মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই 2020 | বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   খেলাধূলা -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
শিরোপা লড়াইয়ে টিকে থাকলো বার্সেলোনা

ক্রীড়া ডেস্ক : শিরোপা লড়াইয়ে রিয়াল মাদ্রিদের ওপর চাপ ধরে রাখতে জয়ের বিকল্প ছিল না বার্সেলোনার। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে আলো ছড়িয়েছেন লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেস, অঁতোয়ান গ্রিজমান ও আনসু ফাতি।  ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে ৪-১ গোলের বিরাট ব্যবধানের জয়ে শিরোপা জয়ের দৌড়ে টিকে থাকলো কাতালানরা।

এই জয়ের পরও অবশ্য রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে ৪ পয়েন্টে পিছিয়ে আছে বার্সা। লিগে বাকি আর ৪ ম্যাচ। গাণিতিক হিসাবে শিরোপা স্বপ্ন এখনও টিকে আছে। তবে খোদ বার্সা খেলোয়াড়রাও নিশ্চয়ই জানেন সেই সম্ভাবনা প্রায় অসম্ভবের মতোই।

বহুদিন পর আক্রমণাত্মক বার্সার দেখা মিলেছে। লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজে, আঁতোয়া গ্রিজম্যানকে একসঙ্গে মাঠে নেমে সফল হয়েছেন। মেসি করেছেন দুই অ্যাসিস্ট, তাতে পরের দুইজন করেছেন দেখার মতো দুই গোল। আর শেষে বদলি নেমে আনসু ফাতিও যোগ দিয়েছেন স্কোরশিটে।

লা সিরামিকায় শুরুতেই নিজেদের ওপর চাপ কমিয়ে ফেলেছিল বার্সা। ম্যাচের ৩ মিনিটে জর্দি আলবার ক্রস থেকে পাউ তোরেস আত্মঘাতী গোল করে বসেন। তবে এরপরও পুরোপুরি স্বস্তি মেলেনি বার্সার। এই মৌসুমে যেন নিয়মিত ঘটনাই হয়ে গেছে সেটি। জেরার্ডো মরেনো ১৪ মিনিটেই গোল শোধ দিয়ে ভিয়ারিয়ালকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনেন।

২০ মিনিটেই আবার দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় বার্সা। মিডফিল্ডে বল জিতে মেসি ঝলক দেখিয়েছেন। ভিয়ারিয়ালের দুই ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে বক্সের সামনে গিয়ে বাম পাশে থাকা সুয়ারেজকে পাস দিয়েছেন। উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার ডান পায়ের বাঁকানো শটে বল জড়িয়েছেন টপ কর্নারে।

মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগানকে সচেষ্ট থাকতে হয়েছে এরপরও। এক গোলের লিড হারাতে পারত বার্সা। দারুণ কিছু সেভ করে জার্মান গোলরক্ষক বার্সাকে পথ হারাতে দেননি। বিরতির আগে কাজটা সহজ করে দিয়েছেন গ্রিজম্যান।

ভিয়ারিয়ালের বক্সের ঠিক বাইরে মেসির সঙ্গে দারুণ বোঝাপড়ার পর ব্যাকহিল থেকে বল পান গ্রিজম্যান। সুয়ারেজে যেখান থেকে গোল করেছেন সেখানেই বল পেয়েছিলেন তিনি। তিনিও একই কোণায় বল জড়িয়েছেন, তবে বাম পায়ের দুর্দান্ত এক চিপে।

দ্বিতীয়ার্ধে বেশিরভাগ সময়ই দেখা গেছে বার্সার দাপট। ভিয়ারিয়াল গোলরক্ষক সার্জিও আসেনখো একের পর এক সেভ করে স্কোরলাইনটা বাড়তে দেননি। এর মধ্যে মেসি নিজেও গোল করেছিলেন ৬৯ মিনিটে। কিন্তু অফসাইডের কারণে পরে ভিএআরে বাতিল হয়েছে সেই গোল। যোগ করা সময়ে ফ্রি-কিক থেকে মেসির শট লেগেছে বারপোস্টে। তাই ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে আর গোল পাওয়া হয়নি মেসির।

রিকি পুজ মাঠে নেমেছিলেন ৬০ মিনিটে, আরেক তরুণ ফাতি ৭২ মিনিটে। দুইজনই দিশেহারা বার্সাকে আলোর রেখা দেখিয়েছেন আরেকবার। ফাতি অবশ্য এক ধাপ বেশি গেছেন। ১৭ বছর বয়সী ৮৬ মিনিটে করেছেন সলো গোল। আলবার কাছ থেকে বাম প্রান্তে বল পেয়ে ঢুকে গিয়েছিলেন বক্সের ভেতর, নিজেই শট নিয়েছেন। সেই বল গড়িয়ে গড়িয়ে গিয়ে জড়িয়েছে ভিয়ারিয়ালের জালে।

শিরোপা লড়াইয়ে টিকে থাকলো বার্সেলোনা
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : শিরোপা লড়াইয়ে রিয়াল মাদ্রিদের ওপর চাপ ধরে রাখতে জয়ের বিকল্প ছিল না বার্সেলোনার। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে আলো ছড়িয়েছেন লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেস, অঁতোয়ান গ্রিজমান ও আনসু ফাতি।  ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে ৪-১ গোলের বিরাট ব্যবধানের জয়ে শিরোপা জয়ের দৌড়ে টিকে থাকলো কাতালানরা।

এই জয়ের পরও অবশ্য রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে ৪ পয়েন্টে পিছিয়ে আছে বার্সা। লিগে বাকি আর ৪ ম্যাচ। গাণিতিক হিসাবে শিরোপা স্বপ্ন এখনও টিকে আছে। তবে খোদ বার্সা খেলোয়াড়রাও নিশ্চয়ই জানেন সেই সম্ভাবনা প্রায় অসম্ভবের মতোই।

বহুদিন পর আক্রমণাত্মক বার্সার দেখা মিলেছে। লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজে, আঁতোয়া গ্রিজম্যানকে একসঙ্গে মাঠে নেমে সফল হয়েছেন। মেসি করেছেন দুই অ্যাসিস্ট, তাতে পরের দুইজন করেছেন দেখার মতো দুই গোল। আর শেষে বদলি নেমে আনসু ফাতিও যোগ দিয়েছেন স্কোরশিটে।

লা সিরামিকায় শুরুতেই নিজেদের ওপর চাপ কমিয়ে ফেলেছিল বার্সা। ম্যাচের ৩ মিনিটে জর্দি আলবার ক্রস থেকে পাউ তোরেস আত্মঘাতী গোল করে বসেন। তবে এরপরও পুরোপুরি স্বস্তি মেলেনি বার্সার। এই মৌসুমে যেন নিয়মিত ঘটনাই হয়ে গেছে সেটি। জেরার্ডো মরেনো ১৪ মিনিটেই গোল শোধ দিয়ে ভিয়ারিয়ালকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনেন।

২০ মিনিটেই আবার দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় বার্সা। মিডফিল্ডে বল জিতে মেসি ঝলক দেখিয়েছেন। ভিয়ারিয়ালের দুই ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে বক্সের সামনে গিয়ে বাম পাশে থাকা সুয়ারেজকে পাস দিয়েছেন। উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার ডান পায়ের বাঁকানো শটে বল জড়িয়েছেন টপ কর্নারে।

মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগানকে সচেষ্ট থাকতে হয়েছে এরপরও। এক গোলের লিড হারাতে পারত বার্সা। দারুণ কিছু সেভ করে জার্মান গোলরক্ষক বার্সাকে পথ হারাতে দেননি। বিরতির আগে কাজটা সহজ করে দিয়েছেন গ্রিজম্যান।

ভিয়ারিয়ালের বক্সের ঠিক বাইরে মেসির সঙ্গে দারুণ বোঝাপড়ার পর ব্যাকহিল থেকে বল পান গ্রিজম্যান। সুয়ারেজে যেখান থেকে গোল করেছেন সেখানেই বল পেয়েছিলেন তিনি। তিনিও একই কোণায় বল জড়িয়েছেন, তবে বাম পায়ের দুর্দান্ত এক চিপে।

দ্বিতীয়ার্ধে বেশিরভাগ সময়ই দেখা গেছে বার্সার দাপট। ভিয়ারিয়াল গোলরক্ষক সার্জিও আসেনখো একের পর এক সেভ করে স্কোরলাইনটা বাড়তে দেননি। এর মধ্যে মেসি নিজেও গোল করেছিলেন ৬৯ মিনিটে। কিন্তু অফসাইডের কারণে পরে ভিএআরে বাতিল হয়েছে সেই গোল। যোগ করা সময়ে ফ্রি-কিক থেকে মেসির শট লেগেছে বারপোস্টে। তাই ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে আর গোল পাওয়া হয়নি মেসির।

রিকি পুজ মাঠে নেমেছিলেন ৬০ মিনিটে, আরেক তরুণ ফাতি ৭২ মিনিটে। দুইজনই দিশেহারা বার্সাকে আলোর রেখা দেখিয়েছেন আরেকবার। ফাতি অবশ্য এক ধাপ বেশি গেছেন। ১৭ বছর বয়সী ৮৬ মিনিটে করেছেন সলো গোল। আলবার কাছ থেকে বাম প্রান্তে বল পেয়ে ঢুকে গিয়েছিলেন বক্সের ভেতর, নিজেই শট নিয়েছেন। সেই বল গড়িয়ে গড়িয়ে গিয়ে জড়িয়েছে ভিয়ারিয়ালের জালে।

শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার সাকিব
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক: ওয়ানডে ক্রিকেটে এই শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন সাকিব আল হাসান। ক্রিকেটের বাইবেলখ্যাত ম্যাগাজিন ‘উইজডেন’ এর গবেষণায় চলতি শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন সাকিব আল হাসান। ক্রিকেট পরিসংখ্যান বিশ্লেষক সংস্থা ‘ক্রিকভিজ’ এর সঙ্গে যৌথ গবেষণায় এ ফল প্রকাশ করেছে উইজডেন ক্রিকেট মান্থলি।

গত ২০ বছরের পরিসংখ্যানকে বিবেচনায় এনে এ তালিকা প্রকাশ করেছে উইজডেন।

সেখানে বলা হয়েছে, সাকিব বিশ্বের দ্বিতীয় সেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার। পাশাপাশি টেস্টে সাকিবের অবস্থান ষষ্ঠ। তবে টি-টোয়েন্টিতে সেরা দশে সাকিবের নাম খুঁজে পাওয়া যায়নি সেই তালিকায়।

‘মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার অব দ্য সেঞ্চুরি’-এর সেই তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছেন ইংল্যান্ডের পেস বোলিং অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ।

যদিও সাকিব থেকে মাত্র ০.৫ পয়েন্ট বেশি ফ্লিনটফের! আর টেস্টে সবার ওপরে শ্রীলংকার ঘূর্ণি জাদুকর মুত্তিয়া মুরালিধরন এবং টি-টোয়েন্টিতে এক নম্বরে রশিদ খান।

টেস্টের সেরা ১০
১/ মুত্তিয়া মুরালিধরন (শ্রীলঙ্কা) - ৯৭.৫ পয়েন্ট
২)/ রবীন্দ্র জাদেজা (ভারত) - ৯৭.৩ পয়েন্ট
৩/ স্টিভ স্মিথ (অস্ট্রেলিয়া) - ৯১.৭ পয়েন্ট
৪/ গ্লেন ম্যাকগ্রা (অস্ট্রেলিয়া) - ৮৯.৬ পয়েন্ট
৫/ শন পোলক (দক্ষিণ আফ্রিকা) - ৮৪.৯ পয়েন্ট
৬/ সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ) - ৮৪.২ পয়েন্ট
৭/ জ্যাক ক্যালিস (দক্ষিণ আফ্রিকা) - ৮৩.৯ পয়েন্ট
৮/ রবিচন্দ্রন অশ্বিন (ভারত) - ৮৩.৯ পয়েন্ট
৯/ প্যাট কমিন্স (অস্ট্রেলিয়া) - ৮৩.৩ পয়েন্ট
১০/ শেন ওয়ার্ন (অস্ট্রেলিয়া) - ৮১.০২ পয়েন্ট

ওয়ানডের সেরা ১০
১/ অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ (ইংল্যান্ড) - ২১.৩ পয়েন্ট
২/ সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ) - ২০.৮ পয়েন্ট
৩/ গ্লেন ম্যাকগ্রা (অস্ট্রেলিয়া) - ২০.৬ পয়েন্ট
৪/ এবি ডি ভিলিয়ার্স (দক্ষিণ আফ্রিকা) - ২০.৪
৫/ কেন উইলিয়ামস (নিউজিল্যান্ড) - ১৯.১ পয়েন্ট
৬/ বিরাট কোহলি (ভারত) - ১৮.৯ পয়েন্ট
৭/ শন পোলক (দক্ষিণ আফ্রিকা) - ১৭.১ পয়েন্ট
৮/ হাশিম আমলা (দক্ষিণ আফ্রিকা) - ১৭.১ পয়েন্ট
৯/ নাথান ব্র্যাকেন (অস্ট্রেলিয়া) - ১৭.০ পয়েন্ট
১০/ জ্যাক ক্যালিস (দক্ষিণ আফ্রিকা) - ১৬.৯ পয়েন্ট

টি-টোয়েন্টির সেরা ১০
১/ রশিদ খান (আফগানিস্তান) - ৭.১ পয়েন্ট
২/ যশপ্রীত বুমরাহ (ভারত) - ৬.৭ পয়েন্ট
৩/ ডেভিড ওয়ার্নার (অস্ট্রেলিয়া) - ৬.২ পয়েন্ট
৪/ সুনিল নারাইন (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) - ৬.২ পয়েন্ট
৫/ এবি ডি ভিলিয়ার্স (দক্ষিণ আফ্রিকা) - ৫.৭ পয়েন্ট
৬/ ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) - ৫.৬ পয়েন্ট
৭/ এভিন লুইস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) - ৫.৫ পয়েন্ট
৮/ লাসিথ মালিঙ্গা (শ্রীলঙ্কা) - ৫.২ পয়েন্ট
৯/ ওয়াহাব রিয়াজ (পাকিস্তান) - ৫.০ পয়েন্ট
১০/ কুইন্টন ডি কক (দক্ষিণ আফ্রিকা) - ৫.০ পয়েন্ট

রাকিতিচের গোলে শীর্ষে ফিরল বার্সেলোনা
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : চলতি মৌসুমে দুইবার পেতে হয়েছে হারের তেতো স্বাদ। শঙ্কা জেগেছিল আবারও অ্যাতলেটিকো বিলবাওয়ের বিপক্ষে পয়েন্ট হারানোর। দারুণ এক গোলে বার্সেলোনার ত্রাতা ইভান রাকিতিচ। লা লিগার ম্যাচে মঙ্গলবার রাতে ১-০ গোলে জিতেছে কিকে সেতিয়েনের দল। ২০১৮ সালের মার্চের পর এই প্রথম বিলবাওয়ের বিপক্ষে জিতল বার্সেলোনা।

এই ম্যাচ জিতে ফের লা লিগার শীর্ষস্থানে উঠলো বার্সেলোনা। ৩১ ম্যাচে ৬৮ পয়েন্ট তাদের। এক ম্যাচ কম খেলে ৩ পয়েন্ট পেছনে রিয়াল মাদ্রিদ ৬৫।

টানা দ্বিতীয় ম্যাচে গোল পেলেন না মেসি। তাতে ৬৯৯ গোল নিয়ে এখনও ৭০০তম গোলের অপেক্ষা করতে হচ্ছে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে।

ন্যু ক্যাম্পে এদিনও বার্সার সেরা পারফর্ম দেখা যায়নি। ম্যাচের মোড় ঘুরে যায় ৭১ মিনিটে। বক্সের মধ্যে অরক্ষিত থাকা রাকিতিচকে দিয়ে গোল করান মেসি। খেলার শেষ মুহূর্তে মাইলফলকের গোলটি করতে পারতেন এলএমটেন। কিন্তু তার জোরালো শটটি গোলপোস্টের কয়েক ইঞ্চি দূর দিয়ে যায় মাঠের বাইরে।

যোগ করা সময়ে আনসু ফাতি পোস্টে শট নেন। আর্তুরো ভিদালও নাম লিখতে পারতেন গোলদাতার খাতায়। কিন্তু গোলরক্ষক উনাই সিমন রুখে দেন তাদের।

বার্সেলোনার পোস্টেও ভীতি তৈরি করেছিল বিলবাও। বার্সা গোলকিপার মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগেন প্রতিহত করেন উনাই লোপেজের ক্রস। লোপেজের বাড়ানো ফ্রি কিক থেকে আলভারেস হেড করেন। টের স্টেগেনের কপাল ভালো যে বার্সা ডিফেন্ডার বিলবাও খেলোয়াড়ের হেড ফিরিয়ে দেন।

বিরতির পর মেসির চতুর পাস থেকে আন্তোয়ান গ্রিজমান গোল করতে ব্যর্থ হন। গ্রিজমান ছিলেন নিষ্প্রাণ। টানা ৭টি লিগ ম্যাচে গোল নেই তার। ফরাসি ফরোয়ার্ড না পারলেও ম্যাচ শেষ হওয়ার ১৯ মিনিট আগে একমাত্র গোল আসে রাকিতিচের পা থেকে।

লুই সুয়ারেসের শট গোলকিপারের হাতে লেগে মাঠের বাইরে গেলে কর্নার হয়। ভক্তদের জয়ের স্বাদ আরও বেড়ে যেতে পারতো মেসি যদি গোলের আরেকটি সেঞ্চুরি পূর্ণ করতে পারতেন। কিন্তু তাকে আরও অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে।

ক্রীড়াঙ্গনেও বাড়ছে করোনার থাবা
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : অনেক দেশেই শুরু হয়ে গেছে ২২ গজে ফেরার প্রস্তুতি। এরইমধ্যে টেস্ট সিরিজ খেলতে ইংল্যান্ডে চলে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। চলতি মাসের শেষ দিকে পাকিস্তানেরও  ইংল্যান্ড সফরে যাওয়ার কথা। ক্রিকেট ফেরানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকাও।

কিন্তু তার আগেই এলো মহা দুঃসংবাদ। পাকিস্তানের ইংল্যান্ড সফরের স্কোয়াডের তিন সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর দক্ষিণ আফ্রিকার সাত  ক্রিকেটারের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, লেগ স্পিনার সাদাব খান, ডান হাতি তরুণ পেসার হারিস রউফ এবং অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা ওপেনার হায়দার আলি করোনায় আক্রান্ত।

রোববার রাওয়ালপিন্ডিতে তাদের করোনা পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু পরীক্ষার আগ পর্যন্ত এই তিন ক্রিকেটারের শরীরে কোনো উপসর্গ দেকা যায়নি বলে জানাচ্ছে ক্রিকইনফো। ইংল্যান্ড সফরে যাওয়ার আগে তাদের এটা ছিল তাদের রুটিন পরীক্ষা।

পিসিবি জানিয়েছে, তিন ক্রিকেটারকেই আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। এই তিন ক্রিকেটারের সঙ্গে রাওয়ালপিন্ডিতে করোনা টেস্ট করিয়েছেন ইমাদ ওয়াসিম এবং উসমান সিনওয়ারিও। তবে তাদের রিপোর্ট এসেছে নেগেটিভ।

এদিকে, চলতি মাসে ক্রিকেটে নতুন ফরম্যাটের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় ক্রিকেট ফেরানোর কথা চলছিলো। জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের নিয়ে আয়োজিত তিন দলের সেই টুর্নামেন্টের দিনক্ষণও ঠিক করা হয়েছিল। তবে সরকারের সবুজ সংকেত না পাওয়ায় সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে হয় প্রোটিয়া ক্রিকেট বোর্ডকে।

আর এই সিদ্ধান্ত এখন শাপেবর হিসেবে দেখা যাচ্ছে ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকায়। কারণ, দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটে সাত জনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। যদি টুর্নামেন্টটি হতো তবে সেটি হয়ে উঠতো ভাইরাসের হটস্পট। ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকার (সিএসএ) প্রধান নির্বাহী জ্যাক পল এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে কে বা কারা আক্রান্ত হয়েছেন ভাইরাসটিতে সেই তথ্য প্রকাশ করেননি জ্যাক পল। এমনকি কোনো ক্রিকেটার আক্রান্ত হয়েছেন কি না সেটিও জানাননি তিনি।

দক্ষিণ আফ্রিকায় ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট সবার গণহারে করোনা পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সিএসএ। সে হিসেবেই সিএসএ’র বোর্ড কর্মকর্তা-কর্মচারী, টিম ম্যানেজমেন্টের সদস্য, ফ্র্যাঞ্চাইজি ট্রেনিং অ্যাসিস্ট্যান্ট এবং চুক্তিভূক্ত ক্রিকেটারসহ ১০০ জনের বেশি সদস্যের করোনা টেস্ট করেছে সিএসএ।

করোনা টেস্টের রিপোর্ট আসার পর দেখা যায় তারমধ্যে ৭ জনের রিপোর্ট পজেটিভ। প্রধান নির্বাহী জ্যাক পল এ বিষয়ে ২২ জুন স্পোর্টস২৪কে বলেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কেউ করোনা আক্রান্ত কি না তা পরীক্ষা করার উদ্যোগ নিয়েছিলাম আমরা। প্রাথমিকভাবে ১০০ জনের বেশি সদস্যের পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে সাতজনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে।’

এদিকে কারো পরিচয় প্রকাশ না করার কারণ হিসেবে জ্যাক পল আরও যোগ করেন, ‘আমাদের মেডিক্যাল এথিক্যাল প্রটোকল টিম আমাদেরকে করোনা পজিটিভ কারো নাম এবং পরিচয় প্রকাশের অনুমতি দেয়নি।’

এর আগে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের করোনা আক্রান্তের খবর মিলেছে। বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে মাশরাফি বিন মর্তুজা, নাজমুল ইসলাম অপু ও সাবেক ক্রিকেটার নাফিস ইকবাল করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

বার্সাকে পেছনে ফেলে শীর্ষে রিয়াল
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : স্প্যানিশ লা লিগায় বার্সেলোনাকে টপকে শীর্ষে উঠতে জয়ের বিকল্প ছিল না রিয়াল মাদ্রিদের সামনে। রোববার রাতে সোসিয়েদাদের ঘরের মাঠে প্রথমার্ধে গোলের দেখা না পেলেও দ্বিতীয়ার্ধে দুটি গোল করে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা। অবশ্য একটি গোল হজমও করে। তাতে ২-১ ব্যবধানের কষ্টার্জিত জয় পায় রামোস-বেনজেমারা। এই জয়ে বার্সেলোনাকে পেছনে ফেলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠেছে লস ব্লাঙ্কোসরা।

নিজেদের ঘরের মাঠে খেলতে নেমে রিয়ালের আক্রমণাত্মক ফুটবলের কাছে দিশেহারা হয়ে গিয়েছিল সোসিয়েদাদ। কিন্তু প্রথমার্ধে স্বাগতিকরা গোলমুখ নিরাপদ রাখতে সমর্থ হয়। প্রথম গোল পেতে রিয়ালকে অপেক্ষায় থাকতে হয় ৫০তম মিনিট পর্যন্ত। আর গোলটি আসে পেনাল্টি থেকে। দারুণভাবে গোলমুখে এগিয়ে যেতে থাকা ভিনিসিয়াস জুনিয়রকে নিজেদের বক্সে ফাউল করে বসেন সোসিয়েদাদের দিয়েগো লোরেন্তে। সঙ্গে সঙ্গে লোরেন্তেকে হলুদ কার্ড দেখানোর পাশাপাশি পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। তবে সিদ্ধান্ত ঘোষণার আগে ভিএআর’র সহায়তা নেন রেফারি। সুযোগটা দারুণভাবে কাজে লাগান রিয়াল অধিনায়ক।

লা লিগার ইতিহাসে ডিফেন্ডার হিসেবে সর্বোচ্চ গোলের মালিক এখন রামোস। এখন পর্যন্ত লা লিগায় রিয়ালের জার্সিতে তার গোলসংখ্যা ৬৮টি। এর আগে এইবারের বিপক্ষে গোল করে তিনি রোনাল্ড কোয়েমানের কীর্তি (৬৭ গোল) ছুঁয়েছিলেন। তবে লা লিগায় ডিফেন্ডার হিসেবে সবচেয়ে বেশি গোলের মালিক অবশ্য ফার্নান্দো হেরেইরা। কিন্তু তার ১০৫ গোলের মধ্যে কয়েকটি আবার মিডফিল্ড পজিশন থেকে এসেছে।

এই মৌসুমে এখন পর্যন্ত রিয়ালের জার্সিতে ৯ গোল করেছেন রামোস, এর মধ্যে লা লিগায় ৭টি, যা আবার যৌথভাবে তার ক্যারিয়ারের সেরা। কিন্তু এমন ইতিহাস গড়া গোল দেওয়ার কিছুক্ষণ পরেই সোসিয়েদাদের আলেকজান্ডার আইজ্যাকের সঙ্গে সংঘর্ষের পর হাঁটুর ইনজুরি নিয়ে ছিটকে গেছেন তিনি।

খেলার ৭০তম মিনিটে ব্যবধান দিগুণ করেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা করিম বেনজেমা। কাঁধ দিয়ে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে পায়ে নামিয়ে সঙ্গে সঙ্গে রকেট গতিতে বল জালে জড়িয়ে দেন ফরাসি স্ট্রাইকার। শুরুতে হ্যান্ডবলের আবেদন করেন স্বাগতিক দলের খেলোয়াড়রা। তবে ভিএআর’র সহায়তায় গোলের সিদ্ধান্ত দেন রেফারি।

ম্যাচের ৮৩তম মিনিটে ব্যবধান কমানো গোলটি করেন সোসিয়েদাদের মিকেল মেরিনো। রবের্তো লোপেজ দারুণ এক ক্রস দেন ব্যাক পোস্টে থাকা মোরেনোকে। বল খুব শান্তভাবে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আলতো টোকায় লক্ষ্যভেদ করেন মোরেনো। বাকি সময়ে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি কোনো দলই।

এই জয়ের পর শীর্ষে উঠা রিয়ালের সংগ্রহ ৩০ ম্যাচে ৬৫। সমান ম্যাচে সমান পয়েন্ট নিয়েও দুইয়ে নেমে গেছে বার্সা। আর ৩০ ম্যাচে ৪৭ পয়েন্ট নিয়ে ছয়ে সোসিয়েদাদ।

ফিক্সিংয়ের অধিকাংশ ঘটনায় জড়িত ভারত : আইসিসি
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : ফিক্সিং নিয়ে বিস্ফোরক তথ্য জানিয়েছে ইয়ান্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল-আইসিসি। বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি জানিয়েছে, ক্রিকেটে যত ফিক্সিংয়ের ঘটনা ঘটেছে তার বেশির ভাগের সঙ্গে ভারতের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

শনিবার স্পোর্টস ল এন্ড পলিসির ওপর করা এক ওয়েবিনারে আইসিসির ম্যাচ ফিক্সিং তদন্তের সমন্বয়কারী স্টিভ রিচার্ডসন বলেছেন, ‘আমাদের হাতে এখন ৫০টির মতো ম্যাচ ফিক্সিংয়ের তদন্ত চলছে। এর বেশিরভাগেরই ভারতের সঙ্গে যোগসুত্রতা রয়েছে।’

তবে তাই বলে যে, সব খেলোয়াড়রা এর সঙ্গে জড়িত এমনটা নয়। বরং যারা ফিক্সিং সাজায় অর্থাৎ বাজিকর, তাদের বেশিরভাগ ভারতীয়- এমনটাই জানিয়েছেন রিচার্ডসন। খেলাটির জন্য এটি খুবই আশঙ্কাজনক হিসেবেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

রিচার্ডসন বলেন, ম্যাচ ফিক্সিংয়ের সবশেষ পর্যায়ে আসে খেলোয়াড়রা। যারা এই ফিক্সিংটা পরিচালনা করে, যারা খেলোয়াড়দের টাকা দেয়, সবই হয় মাঠের বাইরে বসে। আমি এখনই অন্তত আটজনের নাম ভারতের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের কাছে দিতে পারব, যারা প্রতিনিয়ত খেলোয়াড়দের সঙ্গে ফিক্সিংয়ের বিষয়ে যোগাযোগ করে।

এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পেতে ফিক্সিংকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে ঘোষণা করা ছাড়া পথ নেই বলে জানিয়েছেন রিচার্ডসন। ক্রিকেটে শ্রীলঙ্কা প্রথম ম্যাচ ফিক্সিংয়ের বিরুদ্ধে আইন করেছে। রিচার্ডসন বলেন, এখন লঙ্কান ক্রিকেট আগের চেয়ে সুরক্ষিত। অস্ট্রেলিয়ার ক্ষেত্রে আমরা আগেই সতর্ক। ভারতে এমন কোনো আইন না থাকায়, আকসু এক হাত বাধা অবস্থায় কাজ করছে।

মেসি-ফাতির গোলে বার্সেলোনার জয়
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : প্রথম সারির দলের বিপক্ষে তলানির দলের খেলা। হারানোর কিছু ছিল না লেগানেসের। পয়েন্টের জন্য নিজেদের উজাড় করে দিয়েও বার্সেলোনাকে ঠেকাতে পারেনি দলটি। আনসু ফাতি ও লিওনেল মেসির দুই অর্ধের দুই গোলে প্রত্যাশিত জয় তুলে নিয়েছে বার্সেলোনা।

মঙ্গলবার রাতে তলানিতে থাকা লেগানেসকে ২-০ গোলে হারিয়েছে কাতালানরা। করোনা সংক্রমণের পর মাঠে ফিরে টানা দ্বিতীয় জয়ের দেখা পেল বার্সেলোনা। মেসি টানা দ্বিতীয় ম?্যাচে পেলেন গোলের স্বাদ। দাপুটে ফুটবল না খেললেও দ্বিতীয় জয় তুলে নিতে তাদের তেমন বেগ পেতে হয়নি বার্সেলোনার।

লেগানেসের বিপক্ষে প্রথমার্ধে গোল করেন বার্সেলোনার উদীয়মান তারকা আনসু ফাতি। ৪২ মিনিটে ফিরপোর বাড়ানো বল থেকে শট নিয়ে গোল করেন ফাতি। লিগে এটি তার পঞ্চম গোল। একবিংশ শতাব্দীর দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে লা লিগায় পাঁচ গোল করার কৃতিত্ব দেখান ফাতি। ১৭ বছর ২২৯ দিনে ফাতি নিজের পঞ্চম গোল করেছেন। বোজান ক্রিক ১৭ বছর ২০১ দিনে করেছিলেন পাঁচ গোল।

১-০ ব্যবধানে লিড নেওয়া বার্সেলোনা দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে মেসির গোলে লিড বাড়ায়। ৬৯ মিনিটে ডি বক্সের ভেতরে ফাউলের শিকার হন মেসি। সফল স্পটকিকে গোল করেন বর্তমান সময়ের সেরা ফুটবলার। ক্লাব ও জাতীয় দলের হয়ে এটি মেসির ৬৯৯তম গোল। মেসির গোলের ছয় মিনিট আগে আঁতোয়ান গ্রিজম্যান গোল করেছিলেন। কিন্তু অফসাইডে তার গোল বাতিল করেন রেফারি। শেষ পর্যন্ত ২-০ ব্যাবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মেসির দল।

এদিকে দল জিতলেও বার্সা কোচের মাথা ব্যথার কারণ হতে খেলোয়াড়দের অত্যধিক হলুদ কার্ড। ক্লেমেন্ত লংলে, জুনিয়র ফিরপো, ইভান রাকিটিভ, রিকি পুইগ এবং স্যামুয়েল উমতিতিকে হলুদ কার্ড দেখিয়েছেন রেফারি।

২৯ ম্যাচে ২০ জয় ও চার ড্রয়ে ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বার্সেলোনা। ২৮ ম্যাচে ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে রয়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ। এবার লিগ শিরোপার লড়াই হাড্ডাহাড্ডি তবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

মেসিময় রাতে বার্সার বড় জয়
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : অনুশীলনে ফিরে ঊরুর ইনজুরিতে পড়ায় অনিশ্চয়তা ছিল তার মাঠে নামা নিয়ে। ম্যাচের আগেরদিন অভয় দেন কোচ কিকে সেতিয়েন, জানান পূর্ণাঙ্গ ফিট লিওনেল মেসিকে নিয়েই খেলতে নামবে বার্সেলোনা। আর ফুল ফিট মেসি কী করতে পারেন, তা আরেকবার দেখল ফুটবল বিশ্ব।

করোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ থাকার পর শনিবার রাতে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলেছে বার্সেলোনা। মায়োর্কার মাঠ থেকে ফিরেছে ৪-০ গোলের বড় জয় নিয়েই। বার্সার এই দুর্দান্ত জয়ে গোল করেছেন মার্টিন ব্র্যাথওয়েট, আর্তুরো ভিদাল, জর্দি আলবা ও লিওনেল মেসি। তবে দুই গোলে অ্যাসিস্ট আর দলের শেষ গোল করে রাতটা স্মরণীয় করে রাখলেন মেসিও।

শনিবার বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত ২টায় মেসিরা স্টেডিয়ামে ঢুকেছেন মাস্ক আর গ্লাভস পরে। মাঠে গোল উদযাপনেও বজায় রেখেছেন যথাসাধ্য শারীরিক দূরত্ব।

পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা কাতালান জায়ান্টরা করোনা বিরতি বেশ ভালোই কাজে লাগিয়েছে। পুরো ফিট মেসিকে শুরু থেকেই নামতে দেখা ছিল খুদে জাদুকরের ভক্তদের জন্য দারুণ স্বস্তির কারণ। ফিট হয়ে ফিরেছেন অস্ত্রোপচারের পর অনিশ্চিত হয়ে পড়া লুইস সুয়ারেসও। তবে উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারকে এ রাতে বেঞ্চ থেকেই শুরু করতে হলো। তা ছাড়া নতুন নিয়মে ৫ জন বদলি খেলোয়াড় রাখার নতুন নিয়মও কিকে সেতিয়েনের জন্য স্বস্তি হয়ে এসেছে।

এবার আসা যাক আসল খেলায়। খেলার মাত্র ৬৫ সেকেন্ডে জর্দি মিনিটেই গোল করে ম্যাচের গতিপথ অনেকটা ঠিক করে দেন ভিদাল। ডি-বক্সের কাছ থেকে বল দখল করে আলবার দিকে বল পাঠান ফ্র্যাংকি ডি ইয়ং। সঙ্গে সঙ্গে আলতো ক্রসে বল ভিদালের পথে তুলে দেন আলবা আর দারুণ এক হেডে বল জালে জড়িয়ে দেন চিলিয়ান মিডফিল্ডার।  

গোল হজম করে এলোমেলো হয়ে পড়া মায়োর্কা অবশ্য আস্তে আস্তে গুছিয়ে নেয়। আক্রমণে ওঠে আসে স্বাগতিকরা। তবে মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগান দেয়াল হয়ে দাঁড়ানোয় বিপদ থেকে বেঁচে গেছে সফরকারীরা। উল্টো ৩৭তম মিনিটে মেসির অসাধারণ আ্যসিস্ট থেকে বার্সার জার্সিতে নিজের প্রথম গোলের দেখা পান ব্র্যাথওয়েট।

প্রতিপক্ষের রক্ষণে বল পেয়ে ডিফেন্ডারের উপর দিয়ে তা ব্র্যাথওয়েটের দিকে পাঠিয়ে দেন ডি জং। ডিফেন্সের জটলায় থাকা মেসির দূরদর্শী হেড বল ঠিক জায়গামতো যেতেই ডান পায়ের ভলিতে লক্ষ্যভেদ করেন ব্র্যাথওয়েট। অবশ্য গোলের বাঁশি বাজানোর আগে ভিএআর`র সহায়তা নেন রেফারি। বার্সা এগিয়ে যেয় ২-০ গোলে।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে মায়োর্কা খেলায় ফেরার সবরকম চেষ্টাই করে। কিন্তু এবারও বার্সার রক্ষণ অটুট থাকে। বরং ৫৭তম মিনিটে গ্রিজম্যানের বদলে ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা সুয়ারেস নামতেই কাতালানদের আক্রমণের ধার বেড়ে যায়। তিনি মাঠে নানার মিনিটখানেক পরেই দারুণ এক গোলের সুযোগ তৈরি করেন। কিন্তু পোস্টের একদম কাছ থেকে পা লাগিয়েও বল সাইডলাইনে পাঠিয়ে নিজের দ্বিতীয় গোলের সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি ব্র্যাথওয়েট।

৭৯তম মিনিটে দুর্দান্ত এক গোল করে বার্সার বড় জয় নিশ্চিত করেন আলবা। শুরুতে অ্যাসিস্ট করেছিলেন, শেষটায় পেলেন গোল।স্প্যানিশ সেন্টারব্যাকের এই গোলে সরাসরি ভূমিকা ছিল মেসিরও। তিন মাসের বিরতি যে বার্সা অধিনায়কের খেলায় কোনো মরিচা ধরাতে পারেনি তা প্রমাণ করে দিলেন তিনি। বাঁ প্রান্ত থেকে তার বাড়িয়ে দেওয়া বল ধরেই অরক্ষিত মায়োর্কা রক্ষণে ঢুকে বাঁ পায়ের শটে গোল করেন আলবা। আর শেষ মুহূর্তে আসে সেই মাহেন্দ্রক্ষণ, প্রতিপক্ষের তিন ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে পায়ের জাদুতে গোলরক্ষককে পরাস্ত করে মৌসুমে ২০তম গোলে করেন এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

চার গোলের এ জয়ে নিকট প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে ৫ পয়েন্টে এগিয়ে গেলো বার্সেলোনা। লিগের ২৮ ম্যাচ শেষে ১৯ জয় ও ৪ ড্র নিয়ে তাদের সংগ্রহ ৬১ পয়েন্ট। আজ রাতে মাঠে ফেরার অপেক্ষায় থাকা রিয়াল ২৭ ম্যাচ থেকে নিতে পেরেছে ৫৬ পয়েন্ট।

লা লিগা শুরু আজ, মাঠে ফিরছেন মেসি-রামোসরা
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক :  দীর্ঘ প্রতীক্ষা আর অনিশ্চয়তার ইতি টেনে মাঠে ফিরতে যাচ্ছে লা লিগা। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রকোপ স্পেনে কমেছে, তবে স্বাস্থ্য ঝুঁকি আছে আগের মতোই। সেসব পাশ কাটিয়েই ৯৩ দিন পর মাঠে গড়াচ্ছে লা লিগা। আজ বাংলাদেশ সময় রাত ২টায় সেভিয়া ও রিয়াল বেতিসের লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে মাঠে ফিরবে ফুটবলের সবচেয়ে জমজমাট এই লিগ।

স্পেনে ফুটবল মাঠে গড়ালেও সতর্কতার জন্য খেলা হবে ফাঁকা গ্যালারিতে। তবে ভার্চুয়াল দর্শক আর কৃত্রিম শব্দ তৈরি করে কিছুটা উন্মাদনা আনার চেষ্টা করছে লা লিগা কর্তৃপক্ষ। দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে শুধু খেলোয়াড়, কোচ, রেফারি, ম্যাচ কর্মকর্তা, সংবাদকর্মী, ফটোগ্রাফার, নিরাপত্তাকর্মীরা থাকতে পারবেন। শূন্য গ্যালারিতে বিভিন্ন জায়গায় থাকবেন সাংবাদিক ও টিভির ক্যামেরার দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিরা।
 
লিগে ১৩ জুন লিওনেল মেসির বার্সেলোনা মাঠে নামবে। তবে ঊরুর চোটে মেসিকে প্রথম দিন দেখা যাবে কি না তা নিয়ে রয়েছে অনিশ্চয়তা। একদিন পরই দেখা যাবে সার্জিও রামোসদের। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই ক্লাবের প্রতিপক্ষ যথাক্রমে মায়োর্কা ও এইবার।

লা লিগায় পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে আছে বার্সেলোনা। ২৭ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে টপ অব দ্য টেবিলে তারা। কাতালানরা জিতেছে ১৮ ম্যাচে, হেরেছে ৫টি, ড্র করেছে ৪টি। ২ পয়েন্টে পিছিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে রিয়াল জিতেছে ১৬টি, হেরেছে ৩টি, ড্র করেছে ৮ ম্যাচ। আরও ১১টি করে ম্যাচ বাকি আছে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ২০ দলের।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভাগ্য নির্ধারণ আজ
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : করোনা ভাইরাসের কারণে এ পর্যন্ত বাতিল হয়েছে অনেকগুলো ক্রিকেট সিরিজ। তাতে কমবেশি ক্ষতিও হয়েছে অনেক ক্রিকেট বোর্ডের। কিন্তু বড়ো একটা ধাক্কা আসবে যদি এ বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মাঠে না গড়ায়।

অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এটা সময় মতো হবে, বাতিল হবে, নাকি পেছাবে; এই সিদ্ধান্ত আজই হয়ে যাওয়ার কথা। আজ ভার্চুয়াল মিটিংয়ে এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করবে আইসিসি বোর্ড। এই সভায় যোগ দেবেন আইসিসির পূর্ণ সদস্য ভুক্ত সবগুলি দেশের সভাপতি।

গত ২৮ মে শেষ সভায় বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনা করেছিলেন নীতিনির্ধারকরা। বিশ্বকাপ নিয়ে ইতিবাচক মনোভাব থাকলেও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি তারা। তবে আজকের বৈঠকে সব চূড়ান্ত হবে বলেই জানা গেছে। বিশেষ করে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোর দাবি, যে করেই হোক বিশ্বকাপ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দিতে আইসিসিকে চাপ দেবে বিসিসিআই।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সিদ্ধান্ত নিয়ে বিলম্ব চায় না ভারত। যদি সূচি অনুযায়ী বিশ্বকাপ হয় তাতে ভারতের কোনও আপত্তি নেই। যদি সূচি অনুযায়ী না হয় হয়, তা আজ-ই যেন চূড়ান্ত হয়। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাতিল হলে, ওই ফাঁকা সময়ে আইপিএল করার ভাবনা ভারতের।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড, বিসিসিআইয়ের কোষাধ্যক্ষ অরুন ধামাল পিটিআইকে বলেছেন, আগে আইসিসিকে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে দিন। এখন পর্যন্ত এবারের আসর নিয়ে কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা তো আসেনি। হতে পারে যে, ভারত ২০২১ সালে আগের সূচিমতোই বিশ্বকাপ আয়োজন করল। আর অস্ট্রেলিয়া ২০২২ সালে একটা টুর্নামেন্ট আয়োজন করল। আবার উলটোটাও হতে পারে। কিন্তু সিদ্ধান্ত যাই হোক, এর সঙ্গে মিল করে আবার দ্বিপাক্ষিক সিরিজগুলোর সূচি ঠিক করতে হবে।

এদিকে আজকের বৈঠকে করোনা পরবর্তী সময়ে আইসিসির নতুন এফটিপি, আইসিসির পরবর্তী নির্বাচন নিয়েও দিক নির্দেশনা আসতে পারে।

ফুটবল-জীবন আর আগের অবস্থায় ফিরবে না : মেসি
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : বিশ্বজুড়ে এখন আতঙ্কের নাম করোনাভাইরাস। অদৃশ্য এই শত্রু থেকে বাঁচতে দেশে দেশে জারি করা হয়েছে কঠোর বিধি-নিষেধ। বিভিন্ন দেশে কল-কারখানা, গণপরিবহন, অফিস-আদালতের পাশাপাশি বন্ধ রয়েছে খেলাধুলা। কবে কমবে এই ভাইরাসের প্রকোপ-সে ব্যাপারে কেউ নিশ্চিত নয়।

তবে করোনার প্রকোপ কমলেও এর দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব মানুষের জীবন এবং খেলাধুলায় রয়েই যাবে বলে মনে করেন বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম সেরা তারকা ও আর্জেন্টাইন জাদুকর লিওনেল মেসি।

স্প্যানিশ দৈনিক এল পাইসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মেসি বলেছেন, ফুটবলটা আর আগের মতো থাকবে না। শুধু ফুটবল কেন, মানুষের জীবনই স্বাভাবিকতার বৃত্ত থেকে ছিটকে গেছে যা কখনও আর আগের অবস্থায় ফিরবে না, শুধু ফুটবলই নয়, আমি মনে করি মানুষের জীবনই আর আগের মতো হবে না।

তিনি আরও বলেন, আমরা প্রত্যেকে এই পরিস্থিতির অভিজ্ঞতা পেয়েছি এবং এটাকে একভাবে না একভাবে মনে রাখব সবসময়। আমার বেলায় এ বিষয়টা অনেক কষ্ট এবং হতাশার তাদের কথা ভেবে, অনেকেই স্বজন হারিয়েছেন, কাছের বন্ধুদের হারিয়েছেন, এমনকি শেষ বিদায়ও তাদের জানাতে পারেননি।

স্প্যানিশ লা লিগা শুরুর লক্ষ্যে প্রায় এক মাস ধরে ব্যক্তিগত অনুশীলন করে যাচ্ছেন মেসিরা। সরকারি অনুমতির পর সোমবার থেকে শুরু হয়েছে সবদলের দলীয় অনুশীলন। তবে এটি কোন স্বাভাবিক ফেরার ইঙ্গিত দেয় না বলেই মনে করেন মেসি।

তার মতে, ফুটবল এবং অন্যান্য খেলাধুলাও এতে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। যেহেতু অনেক কোম্পানি আছে এসব খেলাধুলার সঙ্গে জড়িত, তারাও মুশকিল সময়ের মধ্যে পড়বে। পেশাগত দিক থেকে, আগের অনুশীলন এবং এখনের অনুশীলনের মধ্যেও রয়েছে বিস্তর ফারাক। প্রত্যেককে নিজেদের কাজের ধারা বদলাতে হবে।

এবার তামিমের লাইভ আড্ডায় আসছেন কোহলি
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : করোনাভাইরাসের মহামারির এই সময়ে মানুষকে কিছুটা বিনোদিত করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লাইভ আড্ডা জমিয়ে তুলেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল। সেই ধারায় এবার অন্যরকম এক চমক নিয়ে আসছেন তামিম।

সৌম্য, মুমিনুল, লিটন ও তাইজুলের সাথে আড্ডা শেষে তামিম ঘোষণা দিয়েছিলেন চমক আসছে। সবার অনুরোধ রাখতে হাজির করবেন বিশেষ এক অতিথিকে। জানিয়েছেন, তাকে দেখে খুশি হবেন সবাই। তামিম তাঁর কথা রেখেছেন। এবার এই অনুষ্ঠানের মাত্রা আরও বাড়িয়ে তুলতে তামিম হাজির করছেন বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বের সেরা তারকা, ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে।

তামিম আগের শো’য়ের শেষাংশে বলেছিলেন, আমার পরবর্তী শো’তে খুবই একজন বিশেষ অতিথি আসবে। যেটা দেখে আপনারা অবশ্যই খুবই অবাক হবেন। তবে অনেক খুশিও হবেন। অনেকে তাঁর ব্যাপারে আমাকে অনুরোধ করেছেন। তাই কে আসবে, সেটা আপনাদের ফেসবুকের মাধ্যমে জানিয়ে দিবো।

অবশেষে তামিম তাঁর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানালেন, ১৮ মে রাত ১০:৩০ তাঁর লাইভ আড্ডায় আসবেন কোহলি।

এর আগে মুশফিকুর রহিমকে দিয়ে ফেসবুকে লাইভ আড্ডা শুরু করেন তামিম। এরপর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মাশরাফি বিন মর্তুজাকে লাইভে নিয়ে আসেন তিনি। পরে রুবেল হোসেন ও তাসকিন আহমেদকে একসঙ্গে লাইভে আনেন এই বাঁহাতি ওপেনার।

এরপর তামিমের সঙ্গে লাইভ আড্ডায় হাজির হন বাংলাদেশের সাবেক তিন অধিনায়ক হাবিবুল বাশার সুমন, খালেদ মাহমুদ সুজন এবং নাঈমুর রহমান দুর্জয়। এরপর তামিমের লাইভে চমক হিসেবে আসেন দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যান ফাফ ডু প্লেসি। গত শুক্রবার নিয়ে আসেন এই সময়ের মারকুটে ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা। টানা দুই শো বিদেশি ক্রিকেটারদের নিয়ে লাইভ শেষে গতকাল প্রাণবন্ত লাইভ করেন তামিম। এতে অংশ নেন সৌম্য সরকার, লিটন দাস, মুমিনুল হক। সারপ্রাইজ গেস্ট হিসেবে আসেন তাইজুল ইসলাম।

অল্প কিছুদিনেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে তামিমের এই শো। তবে এই শো বেশিদিন চালানোর পরিকল্পনা নেই তামিমের। তিনি জানিয়েছেন, আগামী ২৩ মে শনিবার তার শোয়ের সর্বশেষ পর্ব প্রচারিত হতে যাচ্ছে। ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে সংবাদটি নিশ্চয়ই খুব দুঃখের হবে। তবে এর আগেই লাইভে আড্ডা দিতে চলে আসতে পারে জাতীয় দলের ‘পঞ্চপা-ব’ খ্যাত পাঁচ সিনিয়র ক্রিকেটার।

৫ লাখ পাউন্ড অনুদান দিলেন মরগান-রুটরা
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : করোনাভাইরাস মোকাবিলায় অনুদান ও বেতন কাটার বিষয়ে এক বিব্রতকর অবস্থারই সৃষ্টি হয়েছিল ইংল্যান্ডের ক্রিকেটে। দেশটির ক্রিকেট বোর্ড চাইছিল তারকা খেলোয়াড়দের বেতনের কিছু অংশ কেটে রাখতে, কিন্তু এতে রাজি হয়নি ক্রিকেটাররা।  কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাঁরা সাড়া দিয়েছেন। এউয়ন মরগান, জোট রুট, জস বাটলাররা ৫ লাখ পাউন্ড অনুদান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এ অনুদান শুধু বোর্ডের জন্য নয়, নির্দিষ্ট অংশ কোনো দাতব্য প্রতিষ্ঠানকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্রিকেটাররা।

এক বিবৃতিতে মরগান, রুটরা জানায়, ইসিবির চুক্তিভুক্ত ক্রিকেটারদের বেতনের তিন মাসের ২০ শতাংশ অর্থ অনুদান করা হয়েছে। প্রয়োজনে সামনে আমরা মানুষের কল্যাণে আবার এগিয়ে আসব। এটা মাত্রই শুরু হলো।

এদিকে নারী দলের ক্রিকেটাররা বেতন কাটার প্রস্তাবেই রাজি হয়েছে। এপ্রিল, মে ও জুন- এই তিন মাসে তাদের বেতনের একটা অংশ কেটে রাখবে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। এছাড়া সামনের দিনগুলোতে অন্য কোন সহযোগিতার প্রয়োজন হলে নারী ক্রিকেটাররা প্রস্তুত বলেই জানিয়েছেন অধিনায়ক হিদার নাইট।

করোনা মোকাবিলায় বেতনের অর্ধেক টাকা দিলেন ক্রিকেটাররা
                                  

ক্রীড়া প্রতিবেদক : প্রাণসংহারী নভেল করোনাভাইরাসের থাবায় কাঁপছে সারা বিশ্বে। স্থবির হয়ে গেছে বিশ্ব। থমকে আছে ক্রীড়াঙ্গন। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। করোনার কারণে বাংলাদেশে সব ধরণের খেলাধুলা বন্ধ। তবে শুধু খেলা বন্ধ বা অন্যান্য কার্যক্রম বন্ধ করলেই হবে না। মোকাবেলা করতে হবে করোনার প্রাদুর্ভাব।

বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় তাই অর্থ অনুদান দিচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। নিজেদের এক মাসের বেতনের অর্ধেক দান করে দিচ্ছেন মুশফিকুর রহীম, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা।

সবমিলিয়ে মোট ২৭ জন খেলোয়াড়, তাদের একমাসের বেতনের অর্ধেক টাকা দান করছেন। দানকৃত এ অঙ্কের পরিমাণ সর্বোচ্চ ৩১ লাখ টাকা। তবে করবাবদ বাদ পড়বে ৫ লাখ টাকা। ফলে ২৬ লাখ টাকা ব্যবহার করা যাবে করোনা ইস্যুতে। এই অর্থ করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলার জন্য গঠিত ফান্ডে দেওয়া হবে। অর্থটি বিসিবির মাধ্যমে দেওয়া হবে বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক বিষদ বার্তা দিয়েছেন জাতীয় দলের উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহীম। যেখানে তিনি সকলকে আহ্বান জানিয়েছেন নিজ নিজ জায়গা থেকে এগিয়ে আসার।

মুশফিক তার পোস্টে লিখেছেন, ‘আসসালামুআলাইকুম। আপনারা সবাই জানেন করোনাভাইরাসের সংক্রমণে চারদিকে ক্রমেই ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯ রোগ। এই রোগ প্রতিরোধে কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে পুরো বিশ্ব। বাংলাদেশও ব্যতিক্রম নয়। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে যার যার জায়গা থেকে।

সেটির অংশ হিসেবে আমরা ক্রিকেটাররা একটা উদ্যোগ নিতে যাচ্ছি, যেটি হয়তো অনুপ্রাণিত করতে পারে আপনাদেরও। আমরা এই মাসের বেতনের ৫০ শতাংশ দিয়ে একটা তহবিল গঠন করেছি। এই তহবিল ব্যয় হবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে আক্রান্ত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ও সাধারণ মানুষ যাদের গৃহবন্দী থাকা অবস্থায় জীবন চালিয়ে নিতে অনেক কষ্ট হয়।

তহবিলে জমা পড়েছে প্রায় ৩০ লাখ টাকার মতো। কর কেটে থাকবে ২৬ লাখ টাকা। করোনার বিরুদ্ধে জিততে হলে আমাদের এই উদ্যোগ হয়তো যথেষ্ট নয়। কিন্তু যাদের সামর্থ্য আছে সবাই যদি এক সঙ্গে এগিয়ে আসেন কিংবা ১০জনও যদিও এগিয়ে আসেন, এই লড়াইয়ে আমরা অনেক এগিয়ে যাব। হ্যাঁ, এরই মধ্যে করোনা মোকাবিলায় অনেকে এগিয়ে এসেছেন। তাদের অবশ্যই সাধুবাদ জানাই।

কিন্তু বৃহৎ পরিসরে যদি আরও অনেকে এগিয়ে আসে, তাহলে আমরা এই লড়াইয়ে জিততে পারব ইনশাআল্লাহ। সেই সহায়তা হতে পারে ১০০, ৫০০০ কিংবা ১ লাখ টাকা দিয়ে। টাকা দিয়ে না হোক হতে পারে দুস্থ মানুষকে খাবার কিনে দিয়ে। আসুন পুরো দেশকে আমরা একটা পরিবার ভেবে চিন্তা করি এবং এই বিপদে সবাই সবাইকে সহায়তা করি। আল্লাহ আমাদের নিশ্চয়ই রক্ষা করবেন। ইনশাআল্লাহ।’

তামিম ইকবালও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন। তিনি লেখেন, ‘করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই যতটা ব্যাপক, এই অর্থ হয়তো খুব বড় অঙ্ক নয়। তবে বিন্দু বিন্দু জল মিলেই হয়ে ওঠে মহাসাগর। আমরা সবাই যদি নিজেদের জায়গা থেকে চেষ্টা করি, যত ছোট অবদানই হোক, সবাই মিলে সেটিই বড় হয়ে উঠবে। চারপাশের সবার সমালোচনায় মেতে না থেকে আমরা যদি নিজেরা দায়িত্ব নেই ও নিজেদের সাধ্যমতো অবদান রাখি, তাহলেই করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে এই লড়াইয়ে আমাদের জয় সম্ভব। সবাই ঘরে থাকুন, নিরাপদ থাকুন। নিজে ভালো থাকুন, দেশকে ভালো রাখুন।’

করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করাদের স্যালুট জানালেন সাকিব
                                  

ক্রীড়া ডেস্ক : করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে সচেতনতার অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে সেলফ কোয়ারেন্টাইনে আছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তার মাধ্যমে যেনো এ প্রাণঘাতী ভাইরাস না ছড়ায়, তাই বিমানভ্রমণ করে যুক্তরাষ্ট্র পৌঁছে নিজ উদ্যোগেই এটি করেছেন সাকিব।

শুধু নিজেকে কোয়ারেন্টাইনড করেই দায়িত্ব শেষ মনে করেননি এ ক্রিকেটার। যেহেতু করোনার বিরুদ্ধে সরাসরি লড়াই করার কিছু নেই, শুধু সৃষ্টি করা যায় সচেতনতা- সেটিই নিয়মিত করে যাচ্ছেন সাকিব।

কোয়ারেন্টাইনে থেকে নিয়মিত ভিডিওবার্তার মাধ্যমে বিভিন্ন সচেতনতামূলক বার্তা দিচ্ছেন সাকিব। যাতে করে কিছুটা হলেও সচেতনতা বৃদ্ধি পায় সাধারণ জনগণের মাঝে। একইসঙ্গে করোনার বিরুদ্ধে যারা যুদ্ধে নেমেছেন- সেসব মানুষদের শ্রদ্ধা ও সম্মান জানান তিনি।

সাকিব লিখেন, সকল দেশবাসীকে সুরক্ষিত রাখতে যারা মারাত্মক এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে চলেছেন প্রতিনিয়ত তাদেরকে জানাই আমার সালাম। ধন্যবাদ জানাই প্রতিটি ডাক্তার, নার্স, চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যসেবা কর্মী, স্বেচ্ছাসেবক, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও পুলিশ বাহিনীর সদস্য এবং সরকারী কর্মকর্তাদের যারা নিঃস্বার্থ ও অক্লান্তভাবে লড়াই করে চলেছেন। আমরা তাদের সাহায্য করতে যা পারি তা হলো- বাসায় অবস্থান করা, প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করা এবং প্রয়োজনীয় পরামর্শ মেনে চলে এই কঠিন সময়ে তাদের সহায়তা করা। তবেই আমরা একসাথে এই পরিস্থিতির মোকাবেলা করতে পারবো। আল্লাহ আমাদের সকলকে সাহায্য করুন।

অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের সবধরনের ক্রিকেট স্থগিত
                                  

ক্রীড়া প্রতিবেদক : মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেয়া হয়েছে দেশের সবধরনের ক্রিকেট। পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের স্বীকৃত কোনো টুর্নামেন্ট বা খেলা মাঠে গড়াবে না।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ খবর জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

চলতি মার্চেই ঢাকায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশের মধ্যে দুইটি বিশেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে তা স্থগিত করে বিসিবি।

শুধু বাংলাদেশে নয়, সমগ্র বিশ্বের ক্রীড়াঙ্গনই এখন স্থবির। সব ধরনের খেলাধুলাই আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে।

বিসিবির সিদ্ধান্ত জানিয়ে করা সংবাদ সম্মেলনে পাপন বলেন, ‘আপনারা সবাই জানেন, করোনাভাইরাসের কারণে সারা পৃথিবীতেই যা হচ্ছে...বাংলাদেশেও এটা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। যে কারণে সব জায়গায়ই খেলাধুলা বন্ধ। আমাদের এখানেও বন্ধ হয়ে গিয়েছে।’

গত ১৫ এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ। প্রথম রাউন্ড খেলা হওয়ার পর ১৮ ও ১৯ তারিখের দ্বিতীয় রাউন্ড স্থগিত করেছিল বিসিবি। এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে সবদিক বিবেচনা করার জন্য দুইদিন সময় নেয়া হয়েছে জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি।

তিনি আরও বলেন, ‘বিশেষ করে প্রিমিয়ার লিগ প্রথম রাউন্ডের পরই আমরা বন্ধ করে দিয়েছিলাম। তখন আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে, দুইটা দিন অপেক্ষা করি, অবস্থা-পরিস্থিতিটা পর্যবেক্ষণ করে তারপর সিদ্ধান্ত নেই। তো, (দ্বিতীয় রাউন্ড স্থগিত করা) ঐটা একটা তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্ত ছিলো। এখন আমরা সবদিক বিবেচনা করেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

সবধরনের ক্রিকেট বন্ধ করে দেয়ার কথা জানিয়ে বিসিবি সভাপতি বলেন, আমরা দেখলাম যে, এখন অনেক কিছুই বদলাচ্ছে, খেলোয়াড়দের ইচ্ছেটাও আগের মতো নেই। এছাড়া কিছু ভিন্নমতও আসছে। তো সবদিক বিবেচনা করে আমরা সিদ্ধান্তে পৌঁছেছি যে, দেশের সবধরনের ক্রিকেট বন্ধ, আপাতত স্থগিত। পরবর্তী ঘোষণা দেয়ার আগপর্যন্ত, পরিস্থিতি উন্নতির আগে আমরা কিছু বলতে পারছি না। পরিস্থিতি বদলালে আমরা খেলা শুরু নতুন সূচি ঘোষণা করে দেবো।


   Page 1 of 52
     খেলাধূলা
শিরোপা লড়াইয়ে টিকে থাকলো বার্সেলোনা
.............................................................................................
শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার সাকিব
.............................................................................................
রাকিতিচের গোলে শীর্ষে ফিরল বার্সেলোনা
.............................................................................................
ক্রীড়াঙ্গনেও বাড়ছে করোনার থাবা
.............................................................................................
বার্সাকে পেছনে ফেলে শীর্ষে রিয়াল
.............................................................................................
ফিক্সিংয়ের অধিকাংশ ঘটনায় জড়িত ভারত : আইসিসি
.............................................................................................
মেসি-ফাতির গোলে বার্সেলোনার জয়
.............................................................................................
মেসিময় রাতে বার্সার বড় জয়
.............................................................................................
লা লিগা শুরু আজ, মাঠে ফিরছেন মেসি-রামোসরা
.............................................................................................
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভাগ্য নির্ধারণ আজ
.............................................................................................
ফুটবল-জীবন আর আগের অবস্থায় ফিরবে না : মেসি
.............................................................................................
এবার তামিমের লাইভ আড্ডায় আসছেন কোহলি
.............................................................................................
৫ লাখ পাউন্ড অনুদান দিলেন মরগান-রুটরা
.............................................................................................
করোনা মোকাবিলায় বেতনের অর্ধেক টাকা দিলেন ক্রিকেটাররা
.............................................................................................
করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করাদের স্যালুট জানালেন সাকিব
.............................................................................................
অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের সবধরনের ক্রিকেট স্থগিত
.............................................................................................
সন্ধ্যায় মাঠে নামছে টাইগাররা
.............................................................................................
চ্যাম্পিয়নস লিগে বার্সা-নাপোলি ম্যাচ ড্র
.............................................................................................
মুমিনুলের পর মুশফিকের সেঞ্চুরি
.............................................................................................
সেঞ্চুরির অপেক্ষায় মুশফিক
.............................................................................................
সালমা-জাহানারাদের বিশ্বকাপ মিশন শুরু আজ
.............................................................................................
২৬৫ রানে অলআউট জিম্বাবুয়ে
.............................................................................................
হাতখরচ মাসিক ৮৭ লাখ টাকা!
.............................................................................................
প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তানকে হারাল বাংলাদেশের মেয়েরা
.............................................................................................
টেস্ট দলে পরিবর্তন, ফিরলেন মুশফিক
.............................................................................................
চ্যাম্পিয়নস লিগে নিষিদ্ধ ম্যানসিটি
.............................................................................................
বড় জয়ে সেমিতে পিএসজি
.............................................................................................
বাংলাদেশ-ভারতের ৫ ক্রিকেটারের শাস্তি
.............................................................................................
ইনিংস হারের হ্যাটট্রিক বাংলাদেশের
.............................................................................................
ভারত জুজু কাটিয়ে আজই হোক বিশ্বজয়
.............................................................................................
দিনের শুরুতেই সাফল্য এনে দিলেন রাহী
.............................................................................................
টাইগার যুবাদের সামনে ইতিহাস গড়ার হাতছানি
.............................................................................................
টেস্ট খেলতে পাকিস্তানে টাইগাররা
.............................................................................................
টেস্ট খেলতে সন্ধ্যায় পাকিস্তান যাবে টাইগাররা
.............................................................................................
টেস্ট দলে চমক নেই, দল ঘোষণা শুক্রবার
.............................................................................................
আজ টাইগারদের হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর লড়াই
.............................................................................................
রাতে চার্টার্ড বিমানে পাকিস্তান যাচ্ছেন ক্রিকেটাররা
.............................................................................................
জয় পেলেন আগুয়েরা, জিতল ম্যানচেস্টার
.............................................................................................
পাকিস্তানে খেলতে যাবেন না মুশফিক
.............................................................................................
জুভেন্টাসের গোল উৎসব
.............................................................................................
উলভসকে হারিয়ে ম্যানইউর প্রতিশোধ
.............................................................................................
অ্যাটলেটিকোকে হারিয়ে সুপার কাপ চ্যাম্পিয়ন রিয়াল
.............................................................................................
জয় দিয়ে বছর শেষ করল বার্সেলোনা
.............................................................................................
বিপিএল মাতাতে আসছেন ওয়াটসন ও থারাঙ্গা
.............................................................................................
বিকেলে আইপিএলের নিলামে উঠছেন মুশফিক
.............................................................................................
এল ক্লাসিকো গোলশূন্য ড্র
.............................................................................................
বাংলাদেশ ছেড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ হচ্ছেন ল্যাঙ্গাভেল্ট
.............................................................................................
বিপিএলে টিকিটের দাম সর্বনিম্ন ২০০, সর্বোচ্চ ২০০০ টাকা
.............................................................................................
সুমা-সোহেলের পর ইতির সোনার হাসি
.............................................................................................
আর্চারিতে ছেলেদের পর মেয়েরা এনে দিলো স্বর্ণ
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Nytasoft