শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯ | বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজধানী -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
রাজধানীরন শনিরআখড়ায় ব্রিজ ভেঙে খাদে

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট: রাজধানীর শনিরআখড়ায় ব্রিজ ভেঙ্গে খাদে পড়ে যাওয়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। শনিরআখড়া-দোলাইপাড় রাস্তায় ২০০ বস্তা সিমেন্টসহ একটি ট্রাক ব্রিজ ভেঙ্গে খাদে গেলে ওই রাস্তা দিয়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আজ শনিবার সকাল ৮টার দিকে শনিরআখড়া-দোলাইরপাড় সড়কে আরএস শপিং কমপ্লেক্সের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, সকাল ৮টার দিকে ট্রাকটি ২০০ বস্তা সিমেন্টসহ ডিএনডির মৃধাবাড়ি ডিএল-৪ খালের ওপর দিয়ে দনিয়া যাচ্ছিল। শনিরআখড়া-দোলাইরপাড় সড়কের আরএস শপিং কমপ্লেক্সের সামনে ব্রিজের ওপর ট্রাকটি ওঠামাত্রই ভেঙে খাদে পড়ে যায়। এরপরই সেখান দিকে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

রাজধানীরন শনিরআখড়ায় ব্রিজ ভেঙে খাদে
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট: রাজধানীর শনিরআখড়ায় ব্রিজ ভেঙ্গে খাদে পড়ে যাওয়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। শনিরআখড়া-দোলাইপাড় রাস্তায় ২০০ বস্তা সিমেন্টসহ একটি ট্রাক ব্রিজ ভেঙ্গে খাদে গেলে ওই রাস্তা দিয়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আজ শনিবার সকাল ৮টার দিকে শনিরআখড়া-দোলাইরপাড় সড়কে আরএস শপিং কমপ্লেক্সের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, সকাল ৮টার দিকে ট্রাকটি ২০০ বস্তা সিমেন্টসহ ডিএনডির মৃধাবাড়ি ডিএল-৪ খালের ওপর দিয়ে দনিয়া যাচ্ছিল। শনিরআখড়া-দোলাইরপাড় সড়কের আরএস শপিং কমপ্লেক্সের সামনে ব্রিজের ওপর ট্রাকটি ওঠামাত্রই ভেঙে খাদে পড়ে যায়। এরপরই সেখান দিকে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

আসমা হত্যার বিচার দাবিতে রাজধানীতে মানববন্ধন
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট: পঞ্চগড় জেলার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ঢাকাস্থ পঞ্চগড়বাসীর উদ্যোগে মাদ্রাসাছাত্রী আসমা খাতুন হত্যার বিচারের দাবিতে রাজধানীতে মানববন্ধন হয়েছে। শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন হয়। আসমা পঞ্চগড় জেলা সদরের সিংপাড়া গ্রামের দিনমজুর আবদুর রাজ্জাকের মেয়ে।

গত ১৯ আগস্ট রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনের বলাকা কমিউটার ট্রেনের পরিত্যক্ত বগির টয়লেট থেকে মাদ্রাসাছাত্রী আসমা খাতুনের গলায় ওড়না পেঁচানো লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

বক্তাদের অভিযোগ, গণমাধ্যমের খবরে আমরা জেনেছি, পঞ্চগড় থেকে আসমা তার প্রেমিক মারুফ হাসান বাঁধনের সঙ্গে ঢাকায় এসেছিল। আসার পথেই ট্রেনের মধ্যেই পালাক্রমে ধর্ষণের পর তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। এমন একটি লোমহর্ষক খুনের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত সন্দেহভাজন প্রেমিক বা হত্যাকারী, ধর্ষকদের কাউকেই গ্রেফতার করা হয়নি। আমরা আমাদের বোন আসমা হত্যা এবং ধর্ষণের বিচার চাইতে এসেছি। দোষীদের এমন শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক, যাতে আর কোনো বোন ধর্ষিত না হয়।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটির সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন সরকার। সঞ্চালনা করেন আশরাফুল ইসলাম (মনাবাবু) ও মিনহাজ প্রধান।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তসলিমা প্রধান, ডা. আহসান ফিরোজ, আবদুস সালাম, ড. রনিক শামসুজ্জামান, সফিউল আলম, মেহেদী হাসান বাবলা, খালেদ শামস প্রধান রুম্মান, নয়ন তানভীরুল বারি, মুক্তাপ্রধান, ব্যারিস্টার হিমু, অন্তু, যুক্তি, বিমল, সুমন, জুলফিকার, তুষার, সাইদুর, ফেরদৌসসহ আরও অনেকে।

এবার ডেঙ্গুতে প্রাণ হারালো শিশু খাদিজা
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট: ৫দিন ডেঙ্গুর সঙ্গে লড়াই করে অবশেষে না ফেরার দেশে চলে গেলো রাজধানীর খিলগাঁওয়ের এখলাছুর রহমান বাবুলের ৫ বছরের শিশু কন্যা খাদিজা। তার গ্রামের বাড়ি পিরোজপুরের কাউখালি উপজেলার চিরাপাড়া ইউনিয়নে।
জানা যায়, শিশু খাদিজার ডেঙ্গু জ্বর দেখা দিলে প্রথমে মুগদা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি ৩ দিন পর রাজধানীর লালমাটিয়াস্থ ঢাকা শিশু-নবজাতক ও জেনারেল হাসপাতালের আইসিউতে স্থানান্তর করা হয়। অবস্থার আরো অবনতি হলে দায়িত্বরত ডাক্তার তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখেন। একদিন লাইফ সাপোর্টে থাকার পর গতকাল ভোররাতে না ফেরার দেশে পাড়ি জমায় খাদিজা।

রাজধানীতে র‌্যাব-১০ এর অভিযানে ভুয়া সেনা কর্মকর্তা আটক
                                  

রাজধানীতে র‌্যাব-১০ এর অভিযানে ভুয়া সেনা কর্মকর্তাকে আটক করা হয়েছে। গতকাল ভোররাতে রাজধানীর সূত্রাপুর এলাকা থেকে র‌্যাব-১০ এর কোম্পানি কমান্ডার সিনিয়র সহকারী পরিচালক আলী রেজা রাব্বি’র নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে নিজেকে মেজর হিসেবে পরিচয়দানকারী এ প্রতারককে আটক করা হয়। আটককৃত আসামির নাম শাহারিয়ার ইফতি(৩১)। সে কুমিল্লার ব্রহ্মণপাড়া থানার শশীদল গ্রামের মৃত শফিউদ্দিনের ছেলে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও অনুসন্ধানে জানা যায় যে শাহারিয়ার ইফতি গত ২৪ এপ্রিল ২০১৯ইং তারিখ নিজেকে ভুয়া মেজর পরিচয়ে বিবাহ করে। প্রায় দেড় বছর পূর্বে ফেসবুকের মাধ্যমে তাহার স্ত্রী  সাথে তার পরিচয় ঘটে এবং তখন সে নিজেকে মেজর পরিচয় দেয়। বিবাহের পর স্ত্রীর আস্থা অর্জনের জন্য বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে ভূয়া আইডি কার্ড, ভিজিটিং কার্ড, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও বিজিবির পোশাক পরিহিত নিজের এডিটিংকৃত ছবি তৈরী, ওয়াকিটকি ক্রয় এবং ইন্টারনেট থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিভিন্ন কোর ইত্যাদি সম্পর্কে ধারণা নিয়ে কাগজে নোট রাখে। সে তার স্ত্রী ও স্ত্রীর পরিবারের কাছে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করা ও প্রভাবশালী প্রমাণ করার জন্য  প্রতারণার আশ্রয় নেয়। প্রকৃতপক্ষে সে সেনাবাহিনী বা অন্য কোন বাহিনীর সদস্য নয়।

এসময়  তার নিকট থেকে ১টি ভুয়া এসএসএফ আইডি কার্ড,  ১টি ভুয়া মেজর পরিচয়দানকারী ভিজিটিং কার্ড, ১টি ওয়াকিটকি সেট, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও বিজিবির উর্ধ্বতন অফিসারের পোশাক পরিহিত ২টি ছবি, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিভিন্ন কোর ও কর্মকান্ডের(প্রশিক্ষণ) ধারণা সম্বলিত তাহার নিজ হাতে লেখা কাগজপত্র-৯ পাতা এবং ১টি পুরাতন মোবাইল সেট জব্দ করা হয়।

ধৃত অপরাধীর বিরুদ্ধে সংশিষ্ট থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে।


ডেঙ্গুতে পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শকের স্ত্রীর মৃত্যু
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীতে ডেঙ্গু জ্বরে  আক্রান্ত হয়ে  পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক শাহাব উদ্দীন কোরেশীর স্ত্রী সৈয়দা আক্তার মারা গেছেন।

আজ রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর ধানমন্ডির স্কয়ার হাসপাতালে  চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশ সদর দফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) সোহেল রানা।

এর আগে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ৩০ জুলাই পুলিশ কনস্টেবল মো. দুলাল হোসেনের স্ত্রী রুপা আক্তার (২৭) ঢাকার শ্যামলী ট্রমা সেন্টার অ্যান্ড স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এর পরদিন ৩১ জুলাই পুলিশের এসআই কোহিনুর বেগম নীলা (৩৩) রাজধানীর মোহাম্মদপুর সিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

অবৈধভাবে আমদানিকৃত ভারতীয় পণ্যসহ আটক ৫
                                  

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানাধীন রায়েরবাগ থেকে অবৈধভাবে ভারত থেকে আমদানিকৃত পণ্যসহ ৫ জনকে আটক করেছে র‌্যাব-১০। কেরাণীগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মেজর সৈয়দ ইমরান হোসেন অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব তাদের আটক করে।
আটককৃতরা হলো- শ্রী শংকর দে (৩৮), মোঃ কয়েজ (৩০), মোঃ আবুল বাশার (৫১), শ্রী রিন্টু দেব (৩৪) ও মোঃ বিল্লাল হোসেন (৩২)। আটকদের মধ্যে শংকর ও রিন্টুর বাড়ি সুনামগঞ্জে, আবুল বাশারের বাড়ি মুন্সিগঞ্জের লৌহজঙ্গে এবং বিল্লালের বাড়ি ভোলার বোরহান উদ্দিন থানায়।
এসময় তাদের কাছ থেকে একটি ডেলিভারী কাভার্ড ভ্যান, ৫টি মোবাইল ফোন, ২,৮৬৯ টি     হরলিক্স এর কৌটা, নবোরত্ম আয়ুর্বেদীক ও ডাবার আমলা তেল ৬,০৯৬ বোতল, জনসন বেবী লোশন ২,৪৭২ পিস, ইমানি তেল ৫২৮ বোতল, হেয়ার জেল ১৩৩০ পিস, জনসন বেবী সোপ ৪৮০ পিস, পলো মিন্ট- ৪৩২ প্যাকেট, স্যান্ডউইচ বিস্কুট ১২০ প্যাকেট, জনসন মিল্ক এবং রাইস ক্রিম ৩৮৩০ পিস, সানসিল্ক শ্যাম্পু ১৮০ বোতল জব্দ করা হয়। তারা জব্দকৃত পণ্যগুলোর ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করলে কোনো সন্তোষজনক জবাব দিতে পারেনি এবং কোনোপ্রকার বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারেি ন।

আনসার আল ইসলামের ৩ সদস্য আটক
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর রূপনগরের একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের তিন সদস্যকে আটক করেছে পুলিশের অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিট। আটকরা হলেন-আবু সালেহ মোহাম্মদ জাকারিয়া, কিবরিয়া, আহম্মদ আলী।

শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে রূপনগর আবাসিক এলাকার ২৮ নম্বর রোডের ২৩ নম্বর বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়।

অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিটের পুলিশ সুপার মো. মাহিদুজ্জামান জানান, রাতে অভিযান চালিয়ে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। তারা আনসার আল ইসলামের সক্রিয় সদস্য।

তিনি বলেন, আটকের সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সংগঠনটির সদস্যরা বিস্ফোরণ ঘটায় এবং দেশীয় অস্ত্রসহ আক্রমণ করে। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে পাল্টা সাত রাউন্ড গুলি ছোড়ে।

এ সময় জঙ্গি সদস্যদের দায়ের কোপে পুলিশের তিনজন সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে জঙ্গি জাকারিয়াকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আটক করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে দেশীয় অস্ত্র, বিস্ফোরণের ধ্বংসাবশেষ এবং বিপুল পরিমাণ জিহাদি বই উদ্ধার করা হয়েছে।

বাড্ডায় রেনু হত্যায় গ্রেফতার আরও ৫
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর বাড্ডায় গণপিটুনিতে তাসলিমা বেগম রেনুকে হত্যার ঘটনায় আরও পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে বাড্ডার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।  এ নিয়ে রেনু হত্যাকাণ্ডে মোট ১৩ জনকে গ্রেফতার করা হলো।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- মুরাদ (২২), সোহেল রানা (৩০), বিল্লাল হোসেন (২৮), আসাদুল ইসলাম (২২) ও রাজু আহমেদ (২৩)।

বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, ছবি ও ভিডিও ফুটেজ দেখে এই পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের আদালতে তুলে সাত দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে।

এদিকে গত মঙ্গলবার রাতে নারায়ণগঞ্জের ভুলতা থেকে রেনু হত্যার মূলহোতা হৃদয়কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত  ২০ জুলাই সকালে রাজধানীর উত্তর বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিজের সন্তানের ভর্তির ব্যাপারে খোঁজ নিতে গিয়েছিলেন তাসলিমা বেগম রেণু। ছেলেধরা সন্দেহে তাকে পিটিয়ে হত্যা করে বিক্ষুব্ধ জনতা। এ ঘটনায় ওই রাতেই বাড্ডা থানায় অজ্ঞাত ৪০০-৫০০ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন নিহতের ভাগ্নে সৈয়দ নাসির উদ্দিন টিটু।

বাড্ডা-মিরপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর বাড্ডায় ও মিরপুরে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুজন নিহত হয়েছেন। বুধবার মধ্য রাতে পৃথক স্থানে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। বন্দুকযুদ্ধে নিহতদের মধ্যে একজন মাদক কারবারি এবং অন্যজন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী বলে দাবি করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীটি।

র‌্যাব-১ এর এএসপি (মিডিয়া) কামরুজ্জামান জানান, একদল মাদক ব্যবসায়ী মাদক বেচাকেনা ও মাদকের টাকা ভাগ-বাটোয়ারা করছে- এমন খবরে টহল টিম বাড্ডা থানাধীন পাঁচখোলা এলাকায় যায়।

সেখানে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে মাদক ব্যবসায়ীরা। র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলে ছোড়ে। কিছুক্ষণ পর ঘটনাস্থলে একজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়।

এএসপি কামরুজ্জামান জানান, নিহতের নাম মহারাজ (৪০)। তিনি ২৯টি মাদক মামলার আসামি। ঘটনাস্থল থেকে তিন হাজার পিস ইয়াবা, শটগান ও ওয়ান শুটারগান জব্দ করা হয়েছে। মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

অন্যদিকে রাজধানীর মিরপুর বেড়িবাঁধ এলাকায় র‌্যাবের সঙ্গে আরেকটি বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। এতে শাহাদাৎ বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী ব্যাঙ্গা বাবু নিহত হয়েছেন।

র‌্যাব-৪ এর সিনিয়র এএসপি সাজেদুল ইসলাম বলেন, রাতে খবর পাই শাহআলী থানাধীন মিরপুর বেড়িবাঁধ এলাকায় কয়েকজন শীর্ষ সন্ত্রাসী অবস্থান করছে। র‌্যাবের টহল দল সেখানে গেলে তারা গুলি ছোড়ে।

আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব পাল্টা গুলি ছুড়লে একজন গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক পৌনে ৪টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন। সেখান থেকে কয়েকটি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

পল্টন-খামারবাড়ির বোমা নিষ্ক্রিয় করলো পুলিশ
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর পল্টন মোড় ও খামারবাড়ি এলাকা থেকে বোমা উদ্ধারের পর তা নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে।

মঙ্গলবার গভীর রাতে সেগুলো নিষ্ক্রিয় করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) বম্ব ডিসপোজাল ইউনিট।

এর আগে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পল্টন মোড় এলাকায় ব্যাগের মধ্যে থাকা অবস্থায় একটি বোমা পাওয়া যায়। পরে এলাকাটি ঘিরে রাখে পুলিশ। এরপর রাতেই বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল গিয়ে সেটি নিষ্ক্রিয় করে।

শাহবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসান জানান, মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে পল্টন মোড়ে ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে একটি কার্টনে বোমা সদৃশ বস্তু দেখা যায়। এরপর পুলিশে খবর দেয়া হয়। পুলিশের বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল ঘটনাস্থলে গিয়ে তা উদ্ধার করে। গভীর রাতে সেগুলো নিষ্ক্রিয় করা হয়।

এদিকে, মঙ্গলবার রাতে তেজগাঁও খামারবাড়ি এলাকার পুলিশ বক্সের সামনে একটি বোমা পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে পুলিশ ওই এলাকাটিও ঘিরে রাখে। একপর্যায়ে খবর পেয়ে বুধবার ভোর ৪টার দিকে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দলের সদস্যরা গিয়ে বোমাটি নিষ্ক্রিয় করেন।

তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামিমুর রশিদ তালুকদার বলেন, বোমাটি উদ্ধার করে ভোর ৪টার দিকে নিষ্ক্রিয় করা হয়। এসময় বিকট শব্দ হয়। এতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন স্থানীয়রা।

রামপুরা-বাড্ডায় রিকশাচালকদের বিক্ষোভ
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর তিন সড়কে রিকশা চলাচলে নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠেছে রিকশাচালকরা।  মালিবাগ, রামপুরা, বাড্ডাসহ বেশ কয়েকটি পয়েন্টে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে রিকশাচালকরা। তারা রাজধানীর সব সড়কে রিকশা চলাচলের অনুমতি দেয়ার পক্ষে স্লোগান দিচ্ছে।

মঙ্গলবার সকাল ৮টায় রাজধানীর রামপুরার ওয়াপদা রোড, উত্তর বাড্ডা ও কুড়িল বিশ্বরোডের সড়কের একপাশে অবরোধ করে। এর ফলে বাড্ডা-রামপুরা-মালিবাগসহ আশপাশের সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। স্কুল ও অফিসগামীদের পায়ে হেঁটে গন্তব্যে যেতে দেখা গেছে।

কুড়িগ্রাম থেকে ঢাকায় এসে রিকশা চালান আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেন, আমাদের দাবি রাজপথ ছাড়তে হইব, রিকশা চলতে দিতে হইব। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে এই একটাই দাবি।

মো. জামাল নামে আরেক চালক বলেন, রিকশাটা ছাইড়া দেন, আমাদের বাঁচতে দেন। আর যদি আমাগো মারতে হয় তা হইলে বিষ কিনা দেন, খায়া মইরা যাই বাবা। আমার কোনো কিছু নাই।

রিকশাচালক মনির হোসেন বলেন, সড়কে রিকশা চলাচলের দাবিতে আমাদের আন্দোলন চলছে। সকাল ৮টা থেকে আন্দোলন শুরু হয়েছে। চলবে দুপুর ১টা পর্যন্ত। আজ পাঁচ ঘণ্টা এ কর্মসূচি পালন করব। এর মধ্যে দাবি না মানলে কালকে সাত ঘণ্টা সড়কে থাকব। এভাবে আন্দোলন চলবে। কারণ সব সড়কে আমাদের রিকশা চালাতে দিতে হবে।

বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, সকাল ৮টা থেকে উত্তর বাড্ডা এলাকায় রিকশাচালকরা অবস্থান নিয়েছেন। যার ফলে সড়কের দুই পাশেই যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

তিনি বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ বাড়তি পুলিশ সদস্য রয়েছেন। বিক্ষোভরতদের সঙ্গে কথা বলে রাস্তা থেকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।

নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার দাবিতে রাস্তায় রিকশা চালকরা
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ তিন সড়কে রিকশা চলাচলে যে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে তা তুলে নেওয়ার দাবিতে মুগদা, মানিকনগর, মান্ডাসহ বেশ কয়েকটি এলাকার সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছে রিকশাচালকরা।

সোমবার সকাল থেকে রিকশা চালকেরা রাস্তায় অবস্থান নিয়ে আন্দোলন করছে। তারা নিজেদের দাবির সপক্ষে বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছে। তাদের দাবি, যে তিন সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধ করা হয়েছে সেখানে রিকশা চলাচলের সুযোগ দিতে হবে। না হলে আরও বড় আন্দোলনে যাওয়ার আলটিমেটামও দিয়েছে রিকশা চালকরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মুগদা থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নজরুল ইসলাম জানান, মুগদা বিশ্বরোড থেকে মানিকনগর বিশ্বরোড পর্যন্ত রাস্তা জুড়ে অবস্থান নিয়েছেন রিকশাচালক ও মালিকরা। তাদেরকে রাস্তা থেকে সরে যেতে বললেও তারা সরে যায়নি। তবে তাদেরকে সরাতে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ৩ জুলাই যানজট নিরসনে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ তিনটি  সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধের ঘোষণা দেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন-ডিএসসিসি মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন।  গতকাল রবিবার থেকে এই ঘোষণা কার্যকর হয়। যে তিন সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধ করা হয়েছে সেগুলো হলো গাবতলী থেকে মিরপুর রোড হয়ে আজিমপুর; সায়েন্সল্যাব থেকে শাহবাগ এবং কুড়িল থেকে বাড্ডা, রামপুরা, খিলগাঁও হয়ে সায়েদাবাদ পর্যন্ত প্রধান সড়কে।

শিশু সামিয়ার ধর্ষণ ও হত্যকারী শনাক্ত
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর ওয়ারীর বনগ্রামে শিশু সামিয়া আক্তার সায়মাকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে শনাক্ত করেছে পুলিশ।  অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি একই ভবনে একটি পরিবারের সঙ্গে থাকতেন। তবে ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক রয়েছেন। ডিএমপির ওয়ারি বিভাগের দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা নিশ্চিত করেছেন।

এই কর্মকর্তা বলেন, ওই ভবন ও আশপাশের ভবনের ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে যাচাই-বাছাই করা হয়েছে। সন্দেহে কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িত মূল অভিযুক্ত এক যুবককে শনাক্ত করা হয়েছে। ওই যুবক ওই ভবনেই একটি ফ্লোরে বসবাস করতেন। ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে ডিএমপির ওয়ারি বিভাগের ওয়ারি জোনের সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ সামসুজ্জামান বলেন, ময়নাতদন্ত শেষে ঢামেক ফরেনসিক বিভাগ ওই শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে। মামলা হয়েছে। এই ঘটনায় তদন্ত চলছে। শিগগিরই ভালো খবর দিতে পারব।

এর আগে শনিবার দুপুরে শিশুটি সায়মার মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করার পর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সোহেল মাহমুদ জানান, প্রাথমিকভাবে তার শরীরে ধর্ষণের আলামত মিলেছে। ধর্ষণের পর তাকে গলায় রশি পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়েছে।

সোহেল মাহমুদ আরও বলেন, ময়নাতদন্তে তার যৌনাঙ্গে ক্ষত চিহ্ন, মুখে রক্ত ও আঘাতের চিহ্ন, ঠোঁটে কামড়ের দাগ দেখা গেছে। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

এর আগে রাজধানীর ওয়ারীতে শুক্রবার সন্ধ্যায় সামিয়া আফরিন সায়মা (৭) নামের এক কন্যা শিশু নিখোঁজ হয়। এর কয়েক ঘণ্টা পর ওই ভবনের ৯ তলার একটি খালি ফ্লাটে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। তার মুখে ও গলায় রক্তের দাগ রয়েছে। শিশু সামিয়া রাজধানীর সিলভারডেল স্কুলের ছাত্রী ছিল। তার বাবার নাম আব্দুস সালাম।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আব্দুস সালামের ২ মেয়ে ও ২ ছেলে। শিশু সামিয়া সবার ছোট। আব্দুস সালাম পরিবার নিয়ে ওয়ারীর বনগ্রাম মসজিদ রোডের ১৬৯ নম্বর বহুতল ভবনের ৬ষ্ঠ তলায় থাকেন। গত শুক্রবার মাগরিবের নামাজের সময় সামিয়া নিখোঁজ হয়। পরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর ওই ভবনের ৯ম তলার একটি ফাকা ফ্ল্যাটে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে থানায় খবর দেয়া হলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে ওয়ারি থানায় মামলা করেছেন শিশুটির বাবা।

ঢাকা ও কক্সবাজারে ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ নিহত ২
                                  

স্বাধীন বাংলা রিপোর্ট : রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় গোয়েন্দার (ডিবি) পুলিশের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহত রমজান আলী ওরফে রমজান মিয়া (৩৬) বাড্ডার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ আলী হত্যা মামলার প্রধান আসামি ছিলেন।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৪টার দিকে বাড্ডা এলাকার সাতারপুল নামক স্থানে ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির দক্ষিণ পাশে প্রজাপতি হাউজিং এলাকায় গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সঙ্গে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

বাড্ডা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাসুদুর রহমান জানান, মঙ্গলবার দিনগত রাত ৪টার দিকে বাড্ডার সাতারকুল এলাকায় ডিবি পুলিশের সঙ্গে কয়েকজন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীর গুলি বিনিময় হয়। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মাসুদুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় ডিবি পুলিশের দুইজন সদস্য আহত হয়েছেন। তারা চিকিৎসাধীন আছেন। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র-গুলি ও গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে।

২০১৮ সালের ১৫ জুন রাজধানীর উত্তর বাড্ডার পূর্বাঞ্চল ১ নম্বর লেনের বায়তুস সালাম জামে মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে আসা বাড্ডা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ হোসেনকে গুলি করে হত্যা করা করে দুর্বৃত্তরা। ওই হত্যা মামলার প্রধান আসামি ছিলেন রমজান।

এদিকে, কক্সবাজারের টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সলিম উল্লাহ (৩৬) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। বুধবার ভোর রাতে উপজেলার বাহারছড়া উত্তর শীলখালি মেরিন ড্রাইভ সড়কের পাশে ঝাউবাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। র‌্যাব-১৫ এর টেকনাফ ক্যাম্পের ইনচার্জ লে. মির্জা শাহেদ মাহতাব এ কথা জানান। নিহত সলিম উল্লাহ টেকনাফ সদর ইউপির নতুন পল্লান পাড়া এলাকার নজির আহম্মদের ছেলে।

র‌্যাবের দাবি, সে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ছিল। নিহত সলিম উল্লাহ দুই লাখ পিস ইয়াবা মামলার পলাতক আসামি ছিল। বন্দুকযুদ্ধে সময় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ২ টিএলজি, ১০ হাজার পিস ইয়াবা, ৩ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৭টি খালি খোসা উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব-১৫ এর টেকনাফ ক্যাম্পের ইনচার্জ লে. মির্জা শাহেদ মাহতাব জানান, বুধবার ভোর রাতে উত্তর শীলখালিতে র‍্যাবের একটি বিশেষ দল ইয়াবা উদ্ধারে যায়। সেখানে যাওয়ার পর ইয়াবা কারবারিরা র‍্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এসময় আত্মরক্ষার্থে র‍্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে গেলে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সলিম উল্লাহকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে আনা হলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

ঢাকায় ভাড়া থাকেন ১৮ লাখ মানুষ
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকা মহানগরে বসবাসরত নগরবাসীর তথ্য সংগ্রহের জন্য শুরু হলো ‘নাগরিক তথ্য সংগ্রহ সপ্তাহ ২০১৯’। শনিবার থেকে শুরু হওয়া এ নাগরিক তথ্য সংগ্রহ সপ্তাহ চলবে ২১ জুন পর্যন্ত। ডিএমপির ৫০টি থানার ৩০২টি বিট থেকে একযোগে সংগৃহীত হবে নাগরিক তথ্য সংগ্রহ ও হালনাগাদ কার্যক্রম। এই নাগরিক তথ্য সংগ্রহ কার্যক্রমে পুলিশকে সঠিক তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার আহ্বান জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। শনিবার বেলা ১১টায় ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে ‘নাগরিক তথ্য সংগ্রহ সপ্তাহ ২০১৯’ উদ্বোধনকালে নগরবাসীর প্রতি এমন আহ্বান জানান তিনি। এ সময় ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

নাগরিক তথ্য সংগ্রহের প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করে কমিশনার বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন উন্নত শহরে নাগরিকদের তথ্য ডাটাবেজ সংগ্রহ করা হয়, নাগরিকদের নিরাপত্তা সুদৃঢ় করার জন্য, কোনো অপরাধ প্রতিকার, প্রতিরোধ এবং উদঘাটনের জন্য। বিলম্ব হলেও আমরা ২০১৬ সাল থেকে অফিসিয়ালি নাগরিকদের তথ্য সংগ্রহ করছি।

তিনি বলেন, বর্তমানে ঢাকায় বসবাসরত নাগরিকদের মধ্যে বাড়িওয়ালা দুই লাখ ৪১ হাজার ৫০৭ জন। আর ভাড়াটিয়া ১৮ লাখ ২০ হাজার ৯৪ জন। এরমধ্যে ডিএমপি ৬২ লাখ ৩৪ হাজার ৫৪৭ জনের তথ্য সংগ্রহ করে তাদের সিটিজেন ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমে (সিআইএমএস) সংরক্ষণ করেছে। এর মধ্যে বাড়িওয়ালা দুই লাখ ৪১ হাজার ৫০৭ জন, ভাড়াটিয়া ১৮ লাখ ২০ হাজার ৯৪ জন, মেস সদস্য এক লাখ ২১ হাজার ৪০ জন, পরিবারের সদস্য ৩১ লাখ ৬৬ হাজার ৮২১ জন, ড্রাইভার ও গৃহকর্মী ৮ লাখ ৮৩ হাজার ৯৮৪ জন। গত ১৩ জুন পর্যন্ত সিআইএমএস সফটওয়ারে বাড়িওয়ালা ২৪১৫০৭ জন, ভাড়াটিয়া ১৮২০০৯৪ জন, মেস সদস্য ১২১০৪০ জন, অন্যান্য ১১০০ জন, পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৩১৬৬৮২১ জন ও ড্রাইভার/গৃহকর্মী ৮৮৩৯৮৪ জনসহ সর্বমোট ৬২৩৪৫৪৭ জনের তথ্য সংরক্ষিত আছে।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, এই সিস্টেমে প্রতিটি নাগরিকের জন্য একটি ইউনিক ইনডেস্ক নম্বর দেয়া আছে। সেই নম্বর দিয়ে সিস্টেমে সার্চ দিলে কাক্সিক্ষত নাগরিকের বিস্তারিত তথ্য জানা যায়। সন্ত্রাস ও উগ্রবাদ দমনে বাংলাদেশের সাফল্য বিশ্বের কাছে প্রশংসিত হয়েছে। সিআইএমএস সফটওয়ারের মাধ্যমে বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটিয়াদের তথ্য সংগ্রহ করার ফলে আমাদের এই সাফল্য এসেছে। হলি আর্টিসান হামলার পর থেকে ঢাকা শহরে নাগরিকের সঠিক তথ্য প্রদান ছাড়া কেউ বাসা ভাড়া নিতে পারে না।

প্রকল্পের মাধ্যমে নাগরিক তথ্য সংগ্রহ করতে হলে রাষ্ট্রের অনেক টাকা খরচ হতো জানিয়ে কমিশনার বলেন, স্বল্পসময়ের মধ্যে রাষ্ট্রের কোনো রকম অর্থ ব্যয় ছাড়া পুলিশ অক্লান্ত পরিশ্রম করে নগরবাসীর তথ্য সংগ্রহ করে যাচ্ছে। আমরা নাগরিকদের কাছ থেকে গৃহীত তথ্য নিরাপদে সংরক্ষণ করছি। তিন বছরে কোনো নাগরিকের তথ্য ফাঁসের ঘটনা ঘটেনি। ভবিষ্যতে যাতে না ঘটে আমরা সচেষ্ট আছি। সিআইএমএস সফটওয়ারের মাধ্যমে আমাদের অপরাধ ডিটেকশনের হার অনেকগুন বৃদ্ধি পেয়েছে। তথ্যপ্রযুক্তি ও সিআইএমএস ব্যবহারের ফলে ট্রেডিশনাল ক্রাইম হ্রাস পেয়েছে। শুধু নাগরিক তথ্য সংগ্রহ নয়, সিআইএমএস ভূমিকা রাখছে নাগরিক নিরাপত্তা বিধানে। ঢাকা শহরের ৫০টি থানায় ৩০২টি বিটের মাধ্যমে পুলিশের সাথে জনসম্পৃক্ততা সৃষ্টি করে আমরা কাজ করছি।

নাগরিক তথ্য সংগ্রহ সপ্তাহের গুরুত্ব সম্পর্কে কমিশনার বলেন, বর্তমানে আমরা লক্ষ্য করছি অনেকে নাগরিক তথ্য দিতে গরিমসি করছে। নাগরিক তথ্য সংগ্রহ শতভাগ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আমরা আবারও নাগরিক তথ্য সংগ্রহ সপ্তাহ শুরু করছি। ১৫ থেকে ২১ জুন প্রতিটি থানার বিটে বিট অফিসার ওই এলাকার রাজনৈতিক, সামাজিক, পেশাজীবী নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধি কমিউনিটি পুলিশের নেতৃবৃন্দকে সঙ্গে নিয়ে এলাকার প্রতিটি বাড়ি যাচাই করে দেখবে নাগরিক তথ্য প্রদানে কেউ বাদ পড়েছে কি না। কেউ বাদ পড়লে তাকে তথ্য ফরম দিয়ে সেই ফরমে তথ্য পূরণ করে ফেরত নেবে। এরপর ২১ জুন থেকে পরবর্তী সাতদিন ডিএমপি হেডকোয়ার্টার্স থেকে গঠিত সার্ভিলেন্স টিম র্যানডম সিলেকশনের মাধ্যমে বিভিন্ন বাসায় যাচাই করে দেখবে তাদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে কি না। এ সময় কেউ বাদ গেলে তাদের তথ্য সংগ্রহ করে সিআইএমএস সফটওয়ারে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। যাতে কেউ বাদ না যায়।

নগরবাসীকে অনুরোধ করে কমিশনার বলেন, আপনারা নিজে নিরাপদ থাকুন অন্যকে নিরাপদে রাখুন। সন্ত্রাস, উগ্রবাদ এবং অপরাধের হুমকি থেকে এই মহানগরীর মানুষকে সুরক্ষিত রাখতে তথ্য দিয়ে পুলিশকে সহায়তা করুন। আমরা একটি নিরাপদ ঢাকা বিনির্মাণের যে প্রচেষ্টা আছে, সে প্রচেষ্টায় আপনাদের নাগরিক দায়িত্ব পালন করুন। আপনার গৃহকর্মী, ড্রাইভার ও ফ্যামিলি মেম্বারদের তথ্য দিয়ে সুনাগরিকের দায়িত্ব পালন করবেন বলে আমরা প্রত্যাশা করি। সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, সংবাদকর্মীরা তাদের লেখা ও প্রচারের মাধ্যমে নগরবাসীকে সচেতন করতে পারেন। তারা যাতে সঠিক তথ্য পূরণ করে পুলিশকে দেয়। আমরা সংবাদমাধ্যম, টেলিভিশন ও অন্যান্য প্রচারমাধ্যমে নগরবাসীকে সঠিক তথ্য দিতে প্রচারণা চালাব।

এবার পুড়ল খিলগাঁও কামারপট্টি বাজার
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : এবার আগুনে পুড়েছে রাজধানীর খিলগাঁও রেলগেট সংলগ্ন কামারপট্টি বাজারের ২৫টি দোকান। বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ওই বাজারে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিটের প্রায় আড়াই ঘণ্টার প্রচেষ্টায় ভোর সোয়া ৫টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদফতর নিয়ন্ত্রণকক্ষের কর্তব্যরত কর্মকর্তা মাহফুজ রিবেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, খিলগাঁও ফ্লাইওভারের নিচে কামারপট্টি বাজারের আগুন ভোর সোয়া ৫টায় নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে প্রাথমিকভাবে অগ্নিকাণ্ডের কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। হতাহতের কোনো খবরও তারা পাননি।  

মাহফুজ রিবেন বলেন, রেললাইনের পাশে ঘিঞ্জি ওই এলাকায় তিনটি মার্কেটে প্রায় ১৩শ দোকান রয়েছে। এর মধ্যে কয়েক ডজন দোকান আগুনে পুড়ে গেছে।

রাজধানীর বনানী, গুলশান, ডেমরা, গাউছিয়া মার্কেট ও তোপখানা রোডে ট্রপিক্যাল টাওয়ারের পর এবার আগুন লাগল খিলগাঁও কাঁচাবাজারে।

আগুনে পুড়ে ছাই হওয়া দোকানের সামনে আহাজারি করছেন ব্যবসায়ীরা। বুধবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে লাগা আগুনে বেশ কিছু দোকান ও মালামাল পুড়ে আগুন নেভাতে গিয়ে আহত হয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের দুই কর্মী। তবে আগুন লাগার সূত্রপাত সম্পর্কে এখনো কিছু জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস। তবে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে লাগুন লাগতে বলে ধারণা ব্যবসায়ীদের।

রাতে রেখে যাওয়া দোকান সকালে এসে নেই দেখে ব্যবসায়ীদের কান্না আর আহাজারিতে ভারি হয়ে উঠেছে বাজারের পরিবেশ। জীবিকার একমাত্র অবলম্বন শেষ সম্বলটুকু কতটুকু রক্ষা করা সম্ভব সেই চেষ্টা করে ফিরছেন কেউ কেউ। দোকানিরা বলছেন, বৈশাখ ও ঈদকে সামনে রেখে দোকানগুলোতে মালামাল রাখা ছিল। তাদের লাখ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে গেছে।

এক দোকানী বলেন, রাত তিনটার দিকে তার এক প্রতিবেশি দোকানে আগুন লাগার খবর দেন। এরপর ছুটে এসে দেখেন দোকান পুড়ে ছাই। তার বাবা বাড়ি থেকে দোকানের জন্য টাকা এনে পণ্য উঠিয়েছেন, তার আর কিছুই নাই। সব শেষ।

অন্য এক দোকানি আহাজারি করতে করতে বলেন, এটাই আমার শেষ সম্বল ছিল ভাই। আমার সব শেষ হয়ে গেছে ভাই।

বাজারের সামনে আরেক জানান, রমজান মাস সামনে রেখে দোকোনে অনেক বেশি পণ্য দোকানে তুলেছিলেন। প্রায় ২০ লাখ টাকার মাল ছিল।


   Page 1 of 40
     রাজধানী
রাজধানীরন শনিরআখড়ায় ব্রিজ ভেঙে খাদে
.............................................................................................
আসমা হত্যার বিচার দাবিতে রাজধানীতে মানববন্ধন
.............................................................................................
এবার ডেঙ্গুতে প্রাণ হারালো শিশু খাদিজা
.............................................................................................
রাজধানীতে র‌্যাব-১০ এর অভিযানে ভুয়া সেনা কর্মকর্তা আটক
.............................................................................................
ডেঙ্গুতে পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শকের স্ত্রীর মৃত্যু
.............................................................................................
অবৈধভাবে আমদানিকৃত ভারতীয় পণ্যসহ আটক ৫
.............................................................................................
আনসার আল ইসলামের ৩ সদস্য আটক
.............................................................................................
বাড্ডায় রেনু হত্যায় গ্রেফতার আরও ৫
.............................................................................................
বাড্ডা-মিরপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২
.............................................................................................
পল্টন-খামারবাড়ির বোমা নিষ্ক্রিয় করলো পুলিশ
.............................................................................................
রামপুরা-বাড্ডায় রিকশাচালকদের বিক্ষোভ
.............................................................................................
নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার দাবিতে রাস্তায় রিকশা চালকরা
.............................................................................................
শিশু সামিয়ার ধর্ষণ ও হত্যকারী শনাক্ত
.............................................................................................
ঢাকা ও কক্সবাজারে ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ নিহত ২
.............................................................................................
ঢাকায় ভাড়া থাকেন ১৮ লাখ মানুষ
.............................................................................................
এবার পুড়ল খিলগাঁও কামারপট্টি বাজার
.............................................................................................
বনানীর পর আগুনে পুড়ল গুলশান কাঁচাবাজার
.............................................................................................
রাজধানীতে বাসচাপায় ছাত্র নিহত
.............................................................................................
শিশু মাহির লাশ উদ্ধার, নিখোঁজ ৪
.............................................................................................
কড়াইল বস্তিতে আগুন
.............................................................................................
গুলিস্তানে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক মামলার আসামি নিহত
.............................................................................................
ঢাকায় ৪.১ মাত্রার ভূমিকম্প
.............................................................................................
রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কায় ২ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
বুড়িগঙ্গায় নৌকাডুবি, নিহত ৩
.............................................................................................
মিরপুরে গার্মেন্টস শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ
.............................................................................................
পল্টনে ঐক্যফ্রন্টের অফিস ভবনে আগুন
.............................................................................................
রাজধানীতে সাদেক খাঁনের মতবিনিময় সভা
.............................................................................................
রাজধানীতে প্রশ্নফাঁস চক্রের ৭ সদস্য আটক
.............................................................................................
জঙ্গি অর্থায়নের অভিযোগে রাজধানীতে ৮ এনজিওকর্মী আটক
.............................................................................................
সোহরা্ওয়ার্দী থেকে পিপার স্প্রেসহ বিয়ানীবাজারের দুই তরুণ আটক
.............................................................................................
১৮ মাস ধরে মেয়েকে ধর্ষণ, বাবা আটক
.............................................................................................
উত্তরায় অস্ত্র-গুলি ও মাইক্রোবাসসহ ৬ ভুয়া ডিবি পুলিশ আটক
.............................................................................................
রাজধানীতে পুলিশের গুলিতে ‘ছিনতাইকারী’ আহত
.............................................................................................
ভ্রাম্যমাণ আদালতের জালে নকল বি.আর.বি কেবলসের কারখানা
.............................................................................................
গ্যাস লাইনে লিকেজ : মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫
.............................................................................................
রাজধানীতে ঝরল তিন প্রাণ
.............................................................................................
দগ্ধ আরেক নারীর মৃত্যু
.............................................................................................
গ্যাস লাইন লিকেজ হয়ে একই পরিবারের ৮ জন দগ্ধ
.............................................................................................
মেডিকেলে প্রশ্নফাঁস চক্রের পাঁচ সদস্য আটক
.............................................................................................
মিরপুরে শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু
.............................................................................................
রাজধানীর নতুন বাজারে বড়ভাইদের দখলে ফুটপাত, চরম ভোগান্তিতে পথচারীরা
.............................................................................................
হাতিরঝিলে রেলিং ভেঙে মাইক্রোবাস লেকে, আহত ১
.............................................................................................
রাজধানীতে ৫ বছরের শিশু ধর্ষণের অভিযোগ
.............................................................................................
রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি
.............................................................................................
রাজধানীতে জলজট
.............................................................................................
রমজানেও গ্যাস সংকটে রাজধানীবাসী
.............................................................................................
রাজধানীতে দুপুরেই রাতের আঁধার
.............................................................................................
‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২
.............................................................................................
সদরঘাটে দুই লঞ্চের মুখোমুখি সংঘর্ষ
.............................................................................................
রাজধানীতে পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Nytasoft