কাস্টমসের ডেপুটি কমিশনার সাইদুল আলম জানান, আগামীকাল ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত দেশে কঠোর লকডাউন ঘোষণা দিয়েছে সরকার। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক এই স্থলবন্দর দিয়ে ভারতের সঙ্গে সকল প্রকার পণ্য আমদানি-রপ্তানি চলমান থাকবে।

স্বাধীন বাংলা/এআর

লকডাউনে ব্যাংক বন্ধের ঘোষণায় টাকা তোলার হিড়িক
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ রোধে কঠোর লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আগামীকাল বুধবার থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন থাকবে।

এ সময়ে জরুরি সেবা ও শিল্প-কারাখানা ছাড়া সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি অফিস এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। সকল প্রকার গণপরিবহনও বন্ধ থাকবে। এছাড়া অতি জরুরি প্রয়োজন ব্যতীত কোনোভাবেই বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না।

সরকারের নির্দেশনা পাওয়ার পরই সারাদেশে ব্যাংক বন্ধের ঘোষণা দিয়ে সার্কুলার জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। লকডাউন চলাকালীন সময়ে ব্যাংক শাখার পাশাপাশি আর্থিক সেবা দেয়া ব্যাংকের সব উপশাখা, বুথ ব্যাংকিং, এজেন্ট ব্যাংকিং সেবাও বন্ধ থাকবে। তবে খোলা থাকবে এটিএম, ইন্টারনেট ব্যাংকিংসহ অনলাইনের সব সেবা।

এরফলে লকডাউনে বন্ধের আগের দিন টাকা উত্তোলনের হিড়িক পড়েছে ব্যাংকগুলোতে। ব্যাংকের শাখাগুলোয় টাকা উত্তোলন হচ্ছে  স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি। মঙ্গলবার রাজধানীর বিভিন্ন ব্যাংকের শাখা ঘুরে এমন অবস্থা দেখা গেছে।

বিভিন্ন ব্যাংকের শাখা ঘুরে দেখা যায়, এদিন ব্যাংক খোলার পরই শাখাগুলোতে ভিড় জমে যায় গ্রাহকদের। বেশিরভাগ শাখায় গ্রাহকের চাপ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছেন ব্যাংক কর্মীরা। অনেক শাখাতেই অতিরিক্ত ভিড়ে উপেক্ষিত হচ্ছে শারীরিক দূরত্ব। তবে ব্যাংকের শাখায় প্রবেশের সময় থার্মাল থার্মোমিটার দিয়ে গ্রাহকের তাপমাত্রা পরিমাপ করা হচ্ছে।  এটিএম বুথগুলোতেও গ্রাহকদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে।

গ্রাহকরা বলছেন, বুধবার থেকে কঠোর লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে সরকার, কবে এই বিধিনিষেধ শেষ হবে কিছুই জানি না। নিজেদের স্বাস্থ্য ও নিত্যপণ ক্রয়ের কথা মাথায় রেখে নগদ টাকা হাতে প্রয়োজন।

স্বাধীন বাংলা/এআর

আগামী ২ দিন ব্যাংকে লেনদেন হবে ১টা পর্যন্ত
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট:
ব্যাংক লেনদেনের সময়সীমা বাড়িয়ে সার্কুলার জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সাকুলার অনুযায়ী আগামীকাল সোমবার ও পরদিন মঙ্গলবার ব্যাংক লেনদেন হবে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত। আজ রোববার (১১ এপ্রিল) এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, ‘আগামী ১২ এপ্রিল হতে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত দৈনিক ব্যাংকিং লেনদেনের সময়সূচি সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত নির্ধারণ করা হলো। এক্ষেত্রে লেনদেন পরবর্তী আনুষঙ্গিক কার্যক্রম সম্পাদনের জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যাংক শাখা এবং প্রধান কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগ প্রয়োজনে তিনটা পর্যন্ত খোলা রাখতে পারবে।’

পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ব্যাংকের সান্ধ্যকালীন ও সাপ্তাহিক ছুটিকালীন ব্যাংকিং কার্যক্রম বন্ধ রাখতে হবে। এ ছাড়া এজেন্ট ব্যাংকিং সেবার কার্যক্রম কীভাবে চলবে, ব্যাংকগুলো তা নিজেরাই সিদ্ধান্ত নিতে পারবে।

কুষ্টিয়ায় পেঁয়াজের দাম কমে যাওয়ায় বিপাকে কৃষক
                                  

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:
কুষ্টিয়া সহ উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজার গুলোতে পেঁয়াজের দাম কমে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন কৃষকরা। এ অবস্থায় বিদেশ থেকে আমদানি বন্ধ এবং সঠিক বাজার ব্যবস্থাপনার দাবি পেঁয়াজ ব্যবসায়ী ও কৃষকদের। সিন্ডিকেট করে পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি দেন জেলা বাজার কর্মকর্তা।

চলতি মৌসুমে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় কুষ্টিয়া জেলায় পেঁয়াজের ফলন ভালো হয়েছে। এ বছর জেলায় পেঁয়াজের আবাদ হয়েছে ১২ হাজার ১৪০ হেক্টর জমিতে। তবে ফলন ভালো হলেও বাজার দর কমে যাওয়ায় লোকসান গুনতে হচ্ছে বলে জানান কৃষকরা।

বর্তমানে কুষ্টিয়ার হাট বাজার গুলোতে পেঁয়াজের মণপ্রতি দাম ১ হাজার ৩’শ থেকে ১ হাজার ৪’শ টাকা। জেলার অন্যতম বাঁশগ্রাম হাটে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ১ হাজার থেকে ১ হাজার ৫০ টাকা।

কৃষকেরা বলছেন, উৎপাদন খরচের তুলনায় কম দামে পেঁয়াজ হাটে বিক্রি করতে হচ্ছে। এ জন্য সুষ্ঠু বাজার ব্যবস্থাপনা ও ভারত থেকে আমদানি বন্ধের দাবি তাদের।

তবে সরকারি কর্মকর্তা মো. রবিউল ইসলামের দাবি, জেলার হাট ও বাজারগুলোতে পাইকারি ও খুচরা বাজারে নিয়মিত নজরদারি করা হচ্ছে।

কৃষি বিভাগের তথ্য মতে, জেলায় চলতি মৌসুমে ২ লাখ ৫৫ হাজার ৩২৭ মেট্রিক টন পেঁয়াজ উৎপাদন হয়েছে।

জুনের মধ্যে ৫০ কোটি টাকা ঋণ দেবে বিসিক
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ কুটির, অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (সিএমএসএমই) উদ্যোক্তাদের জন্য ৫০ কোটি টাকা প্রণোদনা ঋণ বিতরণ করবে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)।

বিসিক-এর অনুকুলে আর্থিক প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় অর্থ মন্ত্রণালয় হতে প্রাপ্ত বিশেষ অনুদান বাবদ সিএমএসএমই উদ্যোক্তাদের জন্য বরাদ্দকৃত ৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা ঋণ ৩০ জুনের মধ্যে বিতরণের জন্য বিসিকের প্রতিটি আঞ্চলিক ও জেলা কার্যালয়কে নির্দেশ প্রদান করেছেন বিসিক চেয়ারম্যান মোঃ মোশতাক হাসান, এনডিসি।

একজন উদ্যোক্তা জমানতবিহীনভাবে দশ লাখ টাকা এবং সর্বোচ্চ বিশ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন। উক্ত প্রণোদনা প্যাকেজের দশ শতাংশ ঋণ নারী উদ্যোক্তাদের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

বিসিক চেয়ারম্যান বলেন, আর্থিক প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় বিসিকের অনুকূলে বরাদ্দকৃত একশ কোটি টাকার ঋণ তহবিলের মধ্যে বিশেষ অনুদান বাবদ ৫০ কোটি টাকা পাওয়া গেছে। প্রাপ্ত অর্থ ৩০ জুনের মধ্যে বিতরণের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। বিসিক প্রধান কার্যালয় থেকে রোববার (৪ এপ্রিল) সারাদেশে আঞ্চলিক কার্যালয় ও বিসিক জেলা কর্যালয়সমূহে এ ঋণ যথা সময়ে বিতরণের জন্য নির্দেশনা দিয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি শতভাগ ঋণ বিতরণ কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে।

এ ঋণের গ্রাহক পর্যায়ে সর্বোচ্চ সুদের হার হবে ৪ শতাংশ। ছয় মাস গ্রেস পিরিয়ডসহ ১৮টি মাসিক সমান কিস্তিতে সর্বোচ্চ দুই বছরে এ ঋণ শোধ করতে পারবেন উদ্যোক্তারা।

বাড়ছে করোনা: কুষ্টিয়ায় নতুন করে ১১ জনের করোনা শনাক্ত
                                  

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:
কুষ্টিয়ায় ১১ ব্যক্তির করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। গতকাল কুষ্টিয়ায়  এ ফলাফল এসেছে। কুষ্টিয়ার মেডিকেল কলেজের প্রদত্ত তথ্য মতে, পিসিআর ল্যাবে গতকাল মোট ১৫৯টি নমুনার (কুষ্টিয়া জেলার ৪৮টি, চুয়াডাঙ্গা জেলার ৫টি, মেহেরপুর জেলার ১টি, ঝিনাইদহ জেলার ১টি ও বিদেশযাত্রী ব্যক্তিদের ৯৪ টি) মধ্যে কুষ্টিয়া জেলার ১১টি, ঝিনাইদহ জেলার ১টি এবং বিদেশযাত্রী ব্যক্তিদের জেলার ১টি স্যাম্পলের ফলাফল পজিটিভ এসেছে। বাকি সবগুলো স্যাম্পলের ফলাফল নেগেটিভ এসেছে।

কুষ্টিয়া জেলার করোনা আক্রান্ত ১১ জন রোগীর মধ্যে ৮ জন করোনা রোগীর বাড়ি কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় এবং ৩ জন রোগীর বাড়ি খোকসা উপজেলায়। এখন পর্যন্ত কুষ্টিয়ায় করোনা পজিটিভ রোগীর সংখ্যা মোট ৩৯১৬ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন মোট ৩৮০৪ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন মোট ৮৯ জন।

ধর্মঘট প্রত্যাহার: হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানী শুরু
                                  

হিলি প্রতিনিধি:
ভারতীয় ড্রাইভারদের ডাকা ধর্মঘট ৩ ঘন্টা পর প্রত্যাহার করে নেওয়ায় দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানী বাণিজ্য সচল হয়েছে। শনিবার (১৩ মার্চ) দুপুর ১২টায় হিলি স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের আশ্বাসে ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নিলে দুই দেশের মধ্যে পণ্য পরিবহন খালাস কার্যক্রম শুরু হয়।

এর আগে দীর্ঘ দিন বন্দরে অবস্থান, দেরিতে পণ্য খালাস, গেটের বাহিরে যেতে বাধা, এবং সিকিউরিটি গার্ড কর্তৃক খরচের টাকা বেশি নেওয়ার অভিযোগে সকাল ৯টা থেকে ১নং এবং ২নং গেটের সামনে ট্রাক দিয়ে গেটগুলো বন্ধ করে দেন ভারতীয় ড্রাইভাররা। এতে বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় সহ¯্রাধিক ট্রাক আমদানি-রফতানি এবং পণ্য খালাস নিয়ে আটকা পড়েছিল।

ভারতীয় ড্রাইভাররা জানান, তাদের এক ড্রাইভারকে গত সপ্তাহে কুকুরে কামড় দিয়েছে। কিন্তু পোর্ট কর্তৃপক্ষ সেই ড্রাইভারের কোন প্রকার চিকিৎসার ব্যবস্থা করেননি এমনকি সেই ড্রাইভারের ট্রাক থেকে পণ্যগুলো খালাসও করেনি। তারা নির্দিষ্ট সময়ে ভারতে যেতে পারে না। ফলে তাদের পরিবারগুলো আর্থিকভাবে অনেক সমস্যায় থাকেন বলে অভিযোগ তাদের।

তারা আরো অভিযোগ করেন যে, ভারত থেকে আসার সময় তারা দুই তিন দিনের খাবার নিয়ে আসেন। কিন্তু বাংলাদেশের হিলি স্থলবন্দরে তাদের দুই সপ্তাহের বেশি দিন অবস্থান করতে হয়। এতে করে বাংলাদেশের বাজারে খাবারের জন্য চাল, ডাল, তেলসহ বিভিন্ন মসলার প্রয়োজন হয়। কিন্তু এসব জিনিসপত্র ভারতীয় ড্রাইভাররা নিজে ক্রয় করতে পারেন না। যার জন্য বন্দরে অবস্থান করা সিকিউরিটি গার্ডের মাধ্যমে কিনে আনেন। এতে করে সিকিউরিটি গার্ডরা বেশি টাকা নিয়ে থাকেন।

হিলি পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন মল্লিক প্রতাপ জানান, সকাল ৯টা থেকে ভারতীয় ড্রাইভারদের ধর্মঘটের কারনে আমদানি রপ্তানি বন্ধ থাকে। পরে সন্তোষজনক একটি সমাধানের আশ্বাসে ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হলে দুপুর ১২টা থেকে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য শুরু হয়েছে। আটকে থাকা পণ্য যাতে ব্যবসায়ীরা দ্রুত খালাস নিতে পারেন তার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৪ বিলিয়ন ডলার
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে বাংলাদেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৪ বিলিয়ন ডলার হয়েছে। বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য মতে, প্রবাসীদের অর্থ প্রেরণে গতি থাকা, হুন্ডি কমে যাওয়া এবং আমদানি অনেক কমে যাওয়ার কারণে রিজার্ভ বাড়ছে।

অর্থনীতিবিদ এবং বিশেষজ্ঞগণ বলছেন, রিজার্ভ পরিস্থিতি ভাল থাকলে আমদানি সক্ষমতা এবং অর্থনৈতিক শক্তি বৃদ্ধি পায়। তবে মাত্রাতিরিক্ত বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ অর্থনীতির দুর্বলতা এবং শিল্প কল-কারখানার প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও কাচামাল এবং প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি আমদানির নেতিবাচক অবস্থারই ইঙ্গিতবহ।

আন্তর্জাতিক মানদন্ড অনুযায়ী, একটি দেশের ৩ মাসের আমদানি ব্যয় মেটানোর সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা রিজার্ভ থাকতে হয়, তবে বর্তমানে বাংলাদেশের রিজার্ভ রয়েছে ৮ মাসের সমান। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্লেষণ করেছেন গবেষণা সংস্থা সিপিডি’র সম্মানীয় ফেলো ড. মোস্তাফিজুর রহমান।

অর্থনীতিবিদ এবং বিশেষজ্ঞগণের ধারণা, করোনার নেতিবাচক প্রভাবমুক্ত অর্থনীতিতে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে। সূত্র : ভোয়া

স্বাধীন বাংলা/ন উ আহমাদ

আইসিএমএবি বেস্ট কর্পোরেট অ্যাওয়ার্ড পেল অগ্রণী ব্যাংক
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:                                                      
অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংক ক্যাটাগরিতে ইনস্টিটিউট অব কষ্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশ (আইসিএমএবি) বেস্ট কর্পোরেট অ্যাওয়ার্ড-২০১৯ এর সিলভার অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে।

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি হোটেল রেডিসনে এক অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, এমপি এর কাছ থেকে এ পুরস্কার গ্রহণ করেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এন্ড সিইও মোহম্মদ শামস্-উল ইসলাম, মহাব্যবস্থাপক (সিএফও) মোঃ মনোয়ার হোসেন এফ সি এ।

এ সময়  বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন ও বিএসইসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. শিবলী রুবাইয়াত-উল- ইসলাম অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।  

বিসিকের ৫ দিনব্যাপী হস্ত ও কুটির শিল্প মেলা শুরু
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট:
বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন(বিসিক) ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের উদ্যোক্তাদের অনুরোধের প্রেক্ষিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শতবার্ষিকীতে ‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে বিসিক কর্তৃক গৃহীত কর্মসূচির অংশ হিসেবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে রাজধানীর মতিঝিলে বিসিক ভবনে ৫ দিনব্যাপী হস্ত ও কুটির শিল্প মেলা-২০২১ আয়োজন করেছে।

পিপলস ফুটওয়্যার এন্ড লেদার গুডস এর স্বত্বাধিকারী রেজবিন হাফিজ ও ঐক্য ফাউন্ডেশনের সহাযোগিতায় এ মেলা আয়োজন করা হয়েছে।

মেলার স্টলগুলোতে বিসিক থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহণকারীদের তৈরি হস্ত ও কুটির শিল্পজাত বিভিন্ন পণ্য সামগ্রীর স্থান পেয়েছে।

এ মেলায় ক্রেতা সাধারণগণ ৫৮টি স্টল থেকে কারুপণ্য, নকশিকাঁথা, পাট পণ্য, বুটিকস পণ্য, জুয়েলারী, লেদারগুডস, অর্গানিক ফুডস, ইলেকট্রনিকস পণ্যসহ নিত্য ব্যবহার্য বিভিন্ন পণ্য সামগ্রী ক্রয় করতে পারবেন। মেলা চলবে আগামী ৪ঠা মার্চ ২০২১ পর্যন্ত। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০ থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সকলের জন্য উন্মুক্ত।

করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবজনিত পরিস্থিতিতে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের উদ্যোক্তাগণ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্থ এসব উদ্যোক্তাদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে এবং তাঁদের উৎপাদিত পণ্য বিপণনের জন্য জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে সারাদেশে মেলা করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বিসিক। ইতোমধ্যে, ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, বগুড়া, ঝিনাইদহ, সিলেট, নেত্রকোণা জেলায় মেলার আয়োজন করেছে বিসিক।

কাতার পেট্রোলিয়াম বাংলাদেশে ১২ লাখ টন এলএনজি রপ্তানি করবে
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : কাতার পেট্রোলিয়াম কোম্পানি ডাচ কোম্পানি ভিটলের সঙ্গে একটি দীর্ঘকালীন বিক্রয়-ক্রয় চুক্তি (এসপিএ) স্বাক্ষর করেছে। চুক্তির অধীনে কোম্পানিটি বাংলাদেশে প্রতি বছর ১২ লাখ ৫০ হাজার টন এলএনজি (লিকুইড ন্যাচারাল গ্যাস) সরবরাহ করবে। এ নিয়ে সোমবার একটি বিবৃতি দিয়েছে কাতার পেট্রোলিয়াম। এতে জানানো হয়েছে, ২০২১ সালের শেষ দিকে এই এলএনজি রপ্তানি শুরু হবে।

এ চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছেন কাতারের জ্বালানীমন্ত্রী ও কাতার পেট্রোলিয়ামের সিইও সাদ বিন শেরিদা আল-কাবি। তিনি বলেন, ভিটলের সঙ্গে এই এসপিএ চুক্তি করে আমরা আনন্দিত। বাংলাদেশের জ্বালানি চাহিদা পুরনে আমরা এলএনজি সরবরাহ অব্যাহত রাখবো। বিশ্বজুড়ে আমাদের অংশীদার ও ক্রেতাদের কাছে পছন্দের সরবরাহকারী হওয়ায় আমরা গর্বিত।

ভিটল একটি ডাচ জ্বালানি কোম্পানি। এটি বিশ্বের সবথেকে বড় স্বাধীন তেল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। এর বাৎসরিক আয় অ্যাপলের প্রায় সমান। ব্লুমবার্গের দেয়া তথ্যমতে ২০১৯ সালে কোম্পানিটি গড়ে প্রতিদিন ৮ মিলিয়ন ব্যারেলেরও বেশি অপরিশোধিত তেল সরবরাহ করেছে। বিশ্বজুড়ে বাড়ছে জ্বালানীর চাহিদা। ভিটল তাই গ্যাস ও বিদ্যুতের ব্যবসায় প্রবেশ করছে।

বাংলাদেশের আভ্যন্তরীণ গ্যাসের যোগান কমে আসায় আমদানি বাড়ছে গ্যাসের। তাই ভারত ও পাকিস্তানের মতো বাংলাদেশও অন্যতম প্রধান গ্যাস আমদানিকারক রাষ্ট্রে পরিণত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বর্তমানে প্রতিদিন ২ কোটি ৮০ লাখ কিউবিক মিটার গ্যাস উৎপাদন করতে পারে বাংলাদেশ। অর্থাৎ বছরে প্রায় ৭৫ লাখ টন গ্যাস উৎপাদন হয় দেশে। ২০১৯ সালে বাংলাদেশ প্রায় ৩৮ লাখ টন এলএনজি আমদানি করেছিল।

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ আজ
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে আজ আমদানি-রপ্তানিসহ সব কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। হিলি পানামা পোর্ট লিংকের সহকারী ব্যবস্থাপক অতিশ কুমার শ্যানাল আজ রবিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অতিশ কুমার শ্যানাল জানান, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আজ রবিবার সকাল থেকে ভারত থেকে হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ রয়েছে।

এছাড়া, সরকারি ছুটি হিসেবে বন্দরের অভ্যন্তরীণ সব কার্যক্রম বন্ধ আছে। আগামীকাল সোমবার সকাল থেকে যথারীতি বন্দরের কার্যক্রম চলবে বলে জানান তিনি।

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ


   Page 1 of 44
     অর্থ-বাণিজ্য
টিকা কিনতে বাংলাদেশকে ৮ হাজার কোটি টাকা দেবে এডিবি
.............................................................................................
বাগেরহাটে চিংড়ি শিল্পে বিপর্যয়, দেখা দিয়েছে পোনা সংকট
.............................................................................................
কাল চট্টগ্রাম বন্দরে ১৩৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, চেয়ারম্যানের শুভেচ্ছা
.............................................................................................
বিশেষ প্রয়োজনে খোলা থাকবে ব্যাংক
.............................................................................................
হিলি স্থলবন্দর দিয়ে চালু থাকবে আমদানি-রপ্তানি
.............................................................................................
লকডাউনে ব্যাংক বন্ধের ঘোষণায় টাকা তোলার হিড়িক
.............................................................................................
আগামী ২ দিন ব্যাংকে লেনদেন হবে ১টা পর্যন্ত
.............................................................................................
কুষ্টিয়ায় পেঁয়াজের দাম কমে যাওয়ায় বিপাকে কৃষক
.............................................................................................
জুনের মধ্যে ৫০ কোটি টাকা ঋণ দেবে বিসিক
.............................................................................................
বাড়ছে করোনা: কুষ্টিয়ায় নতুন করে ১১ জনের করোনা শনাক্ত
.............................................................................................
ধর্মঘট প্রত্যাহার: হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানী শুরু
.............................................................................................
বাংলাদেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৪ বিলিয়ন ডলার
.............................................................................................
আইসিএমএবি বেস্ট কর্পোরেট অ্যাওয়ার্ড পেল অগ্রণী ব্যাংক
.............................................................................................
বিসিকের ৫ দিনব্যাপী হস্ত ও কুটির শিল্প মেলা শুরু
.............................................................................................
কাতার পেট্রোলিয়াম বাংলাদেশে ১২ লাখ টন এলএনজি রপ্তানি করবে
.............................................................................................
হিলি স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ আজ
.............................................................................................
ভোজ্যতেলের দাম নির্ধারণ করেছে সরকার
.............................................................................................
চীন ছেড়ে বাংলাদেশকে বেছে নিচ্ছে জাপান, অর্থনীতিতে আশার আলো
.............................................................................................
তিন দিবসের বাজার ধরতে ব্যস্ত সময় পার করছেন ঝিনাইদহের ফুল চাষিরা
.............................................................................................
স্বর্ণের দাম নিয়ে বিভ্রান্ত হবেন না : বাজুস
.............................................................................................
বাংলাদেশ থেকে নেপালে সার রপ্তানিতে ভারতের ট্রানজিট সুবিধা
.............................................................................................
মেহেরপুরের বাঁধাকপি রপ্তানী হচ্ছে সিঙ্গাপুরসহ ৩ দেশে
.............................................................................................
আয়োডিনের দাম কমালো বিসিক
.............................................................................................
ভারতীয় পিঁয়াজে ক্রেতাদের আগ্রহ নেই
.............................................................................................
মার্জিন ঋণের সুদহার বেঁধে দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা
.............................................................................................
দুই বছর ১১ মাস পর হিলি স্থলবন্দর দিয়ে চাল আমদানি শুরু
.............................................................................................
মধুমতি ব্যাংকে চাকরি
.............................................................................................
লবণ চাষীদের ঋণ দিবে বিসিক
.............................................................................................
বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে নিয়োগ
.............................................................................................
বেসরকারিভাবে ১ লাখ টন চাল আমদানির অনুমতি
.............................................................................................
বিসিকে চলছে ৫ দিনব্যাপী মধু, হস্ত ও কুটির শিল্প মেলা
.............................................................................................
হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু
.............................................................................................
আজ হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে আমদানি হবে পেঁয়াজ
.............................................................................................
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে নিয়োগ
.............................................................................................
গণতন্ত্রের বিজয় দিবসে টাঙ্গাইলে আওয়ামী লীগের আনন্দ মিছিল
.............................................................................................
রিজার্ভ ৪৩ বিলিয়ন ডলার ছড়িয়েছে
.............................................................................................
নরসিংদী পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে নিয়োগ
.............................................................................................
নওগাঁয় দিগন্তজোড়া মাঠে সরিষা ফুলের মেলা
.............................................................................................
রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক পরিচালনা পর্ষদের ৫২৪তম সভা
.............................................................................................
বুড়িমারী স্থলবন্দরে ‘ই-পোর্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম’ সফটওয়্যার উদ্বোধন
.............................................................................................
বিডি ফাইন্যান্সের নাম পরিবর্তন হচ্ছে
.............................................................................................
নারীদের জন্য ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা শীর্ষক প্রশিক্ষণ কোর্সের আয়োজন বিসিকের
.............................................................................................
কুষ্টিয়ায় প্রচন্ড শীত: গরম কাপড়ের চাহিদা মেটাতে জমজমাট ফুটপাত
.............................................................................................
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে এনআরবি ব্যাংক
.............................................................................................
করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত হলেও চলতি মাসে প্রচুর ফুল বিক্রি হয়েছে
.............................................................................................
আইএফআরসিতে নিয়োগ
.............................................................................................
এসেনসিয়াল ড্রাগস্ এ চাকরি
.............................................................................................
ওয়াটারএইড বাংলাদেশে চাকরি
.............................................................................................
২০৩০ সালে রিজার্ভ ৫০ বিলিয়ন ডলারে নিয়ে যাবো: অর্থমন্ত্রী
.............................................................................................
মিলারদের কারসাজিতে কুষ্টিয়ায় আবারও বাড়ছে চালের দাম
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT