বুধবার, 16 অক্টোবর ২০১৯ | বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   শিক্ষা -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাস ২৩.৭২ শতাংশ

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এতে ২৩.৭২ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে। অকৃতকার্য ৭৬.২৮ শতাংশ পরীক্ষার্থী।

আজ দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনস্থ কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিসে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ফল প্রকাশ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, এবার ‘খ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় আসন সংখ্যা ২ হাজার ৩৭৮ এর বিপরীতে আবেদনকারীর সংখ্যা ছিল ৪৫ হাজার ১৮ জন। এর মধ্যে অংশগ্রহণ করেন ৪২ হাজার ৯৫৪ জন। এর মধ্যে লিখিত পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত (এমসিকিউ উত্তীর্ণ) হয়েছেন ১৮ হাজার ৫৮১ এবং সমন্বিত পাস করেছেন ১০ হাজার ১৮৮ জন। গত ২১ সেপ্টেম্বর ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

ফলাফল প্রকাশের সময় উপস্থিত ছিলেন কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. আবু মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন এবং ভর্তি কার্যক্রমের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

‘খ’ ইউনিটে উত্তীর্ণদের যা করতে হবে

সাধারণ পাসকৃত (মেধাক্রম এক থেকে ছয় হাজার) ছাত্র-ছাত্রীদের আগামী ১৬ অক্টোবর বিকাল ৫টা থেকে ৩১ অক্টোবর বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে বিস্তারিত ফরম ও বিষয়ের পছন্দক্রম ফরম পূরণ করতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ বিভিন্ন কোটায় আবেদনকারীদের ১৬ অক্টোবর থেকে ২৩ অক্টোবরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কোটার ফরম কলা অনুষদের ডিন অফিস থেকে সংগ্রহ করতে হবে এবং যথাযথভাবে পূরণ করে ওই সময়ের মধ্যে ডিন অফিসে জমা দিতে হবে।

ফলাফল নিরীক্ষণের জন্য ফি প্রদানসাপেক্ষে আগামী ১৬ অক্টোবর থেকে ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত কলা অনুষদের ডিন অফিসে আবেদন করা যাবে।

ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাস ২৩.৭২ শতাংশ
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এতে ২৩.৭২ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে। অকৃতকার্য ৭৬.২৮ শতাংশ পরীক্ষার্থী।

আজ দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনস্থ কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিসে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ফল প্রকাশ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, এবার ‘খ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় আসন সংখ্যা ২ হাজার ৩৭৮ এর বিপরীতে আবেদনকারীর সংখ্যা ছিল ৪৫ হাজার ১৮ জন। এর মধ্যে অংশগ্রহণ করেন ৪২ হাজার ৯৫৪ জন। এর মধ্যে লিখিত পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত (এমসিকিউ উত্তীর্ণ) হয়েছেন ১৮ হাজার ৫৮১ এবং সমন্বিত পাস করেছেন ১০ হাজার ১৮৮ জন। গত ২১ সেপ্টেম্বর ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

ফলাফল প্রকাশের সময় উপস্থিত ছিলেন কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. আবু মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন এবং ভর্তি কার্যক্রমের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

‘খ’ ইউনিটে উত্তীর্ণদের যা করতে হবে

সাধারণ পাসকৃত (মেধাক্রম এক থেকে ছয় হাজার) ছাত্র-ছাত্রীদের আগামী ১৬ অক্টোবর বিকাল ৫টা থেকে ৩১ অক্টোবর বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে বিস্তারিত ফরম ও বিষয়ের পছন্দক্রম ফরম পূরণ করতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ বিভিন্ন কোটায় আবেদনকারীদের ১৬ অক্টোবর থেকে ২৩ অক্টোবরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কোটার ফরম কলা অনুষদের ডিন অফিস থেকে সংগ্রহ করতে হবে এবং যথাযথভাবে পূরণ করে ওই সময়ের মধ্যে ডিন অফিসে জমা দিতে হবে।

ফলাফল নিরীক্ষণের জন্য ফি প্রদানসাপেক্ষে আগামী ১৬ অক্টোবর থেকে ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত কলা অনুষদের ডিন অফিসে আবেদন করা যাবে।

বুয়েটে ছাত্রলীগের রুম সিলগালা । দৈনিক স্বাধীন বাংলা
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট: ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধের ঘোষণার পরই বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) শাখা ছাত্রলীগের রুমগুলো সিলগালা করে দিয়েছে প্রশাসন। আজ শনিবার হলগুলো সিলগালা করে দেয় প্রশাসন। একই সঙ্গে অছাত্রদের হল থেকে উচ্ছেদে অভিযান চলছে বুয়েটে।

জানা গেছে, বুয়েটের ছাত্র কল্যাণ উপদেষ্টা (ডিএসডব্লিউ) অধ্যাপক ড. মো. মিজানুর রহমান আজ আহসান উল্লাহ হলে বুয়েট ছাত্রলীগ সভাপতি জামি উস সানির ৩২১ নম্বর রুমটি সিলগালা করে দেন।

এ ছাড়া শেরেবাংলা হলে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেলের ৩০১২ নম্বর রুমও সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছেন তিনি।

রুম সিলগালা করার ব্যাপারে ছাত্রলীগ সভাপতি জামি উস সানি বলেন, ‘আজকে সকালে স্যাররা এসে আমার রুম সিলগালা করে দেন। আর আহসান উল্লাহ হলের ১২১ নম্বর কক্ষে হল ছাত্রলীগের অফিস ছিল। সেটাও সিলগালা করা হয়েছে। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে রাজনৈতিক ও অরাজনৈতিক সকল অছাত্রদের হল থেকে উচ্ছেদ চলছে। এ কাজে আমরা সহযোগিতা করব’।

এর আগে গতকাল শুক্রবার বিকেল ৫টায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বৈঠক করে বুয়েটে সাংগঠনিক রাজনীতি নিষিদ্ধের ঘোষণা দেয় বুয়েট কর্তৃপক্ষ। এরপর আজ আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে আন্দোলনের মুখে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলে অবৈধভাবে থাকা শিক্ষার্থীদের হলত্যাগ এবং ছাত্র রাজনীতি বন্ধসহ পাঁচ দফা দাবি মেনে নিয়ে নোটিশও জারি করে কর্তৃপক্ষ।

শিক্ষার্থীদের পাঁচ দফা দাবিগুলো হলো-আবরার হত্যাকারীদের বুয়েট থেকে আজীবন বহিষ্কার করা হবে এ মর্মে নোটিশ দেওয়া, সাংগঠনিক রাজনীতি নিষিদ্ধের জন্য অবৈধ ছাত্রদের সিট বাতিল করা, সাংগঠনিক অফিস সিলগালা করা এবং ফাহাদের মামলার খরচ দেওয়ার নোটিশ দেওয়া।

এ ছাড়া ভিন্নমত দমানোর নামে নির্যাতন বন্ধে প্রশাসনের সক্রিয় ভূমিকা নিশ্চিত করা এবং এ ধরনের ঘটনা প্রকাশে একটি কমন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে সব হলের সিসিটিভির ফুটেজে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা।

কাল ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট: ঢাবি’র ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিটের প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষার ফল আগামীকাল প্রকাশ করা হবে। রোববার দুপুর ১টায় এই ফল প্রকাশ করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। আজ শনিবার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে ঢাবি কর্তৃপক্ষ।

এরআগে, গত ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শুক্রবার ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়,উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিসে ২১৪ নম্বর কক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করবেন।


বুয়েটের আন্দোলন ২ দিনের জন্য শিথিল
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট: আগামী ১৩ ও ১৪ অক্টোবর বুয়েটে ভর্তিচ্ছুদের পরীক্ষার জন্য আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা দুদিনের জন্য আন্দোলন শিথিল করেছেন। আগামী ১৪ অক্টোবর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আজ শনিবার দুপুরে ক্যাম্পাসে ক্যাফেটেরিয়ার সামনে আলোচনা করে তারা এ সিদ্ধান্ত নেন। তবে ভর্তি পরীক্ষার পর আবারও আন্দোলনে নামবেন বলে জানান শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনকারীরা শিক্ষার্থীরা জানান, ভর্তিচ্ছুদের কথা বিবেচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এসময় পরীক্ষার্থীদের নিরাপত্তা দেওয়ারও ঘোষণা দেন তারা।  

এর আগে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে আন্দোলনের মুখে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলে অবৈধভাবে থাকা শিক্ষার্থীদের হলত্যাগ এবং ছাত্র রাজনীতি বন্ধসহ পাঁচ দফা দাবি মেনে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে এ সংক্রান্ত নোটিশও জারি করা হয়েছে। বুয়েট কর্তৃপক্ষ স্বাক্ষরিত পৃথক পাঁচটি আদেশ আজ শনিবার দুপুরে প্রকাশ করা হয়।

শিক্ষার্থীদের পাঁচ দফা দাবিগুলো হলো- আবরার হত্যাকারীদের বুয়েট থেকে আজীবন বহিষ্কার করা হবে এ মর্মে নোটিশ দেওয়া, সাংগঠনিক রাজনীতি নিষিদ্ধের জন্য অবৈধ ছাত্রদের সিট বাতিল করা,সাংগঠনিক অফিস সিলগালা করা, ফাহাদের মামলার খরচ দেওয়ার নোটিশ দেওয়া, ভিন্নমত দমানোর নামে নির্যাতন বন্ধে প্রশাসনের সক্রিয় ভূমিকা নিশ্চিত করা এবং এ ধরনের ঘটনা প্রকাশে একটি কমন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে সব হলের সিসিটিভির ফুটেজে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা।

ফাহাদ হত্যার বিচার দাবিতে উত্তাল বুয়েট
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় উত্তাল বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়-বুয়েট।

সহপাঠী ফাহাদ হত্যার বিচার দাবিতে আজ সকাল থেকে বিক্ষোভ করছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

এদিকে এ ঘটনায় সকাল থেকেই সিসিটিভির ফুটেজ উদ্ধারের দাবিতে প্রভোস্টের অফিস ঘেরাও করেন শিক্ষার্থীরা।

নিহত ফাহাদের সহপাঠীরা বলছেন, রাত ৮টার দিকে শের-ই বাংলা হলের এক হাজার ১১ নম্বর কক্ষ থেকে কয়েকজন ফাহাদকে ডেকে নিয়ে যায়। এর পর রাত ২টা পর্যন্ত তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

তাদের ধারণা, ২ হাজার ১১ নম্বর রুমে নিয়ে তাকে পেটানো হয়। পরে শেরেবাংলা হলের একতলা ও দুই তলার মাঝখানের সিঁড়ি থেকে ফাহাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

ফাহাদের এক সহপাঠী বলেন, যারা ফাহাদকে ডেকে নিয়ে যায় তাদের আমরা চিনি। কিন্তু এ মুহূর্তে তাদের নাম বলতে চাচ্ছি না।

তবে কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে, এ বিষয়ে এখনও কিছু জানাতে পারেনি পুলিশ। এদিকে এ বিষয়ে বুয়েট কর্তৃপক্ষও এখনও কিছু বলেনি।

এ ঘটনায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাসেল ও সহসভাপতি ফুয়াদকে আটক করেছে পুলিশ।

এর আগে রোববার রাত ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরে বাংলা হলের সিঁড়ি থেকে আবরার ফাহাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

বুয়েটের চিকিৎসক মাসুক এলাহী জানান, অন্য ছাত্রদের মাধ্যমে খবর পেয়ে শেরে বাংলা হলের প্রথমতলা ও দ্বিতীয়তলার মাঝামাঝি জায়গায় ফাহাদের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখেন। তার শরীরে অনেকগুলো আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

তিনি জানান, রাত্রিকালীন ডিউটিতে ছিলেন। খবর পেয়ে শেরে বাংলা হলে গিয়ে ফাহাদকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে নিজে পরীক্ষা করে দেখেন, তিনি মারা গেছেন। পরে বুয়েট কর্তৃপক্ষ ও পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়।

শিক্ষার্থীদের বরাত দিয়ে চকবাজার থানার ওসি সোহরাব হোসেন জানান, দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আবরারকে হল থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে রাত ২টার দিকে হলের দ্বিতীয়তলার সিঁড়িতে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

ওসি সোহরাব হোসেন বলেন, আবরারের  শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। কারা তাকে ডেকে নিয়ে হত্যা করেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে, রাতের কোনো এক সময় তাকে পিটিয়ে হত্যা করে ফেলে রেখেছে কেউ।

তিনি জানান, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর তার মৃত্যুর বিষয়ে আরও ধারণা পাওয়া যাবে। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে।

বুয়েট হলের সিঁড়িতে ছাত্রের লাশ, শরীরে আঘাতের চিহ্ন
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট : বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে বাংলা হল থেকে এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।  রোববার রাত ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরে বাংলা হলের সিঁড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে কে বা কারা জড়িত তা জানা যায়নি।

নিহত শিক্ষার্থীর নাম আবরার ফাহাদ। তিনি ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে। বাবার নাম বরকতুল্লাহ। তিনি বুয়েটের শেরে বাংলা হলের ১০১১ নম্বর রুমে থাকতেন।

বুয়েটের চিকিৎসক মাসুক এলাহী জানান, অন্য ছাত্রদের মাধ্যমে খবর পেয়ে শেরে বাংলা হলের প্রথমতলা ও দ্বিতীয়তলার মাঝামাঝি জায়গায় ফাহাদের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখেন। তার শরীরে অনেকগুলো আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

তিনি জানান, রাত্রিকালীন ডিউটিতে ছিলেন। খবর পেয়ে শেরে বাংলা হলে গিয়ে ফাহাদকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে নিজে পরীক্ষা করে দেখেন, তিনি মারা গেছেন। পরে বুয়েট কর্তৃপক্ষ ও পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়।

শিক্ষার্থীদের বরাত দিয়ে চকবাজার থানার ওসি সোহরাব হোসেন জানান, দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আবরারকে হল থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে রাত ২টার দিকে হলের দ্বিতীয়তলার সিঁড়িতে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

ওসি সোহরাব হোসেন বলেন, আবরারের  শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। কারা তাকে ডেকে নিয়ে হত্যা করেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে, রাতের কোনো এক সময় তাকে পিটিয়ে হত্যা করে ফেলে রেখেছে কেউ।

তিনি জানান, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর তার মৃত্যুর বিষয়ে আরও ধারণা পাওয়া যাবে। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে।

ঢাবির ‘গ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাসের হার ১৫.৪৯ শতাংশ
                                  

ঢাবি প্রতিনিধি : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়-ঢাবি ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের স্নাতক সম্মান শ্রেণির প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এতে ১৫ দশমিক ৪৯ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে। কৃতকার্য হয়েছেন ৮৪. ৫১ শতাংশ শিক্ষার্থী। গত বছরপাসের হার ছিল ১০.৯৮% শতাংশ।

বৃহিস্পতিবার বেলা ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিসে (কক্ষ নং-২১৪) ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান এ ফল প্রকাশ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম।

এবার ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন করেছিলেন ২৯ হাজার ৫৮ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন ২৮ হাজার ১৬৯ জন। এর মধ্যে নৈর্ব্যক্তিকে পাস করেন ৬ হাজার ৮০২ জন। লিখিত পরীক্ষায় পাস করেন ৪ হাজার ৩৬২ জন। বিভিন্ন কারণে ৬৮টি উত্তরপত্র বাতিল হয়।

সবশেষে দেখা যায়, ভর্তি পরীক্ষায় পাস করেছেন ৪ হাজার ৩৬২ ছাত্র-ছাত্রী। অনুত্তীর্ণ হয়েছেন ২৩ হাজার ৮০৭ জন।

‘গ’ ইউনিট ভর্তি পরীক্ষায় অবতীর্ণ ছাত্রছাত্রীরা উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ডের নাম, পাসের সন এবং মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বরের মাধ্যমে admission.eis.du.ac.bd ওয়েবসাইট থেকে ফল জানতে পারবেন।

এ ছাড়া আবেদনকারীরা যে কোনো অপারেটরের মোবাইল ফোন থেকে DU GA টাইপ করে ১৬০২১ নম্বরে send করে ফিরতি sms-এ ফল জানতে পারবেন।

শিক্ষার্থী আন্দোলনে উত্তাল বশেমুবিপ্রবি
                                  

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : বৃষ্টি উপেক্ষা করে ৫ম দিনের মতো গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্বাবিদ্যালয়-বশেমুবিপ্রবি ভিসি প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের পদত্যাগের এক দফা দাবিতে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা।

বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি বাড়ছে। উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে স্লোগানে স্লোগানে উত্তাল হয়ে উঠেছে পুরো ক্যাম্পাস। এ সময় আন্দোলনকারীরা ভিসির নানা অনিয়ম-দুর্নীতি ও নারী কেলেঙ্কারির বিষয়ে লেখা বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করেন।

আন্দোলনের মুখে শনিবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা ও সকাল ১০টার মধ্যে হল ত্যাগের নির্দেশ ব্যর্থ হয়েছে।

এদিকে, জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন শিক্ষার্থীদের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করায় উপাচার্যবিরোধী আন্দোলন আরও বেগবান হয়েছে।

আন্দোলনরত এক শিক্ষার্থী বলেন, উপচার্যের পদত্যাগ ছাড়া আমরা আন্দোলন থেকে সরে যাব না। যতদিন পর্যন্ত না এই দুর্নীতিবাজ উপাচার্য পদত্যাগ না করবে আমরা এখানেই অবস্থান করবো।

প্রসঙ্গত, গত ১১ সেপ্টেম্বর আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ও ক্যাম্পাস সাংবাদিক ফাতেমা-তুজ-জিনিয়াকে সাময়িকভাবে বহিষ্কারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। পরে জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ তুলে নেয়াসহ আরও কয়েকটি দাবি কর্তৃপক্ষ মেনে নিলেও গত বৃহস্পতিবার উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে অন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গত শনিবার বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করে সকাল ১০টার মধ্যে হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়। নির্দেশ উপেক্ষা করে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন চালিয়ে যান। এ অবস্থায় বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন গোবরা এলাকায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে বহিরাগতরা। এতে ২০ শিক্ষার্থী আহত হন। শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ওইদিন দুপুরে পদত্যাগ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর হুমায়ুন কবির।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে বশেমুরবিপ্রবি বন্ধ ঘোষণা
                                  

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে শিক্ষার্থীদের লাগাতার আন্দোলনের মুখে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়-বশেমুরবিপ্রবি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা রাখার কথা জানানো হয়। এছাড়া শনিবার সকাল ১০টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক মো. নূরউদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তি বলা হয়েছে, উদ্ভূত জরুরি পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিতে, বিবদমান গ্রুপসমূহের মতানৈক্য নিরসন এবং সম্ভাব্য অপ্রত্যাশিত ঘটনা এড়াতে রিজেন্ট বোর্ডের সদস্যদের মৌখিক অনুমতির প্রেক্ষিতে পূজার নির্ধারিত ছুটির সঙ্গে ছুটি বাড়িয়ে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এই সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক ও অবৈধ আখ্যা দিয়ে সকাল থেকেই ক্যাম্পাসে উপাচার্য অধ্যাপক ড. খন্দকার নাসির উদ্দিনের পদত্যাগসহ অন্যান্য দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল অব্যাহত রেখেছেন শিক্ষার্থীরা। অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এর আগে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলন দমন করতে ক্যাম্পাসে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার অভিযোগ ওঠে প্রশাসনের বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদে শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে মশাল মিছিল বের করে পুরো ক্যাম্পাস প্রদক্ষীণ করেন শিক্ষার্থীরা।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা গেছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গত ছয় মাসে সাত শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বহিষ্কৃত ওই শিক্ষার্থীদের অপরাধ উপাচার্য ও প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের অনিয়মের বিরুদ্ধে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন তারা। সর্বশেষ ১১ সেপ্টেম্বর ফেসবুকে শিক্ষকদের নিয়ে স্ট্যাটাস দেয়ায় আইন বিভাগের ছাত্রী ও সাংবাদিক ফাতেমা তুজ জিনিয়াকে বহিষ্কার করা হয়।

বহিষ্কারের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে উপাচার্য বলেছেন, জিনিয়া তার ফেসবুক আইডি হ্যাক করেছেন। সেই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ফেসবুক ও ই-মেইল আইডি হ্যাক করেছেন। তিনি ওয়েবসাইট হ্যাক করে ভর্তি পরীক্ষা বানচালের ষড়যন্ত্র করেছেন।

তবে জিনিয়া বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতি নিয়ে প্রতিবেদন করার কারণেই তাকে উপাচার্যের রোষাণলে পড়তে হয়েছে।

এ ঘটনার পর জিনিয়াকে বহিষ্কারের প্রতিবাদে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকরা আন্দোলন শুরু করেন। সাংবাদিকদের আন্দোলনের মুখে গত বুধবার জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে নেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এরপর ওইদিন রাত থেকে অধ্যাপক ড. খন্দকার নাসির উদ্দিনের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনে নামেন বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা।

পরীক্ষা থাকছে না প্রথম থেকে তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক: সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম থেকে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত বার্ষিক পরীক্ষা নেয়া হবে না। ক্লাস পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা হবে। আগামী বছর থেকে প্রথম পর্যায়ে দেশের ১০০টি বিদ্যালয়ে পাইলটিং হিসেবে এ কার্যক্রম শুরু করা হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস-২০১৯ উদযাপন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম আল হোসেন এসব তথ্য জানান।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের ওপর পরীক্ষার চাপ কমাতে আমরা প্রথম থেকে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত বার্ষিক পরীক্ষা না নেয়ার সিদ্ধান্ত নেই। সে লক্ষ্যে আমরা গত ছয় মাস থেকে কাজ করেছি। ২০২০ সাল থেকে পাইলটিং হিসেবে ১০০ বিদ্যালয়কে এর আওতায় আনা হবে।

তিনি বলেন, এসব বিদ্যালয়ে মাসিক ক্লাস পরীক্ষার মাধ্যমে মূল্যায়ন করে প্রথম থেকে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত উত্তীর্ণ করা হবে। তবে চতুর্থ শ্রেণি থেকে বার্ষিক পরীক্ষা আয়োজন করা হবে।

সচিব বলেন, পাইলটিং কার্যক্রম শেষ হলে ২০২১ সাল থেকে দেশের ৬৫ হাজারেরও বেশি বিদ্যালয়ে এ পরীক্ষা বাতিল করে ক্লাস পরীক্ষার মাধ্যমে মূল্যায়ন করা হবে। পাশাপাশি ২০২১ সাল থেকে প্রাথমিক পর্যায়ে নতুন পাঠ্যক্রম প্রণয়ন করা হবে।

দিনে শিক্ষক, রাতে রিক্সা-ভ্যান চালক
                                  

পঞ্চগড় প্রতিনিধি: দেশে দুই ধরনের শিক্ষা ব্যবস্থা চালু রয়েছে-একটি হচ্ছে সাধারণ শিক্ষা অপরটি হচ্ছে মাদরাসা শিক্ষা। সাধারণ শিক্ষার প্রাথমিক স্তর হচ্ছে প্রাথমিক বিদ্যালয় মাদরাসা শিক্ষার প্রাথমিক স্তর হচ্ছে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা। স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী শিক্ষকরা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ন্যায় শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পন্ন শিক্ষক। স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসায় প্রথম শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ালেখা হয় সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত। সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে শতভাগ ছাত্রছাত্রী সাফল্য অর্জন করে সরকার কর্তৃক মাদরাসা গুলোতে বিনামূল্যে বই ও উপবৃত্তি দেওয়া হয় ছাত্রছাত্রীদের অথচ দীর্ঘ ৪৬ বছর দেশ স্বাধীন হওয়ার পরও শিক্ষকদের ভাগ্যে কোন পরিবর্তন ঘটেনি। দীর্ঘ কয়েক যুগ বিনা বেতনে চাকুরী করে শুন্য হাতে হাজার হাজার শিক্ষক অবসরে গেছেন। হাজার হাজার শিক্ষক স্বল্প কিছু দিনের মধ্যে অবসরে যাবেন শুন্য হাতে। মাত্র ১৫১৯ টি মাদরাসার চারজন করে শিক্ষক তেইশত টাকা পচিশত টাকা হারে মাসিক বেতনভাতা পাওয়ার কথা থাকলেও অধিকাংশ মাদরাসায় দীর্ঘদিন ধরে অধিকাংশ পদ শুন্য হয়ে যায় তাদের পরিবর্তে নতুন শিক্ষক নিয়োগ পেয়ে পনের-বিশ বছর ধরে চাকুরী করলেও মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত হীনতায় শুন্য পদের শিক্ষকরা মানবেতর জীবন যাপন করছেন পরিবার পরিজনদের নিয়ে। দিনের বেলা স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষকরা মাদরাসায় চাকুরী করে বেতন পাবেন এ আশায় শিক্ষকতা করলেও রাত্রি বেলা পরিবার পরিজনের জন্য রিক্সা ভ্যান চালিয়ে সংসার চালান। অনেকে রাতে চা কোম্পানী, মুরগি পোল্ট্রি ফার্মে রাত্রি বেলা কাজ করতে দেখা গেছে। বদেশ্বরী স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষক আজগর আলী জানান, লজ্জায় রাত্রে মুখ ঢেকে রিক্সা-ভ্যান চালাই। দলুয়া পাড়া স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষক আব্দুল জলিল জানান, দিনের বেলা মাদরাসায় ক্লাস করি ভবিষ্যতের আশায়, রাতের বেলা চা কোম্পানীতে সারারাত কাজ করি জীবন জীবীকার তাগিদে। তেইশত টাকা মাসে বেতন পাই।  সেই টাকা দিয়ে দুইটি সন্তানের প্রাইভেট বেতন দিতেই চলে যায়। এ অবস্থা শুধু দু’চারজন শিক্ষকের নয়, এ সমস্যা হাজার হাজার শিক্ষকের। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জরুরি হস্তক্ষেপ গ্রহণ না করলে বিলুপ্ত হবে মাদরাসাগুলো শিক্ষকদের পরিবার অনাহারে কাটবে জীবন।

প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার সূচি প্রকাশ
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট: পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা-২০১৯ এর সময়সূচি প্রকাশ করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এবারের পরীক্ষা ১৭ নভেম্বর শুরু হয়ে শেষ হবে ২৪ নভেম্বর। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) মন্ত্রণালয় পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ করে। যা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে (ttps://mopme.gov.bd) পাওয়া যাবে।

পরীক্ষায় বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থীদের জন্য ৩০ মিনিট অতিরিক্ত সময় দেয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে।
 
পরীক্ষার সূচি:
প্রাথমিক সমাপনীতে ১৭ নভেম্বর ইংরেজি, ১৮ নভেম্বর বাংলা, ১৯ নভেম্বর বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয়, ২০ নভেম্বর প্রাথমিক বিজ্ঞান, ২১ নভেম্বর ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এবং ২৬ নভেম্বর গণিত বিষয়ের পরীক্ষা হবে।

ইবতেদায়ী সমাপনীতে ১৭ নভেম্বর ইংরেজি, ১৮ নভেম্বর বাংলা, ১৯ নভেম্বর বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় এবং বিজ্ঞান, ২০ নভেম্বর আরবি, ২১ নভেম্বর কোরআন মাজিদ ও তাজবীদ এবং আকাঈদ ও ফিকহ্ এবং ২৪ নভেম্বর গণিত বিষয়ের পরীক্ষা নেওয়া হবে।

প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নের লক্ষ্যে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য ২০০৯ সাল এবং ইবতেদায়ীতে এই পরীক্ষা শুরু হয় ২০১০ সালে। প্রথম দুই বছর বিভাগভিত্তিক ফল দেওয়া হলেও ২০১১ সাল থেকে গ্রেডিং পদ্ধতিতে ফল দেওয়া হচ্ছে। ২০১৩ সাল থেকে এই পরীক্ষার সময় আধা ঘণ্টা বাড়িয়ে আড়াই ঘণ্টা করা হয়। সমাপনী পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিয়ে থাকে সরকার।

ধলেশ্বরী নদীতে গোসল করতে গিয়ে ৩ শিক্ষার্থী নিখোঁজ
                                  

নিজস্ব সংবাদদাতা: রাজধানীর ধানমন্ডি আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের তিন শিক্ষার্থী  সাভারের ধলেশ্বরী নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয়েছেন। এ ঘটনায় অসুস্থ আরও এক শিক্ষার্থীকে নিকটস্থ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সাভারের ধলেশ্বরী নদীতে এ ঘটনা ঘটে।
নিখোঁজ শিক্ষার্থীরা হলেন- বিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মেহেদী, আকাশ ও রাজন।
সাভার ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার লিটন আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সকালে রাজধানীর ধানমন্ডি আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ১২ জন শিক্ষার্থী সাভারের ব্যাংকটাউন এলাকায় ধলেশ্বরী নদীতে নৌভ্রমণে আসেন।

পরে তারা সাড়ে ১১টার দিকে গোসল করতে নেমে তিন শিক্ষার্থী নিখোঁজ হন। এসময় আরও এক শিক্ষার্থীকে অসুস্থ অবস্থায় সাভারের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিখোঁজদের সন্ধানে ডুবুরি দলকে তলব করা হয়েছে বলেও জানান সিনিয়র স্টেশন অফিসার লিটন।

দ্বিতীয় দিনের মতো ঢাবির সব ভবনে তালা
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : সরকারি সাত  কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা।

সোমবার আন্দোলনের দ্বিতীয় দিনেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ভবনে তালা লাগিয়ে দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র শাকিল মিয়া বলেন, আজও স্বতঃস্ফূর্তভাবে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে অংশ নিয়েছে। সব একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবনে তালা দেয়া হয়েছে। সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্লাস পরীক্ষায় অংশগ্রহণ থেকে বিরত থাকছে।

জানা গেছে, সকাল আটটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবনে তালা দেয় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এরপর সেখানে বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে অবস্থান নেয় তারা। সকাল দশটার দিকে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক আ ক ম জামাল উদ্দিনসহ কয়েকজন শিক্ষকের বাগবিতণ্ডা হয়। আন্দোলনকারীরা বলেন, অধ্যাপক আ ক ম জামালের আচরণ কোনোভাবেই শিক্ষকসুলভ নয়।

এ সময় তারা ‘প্রশাসন করে কী, খায় দায় ঘুমায় নাকি’, ‘নির্লজ্জ প্রশাসন, ধিক্কার, ধিক্কার’, ‘ঢাবির সম্মান, নষ্ট হতে দেব না’, ‘সাত কলেজ বাতিল চাই’, ‘রক্তে ঢাবির সম্মান, সাত কলেজ বেমানান’ ইত্যাতি স্লোগান দিতে থাকেন।

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলসহ চার দফা দাবিতে গতকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট ডেকেছে শিক্ষার্থীরা। পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি চলছে। অধিভুক্তি বাতিলসহ দাবিগুলো হলো-চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকেই অধিভুক্ত সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিল করা; দুই মাসের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষার ফলাফল দেয়া; বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কার্যক্রম ডিজিটালাইজেশন করা এবং ক্যাম্পাসে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ ও রিকশা ভাড়া নির্ধারণ করা।

এর আগে পরীক্ষায় গণহারে ফেল করানোর প্রতিবাদে ও সঠিক সময়ে ফল প্রকাশের দাবিতে একাধিকবার সড়ক অবরোধ করে কর্মসূচি পালন করেন সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা।

আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্তি থেকে সরকারি সাত কলেজকে বাদ দেওয়ার দাবিতে ১৭ জুলাই বিক্ষোভ করেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা। একই দাবিতে গতকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ফটকে তালা লাগিয়ে আন্দোলন করছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা।

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে ঢাবির সব ফটকে তালা
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : সরকারি সাত  কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ফটকে তালা লাগিয়ে দিয়েছেন  শিক্ষার্থীরা।

রোববার ২১ জুলাই সকালে সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার বিল্ডিং, কলাভবন, ব্যাবসায় অনুষদ, সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। এসময় আন্দোলনকারীরা অধিভুক্তি বাতিলের দাবি না মেনে নেয়া পর্যন্ত তালা খুলবেন না বলে জানান।

এ বিষয়ে আন্দোলন কর্মী আসিফ  বলেন, আমরা রেজিস্টার বিল্ডিং, কলাভবন, এফবিএস, সমাজ বিজ্ঞান অনুষদে তালা ঝুলিয়েছি। সাত কলেজের বাতিলের সুনির্দিষ্ট আশ্বাস পাওয়ার আগে আমাদের অবস্থান থেকে সরে আসবো না।

এদিকে শিক্ষার্থীদের একাংশের আন্দোলনের ফলে সকালে ক্লাস করতে এসে ফিরে গিয়েছেন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। এর আগে ৮টায় কর্মচারীরা তালা খুলতে এলে তাদের বাধা দেয় আন্দোলনকারীরা।

সর্বশেষ সকাল ৯টার দিকে প্রো-ভিসি (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মু. সামাদ তার কার্যালয়ে ঢোকার চেষ্টা করলেও শিক্ষার্থীদের বাধায় ঢুকতে পারেননি। এ সময় প্রো-ভিসি তাদের বলেন, এটা বিশ্ববিদ্যালয়ের একক কোনো সিদ্ধান্ত না, জাতীয় সিদ্ধান্ত। তাই কোনো কিছু করতে হলে একটা প্রসেসের মধ্য দিয়ে যেতে হবে। সেই সময় পর্যন্ত তোমরা আন্দোলন স্থগিত করো।

প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা তালা খুলে দেয়নি।

শিক্ষার্থীদের ভাষ্য, সাত কলেজ বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের গলার কাঁটা হিসেবে পরিণত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যেখানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৭ হাজার শিক্ষার্থীর শিক্ষা কার্যক্রম সঠিকভাবে পরিচালনা করতে ব্যর্থ সেখানে অতিরিক্ত সাত কলেজের পৌনে ২ লাখ শিক্ষার্থীর দায়িত্বভার গ্রহণ অযৌক্তিক ও অনভিপ্রেত। তাই তারা সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিল চান।

শতভাগ পাস ৯০৯ প্রতিষ্ঠানে, ৪১টিতে পাস করেনি কেউ
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফলে শতভাগ পাস করেছে এমন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৯০৯টি, যা গতবার ছিল ৪০০টি। আর একজনও পাস করেনি এমন প্রতিষ্ঠান রয়েছে ৪১টি, যা গতবার ছিল ৫৫টি।

গণভবনে বুধবার সকাল ১০টার পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। এ ছাড়া সংশ্লিষ্ট বোর্ডের চেয়ারম্যানরা তাদের স্ব স্ব বোর্ডের ফলাফল প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন। এরপর সংবাদ সম্মেলনে ফল ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী।

দেশের ১০ শিক্ষাবোর্ডের প্রাপ্ত ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা যায়, শতভাগ পাস করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা গতবারের চেয়ে দিগুণেরও বেশি বেড়েছে। অন্যদিকে পাস না করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২০১৮ সালের চেয়ে কমেছে।

সারাদেশের মোট ৮ হাজার ৯৮৫ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। যা গতবার ছিল ৮ হাজার ৯৪৫টি। এবার মোট কেন্দ্র ছিল ২৫৬০টি, যা গতবার ছিল ২৫৪০টি। এইসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা চলাকালীন বিভিন্ন কারণে বহিষ্কার হয়েছেন ৬৬১ জন, যা গতবার ৮২৬ জন।


   Page 1 of 28
     শিক্ষা
ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাস ২৩.৭২ শতাংশ
.............................................................................................
বুয়েটে ছাত্রলীগের রুম সিলগালা । দৈনিক স্বাধীন বাংলা
.............................................................................................
কাল ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল
.............................................................................................
বুয়েটের আন্দোলন ২ দিনের জন্য শিথিল
.............................................................................................
ফাহাদ হত্যার বিচার দাবিতে উত্তাল বুয়েট
.............................................................................................
বুয়েট হলের সিঁড়িতে ছাত্রের লাশ, শরীরে আঘাতের চিহ্ন
.............................................................................................
ঢাবির ‘গ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাসের হার ১৫.৪৯ শতাংশ
.............................................................................................
শিক্ষার্থী আন্দোলনে উত্তাল বশেমুবিপ্রবি
.............................................................................................
শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে বশেমুরবিপ্রবি বন্ধ ঘোষণা
.............................................................................................
পরীক্ষা থাকছে না প্রথম থেকে তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত
.............................................................................................
দিনে শিক্ষক, রাতে রিক্সা-ভ্যান চালক
.............................................................................................
প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার সূচি প্রকাশ
.............................................................................................
ধলেশ্বরী নদীতে গোসল করতে গিয়ে ৩ শিক্ষার্থী নিখোঁজ
.............................................................................................
দ্বিতীয় দিনের মতো ঢাবির সব ভবনে তালা
.............................................................................................
সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে ঢাবির সব ফটকে তালা
.............................................................................................
শতভাগ পাস ৯০৯ প্রতিষ্ঠানে, ৪১টিতে পাস করেনি কেউ
.............................................................................................
যেভাবে জানা যাবে এইচএসসির ফল
.............................................................................................
এইচএসসিতে পাশের হার ৭৩.৯৩ শতাংশ
.............................................................................................
এমপিওভুক্তিতে অবহেলিত এলাকা অগ্রাধিকার পাবে
.............................................................................................
মৌলিক গবেষণায় পিছিয়ে পড়ছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো
.............................................................................................
ফেসবুক পেজের বিরুদ্ধে রাবি ছাত্রীর জিডি
.............................................................................................
প্যানেল ঘোষণা করলো কোটা আন্দোলনকারীরা
.............................................................................................
দুদক জ্বরে কাঁপছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান
.............................................................................................
ডাকসু নির্বাচন: ছাত্র সংগঠনগুলোর সঙ্গে বৈঠকে প্রশাসন
.............................................................................................
১৬-১৭ জানুয়ারি শাবিতে নবীনদের ওরিয়েন্টেশন
.............................................................................................
হাসনা হেনার মুক্তির দাবিতে ভিকারুননিসায় অনশন
.............................................................................................
নিখোঁজ জাবি ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সৈকত
.............................................................................................
ঢাবি’র চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটে পাস ১৯ দশমিক ৪৫
.............................................................................................
অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতাকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ
.............................................................................................
ঢাবির ৫১তম সমাবর্তন আজ
.............................................................................................
হাটগোপালপুর মর্নিংসান কিন্ডার গার্টেন স্কুলে বৃত্তির অর্থ ও সনদপত্র বিতরণ
.............................................................................................
ভর্তি পরীক্ষা : ঢাবির ‘গ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ
.............................................................................................
খুবিতে প্রথম বর্ষে ভর্তির আবেদন শুরু
.............................................................................................
প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে ৯৭৬৭ জন চূড়ান্ত
.............................................................................................
পদ্মা সেতুর ৪র্থ স্প্যান বসলো
.............................................................................................
আজ থেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুরু
.............................................................................................
কনুই দিয়ে লিখে জিপিএ-৫!
.............................................................................................
দেশসেরা রাজশাহী শিক্ষাবোর্ড
.............................................................................................
অধ্যাপক আসিফ নজরুলকে জুতাপেটার হুমকি
.............................................................................................
এসএসসির ফল যেভাবে পাওয়া যাবে
.............................................................................................
গ্রিন ইউনিভার্সিটিতে ‘এ্যাডমিশন ফেয়ার’ শুরু
.............................................................................................
এসএসসির ফল আগামীকাল
.............................................................................................
জবি’র ভর্তি পরীক্ষায় থাকছে না এমসিকিউ
.............................................................................................
প্রতিবাদ করে নিজেই ‘হলছাড়া’ ঢাবি ছাত্র
.............................................................................................
গভীর রাতে ছাত্রীদের হল থেকে বের করে দিল ঢাবি কর্তৃপক্ষ
.............................................................................................
অনুমোদন পেলো আরও দুটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়
.............................................................................................
৬ মে এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ : শিক্ষামন্ত্রী
.............................................................................................
সুফিয়া কামাল হল ছাত্রলীগের সভাপতি এশা বহিষ্কার
.............................................................................................
কোটা সংস্কার আন্দোলন: বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন
.............................................................................................
কোটা সংস্কার: ঢাবিতে সংঘর্ষ, ছাত্রলীগের গুলি
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Nytasoft