রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
   * রাজশাহী পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী  
  সর্বশেষ সংবাদ
                              আজকের পত্রিকার লিড
শৃঙ্খলা এখনও অধরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : মেগাসিটি ঢাকায় প্রয়োজনের তাগিদে প্রতিদিন ঘর থেকে সড়কে নামতে হয় নগরবাসীকে। আর সড়ক দুর্ঘটনায় পিচঢালা রাজপথ মানব রক্তে ভিজে যাবার তাজা খবর শুনতে হয় প্রতিদিন। এর যেন বিরতি নেই। অধিকাংশ দুর্ঘটনাই ঘটে গণপরিবহনের চাপায় কিংবা ধাক্কায়। দুর্ঘটনার পর নড়েচড়ে বসেন সংশ্লিষ্টরা। আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়, দেয়া হয় নানা আশ্বাস। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সক্রিয় হয় জড়িতদের ধরতে। কিন্তু গণপরিবহনে শৃঙ্খলা ফেরানোর কাজটি থেকে যায় অধরাই। বন্ধ হয় না সড়কে চলাচলকারী বাসের রেষারেষি আর যাত্রী ধরার প্রাণঘাতি প্রতিযোগিতা। এ যেন এক নির্মম নিয়তি হয়ে দাঁড়িয়েছে গণপরিবহনে যাতায়াতকারী রাজধানীবাসীর।

ভুক্তভোগী পরিবার, পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত এক মাসে রাজধানীতে বেপরোয়া বাসের ধাক্কায় কিংবা চাপা পড়ে নিহত হয়েছেন ১৫ জন। গত ২৭ আগস্ট রাজধানীর বাংলামোটরে ট্রাস্ট পরিবহনের একটি বেপরোয়া বাসের চাপায় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন-বিআইডব্লিউটিসির কর্মকর্তা কৃষ্ণা রানী চৌধুরী পা হারান। ওই ঘটনায় বেশ চাঞ্চল্য ছড়ায় সংশ্লিষ্ট মহলে। পুলিশ ঘাতক বাসটির চালককে গ্রেফতারও করে। কিন্তু এরপরও রাজধানীর সড়ক পথে দায়িত্বরত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নাকের ডগায় ঘটে যায় ডজন খানেক মারাত্বক দুর্ঘটনা।

গত ৫ সেপ্টেম্বর বনানীর চেয়ারম্যানবাড়ি-আমতলীর মাঝামাঝি মহাখালী উড়ালসড়কের পাশের রাস্তা পার হয়ে ফুটপাতে উঠছিলেন ফারহা। হঠাৎ ক্যান্টনমেন্ট মিনিবাস সার্ভিসের একটি বেপরোয়া গতির বাস ধাক্কা দেয় বিদ্যুতের একটি খুঁটিতে। সেখানে দাঁড়ানো এক যুবক ছিটকে পড়ে যান। এরপরও রক্ষা পাননি দাঁড়িয়ে থাকা ফারহা। ফুটপাত ঘেঁষে বাসটি মুহূর্তেই ধাক্কায় দেয় ফারহা নাজকেও। কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসক জানান, ঘটনাস্থলেই ফারহার মৃত্যু হয়েছে।

একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ছিলেন ফারহা। চার বছর আগে বিয়ে হয় পল্লী বিদ্যুতের কর্মকর্তা নাজমুল হাসানের সঙ্গে। রাজধানীর মিরপুরের মনিপুর এলাকায় থাকতেন তিনি। দেড় বছরের মেয়ে তাহরিন হাসান ইশরা এখন মাতৃহারা।

ফারহা নাজের মৃত্যুর দিনই অর্থাৎ ৫ সেপ্টেম্বর রাজধানীর তুরাগে ভিক্টর ক্ল্যাসিক পরিবহনের বাসের ধাক্কায় সংগীত পরিচালক ও সুরকার পারভেজ রব নিহত হন। একই পরিবহনের অপর একটি বাসের চাপায় গত ৭ সেপ্টেম্বর পারভেজ রবের সন্তান আলভী আহত এবং আলভীর বন্ধু মাহমুদ নিহত হন। একই দিন রাত আড়াইটার দিকে উত্তরার কামারপাড়ায় বাসের ধাক্কায় রাশেদ হাওলাদার (২০) নামের এক ট্রাক হেলপার নিহত হন।

গত ১১ সেপ্টেম্বর রাজধানীর ডেমরায় মাইক্রোবাসের ধাক্কায় কামরুল হাসান ওরফে সানি (২৬) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হন। কামরুল চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করে চাকরির চেষ্টা করছিলেন।

প্রাণ হারানোর এ অনিবার্য অভিশাপ থেকে মুক্তি মিলছে না স্বয়ং পরিবহন শ্রমিকদেরও। গত ৯ সেপ্টেম্বর ঢাকার মাতুয়াইল এলাকায় ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসের সহকারী আবদুল কুদ্দুস (৪৫) নিহত হন। একই ঘটনায় আহত হন বাসটির সুপারভাইজার মনিরুজ্জামান (৩৫)। গত ১৩ আগস্ট রাজধানীর বিমানবন্দর এলাকায় একটি বাসে উঠতে যান মো. সেলিম (৩৩) নামের এক যুবক। এ সময় পাশ দিয়ে আরেকটি বাস এসে তাকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই মারা যান সেলিম।

২২ আগস্ট যাত্রাবাড়ীর কুতুবখালী এলাকায় হোমনা পরিবহনের একটি বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেলে থাকা বাবা ইমারত হোসেন (৪৮) নিহত হন। আহত হন আবদুল হাদী ওরফে ইমন (২২)। আহত হাদী ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের পুরকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী। নিহত ইমারত নারায়ণগঞ্জ ইপিজেড দইয়েজস্টার বাটন কোম্পানির গুদাম ব্যবস্থাপক ছিলেন।

এর আগে গত ২৫ আগস্ট দুপুর আড়াইটার দিকে মেয়েকে স্কুল থেকে আনতে গিয়ে রাজধানীর নীলক্ষেত মোড়ে একটি প্রাইভেট কারের ধাক্কায় লাশ হয়ে ফেরেন বাবা আফছার উদ্দিন (৫৮)। তিনি বংশালের মকিম বাজার এলাকার বাসিন্দা। তার মোটরসাইকেল হেলমেটের ব্যবসা ছিল।

৩১ আগস্ট রাজধানীর মালিবাগে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসের চাপায় হেমায়েত হোসেন (৩৫) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হন। ঘটনার পর চালকসহ বাসটিকে আটক করে রামপুরা থানা পুলিশ। নিহত হেমায়েত ইন্টেরিয়র প্লাস নামে একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের মালিক।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সম্প্রতি জানান, বাংলাদেশ পুলিশ বিভাগের তথ্যানুসারে সড়ক দুর্ঘটনায় গত পাঁচ বছরে ১২ হাজার ৫৪ জন নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় দায়ের করা মামলাসমূহের নিষ্পত্তির জন্য আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ অব্যাহত আছে।

সম্প্রতি ঢাকার গণমাধ্যমকর্মীদের একটি সংগঠন শিপিং অ্যান্ড কমিউনিকেশন রিপোর্টার্স ফোরাম-এসসিআরএফ’র মাসিক জরিপ ও পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে জানানো হয়, চলতি বছরের গত আট মাসে দুই হাজার ৮০৭টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৮৪ নারী ও ৪৭৮ শিশুসহ তিন হাজার ৭৫ জনের প্রাণহানি ঘটে। এসব দুর্ঘটনায় আহত হন পাঁচ হাজার ৬৯৭ জন।

গত ২৫ আগস্ট ‘নিরাপদ সড়ক চাই’-নিসচা’র এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, পবিত্র ঈদুল আজহার ছুটিতে নয়দিনে সারা দেশে দুর্ঘটনা ঘটেছে ১৩৫টি। এতে নিহত হন ১৮৫ জন এবং আহত হন ৩৫৫ জন। এর মধ্যে শুধু সড়কেই ১৩০টি দুর্ঘটনায় ১৮০ জন নিহত ও ৩৪৪ জন আহত হন।

সড়কে অনাকাক্সিক্ষত এমন মৃত্যুর মিছিলের বিষয়ে বাংলাদেশ বাস ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান রমেশ চন্দ্র ঘোষ বলেন, শৃঙ্খলার মধ্যে থাকলে দুর্ঘটনা ঘটে না। বিশৃঙ্খলা হলেই দুর্ঘটনা ঘটে। এ কারণে আপনি-আমি যে কেউ দুর্ঘটনার শিকার হতে পারি। তিনি বলেন, এমন বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি শুধু পরিবহনের কারণেই নয়; পথচারী, বেপরোয়া বাইক, সিএনজি কিংবা প্রাইভেট কারের কারণেও ঘটে। সবাইকে সচেতন হতে হবে। সড়কে শৃঙ্খলা আনার মধ্যেই কেবল বন্ধ হতে পারে প্রাণহানির ঘটনা।

এ প্রসঙ্গে এনা পরিবহনের মালিক ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খোন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, অনাকাক্সিক্ষত এ প্রাণহানির ঘটনায় পরিবহন মালিক ও শ্রমিক কেউই দায় এড়াতে পারেন না। সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে আরও অনেক কিছু করা জরুরি। এনায়েত বলেন, সারাদেশে পরিবহন সেক্টরের অবস্থা খারাপ নয়। রাজধানীর দুর্ঘটনা সর্বত্র চাঞ্চল্য ছড়ায়। এসব বন্ধে পরিবহন মালিকপক্ষ অনেক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। চালক-শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। টিকিট কাউন্টার স্থাপন, নির্দিষ্ট স্থানে বাস থামানো এবং যাত্রী নামানোর জন্য বাস বে নির্মাণের কাজ চলছে। আমি বিআরটিএ ও ট্রাফিক পুলিশকে অনুরোধ করব, যারাই সড়কে আইন অমান্য ও বেপরোয়া হয়ে বাস চালিয়ে দুর্ঘটনা ঘটাবে, তাদের বিরুদ্ধে যেন আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ-বিআরটিএ সূত্রে জানা যায়, সড়কে শৃঙ্খলা আনা ও দুর্ঘটনা কমাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের নেতৃত্বে গত ৫ সেপ্টেম্বর একটি টাস্কফোর্স গঠনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ টাস্কফোর্সে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ছাড়াও মালিক-শ্রমিক সংগঠনের নেতা ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি থাকবেন। গত ফেব্রুয়ারি মাসে জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিলের সভায় ১১১ দফা সুপারিশ উত্থাপিত হয়। সুপারিশগুলো বাস্তবায়নে এ টাস্কফোর্স গঠনের সিদ্ধান্ত হয়। বিআরটিএ’র পরিচালক (অপারেশন) শীতাংশু শেখর বিশ্বাস বলেন, টাস্কফোর্স গঠন ও কার্যকর হলে দুর্ঘটনা কমবে ও সড়কে শৃঙ্খলা দৃশ্যমান হবে।

গত বুধবার শ্যামলীর ট্রমা সেন্টারে দুর্ঘটনায় চিকিৎসাধীন ইয়াসির আলভীকে দেখতে গিয়ে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, সড়ক দুর্ঘটনা দেশের অন্যতম প্রধান সমস্যা। এটি রোধে সচেতনতা গড়ে তুলতে চালক, যানবাহন মালিক, পরিবহন শ্রমিক, দেশবাসীসহ সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি। বলেন, অনেক চালকের বেপরোয়া গাড়ি চালানোয় সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। এছাড়া সড়ক ব্যবহারকারী বা পথচারী ও চালকদের অসচেতনতার কারণেও সাধারণত দুর্ঘটনা ঘটে। তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, সরকার সড়ক দুর্ঘটনা রোধে একটি টাস্কফোর্স গঠন করেছিল। ওই টাস্কফোর্স দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ১১১ সুপারিশ করে। সরকার সুপারিশ বাস্তবায়নে কাজ করছে। এটা বাস্তবায়িত হলে দুর্ঘটনা কমে আসবে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়-বুয়েট’র পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক শামসুল হক বলেন, সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে বিনিয়োগ করতে উৎসাহী আমরা। কিন্তু যেখানে বিনিয়োগ ছাড়া শুধুমাত্র সিস্টেম ডেভেলপ করে সুষ্ঠু পরিবহন ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলা সম্ভব সেখানে আগ্রহের ঘাটতি রয়েছে। তিনি আরও বলেন, দুর্ঘটনা ঘটবে না- এমন সুন্দর উদাহরণ রাজধানীতেই আছে। ঢাকা চাকা, কিংবা হাতিরঝিল চক্রাকারের মতো এক কড়িডোরে, এক কোম্পানির অধীনে রাজধানীর পরিবহন সেক্টরকে নিয়ে আসতে হবে। তাহলে প্রতিযোগিতা থাকবে না, যাত্রীর সাথে সম্পর্ক থাকবে না। যাত্রী না থাকলেও চালকরা বেতন পাবেন। এ ধরনের পরামর্শ ২০০৫ সালে, ২০১৩ সালেও দেয়া হয়েছে। তার মতে, সরকারের নির্বাহী মহলে গাদা গাদা পরামর্শ লিপিবদ্ধ। বিস্তৃত পরিসরে চালু করা গেলে পুলিশ ছাড়া, মালিক ছাড়া, নিয়ন্ত্রণ ছাড়া স্বনিয়ন্ত্রিতভাবে পরিবহন চলবে। তখন দুর্ঘটনা ঘটবে না। এটা করা না গেলে হাজারও কমিটি করেন, টাস্কফোর্স গঠন করেন, কোনো লাভ হবে না।

সচেতনতা বাড়ানোর তাগিদ
বিদ্রোহীদের শোকজ নোটিশ
   টপ নিউজ
রাজশাহী পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী
পরিচালনায় আসছেন পূর্ণিমা
কারাগারে বসেই মাদক ব্যবসা
পেঁয়াজে বাড়ছে ঝাঁজ
পরিবেশ দূষণের দায়ে ডিএনসিসিকে জরিমানার সুপারিশ
২ পাক সেনা মৃত্যুর দাবি ভারতীয়দের
ছাত্রদলের নিজেদের মামলয় কাউন্সিল বন্ধ: কাদের
শোভন-রব্বানীর বিরুদ্ধে নতুন বোমা ফাটালেন জগন্নাথের জয়নুল আবেদীন রাসেল
ভালুকায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে গুরুত্ব পাবে আসামের নাগরিক তালিকা
এনআরসি নিয়ে মোদি সরকারকে মমতার চ্যালেঞ্জ
সমুদ্রবন্দরে তিন নম্বর বিপদ সংকেত জারি
                জাতীয়
রাজশাহী পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী
কারাগারে বসেই মাদক ব্যবসা
শৃঙ্খলা এখনও অধরা
পরিবেশ দূষণের দায়ে ডিএনসিসিকে জরিমানার সুপারিশ
        'জাতীয়' - এর আরো খবর
                রাজনীতি
ছাত্রদলের নিজেদের মামলয় কাউন্সিল বন্ধ: কাদের
শোভন-রব্বানীর বিরুদ্ধে নতুন বোমা ফাটালেন জগন্নাথের জয়নুল আবেদীন রাসেল
চতুর্দিকে শুধু লুট, একটি পর্দার দাম ৩৭ লাখ: ফখরুল
মিথ্যা মামলায় হয়রানীর শিকার আ.লীগ নেতা
        'রাজনীতি' - এর আরো খবর
                আন্তর্জাতিক
২ পাক সেনা মৃত্যুর দাবি ভারতীয়দের
এনআরসি নিয়ে মোদি সরকারকে মমতার চ্যালেঞ্জ
কারবালায় তাজিয়া মিছিলে পদদলিত হয়ে নিহত ৩১
পাকিস্তানের আকাশসীমায় নিষিদ্ধ ভারতের রাষ্ট্রপতি
        'আন্তর্জাতিক' - এর আরো খবর
   ই-পেপার
অনলাইন ভোট
               অর্থ-বাণিজ্য
পেঁয়াজে বাড়ছে ঝাঁজ

নিজস্ব প্রতিবেদক : ভারতে বন্যার কারণে দাম বৃদ্ধির অজুহাতে পেঁয়াজের রফতানি মূল্য প্রায় তিনগুণ বাড়ানো হয়েছে। গত দুই মাসের ব্যবধানে দু’দফায় এই মূল্য বাড়িয়ে প্রতি মেট্রিক টন পেঁয়াজ ৮৫২ মার্কিন ডলার নির্ধারণ করায় বিপাকে পড়েছেন হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা। তবে নতুন মূল্যের এই পেঁয়াজ দেশে আসতে এখনও দুই-তিনদিন সময় লাগতে পারে বলে জানা গেছে। এর ফলে ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৮০-৯০ টাকা দরে বাংলাদেশে বিক্রি করা হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তবে আরও কয়েকটি দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত থাকায় বাজারে তেমন প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছেন ঢাকার পাইকাররা।

এদিকে গতকাল শনিবার দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে কোনো পেঁয়াজ দেশে ঢুকেনি। একারণে হিলিতে বৃহস্পতিবার যে পেঁয়াজ ৩৮ থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হয়েছে তা শনিবার বিক্রি হয়েছে ৪৮ থেকে ৫০ টাকায়। আর খুচরা বাজারে এসে বিক্রি হচ্ছে ৫৫ থেকে ৬০ টাকায়। বাংলাদেশে পেঁয়াজের রপ্তানি নিরুৎসাহিত করতে ভারত এ কাজ করেছে বলে দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলো খবর দিয়েছে। ভারতের কাঁচা পণ্য নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা ন্যাপিডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এখন থেকে প্রতি মেট্রিক টন পেঁয়াজ ৮৫০ ডলারের কমে রপ্তানি করা যাবে না। এ সংক্রান্ত নির্দেশনা ইতিমধ্যে ভারতীয় রপ্তানিকারকদের পাশপাশি হিলি কাস্টমসে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। আগে টনপ্রতি ২৫০-৩০০ মার্কিন ডলার মূল্যে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি করতেন দেশটির ব্যবসায়ীরা।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, দিল্লি আর কলকাতার খুচরা বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ রুপিতে, যা সপ্তাহ দুই আগেও ২০ থেকে ৩০ রুপি ছিল। এদিকে ঢাকার বাজারে শনিবার প্রতি কেজি ভারতীয় পেঁয়াজ ৫০ থেকে ৫৫ টাকায় এবং দেশি পেঁয়াজ ৫৫ টাকা থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারকরা জানান, ভারতের নতুন সিদ্ধান্ত শনিবার সকাল থেকেই কার্যকর করা হয়েছে। এর ফলে সকাল থেকে পুরানো এলসিগুলোর বিপরীতে কোনো পেঁয়াজ রপ্তানি করেনি ভারতীয় ব্যবসায়ীরা। টেন্ডার হওয়া আগের এলসিগুলো এম্যান্ডমেন্ট করে ডলার বৃদ্ধি করলেই ভারতীয় রপ্তানিকারকরা বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি করবেন। আর রবিবার ব্যাংক খুললে সেগুলো এম্যান্ডমেন্ট করে তবেই পেঁয়াজ আমদানি হবে। ভারতের নতুন রপ্তানি মূল্য অনুযায়ী প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম ৭২ থেকে ৭৩ টাকায় গিয়ে পড়বে বলে দাবি ব্যবসায়ীদের।

হিলি বন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারক মোবারক হোসেন জানান, ভারত থেকে ৩৫০-৪০০ ডলারে পেঁয়াজ আমদানি করা হচ্ছিল। তাতে বন্দরের মোকামে পেঁয়াজের প্রকারভেদে বিক্রি হচ্ছিল ৩২-৩৬ টাকায়। গত বৃহস্পতিবার আবার প্রতি কেজিতে দুই টাকা বেড়ে বিক্রি হয়েছে ৩৮ টাকায়। ৮৫২ ডলারে পেঁয়াজ আমদানি করা হলে প্রতি কেজিতে ৭২ টাকার মত পড়বে। এ কারণে পেঁয়াজ আমদানি করা নিয়ে ব্যবসায়ীরা সবাই চিন্তাগ্রস্ত।

ভারতের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী পান্না ও অনিল ঠাকুর হিলি স্থলবন্দরে জানান, ভারতের মহারাষ্ট্র ও উত্তর প্রদেশে বেশি পেঁয়াজ উৎপাদন হয়। এবার এসব অঞ্চলসহ ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে বন্যায় পেঁয়াজ উৎপাদন ব্যাহত হয়েছে। এজন্য ভারতজুড়ে পেঁয়াজের দাম বাড়তে থাকে। গত দুই মাস থেকে ৩৫০-৪০০ ডলারে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানি করা হচ্ছিল। সর্বশেষ গত বুধবার আবার বাংলাদেশে পেঁয়াজের রফতানি মূল্য বাড়িয়ে ৮৫২ ডলার করার সিদ্ধান্ত নেয় ভারত সরকার।

তারা বলেন, মনে হচ্ছে- বাংলাদেশসহ অন্যান্য প্রতিবেশী দেশে পেঁয়াজ রফতানিতে নিরুৎসাহিত করতে সরকার এই প্রদক্ষেপ নিয়েছে। তবে এই মূল্যের পেঁয়াজ এখনও বাংলাদেশে রফতানি শুরু করা হয়নি। এছাড়া ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৪০-৫০ রুপিতে বিক্রি হচ্ছে।

এর ফলে চলতি সপ্তাহেই দেশের বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাবে বলে ধারণা করছেন আমদানিকাররা। যদিও ঢাকার শ্যামবাজারের পাইকারি বিক্রেতারা বলছেন, ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বাড়লেও সার্বিকভাবে পেঁয়াজের বাজার অতোটা চড়বে না বলে মনে করছেন তারা। আবদুল মাজেদ নামে এক পাইকার বলছেন, আমাদের আমদানিকারকরা ইতিমধ্যে তুরস্ক, মিসর, পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু করেছেন। ফলে ভারতের সিদ্ধান্তের কারণে বাজার নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়ার মতো কোনো প্রভাব পড়ার কথা না।

ন্যাশনাল ব্যাংকের ডিএমডি হলেন একরামুল হক
নরসিংদীতে যমুনা ব্যাংকের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচী পালিত
পাটপণ্যের চাহিদা থাকলেও বাড়ছে না রফতানি
অগ্রণী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের পরিচালক হলেন ড. মোঃ ফরজ আলী
আস্থা হারাচ্ছে চামড়া শিল্প
ব্যাংক খাতে হঠাৎ বেড়েছে আমানত
এক মাসে স্বর্ণের দাম বাড়লো চারবার
যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে নিয়োগ
তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে নীতিমালা
     'অর্থ-বাণিজ্য' - এর আরো খবর
                শেয়ার বাজার
শেয়ারবাজারে আলোর ঝলকানি
কাল থেকে বসুন্ধরা পেপারের আইপিও আবেদন শুরু
ডিএসইর বিশেষায়িত তহবিল শূন্য
শাস্তি পাবেন ২ শতাংশের কম শেয়ারধারী পরিচালক
আমান কটনের কাট অফ প্রাইজ ৪০ টাকা
বিনিয়োগকারীদের ঠকানোর পায়তারা করছে ফু-ওয়াং ফুড!
ইসলামী ব্যাংকের শেয়ারপ্রতি আয় কমেছে
সূচক বেড়েছে, কমেছে লেনদেন
    'শেয়ার বাজার' - এর আরো খবর
                উপসম্পাদকীয়
বিয়ে চুক্তিতে সমতার চারা
সভ্যতার সংকট : সামাজিক অবক্ষয়
প্রবৃদ্ধি অর্জনে আঞ্চলিক বাণিজ্যের গুরুত্ব
আরো কমেছে ধানের দাম
সরকারের ৬ মাস : একটি পর্যালোচনা
নয়ন বন্ড বনাম সামাজিক নিরাপত্তা
প্রাথমিক শিক্ষায় সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম্য
    'উপসম্পাদকীয়' - এর আরো খবর

                পড়াশোনা
তিতুমীরের আড়াইশ শিক্ষার্থীর ঝুঁকিপূর্ণ দিনযাপন
ক্যারি অন পরীক্ষা পদ্ধতি পুর্নবহালের দাবিতে বিজয়নগরসহ নানা এলাকায় সড়ক অবরোধ করেছে মেডিকেল শিক্ষার্থীরা
ভর্তি দুঃশ্চিন্তায় শিক্ষার্থীরা!
জবিতে শুরু হচ্ছে স্কুলের যাত্রা
শিক্ষার্থীদের উপর ধার্যকৃত ভ্যাট অবৈধ নয়, হাইকোর্টের রুল
এইচএসসিতে পাসের হার ও জিপিএ-৫ কমেছে
   'পড়াশোনা' - এর আরো খবর
                তথ্য -প্রযুক্তি
৫জি চালুর সিদ্ধান্ত গ্রাহকদের সাথে প্রতারণার সামিল: বিএমপিসিএ
ফেসবুকে আর লাইক গোনা যাবে না
গুগলে ‘রাজনৈতিক আলাপ ও সাম্প্রতিক খবর নিয়ে বিতর্ক’ নিষেধ
গ্রাহকদের জন্য নতুন ফিচার নিয়ে এলো পাঠাও
বিশ্বজুড়ে স্মার্টফোন বিক্রি কমছে
ভুয়া খবর চেনার উপায়
অনলাইনে ফরম পূরণে কমছে ভোগান্তি
   'তথ্য -প্রযুক্তি' - এর আরো খবর
                ফিচার
এসি ছাড়াই এসির হাওয়া!
তরমুজ খান-সতেজ থাকুন
বাঁচতে হলে জেনে নিন, বজ্রপাতের সময় ভুলেও যা করবেন না
দেশেই চাষ হচ্ছে বিদেশী ফসল ‘চিয়া’
ঘরেই তৈরি করুন আলুর চিপস
   'ফিচার' - এর আরো খবর

খেলাধূলা
রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ে ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ন নাদাল
সাকিবের পর নাঈমের আঘাত
মেক্সিকোকে হারালো আর্জেন্টিনা, পেরুর কাছে ব্রাজিলের হার
এবার রোনালদোর চেয়ে এগিয়ে মেসি
বাংলাদেশে খেলেই ক্রিকেটকে বিদায় জানাবেন মাসাকাদজা
   'খেলাধূলা' - এর আরো খবর
বিনোদন
আসিফের মাদক মামলার প্রতিবেদন ১৫ অক্টোবর
প্রথমবারেই মারিয়ার বাজিমাত
পরিচালনায় আসছেন পূর্ণিমা
নতুন উদ্যমে পূর্ণিমা
চলচ্চিত্রাঙ্গনে বলিউডের হাওয়া
   'বিনোদন' - এর আরো খবর

                স্বাস্থ্য
২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৩৪ জন আক্রান্ত
পরোক্ষ ধূমপানও মৃত্যু ঘটায়
ইচ্ছে হলেই ওষুধ নয়
বিশ্ব অটিজম দিবস আজ
আজ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস
শিশুর নিউমোনিয়া প্রতিরোধে করণীয়
স্বাস্থ্য খাতে এডিবির বরাদ্দ বাড়ছে
শরীরচর্চা করে না বিশ্বের একচতুর্থাৎশ মানুষ: ডব্লিউএইচও
মুখে ঘা হলে যা করণীয়
   'স্বাস্থ্য' - এর আরো খবর
                ফটোগ্যালারী
                শিক্ষা
পরীক্ষা থাকছে না প্রথম থেকে তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত
দিনে শিক্ষক, রাতে রিক্সা-ভ্যান চালক
প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার সূচি প্রকাশ
ধলেশ্বরী নদীতে গোসল করতে গিয়ে ৩ শিক্ষার্থী নিখোঁজ
দ্বিতীয় দিনের মতো ঢাবির সব ভবনে তালা
সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে ঢাবির সব ফটকে তালা
শতভাগ পাস ৯০৯ প্রতিষ্ঠানে, ৪১টিতে পাস করেনি কেউ
   'শিক্ষা' - এর আরো খবর

                চিত্র-বিচিত্র
ব্যাংকঋণ না পেয়ে কিডনি বিক্রির বিজ্ঞাপন!
গরু-মহিষের আবাসিক হোটেল!
যুবতী থেকে এক রাতেই যুবকে পরিণত, একনজর দেখতে লোকজনের ভিড়!
প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ ‘হেয়ার স্ট্রেটনার’ দিয়ে পোড়ালেন তরুণী
যেখানে চলে প্রকাশ্যে নারী কেনাবেচা!
বিয়ে ছাড়াই সন্তানের মা!
   'চিত্র-বিচিত্র' - এর আরো খবর
                নগর - মহানগর
নড়াইলে উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন
জামালপুরের আধুনিকায়নে কাজ করে যাবো: এনামুল হক
চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ হোস্টেলে খাবার বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ
সিরাজগঞ্জে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রচারণা
ডেঙ্গুতে খুলনায় প্রাণ গেল আরো ১ জনের
   'নগর - মহানগর' - এর আরো খবর
                রাজধানী
মতিঝিলে বৃক্ষরোপন কর্মসূচির উদ্বোধন করলেন শাহ আলম মুরাদ
কেরানীগঞ্জে র‌্যাবের অভিযানে শিশু ধর্ষণকারী আটক
শাহজালালে সোনাসহ কেবিন ক্রু আটক
রাজধানীতে র‌্যাবের পৃথক অভিযানে আটক ২
রাজধানীরন শনিরআখড়ায় ব্রিজ ভেঙে খাদে
   'রাজধানী' - এর আরো খবর
                গ্রাম বাংলা
ভালুকায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
থানায় ধর্ষকের সঙ্গে বিয়ে : ওসি-এসআই প্রত্যাহার
বান্দরবানে ডেঙ্গুতে উপজেলা চেয়ারম্যানের স্ত্রীর মৃত্যু
মেহেরপুরে দুই মাছ চাষীকে কুপিয়ে হত্যা
রাজবাড়ীতে ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে হত্যা
সাতক্ষীরায় ডেঙ্গুতে গৃহবধূর মৃত্যু
   'গ্রাম বাংলা' - এর আরো খবর

                সিলেট
সিলেট সীমান্তে পুশব্যাক আতঙ্ক
কানাইঘাটে জমিয়তে উলামার মজলিসে আমেলার অধিবেশন ১৪ সেপ্টেম্বর
সিসিকের ৭৮৯ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা
সিলেটে দিঘী পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার দাবিতে মানববন্ধন
হবিগঞ্জে হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরির ২ ঘন্টা পর উদ্ধার
সিলেটের কাজিরবাজার থেকে ৫ জুয়াড়ি আটক
   'সিলেট' - এর আরো খবর
                চট্রগ্রাম
১১০০ টন কয়লা নিয়ে বঙ্গোপসাগরে জাহাজডুবি, ১২ নাবিক নিখোঁজ
পটিয়া থেকে ৪২ রোহিঙ্গা আটক
চট্টগ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ধর্ষণ মামলার আসামি নিহত
কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধে বার্মাইয়া শামসু নিহত
খাগড়াছড়িতে গুলিতে ইউপিডিএফ কর্মী নিহত
পাঁচ দিনের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ
   'চট্রগ্রাম' - এর আরো খবর
                কৃষি
উচ্চ ফলনশীল ধানের ৩ টি নতুন জাত উদ্ভাবন করেছে ‘ব্রি’
দিনাজপুরে ধান কাটা শুরু
অভয়নগরে বোরো বীজ ধানের সংকট
লংগদুতে কৃষি প্রনোদনা প্রদান
হাওরে ছত্রাকজনিত ব্লাস্টের আক্রমণ, দিশেহারা কৃষক
ক্ষুদ্র কৃষি ঋণ নিয়ে বিপাকে কৃষক ও সংশ্লিষ্ট ব্যাংক
   'কৃষি' - এর আরো খবর
                পরিবেশ
লক্ষীপুরে পরিবেশ দূষণকারী ইটভাটার ছড়াছড়ি
শব্দ দূষণ মানব দেহের জন্য নিরব ঘাতক
বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ ৮ লাখ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ
বাংলাদেশের জাতীয় দুর্যোগ নদীভাঙন: পর্ব- ২
‘নদী রক্ষায় ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে’
একূল ভাঙে ওকূল গড়ে এইতো নদীর খেলা
   'পরিবেশ' - এর আরো খবর

                আইন - অপরাধ
ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষক আটক
র‌্যাবের হাতে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর থেকে জাল টাকাসহ আটক ১
নোয়াখালীতে শিশু এমরান খুনের রহস্য উদ্ঘাটন
জামিন নামঞ্জুর, কারাগারে ব্যারিস্টার মইনুল
জামিন পাননি দুদকের সাবেক কর্মকর্তা বাছির
আদালতের এজলাস কক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি প্রদর্শনের নির্দেশ
মানবতাবিরোধী অপরাধ : রাজশাহীর সামাদের মৃত্যুদণ্ড
মানবতাবিরোধী অপরাধ : রাজশাহীর আব্দুস সামাদের রায় মঙ্গলবার
সিরাজগঞ্জে কিশোরী ধর্ষণচেষ্টার ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার পাঁয়তারা
   'আইন - অপরাধ' - এর আরো খবর
                মানবাধিকার
ফেব্রুয়ারিতে ৪৮ নারী-শিশু ধর্ষণের শিকার
অটোরিকশা থেকে নামিয়ে নারী চিকিৎসককে গণধর্ষণ
৫ সন্তানের জনকের ঠাই হল রাস্তায়
গাজীপুরে শিশু ধর্ষণ, আ.লীগ নেতার বাধায় মামলা দিতে পারছে না পরিবার
রংপুরে ডিবির বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ
যশোরে মামলা তুলে না নেওয়ায় শিক্ষককে গাছে বেধে নির্যাতন
ডিমলার প্রতিবন্ধি ফিরোজ বাঁচতে চায়
বড়লোকের ছেলে সাথে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে লাগাতার ধর্ষণ
   'মানবাধিকার' - এর আরো খবর
                সম্পাদকীয়
দায়ীদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিন
একটি বিলম্বিত বোধদয়ের অবিশ্বাস্য কালক্ষেপণ
বন্যা পরিস্থিতির অবনতি
বাণিজ্য বাড়ছে ভারতে
রাজধানীতে যানজট জলজট : নগরবাসীর ভোগান্তি দূর করুন
গণপরিবহনে বিড়ম্বনা
আহ! একটি ৭ বছরের শিশু...!
প্রকল্প নেয়ার হিড়িক : হুমকিতে সুন্দরবনের বিশ্ব ঐতিহ্য
   'সম্পাদকীয়' - এর আরো খবর
                শিল্প সাহিত্য
জাতীয় কবি নজরুলের প্রয়াণ দিবস আজ
একাকিত্বে বহুত্ব
কাপালিকের দেশে
চলতি বছরের নোবেল সাহিত্য পুরস্কার স্থগিত
ময়মনসিংহে সাহিত্য উৎসব অনুষ্ঠিত, পুরস্কৃত হলেন ৪ গুণীজন
প্রথম মৃত্যু
শুভংকরের ফাঁকি
বউ যেভাবে ঘরে আসে
মধ্যরাতের কথা
বাঙালির রক্তের বন্ধন ও জাতি-পরিচয়
   'শিল্প সাহিত্য' - এর আরো খবর

                সম্পাদকীয়
দায়ীদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিন
একটি বিলম্বিত বোধদয়ের অবিশ্বাস্য কালক্ষেপণ
বন্যা পরিস্থিতির অবনতি
বাণিজ্য বাড়ছে ভারতে
রাজধানীতে যানজট জলজট : নগরবাসীর ভোগান্তি দূর করুন
গণপরিবহনে বিড়ম্বনা
আহ! একটি ৭ বছরের শিশু...!
   'সম্পাদকীয়' - এর আরো খবর
                এক্সক্লুসিভ
ইয়াবার চালান থামছে না
বিশেষ অভিযানে মাঠে পুলিশ
পুলিশে শুদ্ধি অভিযানের উদ্যোগ
আয়ু থাকে না বিআরটিসি বাসের
জামায়াতীদের নাগরিক মর্যাদা বদলানো দরকার
ফেলানী হত্যার আট বছর
পার্বত্য চট্টগ্রামের পর্যটন শিল্পের বিকাশে করণীয়
   'এক্সক্লুসিভ' - এর আরো খবর
                ইসলাম
আল্লাহু আকবার ধ্বনিতে মুখরিত আরাফার আকাশ-বাতাস
হজ ব্যবস্থাপনায় সফলতম ইতিহাস : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী
সুন্নত পালনের মধ্যে রয়েছে মুক্তি
ইয়াহুদিরা যে কারণে মাথায় টুপির মতো ‘কিপ্পা’ পরে
কাল পবিত্র আশুরা
পবিত্র আশুরা ২১ সেপ্টেম্বর
রোজা শুরু কবে, জানা যাবে আজ সন্ধ্যায়
নামাজে অলসতা ভয়াবহ পাপের কারণ
   'ইসলাম' - এর আরো খবর
                জীবনশৈলী
প্রতিদিন কতটুকু লবণ খাওয়া যাবে?
সম্পর্ক সুন্দর রাখতে চুমু তুলনাহীন
রান্নাঘরের উপকরণেই ত্বক হবে উজ্জ্বল
অ্যাসিডিটি দূর করার উপায়
চা কতটুকু পান করা উচিত?
নিজেই যখন সমস্যার কারণ
বর্ষায় পায়ের যত্ন
খুশকি থেকে বাঁচার উপায়
প্রাকৃতিক উপাদানে ঠোঁটের যত্ন নিন
   'জীবনশৈলী' - এর আরো খবর

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Nytasoft