বুধবার, ৮ এপ্রিল 2020 | বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   গ্রাম বাংলা -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
মাদারীপুরে নারী পুলিশকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা

মাসুদুর রহমান, মাদারীপুর থেকে : মাদারীপুরে অনিমা বাড়ৈ নামের এক নারী পুলিশকে (পিএসআই) কুপিয়ে হত্যাচেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে শহরের লেকপাড় পৌর শিশুপার্কের পাশে এ ঘটনা ঘটে। আহত অনিমা বাড়ৈ সদর মডেল থানার প্রশিক্ষণকালীন উপ-পরিদর্শক (পিএসআই)।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, অনিমার বাড়ি গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায়। এদিকে ঘাতক রনবীরের বাড়ি বগুড়া জেলায়, সে রাজধানী ঢাকায় থাকে।

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল হান্নান জানান, সদর মডেল থানায় ডিউটি শেষে সন্ধ্যার পর বের হয় অনিমা। পরে রিক্সায় করে তার কথিত প্রেমিক রনবীরের সাথে শহরের বিভিন্ন এলাকায় একত্রে ঘুরে বেড়ায়। রাত সাড়ে ১১টার দিকে অনিমাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে রনবীর। অনিমার ডাক-চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে পালিয়ে যায় কথিত ওই প্রেমিক। পরে গুরুতর অবস্থায় অনিমাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে রাতেই তাকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন কর্তৃব্যরত ডাক্তার। ঘাতক রনবীরকে ধরতে মাঠে নেমেছে পুলিশ।

মাদারীপুরে নারী পুলিশকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা
                                  

মাসুদুর রহমান, মাদারীপুর থেকে : মাদারীপুরে অনিমা বাড়ৈ নামের এক নারী পুলিশকে (পিএসআই) কুপিয়ে হত্যাচেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে শহরের লেকপাড় পৌর শিশুপার্কের পাশে এ ঘটনা ঘটে। আহত অনিমা বাড়ৈ সদর মডেল থানার প্রশিক্ষণকালীন উপ-পরিদর্শক (পিএসআই)।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, অনিমার বাড়ি গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায়। এদিকে ঘাতক রনবীরের বাড়ি বগুড়া জেলায়, সে রাজধানী ঢাকায় থাকে।

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল হান্নান জানান, সদর মডেল থানায় ডিউটি শেষে সন্ধ্যার পর বের হয় অনিমা। পরে রিক্সায় করে তার কথিত প্রেমিক রনবীরের সাথে শহরের বিভিন্ন এলাকায় একত্রে ঘুরে বেড়ায়। রাত সাড়ে ১১টার দিকে অনিমাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে রনবীর। অনিমার ডাক-চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে পালিয়ে যায় কথিত ওই প্রেমিক। পরে গুরুতর অবস্থায় অনিমাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে রাতেই তাকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন কর্তৃব্যরত ডাক্তার। ঘাতক রনবীরকে ধরতে মাঠে নেমেছে পুলিশ।

নুসরাত হত্যার এক বছর আজ
                                  

ফেনী প্রতিনিধি : ফেনীর সোনাগাজীর ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার এক বছর আজ।

গত বছরের ৬ এপ্রিল মাদ্রাসা কেন্দ্রের সাইক্লোন শেল্টারের ছাদে নিয়ে অধ্যক্ষের সহযোগীরা তার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়।এতে তার শরীরের ৮৫ শতাংশ পুড়ে যায়। টানা পাঁচদিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে ৯ এপ্রিল রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায় নুসরাত জাহান রাফি।

নুসরাতের ওপর অগ্নিসন্ত্রাসের এক বছর পরও তাদের বাড়িতে প্রাণচাঞ্চল্য ফেরেনি। পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তায় তিনজন পুলিশ সদস্য পাহারায় রয়েছেন।

নুসরাতের বড় ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান বলেন, সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের স্বজনরা এখনও আমাদের হুমকি দিচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমাদের পরিবারের বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত বিষোদগার করে যা ইচ্ছা তাই লিখে যাচ্ছে। আমরা এর প্রতিকার চাই। রায় দ্রুত কার্যকর হলে আমার বোনের আত্মা শান্তি পাবে।

এ ঘটনায় নুসরাতের ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান ৮ এপ্রিল সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

এর আগে ২০১৯ সালের ২৭ শে মার্চ নিজ প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা কর্তৃক যৌন নিপিড়নের শিকার হন রাফি। ওই ঘটনায় তার মা বাদি হয়ে অধ্যক্ষ সিরাজকে একমাত্র আসামি করে মামলা করেন। একই দিন পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। ওই মামলা তুলে নিতে অধ্যক্ষের অনুসারী ওই মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা রাফি ও তার পরিবারের সদস্যদের চাপ দিতে থাকে। ২০১৯ সালের ৩রা এপ্রিল খুনিরা সিরাজের সঙ্গে কারাগারে পরামর্শ করে এসে ৪ এপ্রিল মাদ্রাসার ছাত্রাবাসে নুসরাতকে খুন করার পরিকল্পনা নেয়।

এই মামলায় ২৮ মে অভিযোগপত্র দাখিলের পর ২০ জুন অভিযোগ গঠন করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। পরে সাক্ষ্যগ্রহণ ও যুক্তিতর্ক শেষে ৩০ সেপ্টেম্বর আদালত রায়ের জন্য ২৪ অক্টোবর নির্ধারণ করেন।

রায়ে সেই মাদ্রাসা অধ্যক্ষ এসএম সিরাজ উদ-দৌলাসহ ১৬ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেন ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত  অন্য আসামিরা হলেন- নুর উদ্দিন (২০), শাহাদাত হোসেন শামীম (২০), কাউন্সিলর ও সোনাগাজী পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ আলম (৫০), সাইফুর রহমান মোহাম্মদ জোবায়ের (২১), জাবেদ হোসেন ওরফে সাখাওয়াত হোসেন (১৯), হাফেজ আব্দুল কাদের (২৫), আবছার উদ্দিন (৩৩), কামরুন নাহার মনি (১৯), উম্মে সুলতানা পপি (১৯), আব্দুর রহিম শরীফ (২০), ইফতেখার উদ্দিন রানা (২২), ইমরান হোসেন মামুন (২২), সোনাগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মাদ্রাসার সাবেক সহ-সভাপতি রুহুল আমিন (৫৫), মহিউদ্দিন শাকিল (২০) ও মোহাম্মদ শামীম (২০)।

গত ২৯ অক্টোবর আসামিদের মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদনের জন্য (ডেথ রেফারেন্স) মামলার সব ধরনের কার্যক্রম হাইকোর্টে পৌঁছে। ফৌজদারি কার্যবিধি অনুসারে বিচারিক আদালতে মৃত্যুদণ্ডাদেশ হলে মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদনের জন্য মামলার ধরে কার্যক্রম উচ্চ আদালতে পাঠাতে হয়। সে অনুসারে ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে আসে। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পেপারবুক (মামলার সব নথি) ছাপানো শেষ করা হয়েছিল। পরে প্রয়োজনীয় কাজ শেষে শুনানির জন্য মামলাটি প্রধান বিচারপতি কাছে উপস্থাপন করা হয়। আপিল বিভাগ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শুনানির জন্য বেঞ্চ নির্ধারণ করেছেন প্রধান বিচারপতি। বিচারপতি সৌমেন্দ্র সরকারের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে এ মামলার শুনানির জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

নুসরাতের আইনজীবী এম শাহজাহান সাজু জানান, আলোচিত নুসরাত হত্যা মামলার পর খুব দ্রুত সময়ে পেপারবুক তৈরি হয়েছে। আশা করছি, করোনা পরিস্থিতির উত্তরণ ও সাধারণ ছুটি শেষ হলে হাইকোর্টের আপিল বিভাগের শুনানির কাজও শুরু হয়ে যাবে। মামলাটির নিষ্পত্তির বিষয়ে সরকার সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে যাচ্ছে। আশা করছি, দ্রুত সময়ে বাকি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে এবং সব আসামির ফাঁসি কার্যকর হবে।

আগৈলঝাড়ায় মাদক সেবীর হামলায় আহত ১
                                  

মোল্লা আজিজুল, বরিশাল থেকে: সরকার যখন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় নিরালস ভাবে কাজ করছে ঠিক সেই মুহুর্তে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে বরিশালে আগৈলঝাড়ায় মাদক সেবী সৈকত ভক্ত। মাদক সেবনে বাধা দেওয়ায় সৈকত ভক্ত ও তার দুই ভাই হামলা চালিয়ে ওই ব্যাক্তিকে আহত করে। গুরুতর আহত আবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত ও এলাকা সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামের শান্তি রঞ্জন ভক্তের পুত্র নানা অপরাধের গডফাদার এবং মাদক ব্যবসায়ীদের শেল্টারদাতা হিসাবে পরিচিত সৈকত ভক্তকে মাদক সেবনে বাধা দেয় ওই এলাকার সুতিশ ভক্তের পুত্র পলাশ ভক্ত। মাদক সেবনে বাধা দেওয়া ও অজানা কারো ভাইগুরু নামের একটি ফেইচবুক আইডিতে সৈকত ভক্তকে মাদক সেবন থেকে বিরত থাকার কথা বলায় সৈকত ভক্ত ও তার দুই ভাই নয়ন ও সুমন ভক্ত গতকাল হামলা চালিয়ে একই এলাকার পলাশ ভক্তকে গুরুতর আহত করে। স্থানীয় লোকজন আহতকে উদ্ধার করে আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এঘটনায় পলাশ ভক্ত বাদী হয়ে আগৈলঝাড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করে।

ফরিদপুরে আইসোলেশনে থাকা রোগীর মৃত্যু, গ্রাম লকডাউন
                                  

ফরিদপুর প্রতিনিধি : ফরিদপুর মেডিকেলল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা আবু শেখ (৭০) নামের এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার সকালে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। মৃত ব্যক্তির বাড়ি জেলার মধুখালী উপজেলার জাহাপুর ইউনিয়নের চরমুরারদিয়া গ্রামে। গত ৫ই মার্চ সর্দি জ্বর ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আসেন ওই ব্যক্তি। পরে, করোনা সন্দেহে চিকিৎসকরা তাকে আইসোলেশনে রাখেন।

ফরিদপুরের সিভিল সার্জন জানান, মেডিকেল হাসপাতালে মৃত ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। এখন আমরা মৃতের পরবর্তি কাজ সম্পাদনের প্রস্তুতি নিচ্ছ।

এদিকে ফরিদপুর পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে মৃত ব্যক্তির গ্রাম লকডাউন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো, আলিমুজ্জামান।

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২
                                  

কক্সবাজার প্রতিনিধি : কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি, তারা মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন। রোববার রাত ১টার দিকে হোয়াইক্যং ইউনিয়নের জিমংখালী চিংড়ি প্রজেক্ট বাঁধ সংলগ্ন এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এসময় তিনপুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

নিহতরা হলো- টেকনাফ পৌরসভার পুরাতন পল্লান পড়ার সুলতান আহমেদ এর ছেলে মাহমুদ উল্লাহ (২৬) ও হোয়াইক্যং ঝিমমং খালীর জাফর আলমের ছেলে মোহাম্মদ মিজান (২৪)।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, রোববার সকাল সাড়ে ৯টায় মাইক্রোবাসের চালক মাহমুদ উল্লাহকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করে। এসময় গাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে পাঁচ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুসারে রাত ১টার দিকে উপজেলার হোয়াইক্যংয়ের জিমংখালী চিংড়ি প্রজেক্ট বাঁধ সংলগ্ন এলাকায় মজুদ রাখা ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশ। এসময় পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে তাকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়। পরে পুলিশও অত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। হামলাকারীরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবদ্ধ অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। অভিযানে মোট ১৫ হাজার ইয়াবা, দুটি এলজি, গুলি, খালি খোসা ও একটি মাইক্রোবাস জব্দ করে পুলিশ।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি জানান, মাদক উদ্ধার অভিযানের সময় গোলাগুলিতে দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। তবে অভিযান শেষে থানায় ফেরার সময় পৌরসভা এলাকার হোটেল হিলটপ সংলগ্ন মেইন রোডে ইঞ্জিনের ত্রুটির কারণে ইয়াবা বহনকরা মাইক্রোবাসটিতে অগ্নিকাণ্ড হয়। ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

তিনি জানান, করোনাভাইরাস সামলাতে যখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন।  এই সুযোগে কিছু মাদকব্যবসায়ী ইয়াবার চালান পাচারের চেষ্টা করছিল। মাদক ঠেকাতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি ও সদর এলাকা লকডাউন
                                  

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : এক সপ্তাহে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নারায়ণগঞ্জে দুইজনের মৃত্যু এবং আরও নয়জনের শরীরে অদৃশ্য এ ভাইরাসটি শনাক্তের পর নড়েচড়ে বসেছে জেলা প্রশাসন। করোনা মোকাবেলায় অবাধ চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে এবার কঠোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সদর উপজেলার তিনটি থানা এলাকাকে এক প্রকার অঘোষিত লকডাউন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। রোববার রাতে জেলা প্রশাসনের এক জরুরি সভায় এমনই সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আজ সোমবার থেকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এলাকা, সদর ও বন্দর উপজেলায় কেউ অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসা-বাড়ি থেকে বের হতে পারবে না। কেউ অহেতুক বাসা থেকে বের হলে তার উপর প্রশাসনের কঠোর অ্যাকশন চলবে।

জেলা প্রশাসনের একটি সূত্র জানায়, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দিনের সভাপতিত্বে রাত আটটা থেকে সোয়া ১০টা পর্যন্ত এই জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপস্থিত ছিলেন নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী, সেনাবাহিনীর লে. কর্ণেল আব্দুল মোত্তাকিন, বিজিবি নারায়ণগঞ্জ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে: কর্ণেল মেহেদী হাসান আল আমীন, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম, র‌্যাব-১১ অধিনায়ক লে. কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার এবং জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইমতিয়াজ। সভায় করোনা পরিস্থিতির বর্তমান ভয়াবহতার চিত্র তুলে ধরে বিস্তারিত আলোচনা করেন সংশ্লিষ্টরা।

সভা প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দিন বলেন, বৈঠক করে সবার সম্মতিক্রমে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি নারায়ণগঞ্জ শহরের সদর উপজেলাধীন তিনটি থানা অর্থাৎ সিদ্ধিরগঞ্জ, সদর থানা ও ফতুল্লা থানা এলাকার কাউকে বাইরে যেতে দেয়া হবে না এবং বাইরে থেকে কাউকে ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম বলেন, এখন থেকে আমরা জিরো টলারেন্স। কোনো এলাকা থেকে কেউ বের হবে না। নারায়ণগঞ্জে ইনপুট আউটপুট বন্ধ থাকবে। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ বের ও ঢুকতে পারবে না। এখন নারায়ণগঞ্জ বেশ গুরুত্বপূর্ণ এ কারণে আমরা কঠোর অবস্থানে রয়েছি। সোমবার থেকে পিপিই প্রস্তুত করা ও বিদেশি অর্ডার ছাড়া বাকি সব পোশাক কারখানা বন্ধ থাকবে। পরিস্থিতি ভালো না হওয়া পর্যন্ত আমরা কঠোর থাকব।

নারায়ণগঞ্জে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে ১১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে আবু সাইদ (৬০) নামে এক হোশিয়ারী ব্যবসায়ী ও পুতুল বেগম (৫০) নামে নারী মারা গেছেন। এছাড়া করোনা আক্রান্ত ৬ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জেলা স্বাস্থ্যবিভাগ জানিয়েছে।

সিংগাইরে তাবলীগে আসা বৃদ্ধ করোনা আক্রান্ত, এলাকা লকডাউন
                                  

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি : ফরিদপুর থেকে মানিকগঞ্জের সিংগাইরে তাবলীগ জামাতে আসা এক বৃদ্ধ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ ঘটনায় সিংগাইর পৌর এলাকা লকডাউন ঘোষণা করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

সিংগাইর উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুনা লায়লা লকডাউনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তি ফরিদপুর জেলার নগরকান্দা উপজেলার বাসিন্দা। তার বয়স আনুমানিক ৬০ বছর। তিনি সিংগাইর পৌরসভার আজিমপুর নয়াডাঙ্গী এলাকার বাইতুল মামুর ও মারকাযুল মা আরিফ ওয়াদ-দা ওয়াহ মাদরাসায় তাবলীগ জামাতে এসেছিলেন।

রুনা লায়লা জানান, গত ২৪ মার্চ থেকে ১২ সদস্যর একটি তাবলীগ জামাতের দল সিংগাইর পৌর এলাকার আজিমপুর নয়াডাঙ্গী বাইতুল মামুর ও মারকাযুল মা আরিফ ওয়াদ-দা ওয়াহ মাদ্রাসায় তাবলীগ জামাতে এসেছিলেন। তারা মাদ্রাসায় অবস্থান করছিলেন। এদের মধ্যে এক বৃদ্ধের করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দিলে তিনি তার এক আত্মীয়ের সঙ্গে ঢাকায় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) গিয়ে পরীক্ষা করান। পরে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হলে তাকে আইইডিসিআরের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে।

ওই বৃদ্ধের সঙ্গে থাকা অন্যান্য ১১ সদস্য ও স্থানীয় ৬ সদস্য এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, শনিবার রাত ১২টার দিকে আইইডিসিআর থেকে তার করোনায় আক্রান্তের খবর আমাদের জানানো হয়। এরপরই সিংগাইর পৌরসভা এলাকা লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

মাদারীপুরে জ্বর-গলাব্যথায় একজনের মৃত্যু
                                  

মাদারীপুর প্রতিনিধি : মাদারীপুরে জ্বর ও গলাব্যথা নিয়ে আবদুস সালাম ফকির (৪৮) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার ভোরে কালকিনি উপজেলার কয়ারিয়া ইউনিয়নের চরআলিমাবাদ গ্রামে তার মৃত্যু হয়।

কয়ারিয়া ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার শহিদুল ইসলাম জানান, ভোরে কালকিনি থানার ওসি আমাকে ফোন দিয়ে আমার ওয়ার্ডে একজনের মৃত্যু সংবাদ দিয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়ার কথা বলেন। আমি সেখানে গিয়ে সালামের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি, বিকেলে তিনি বাড়ির পাশে দোকানে গিয়েছিলেন। সন্ধ্যার কিছুক্ষণ পর বাড়ি আসলে শরীরের জ্বর ও গলা ফুলে যায়। এসময় তারা স্থানীয় একজন চিকিৎসকে ডেকে আনলে তিনি কিছু ওষুধ দেন। পরবর্তীতে ভোরে সালাম মারা যান।

এ বিষয়ে মাদারীপুরের সিভিল সার্জন শফিকুল ইসলাম বলেন, শনিবার সন্ধ্যার পর হঠাৎ করে জ্বর ও গলাব্যথা হয় ওই ব্যক্তির। পরে পল্লি চিকিৎসক তাকে ওষুধ দেন। রোববার ভোরে তিনি মারা যান।

তিনি  বলেন, ওই ব্যক্তি হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন। আমাদের চিকিৎসকরা ঘটনাস্থলে গিয়েছেন। ওই ব্যক্তির করোনাভাইরাসে আক্রান্ত্র হওয়ার কোনো কারণ ও লক্ষণ নেই। তাই পরীক্ষারও দরকার নেই।

লক্ষ্মীপুরে শ্বাসকষ্টে শিশুর মৃত্যু
                                  

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : নভেল করোনাভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের মধ্যে লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে শ্বাসকষ্ট ও খিঁচুনিতে মো. হাবীব (২) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের দুই নম্বর ওয়ার্ড এলাকার নিজ বাড়িতে শিশুটি মারা যায়।

মৃত হাবীব ওই এলাকার মো. সবুজের ছেলে। এ ঘটনার পর উপজেলা প্রশাসন মৃত শিশুটির বাড়িসহ তিনটি বাড়ি লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আমীনুল ইসলাম মঞ্জু জানান, শিশুটি দীর্ঘদিন ধরে শ্বাসকষ্টে ভুগছিলো। গত দু’দিন আগে তার শ্বাসকষ্ট বেড়ে যায়। শুক্রবার সন্ধ্যায় শ্বাসকষ্টের সঙ্গে খিঁচুনি দেখা দিয়ে শিশুটি মারা যায়।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের উপসর্গ (শ্বাসকষ্ট ও খিঁচুনি) থাকায় শিশুটির মরদেহের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়েছে। আশা করছি দুই-তিন দিনের মধ্যে ফলাফল চলে আসবে। তখন বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোবারক হোসেন জানান, এ ঘটনায় মৃত শিশুটির বাড়িসহ তিনটি বাড়ি লকডাউনে রাখা হয়েছে। ওই সব বাড়ির লোকজন অন্য কোথায় যেতে পারবেন না। আবার অন্য কোনো লোক ওই সব বাড়িতে প্রবেশ করতে পারবেন না।

কুমিল্লায় করোনায় উপসর্গ থাকা ২ ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন
                                  

কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লায় জ¦র-কাশি ও গলাব্যাথা থাকার কারণে করোনা সন্দেহে দুই ব্যাক্তির বাড়ি লকডাউন করেছে প্রশাসন। জেলার হোমনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, ওই দুই ব্যাক্তি সম্প্রতি ঢাকা থেকে বাড়ি এসেছেন এবং দু’জনেই জ¦র-কাশি-সর্দি ও গলাব্যথায় ভুগছেন। নমুনা সংগ্রহের পর সন্দেহভাজন একজনকে জরুরি ভিত্তিতে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে। সন্দেহভাজনদের নমুনা সংগ্রহের পর ডাক্তারদের ব্যবহৃত পিপিই এবং বসার আসনটি আগুনে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবদুছ ছালাম সিকদার জানান, করোনা আক্রান্ত সন্দেহভাজন একজন গত চার দিন আগে ঢাকা থেকে বাড়ি আসেন। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে চাকরি করেন। অপর ব্যক্তি পেশায় আইনজীবী। তাদের দুজনেরই সর্দি-কাশি, জ¦র, গলাব্যথা যা করোনার উপসর্গ। ডা: মাহবুবুর রহমান ও মেডিকেল টেকনোলজিস্ট আবদুল্লাহ আল কাফীর মাধ্যমে ওই ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহ করে সরকারি রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়েছে।

করোনা সন্দেহে আত্রাইয়ে তিন বাড়ি লকডাউন
                                  

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর আত্রাই উপজেলার বিশা ইউনিয়নের খাসখামার গ্রামে ঢাকা থেকে আসা তিন ব্যক্তির করোনা ভাইরাসের লক্ষণ দেখা দেয়ায় ওই গ্রামের তিনটি বাড়ি লকডাউন করেছে উপজেলা প্রশাসন। পাশাপাশি পাশ্ববর্তী বাড়িঘরের লোকজনকে সতর্ক করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ছানাউল ইসলাম, এসিল্যান্ড আরিফ মুর্শেদ মিশু, উপজেলা  স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রোকসানা হ্যাপি সরেজমিন প্রত্যক্ষ করে এই ব্যবস্থা নেন।

উপজেলা  স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা  ডাঃ রোকসানা হ্যাপি জানান, পরীক্ষার জন্য অসুস্থ ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহ করে আইডিসিআর-এ পাঠানো হয়েছে। অসুস্থ ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এছাড়া তিনটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে ।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ছানাউল ইসলাম বলেন, গত সপ্তাহে ওই তিন ব্যক্তি ঢাকা থেকে বাড়ি আসার পর থেকেই জ্বর-কাশি ও গলা ব্যথায় অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাদের শরীরে করোনাভাইরাসের লক্ষণ থাকায় তাৎক্ষণিক ওই বাড়িগুলো লকডাউন করা হয়। ওই বাড়ি গুলোর আশেপাশে জনসাধারণের চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে এবং ওয়ার্ড কমিটিকে সার্বক্ষনিক তদারকির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এছাড়া তাদের নিত্য প্রয়োজনীয় বিষয়ে অবগত করতে বলে হয়েছে, যাতে কোন বিষয়ে তাদেও কোন সমস্যা না হয়।


মাগুরায় করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর মৃত্যু
                                  

মাগুরা প্রতিনিধি: মাগুরার মহম্মদপুরে করোনা উপসর্গ- জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে চিকিৎসাধীন বাকি মিয়া(৪৮) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। আজ শুক্রবার সকালে তার মৃত্যু হয়। এরআগে, এ উপসর্গ নিয়ে বৃহস্পতিবার প্রথমে তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। অবস্থার অবনতি হলে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে জ¦র, কাশি ও শ^াসকষ্ট নিয়ে মহম্মদপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন বাকি। এ সময় করোনা সন্দেহে চিকিৎসকরা তাকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার সকালে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে স্থানীয় প্রশাসন মৃতের বাড়িসহগ আরো কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করেছে। করোনার বিষয়টি নিশ্চিত হতে নমুনা ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মোকছেদুল মমিন জানান, তাকে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আইসোলেশনে রেখে স্বাভাবিক সব চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার সকালে অবস্থার অবনতি হওয়ায় ফরিদপুর মেডিকেলে পাঠানো হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

মুরাদনগরে উপজেলা প্রশাসনের অভিযান ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
                                  

মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি : দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছে সরকার। কিন্তু এই নিষেধাজ্ঞাকে অমান্য করে বিভিন্ন এলাকায় চায়ের দোকানে চলে আড্ডাবাজী। এই পরিস্থিতিতে উপজেলা প্রশাসন ও বাঙ্গরা বাজার থানা পুলিশ বুধবার দিবাগত রাতে বাঙ্গরা বাজার থানা এলাকায় যৌথ অভিযান পরিচালনা করে কিছু দোকানদারকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করে সকল দোকন বন্ধ নিশ্চিত করা হয়।

পাশাপাশি মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার অভিষেক দাশ নিজস্ব অর্থায়নে কাজ না করতে পারায় বিপদে পড়া নিম্ন আয়ের বেদে পল্লীতে থাকা মানুষজনের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন।

বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার গাজীর হাট এলাকায় ঘুরে ঘুরে ৯টি বেদে পরিবারের মাঝে এ সহায়তা প্রদান করেন। পাশাপাশি করইবাড়ী এলাকায় একটি চায়ের দোকান বন্ধ করার পর ওই দোকনী মহিলার স্বামী নেই জানতে পেরে সাথে সাথে তার বাড়ীর খোজ নিয়ে তার হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন ইউএনও অভিষেক দাশ। প্রতিটি পরিবারকে ৭ কেজি চাল, ২ কেজি ডাল, ২ কেজি পেয়াজ, ২ কেজি আলু, আধা কেজি তেল ও একটি সাবান দেয়া হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাঙ্গরা বাজার থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান তালুকদার, উপজেলা পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের সমন্বয়কারী আফজালের রহমান, উপজেলা বিএডিসি প্রতিনিধি সজিব মন্ডল প্রমুখ।

মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন এক আলোর মশাল
                                  

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি : সারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশের মানুষও করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত। দেশের জনসাধারণের মধ্যে করোনাভাইরাসে সংক্রমন এড়াতে নানাবিধ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকার। সরকারের  নীতিনির্ধারণী মহল ও স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়  ইতোমধ্যে জারী করেছে নির্দেশনা। আর এসকল নির্দেশনা বাস্তবায়নে মহানগর, জেলা ও উপজেলা তথা মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে স্থানীয় প্রশাসন। দেশের অন্যান্য স্থানের মত প্রবাসী অধ্যুষিত মৌলভীবাজারেও  যখন এ আতঙ্ক বিরাজ করছে জনমনে, তখন আলোর মশাল হয়ে কর্তব্যনিষ্ঠা দিয়ে নিজেকে মেলে ধরেছেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন।

অসীম সাহসিকতা ও অদম্য মনোবলে দৃঢ়তার সাথে সকাল থেকে রাত অবধি ছুঁটে চলেছেন জেলার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে। সেই সাথে ন্যায়-নিষ্ঠা ও সততার মাধ্যমে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। আতঙ্কিত মানুষকে সচেতন করা, হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা, বাজার মূল্য স্থিতিশীল রাখাসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলা, পৌরসভা এমনকি  ইউনিয়নে অসহায়-দরিদ্র ও নিম্ন আয়ের মানুষের খোঁজ-খবর নিচ্ছেন প্রতি মূহুর্তে। তাঁর এসকল কর্মযজ্ঞের কারণে এ জেলায়  মানবতাবাদের এক জ্বলন্ত উদাহরণ হয়ে উঠেছেন তিনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ জনমনেও নন্দিত হচ্ছেন  এ প্রশাসনিক কর্মকর্তা। দক্ষতা, সহনশীল মানবিকতা আর সদাহাস্য আচরণ তার কর্মগুণকে প্রশংসিত করেছে পর্যটন খ্যাত জেলা মৌলভীবাজারে।

সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক  তিনি এ জেলার জনপ্রতিনিধি, পুলিশ প্রশাসন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদেরকে নিয়ে  জনগণকে সচেতন ও হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ছুটে চলেছেন জেলার এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে। আইনের কোন ব্যত্যয় ঘটলে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে আইন অমান্যকারীর বিরুদ্ধে নিচ্ছেন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা। ইতোমধ্যে যা দৃশ্যমান হয়েছে। এ জেলায়  করোনা ভাইরাসকে পূঁজি করে অসাধু ব্যবসায়ীরা যখন দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করেছে তখনও  বাজার নজরদারি করে একাধিক ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে অসাধু ব্যবসায়ীকে করেছেন জরিমানা। পাশাপাশি দিয়েছেন কঠোর নির্দেশনা।

এদিকে করেনা ভাইরাসের সংক্রমন এড়াতে নিত্য আয়ের মানুষেরা কর্মহীন হয়ে পড়ায় তাদের সহায়তায় সরকারের পাশাপাশি নিজ উদ্যোগে  শুরু করেছেন তহবিল গঠনের কাজ।  সরকারী তহবিল থেকে এপর্যন্ত ২০ হাজার পরিবারকে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ও নগদ  অর্থ সহায়তা দিয়েছেন। নিজস্ব  তহবিল থেকে তিনি  জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে অসহায় মানুষদের চিহ্নিত করে তাদের কাছে সহায়তা পৌঁছে দিচ্ছেন অবলীলায়। অত্যন্ত স্বাবলীলভাবে খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষদের তালিকা করে  দিয়েছেন মাক্সসহ নানা উপকরণ। অন্যদিকে মরণব্যাধী অদৃশ্য এ ঘাতকের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা তৈরীতে মাঠ পর্যায়ে প্রচারণাসহ তাঁর অফিসিয়াল ফেইসবুক পেজে দিয়েছেন বিভিন্ন পরামর্শ।

তিনি বলেন, আমাদের সবাই কে নিজের ও পরিবারের সার্থে ভালো থাকতে হবে। তাই বাইরে নয়, ঘরে অবস্থান করুন। সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক কয়েকটা দিন কষ্ট করে নিজের, পরিবার এবং দেশের  মানুষের স্বার্থে নিজ ঘরে অবস্থান করুন। তিনি বলেন সকলের সহযোগিতা থাকলে আমরা এই সংকট কাটিয়ে উঠতে পারবো।

নওগাঁয় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২
                                  

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁয় জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ ও থানা পুলিশের সঙ্গে পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। বুধবার রাতে জেলার পত্নীতলা এবং আত্রাই উপজেলায় এসব বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- পত্নীতলা উপজেলার বালুখা এলাকার মৃত রফাত উল্লাহর ছেলে জাহিদুল ইসলাম (৩৮) এবং আত্রাই উপজেলার ভর তেতুঁলিয়া গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে মিনহাজুল ইসলাম ওরফে মিন্টু শিকদার (৩৬)।

আত্রাই থানার ওসি মোসলেম উদ্দীন জানান, ২৯ মার্চ আত্রাই উপজেলা স্বেচ্ছা সেবকলীগ নেতা আব্দুর রাজ্জাক হত্যা মামলায় মিনহাজুলকে আটক করা হয়। তার দেওয়া তথ্যে বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার তিলাবাদুরী এলাকায় অস্ত্র উদ্ধারে গেলে মিনহাজুলের সঙ্গীরা গুলি চালায়। এ সময় পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়।

তিনি বলেন, এক পর্যায়ে মিনহাজুল গুলিবিদ্ধ হলে হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি বিদেশি পিস্তল, হাতবোমা ও গুলি উদ্ধার করেছে। তার বিরুদ্ধে আত্রাই থানায় ছয়টি হত্যা মামলা রয়েছে। সে সর্বহারা দলের একজন সক্রিয় ছিল।

থানার ওসি পরিমল কুমার চক্রবর্তী বলেন, সম্প্রতি মাদক মামলায় আটক করা হয় জাহেদুল ইসলামকে। তার দেয়া তথ্যমতে মাদক উদ্ধারে ভোর রাতে উপজেলার দিবর এলাকায় গেলে চোরাকারবারীদের সঙ্গে পুলিশের বন্দুকযুদ্ধ হয়। এক পর্যায়ে নিহত হয় জাহেদুল। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি সুটারগান, গুলি, হাসুয়া ও ৯৮৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে।

জাহিদুল ও মিনহাজের মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

করোনা প্রতিরোধে সচেতন থাকার পরামর্শ শাজাহান খানের
                                  

মাসুদুর রহমানঃ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পর্কিত মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি শাজাহান খান (এমপি) বলেছেন, করোনা ভাইরাস একটি মারাত্মক সংক্রামক ব্যাধী। বাংলাদেশ সহ বিশ্বের ১৮৭টি দেশে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। এর ফলে হাজার হাজার মানুষ মৃত্যুবরণ করছে। তাই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করতে আমাদের সবাইকে প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে। এবং এব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। আজ বুধবার সকালে মাদারীপুর জেলা প্রশাসন এর আয়োজনে মাদারীপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি। তিনি আরও বলেন, মাদারীপুর-শরিয়তপুর জেলাসহ বরিশাল বিভাগের ৬টি জেলার মানুষের করোনা ভাইরাস পরিক্ষা করার জন্য আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি স্থাপন করা হবে। এজন্য প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি মন্ডলির সদস্য মাদারীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা শাজাহান খান মাদারীপুরে করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতি নিয়ে বর্তমান ও ভবিষ্যতে করনিয় সম্পর্কে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সম্মেলন করেন৷ জেলা প্রশাসক মোঃ ওয়াহিদুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে আয়োজিত এ সভায় মাদারীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিয়াজ উদ্দিন খান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান, সিভিল সার্জেন ডা. শফিকুল ইসলাম, সদর উপজেলার চেয়ারম্যান এডভোকেট ওবায়দুল রহমান খান, মাদারীপুর সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার সাইফুদ্দিন গিয়াস, রাজৈর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব মিয়া, রাজৈর উপজেলার নির্বাহী অফিসার সোহানা নাসরিন, সরকারি কর্মকর্তা, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধিসহ সুশীল সমাজের সকল প্রতিনিধিগণ অংশগ্রহণ করেন।


   Page 1 of 168
     গ্রাম বাংলা
মাদারীপুরে নারী পুলিশকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা
.............................................................................................
নুসরাত হত্যার এক বছর আজ
.............................................................................................
আগৈলঝাড়ায় মাদক সেবীর হামলায় আহত ১
.............................................................................................
ফরিদপুরে আইসোলেশনে থাকা রোগীর মৃত্যু, গ্রাম লকডাউন
.............................................................................................
টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২
.............................................................................................
নারায়ণগঞ্জ সিটি ও সদর এলাকা লকডাউন
.............................................................................................
সিংগাইরে তাবলীগে আসা বৃদ্ধ করোনা আক্রান্ত, এলাকা লকডাউন
.............................................................................................
মাদারীপুরে জ্বর-গলাব্যথায় একজনের মৃত্যু
.............................................................................................
লক্ষ্মীপুরে শ্বাসকষ্টে শিশুর মৃত্যু
.............................................................................................
কুমিল্লায় করোনায় উপসর্গ থাকা ২ ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন
.............................................................................................
করোনা সন্দেহে আত্রাইয়ে তিন বাড়ি লকডাউন
.............................................................................................
মাগুরায় করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর মৃত্যু
.............................................................................................
মুরাদনগরে উপজেলা প্রশাসনের অভিযান ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
.............................................................................................
মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন এক আলোর মশাল
.............................................................................................
নওগাঁয় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২
.............................................................................................
করোনা প্রতিরোধে সচেতন থাকার পরামর্শ শাজাহান খানের
.............................................................................................
নরসিংদীতে গ্যাসসিলিন্ডার বিস্ফোরণে ১০ দোকান পুড়ে ছাই
.............................................................................................
মুরাদনগরে জিরো সেভেন জিরো নাইনের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
.............................................................................................
শরীয়তপুরে আইসোলেশনে যুবকের মৃত্যু
.............................................................................................
গাজীপুরে এক ঘরে তিন লাশ
.............................................................................................
অর্ধেকে নেমেছে দুধের দাম, বিপাকে খামারিরা
.............................................................................................
জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টে চার জেলায় ৪ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
রংপুরে ট্রেনের ইঞ্জিনের ধাক্কায় নিহত ৪
.............................................................................................
জ্বর-শ্বাসকষ্টে মৃত্যু, অত:পর লকডাউন
.............................................................................................
নওগাঁয় চিকিৎসা না পেয়ে করোনা উপসর্গে যুবকের মৃত্যু
.............................................................................................
বগুড়ায় করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু, ১৫ বাড়ি লকডাউন
.............................................................................................
টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৪
.............................................................................................
সিমেন্টভর্তি ট্রাকে বাড়ি ফেরার পথে প্রাণ গেল ৫ জনের
.............................................................................................
পাবনায় গ্রাম লকডাউন করে দিল প্রশাসন
.............................................................................................
মানিকগঞ্জে গোপনে লাশ দাফন, গ্রাম লকডাউন
.............................................................................................
কুষ্টিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৯ মামলার আসামি নিহত
.............................................................................................
তিন জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৬
.............................................................................................
ভৈরবে ইতালিফেরত প্রবাসীর মৃত্যু
.............................................................................................
করোনাভাইরাস নিয়ে বির্তকে সংঘর্ষ, নিহত ১
.............................................................................................
মিষ্টি কুমড়ায় লাখপতি
.............................................................................................
রাজশাহী মেডিকেলে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি
.............................................................................................
করোনার লক্ষণ আছে শুনেই রোগীর পলায়ন
.............................................................................................
মাদারীপুরে তিন সাংবাদিকের ওপর হামলা
.............................................................................................
সাবেক শ্রমিক লীগ নেত্রী মুক্তা ৪ দিনের রিমান্ডে
.............................................................................................
টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত
.............................................................................................
অবশেষে ভেসে উঠলো নববধূ সুইটির মরদেহ
.............................................................................................
রাজশাহীর পদ্মায় নৌকা ডুবির ঘটনায় এক নারীর লাশ উদ্ধার
.............................................................................................
মুকুলের মৌ মৌ ঘ্রাণ
.............................................................................................
‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছাত্রলীগ নেতা হত্যা মামলার আসামি নিহত
.............................................................................................
শিবচরে ব্যাপক শিলাবৃষ্টি
.............................................................................................
র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৭ রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত
.............................................................................................
জয়পুরহাটে কৃষক দম্পতির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
.............................................................................................
জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ভাষা সৈনিক শেখ বদরুজ্জামান : মেলেনি রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি
.............................................................................................
নওগাঁয় ট্রাকচাপায় অটোরিকশার ৩ যাত্রী নিহত
.............................................................................................
গাজীপুরে বাস উল্টে মা-মেয়ে নিহত
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Nytasoft