বুধবার, ১৫ জুলাই 2020 | বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
   * করোনামুক্ত হলেন মাশরাফি   * ঈদের নামাজ আদায়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ১৩ শর্ত   * শাজাহান সিরাজ কালজয়ী মহান নেতা হিসেবে অমর হয়ে থাকবেন: নূরে আলম সিদ্দিকী   * স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক শাহজাহান সিরাজ আর নেই   * নতুন শনাক্ত ৩১৬৩, মৃত্যু ৩৩   * বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৫ লাখ ৭৫ হাজার, আক্রান্ত এক কোটি ৩২ লাখ   * ডিবিতে হস্তান্তর ডা. সাবরিনার মামলা   * করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা   * করোনাকালে দুই আসনে উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু  
  সর্বশেষ সংবাদ
                              আজকের পত্রিকার লিড
সামনে শুধুই অন্ধকার

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিশ্বব্যবস্থা ওলট-পালট করা বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঢেউ কাবু করে ফেলেছে দেশের বিপুলসংখ্যক বেসরকারি চাকুরিজীবী ও নিত্যশ্রমের মানুষকে। দেশব্যাপী দীর্ঘ ছুটি, লকডাউন, সংক্রমণ পরিস্থিতির ক্রমাবনতির মধ্যে সরকারি চাকরিজীবী ও নিত্যপণ্যের স্থায়ী ব্যবসায়ী ছাড়া বেসরকারি বিভিন্ন খাতের চাকুরে ও শ্রমজীবী মানুষের চলছে কঠিন দুর্দিন। তাদের সামনে এখন শুধুই অন্ধকার।

এ অবস্থায় অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে না পেরে ঢাকা শহর ছেড়ে গ্রামের পথ ধরেছেন রাজধানীতে বসবাসকারী এ ধরণের বিপুল সংখ্যক মানুষ। উপার্জন কমে যাওয়ায় বিভিন্ন শ্রেণির মানুষের মতো সংকটে পড়েছেন বাড়ির ভাড়ার ওপর নির্ভরশীল বাড়িওয়ালারাও। আর্থিকভাবে সমস্যায় থাকায় ভাড়াটিয়ারা ঠিক মতো বাড়িভাড়া দিতে পারছেন না। পরিস্থিতি বিবেচনায় অনেক বাড়িওয়ালাও ভাড়াটিয়াদের ওপর চাপ দিতে পারছেন না। রাজধানীর অলিগলিতে এখন ‘টু-লেট’ এর প্লাবন বইছে।  

গত মার্চের শুরুতে দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী প্রথম শনাক্ত হয়। তারপর সংক্রমন পরিস্থিতি ক্রমাবনতির দিকে যেতে থাকলে ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। এরপর দফায় দফায় ছুটি বাড়তে থাকে। সর্বশেষ গত ৩০ মে শেষ হয় টানা ৬৬ দিনের সাধারণ ছুটি। দীর্ঘ ৬৬ দিনের সে ছুটির পর গত ৩১ মে থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে অফিস-আদালত ও ব্যবসা-বাণিজ্য খুলে দেয়া হয়। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কোনো উন্নতির লক্ষণ নেই। বরং দিন যত যাচ্ছে- পরিস্থিতি খারাপ থেকে খারাপের দিকেই যাচ্ছে। এই অবস্থা চলতে থাকলে সংকট আরও ঘণীভূত হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

করোনাভাইরাসের প্রভাবে শিল্প, ব্যবসা-বাণিজ্য, নির্মাণসহ সব খাত স্থবির হয়ে পড়ায় গত কয়েক মাসে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন রাজধানীর লাখ লাখ মানুষ। কাজ হারিয়েছেন গৃহশ্রমিক, পোশাকশ্রমিক, নির্মাণশ্রমিক, হোটেলশ্রমিক থেকে শুরু করে সব খাতের শ্রমজীবীরা। করোনা তাণ্ডবে কর্মহীন এসব মানুষ আয় হারিয়ে নিত্যপণ্যের পাশাপাশি বাসা ভাড়া পরিশোধ করতে হিমশিম খাচ্ছেন। অনেকেই বাসা ভাড়া দিতে না পেরে ছেড়ে গেছেন রাজধানী ঢাকা। কেউবা বড় বাসা ছেড়ে অপেক্ষাকৃত ছোট বাসায় উঠেছেন। আবার কেউবা শহরের উপকণ্ঠে কম টাকার ভাড়ার বাসায় আশ্রয় গড়েছেন।

সরকারি-বেসরকারি সহায়তায় কিছু নিম্নবিত্ত পরিবারের খাদ্যের সংস্থান হলেও দিতে পারছেন না ঘরভাড়া। ফলে গত কয়েক মাসে অসংখ্য পরিবার রাজধানী ছেড়ে পাড়ি দিয়েছে গ্রামে। কয়েক মাসের ঘরভাড়া বকেয়া পড়ায় অনেকে মালপত্র রেখেই চলে গেছেন। মধ্যবিত্ত কিংবা নিম্ন মধ্যবিত্তরা অর্থসঙ্কটে পড়েছেন। ভালো চাকরি করলেও কোনো কোনো অফিস বেতন কমিয়ে দিয়েছে কিংবা লোক কমানোর তালিকায় নাম উঠে যাওয়ায় এখন চোখে সরষে ফুল দেখছেন।

সাভার এলাকার একটি বেসরকারী সিরামিকস কারখানায় চাকুরী করেন সাহাবুদ্দিন। প্রতিদিন ১২ ঘন্টা কাজ করে সারা মাসে বেতন পান সর্বসাকুল্যে ১৭ হাজার টাকা যা দিয়ে কোনক্রমে সংসার চালিয়ে আসছিলেন। করোনা সংক্রমনের আগে থেকে মালিক বেতন দিতে পারছিলেন না। করোনা শুরুর পর কারখানা বন্দ করা হয় যা আর খোলেনি। এদিকে গত জানুয়ারী মাস থেকে বেতন বকেয়া রয়েছে। জমানো কিছু টাকা এবং ধারকর্য করে এতদিন চালিয়ে এসেছেন; ঈদ পার করেছেন শূন্যহাতে। মালিকপক্ষ ফোন বন্ধ রেখেছে। দেশের বাড়ীতেও তেমন কিছু নেই যে সেখানে গিয়ে আশ্রয় নেবেন। ছেলে-মেয়ে নিয়ে এখন কোথায় যাবেন ভেবে পাচ্ছেন না সাহাবুদ্দিন।

গুলশানে একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে কাজ করতেন আরিফুল হক। গত মাসে তার প্রতিষ্ঠান পাওনা চুকিয়ে দিয়ে ১৫ ভাগ জনবল কমিয়েছে। আরিফুল হক বলেন, পরিবার নিয়ে এখন মহাসঙ্কটে পড়েছি। করোনার এই সময়ে চাকরি পাওয়া কঠিন। কী যে করব বুঝতে পারছি না।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে অর্থাভাবে মানুষ বাসা ছেড়ে দিচ্ছেন। এমন পরিস্থিতিতে ভাড়া কমিয়ে হলেও ভাড়াটিয়া রাখার চেষ্টা করছেন অনেক বাড়িওয়ালা। কিন্তু কাজ না থাকায় সেই সামর্থ্যও নেই অনেকের।

রাজধানীর ভাটারা থানাধীন ছোলমাইদ এলাকায় একটি তিনতলা ভবনের নিচতলায় তিন বেডরুমের ‘ব্যাচেলর’ ফ্ল্যাটে সাড়ে চার হাজার টাকা দিয়ে থাকছেন মাত্র একজন। দুই মাস আগেও তাকে ভাড়া দিতে হতো পাঁচ হাজার টাকা। তখন অন্য দুই কক্ষে আরো দু’জন ছিল। কাজ না থাকায় ভাড়া কমিয়েও অপর দু’জনকে রাখতে পারেননি বাড়িওয়ালা। করোনা পরিস্থিতির আগে ফ্ল্যাটটি থেকে বাড়িওয়ালা পেতেন মাসে ১৫ হাজার টাকা। পুরো ফ্ল্যাটে একজন থাকলেও তাকে সেই ভাড়া পরিশোধ করতে হতো। ওই ভবনেরই তিনতলায় সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা দিয়ে পুরো ফ্ল্যাট নিয়ে থাকছেন আরেকজন।

এ দিকে গত দুই মাসে এই এলাকা থেকেই শতাধিক পরিবার ঘর ছেড়ে চলে গেছেন। অধিকাংশ বিল্ডিংয়ে ঝুলছে ‘টু-লেট’ লেখা সাইনবোর্ড। অনেকেই ভাড়া বকেয়া পড়ায় মালপত্র রেখে চলে গেছেন। ভাটারার ছোলমাইদ ও বসুমতি এলাকার টিনশেড ঘরগুলোতে বসবাস মূলত গৃহকর্মী, রিকশাচালক ও নির্মাণশ্রমিকদের। এর মধ্যে কিছু রিকশাচালক টিকে থাকলেও করোনার কারণে কাজ হারিয়েছেন অধিকাংশ গৃহকর্মী ও নির্মাণশ্রমিক। ওই এলাকার বাড়িওয়ালা হাজী বদরউদ্দিনের আটটি ভাড়াটিয়া পরিবার গত তিন মাসে ঘর ছেড়েছে।

বদরউদ্দিন জানান, বটগাইছ্যাবাড়ি এলাকায় তার টিনশেড ভাড়া ঘর থেকে করোনা পরিস্থিতির শুরুতেই তিনটি পরিবার ভাড়া না দিয়ে চলে গেছে। তাদের ঘরগুলোতে তেমন কোনো মালামালও ছিল না। এ ছাড়া বালুর মাঠ এলাকায় তার টিনশেড ভাড়াঘর থেকে আরো চার ভাড়াটিয়া ঘরে তালা দিয়ে চলে গিয়েছিল। গত মাসে তাদের দু’জন এসে অনুনয়-বিনয় করায় ৩-৪ হাজার টাকা মওকুফ করে ছেড়ে দেন। এ ছাড়া দুই মাস আগে তার আরেকটি ফ্ল্যাট বাসা ভাড়া নেন এক নারী। দু-একদিনের মধ্যে অগ্রিম টাকা দেবেন জানিয়ে ঘরে কিছু মালপত্র রেখে তালা দিয়ে চলে যান। এখন পর্যন্ত ফেরেননি। ফোনেও তাকে পাওয়া যাচ্ছে না।

ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টারের হাজীনগরে একটি চারতলা বাড়ির মালিক শামীমা বেগম। স্বামী মারা গেছেন।  শামীমা বলেন, বাড়ির ভাড়ার টাকায় আমি চলি, ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়া করাই। করোনার আগে গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানির বিল পরিশোধের পর ভাড়াবাবদ প্রতি মাসে ৫০ হাজার টাকার মতো পেতাম। করোনা তো সবাইকে বিপদে ফেলেছে। ভাড়াটিয়ারা এখন ঠিক মতো ভাড়া দিতে পারছেন না। কোনো কোনো ভাড়াটিয়ার তিন মাসের বকেয়া পড়েছে। সব দেখতে পাচ্ছি, চাপও দিতে পারছি না। এখন মাসে ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকার বেশি আদায় হচ্ছে না। কি যে করবো এখন ভেবে পাচ্ছি না।

বেসরকারি সংস্থায় অফিস সহকারীর কাজে কর্মরত গাইবান্ধার হাসান থাকতেন ছোট একটা ফ্ল্যাটবাড়িতে বাড়ি। ভাড়া ১২ হাজার। বউ কাজ করতেন আয়া হিসেবে এক বাসায়, ৮ ঘণ্টা বাচ্চা রাখার কাজ। দুজনে মিলে আয়-রোজগার ভালই ছিল। করোনা শুরু হওয়ার পরে বউয়ের কাজ চলে গেলে বাড়ি ভাড়াটাই হয়ে ওঠে গলার কাটা। গত মাসে বাড়ি খুঁজে ৩শ ফিট থেকে ভেতরের দিকে একটা ছোট্ট টিন-শেডে উঠে পড়েছেন এই মাসের শুরুতে।

পিকআপে মালপত্র নিয়ে বসে আছেন সাহেরা ও তার মা আয়নুরা বেগম। একটি খাট, ছোট টেবিল, টিভি, বেডিং, রান্নার জিনিস বস্তাবন্দি। মিরপুরের পাইকপাড়ায় টিন-শেডে দুই রুমে থাকতেন। স্বামী গুলিস্তানে একটি রেস্টুরেন্টে কাজ করতেন। কাজ থেকে বাদ পড়েছেন মার্চের ২৬ তারিখ। সাধারণ ছুটি শেষ হলে  যদি আবার সব স্বাভাবিক হয় এই আশায় ঢাকায় ছিলেন। কিন্তু ঢাকার বেশিরভাগ রেস্টুরেন্ট জুনের শুরুতে খোলা হলেও, ছাঁটাই করা হয় তাকে। ত্রাণ নিয়ে এই কয় মাস খাওয়ার সংস্থান হলেও বাড়ি ভাড়া, বিভিন্ন বিল দিতে যে নগদ টাকা লাগে তা হাতে নেই। স্ত্রী সন্তান ও শাশুড়িকে গ্রামে রেখে এসে কোনও মেসে উঠে কাজের সন্ধান করার পরিকল্পনা করেছেন তিনি।

এদিকে সন্তানের স্কুলসহ নানা বিষয়ে রাজধানীর সাথে জড়িয়ে যাওয়া মধ্যবিত্ত শ্রেণী শেষ সম্বল খরচ করে টিকে থাকার জন্য সংগ্রাম করছেন। অনেকেই ভাড়া কমাতে ফ্ল্যাট বাসা ছেড়ে উঠছেন শহর থেকে দূরে টিনশেড ঘরে। বড় ফ্ল্যাট ছেড়ে উঠছেন ছোট ফ্ল্যাটে। করোনা সঙ্কটের কালো মেঘ কবে কাটবে, সেই আশায় এখন দিন গুনছেন তারা।

সংকট উত্তরণের বাজেট
বিনিয়োগ বাড়ানোর তাগিদ
   টপ নিউজ
করোনামুক্ত হলেন মাশরাফি
দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের সাম্রাজ্য বরদাশত করা হবে না: যুক্তরাষ্ট্র
বিজয়নগরে লোহর নদী পরিদর্শনে পানি উন্নয়ন বিভাগ
ঈদের নামাজ আদায়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ১৩ শর্ত
ছাতকে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হলেও বেড়েছে দুর্ভোগ
রাঙামাটিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুই শ্রমিকের মৃত্যু
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রাস্তা নির্মাণে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ
মাদারীপুরে ভেজাল খাদ্য কারাখানায় এনএসআই’র অভিযান
স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক শাহজাহান সিরাজ আর নেই
নতুন শনাক্ত ৩১৬৩, মৃত্যু ৩৩
করোনা থেকে সুস্থের সংখ্যা লাখ ছাড়াল
করোনাভাইরাস : নমুনা পরীক্ষার হার বাড়ানোর ব্যবস্থা নিতে বললেন কাদের
                জাতীয়
করোনামুক্ত হলেন মাশরাফি
ঈদের নামাজ আদায়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ১৩ শর্ত
শাজাহান সিরাজ কালজয়ী মহান নেতা হিসেবে অমর হয়ে থাকবেন: নূরে আলম সিদ্দিকী
স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক শাহজাহান সিরাজ আর নেই
        'জাতীয়' - এর আরো খবর
                রাজনীতি
এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ
আ.লীগ নেতা লিটনের মৃত্যুতে আতাউর রহমান শামীমসহ সর্ব ইউরোপিয়ান আ.লীগের শোক
কুরবানি নিয়ে একটি মহল জাতিকে বিভ্রান্ত করছে: ইসলামী আন্দোলন
আমির হোসেন আমু ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র
        'রাজনীতি' - এর আরো খবর
                আন্তর্জাতিক
দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের সাম্রাজ্য বরদাশত করা হবে না: যুক্তরাষ্ট্র
ফাউচির ওপর ক্ষুব্ধ ট্রাম্প, করোনা নিয়ে মন্তব্যের তালিকা তৈরি
বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৫ লাখ ৭৫ হাজার, আক্রান্ত এক কোটি ৩২ লাখ
করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা
        'আন্তর্জাতিক' - এর আরো খবর
   ই-পেপার
অনলাইন ভোট
               অর্থ-বাণিজ্য
দিনাজপুরে করোনায় পশু বিক্রি নিয়ে শঙ্কায় খামারিরা

মো. নূর ইসলাম নয়ন, দিনাজপুর প্রতিনিধি : আসন্ন ঈদুল আযাহাকে কেন্দ্র করে দিনাজপুরে গরু, ছাগল, ভেড়া ও মহিষ মিলে ১ লাখ ৯৪ হাজার ২৭৩টি কোরবানির পশু প্রস্তুত করেছেন খামারিরা। যা জেলার চাহিদা মিটিয়ে উদ্বৃত্ত পশু দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা সম্ভব হবে। জেলায় চাহিদার চেয়ে উদ্বৃত্ত রয়েছে ৫৯ হাজার ২৫৩টি গবাদিপশু। এবার দিনাজপুর জেলায় সাড়ে ৭০০ কোটি টাকার কেনা-বেচার জন্য গবাদি পশু প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. শাহিনুর আলম।
 
এদিকে, কোরবানির ঈদে করোনা মহামারির কারণে গরু-ছাগল বিক্রি এবং ন্যায্য দাম পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় রয়েছেন খামারিরা। যেহেতু করোনায় অনেক পেশার মানুষের আয়-রোজগার কমে গেছে। এরপরেও পশুর হাটগুলোতে কমই দেখা যায় স্বাস্থবিধি মেনে কেনাবেচা করা। তাই করোনা সংক্রমণের ভয়ে কেনা-বেচা কম হতে পারে। তবে এক্ষেত্রে জেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগ জেলায় ‘অনলাইন পশুর হাট, দিনাজপুর’ নামে ফেইসবুক পেইজ খুলেছেন। এরপরেও বিভিন্ন উপজেলাতেও অনলাইনে কেনাবেচার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

হাকিমপুরের ছাতনি গ্রামের খামারি সফিকুল ও ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের জাহিদুল ইসলামসহ কয়েকজন জানান, কোরবানির জন্য লাভের আশায় গরু-ছাগল প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রাণিসম্পদ অফিসের পরামর্শে প্রাকৃতিক উপায়ে খড়, কাঁচা ঘাস, খৈল, ভুষি, খুদের ভাত খাওয়ায়ে গরু-ছাগল মোটাতাজা করা হয়েছে। কেউবা উন্মুক্ত মাঠে চরিয়ে গরু ছাগল লালন পালন করছেন। কিন্তু করোনার কারণে গরু-ছাগল নিয়ে চিন্তিত। বাইরে থেকে ক্রেতা আসতে না পারা, পশুরহাটও জমছে না। যেসব বাইরের ব্যবসায়ী আসছেন, তারা দাম কম বলছেন। এসব কারণে গরু-ছাগল বিক্রি করতে পারছি না।

এদিকে, গো-খাদ্যের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় আমাদের গরু-ছাগল পালনে আগের চেয়ে খরচ বেশি হয়েছে। তাই কোরবানিকে ঘিরে ভারত থেকে কোনোভাবেই বৈধ বা অবৈধপথে দেশে গরু না আসতে পারে, এ ব্যাপারে সরকারকে পদক্ষেপ নেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।

হাকিমপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আব্দুস সামাদ বলেন, করোনাকালীন খামারিদের সবচেয়ে বেশি সমস্যা মার্কেটিং বা বিপণনে। এ জন্য আমাদের দফতর থেকে একটি গ্রুপ পেজ খুলেছি। এতে খামারিদের বিক্রয়যোগ্য পশুর ছবি, ওজন অনুযায়ী মূল্য ও খামারিদের মোবাইল নম্বর আপলোড করা হচ্ছে। ক্রেতারা সংশ্লিষ্ট খামারিদের সঙ্গে কথা বলে বাড়িতে বসেই পশু ক্রয় করতে পারবেন। এতে করে খামারি ও ক্রেতারা উভয়েই লাভবান হবেন বলে আমরা মনে করি।

দিনাজপুর জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. শাহিনুর আলম জানান, গরু ও মহিষসহ ১ লাখ ৯৪ হাজার ২৭৩টি এবং ছাগল-ভেড়া রয়েছে ৭২ হাজার ৪০৯টি। দিনাজপুরে আসন্ন কোরবানির ঈদে প্রয়োজন গরু-মহিষ প্রায় ৮৫ হাজার ৩৬৮টি এবং ছাগল-ভেড়া ৪৯ হাজার ৬৫২টি। শুধু কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে ছোট-বড় খামার ও বাড়িতে গরু মোটাতাজাকরণ করেছে ৬০ হাজারের অধিক পশু।

তিনি আরও জানান, করোনায় গরুর সব হাটেই নজর রাখা হচ্ছে যাতে রোগাক্রান্ত কোনো গবাদিপশু বিক্রি না হয়। এজন্য জেলায় ২৩টি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে এবং কাজ শুরু করেছে। ক্রেতা বিক্রেতাদের সচেতনতার জন্য ইতিমধ্যেই বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ দেওয়া ও মনিটরিং করা হচ্ছে।

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে মসলা আমদানি বৃদ্ধি, বাজারে দাম কমেছে
কুষ্টিয়ায় অগ্রণী ব্যাংকের কুমারখালী শাখা লকডাউন
এনআরবিসি ব্যাংকের মাস্ক বিতরণ
মোবাইল কলরেটে কর বৃদ্ধিতে প্রধানমন্ত্রীর সায় নেই
নরসিংদীতে ইসলামী ব্যাংকের ৫ কর্মকর্তা করোনায় আক্রান্ত, ব্যাংক বন্ধ ঘোষণা
অনলাইন মার্কেটিং প্লাটফরম তৈরির উদ্যোগ বিসিকের
ভান্ডারিয়ায় এনআরবিসি ব্যাংকের উপশাখার কার্যক্রম শুরু
৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কিস্তি পরিশোধে চাপ দেয়া যাবে না, সার্কুলার জারি
হিলিতে চালের দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ৪ টাকা
     'অর্থ-বাণিজ্য' - এর আরো খবর
                শেয়ার বাজার
শেয়ারবাজারে আলোর ঝলকানি
কাল থেকে বসুন্ধরা পেপারের আইপিও আবেদন শুরু
ডিএসইর বিশেষায়িত তহবিল শূন্য
শাস্তি পাবেন ২ শতাংশের কম শেয়ারধারী পরিচালক
আমান কটনের কাট অফ প্রাইজ ৪০ টাকা
বিনিয়োগকারীদের ঠকানোর পায়তারা করছে ফু-ওয়াং ফুড!
ইসলামী ব্যাংকের শেয়ারপ্রতি আয় কমেছে
সূচক বেড়েছে, কমেছে লেনদেন
    'শেয়ার বাজার' - এর আরো খবর
                উপসম্পাদকীয়
মুখোশের আড়ালে আমরা সবাই হাওয়াই মিঠাই
করোনাভাইরাস ও আমরা
করোনা বাস্তবতায় ভার্চুয়াল কোর্ট বনাম অ্যাকচুয়াল কোর্ট
ইসরায়েলি দখলদারিত্বে অস্তিত্ব সংকটে ফিলিস্তিন
চীন সীমান্তে নাস্তানাবুদ অথচ বাংলাদেশ সীমান্তে গুলি, ভারত কি চায়?
পূর্বাভাসহীন শত্রুর তান্ডবে বিধ্বস্ত বিশ্ব
করোনা মোকাবেলায় অতন্দ্র প্রহরী “গণমাধ্যম”
    'উপসম্পাদকীয়' - এর আরো খবর

                পড়াশোনা
তিতুমীরের আড়াইশ শিক্ষার্থীর ঝুঁকিপূর্ণ দিনযাপন
ক্যারি অন পরীক্ষা পদ্ধতি পুর্নবহালের দাবিতে বিজয়নগরসহ নানা এলাকায় সড়ক অবরোধ করেছে মেডিকেল শিক্ষার্থীরা
ভর্তি দুঃশ্চিন্তায় শিক্ষার্থীরা!
জবিতে শুরু হচ্ছে স্কুলের যাত্রা
শিক্ষার্থীদের উপর ধার্যকৃত ভ্যাট অবৈধ নয়, হাইকোর্টের রুল
এইচএসসিতে পাসের হার ও জিপিএ-৫ কমেছে
   'পড়াশোনা' - এর আরো খবর
                তথ্য -প্রযুক্তি
স্মার্টফোন বলে দেবে আশপাশে কতজন করোনা রোগী
করোনা সংক্রমিতদের ধরতে অ্যাপ ব্যবহার করছে ইসরাইল dailyswadhinbangla
গুগল প্লেস্টোর ছাড়াই আসছে হুয়াওয়ে ফোন
ফেসবুক-গুগলকে নীতিমালা মানতে বললো অস্ট্রেলিয়া
৫জি চালুর সিদ্ধান্ত গ্রাহকদের সাথে প্রতারণার সামিল: বিএমপিসিএ
ফেসবুকে আর লাইক গোনা যাবে না
গুগলে ‘রাজনৈতিক আলাপ ও সাম্প্রতিক খবর নিয়ে বিতর্ক’ নিষেধ
   'তথ্য -প্রযুক্তি' - এর আরো খবর
                ফিচার
ফুলের সুবাস মিষ্টি কেন ?
বিশ্ব বাবা দিবস আজ
বিলুপ্তির পথে মিঠাপুকুরে ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প
ফ্লোরা ফেস্টিভ্যালঃ বাসায় বসে বাগানের রিভিউ দিন
সিলেটি খাবার ফরাসের বিচি
   'ফিচার' - এর আরো খবর

খেলাধূলা
শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার সাকিব
রাকিতিচের গোলে শীর্ষে ফিরল বার্সেলোনা
শিরোপা লড়াইয়ে টিকে থাকলো বার্সেলোনা
ক্রীড়াঙ্গনেও বাড়ছে করোনার থাবা
বার্সাকে পেছনে ফেলে শীর্ষে রিয়াল
   'খেলাধূলা' - এর আরো খবর
বিনোদন
এবার ঐশ্বরিয়া-আরাধ্যাও করোনায় আক্রান্ত
হিরো আলমের বিরুদ্ধে ‘অনৈতিক’ প্রস্তাবের অভিযোগে থানায় জিডি
ঐশ্বরিয়ার সুস্থতা চেয়ে টুইট করলেন সাবেক প্রেমিক বিবেক
এবার চলে গেলেন ঋষি কাপুর
বলিউড অভিনেতা ইরফান খান আর নেই
   'বিনোদন' - এর আরো খবর

                স্বাস্থ্য
করোনা ভ্যাকসিনের পরীক্ষায় সফলতার দাবী রাশিয়ার
ন্যাজাল স্প্রেতেই করোনা প্রতিরোধ!
বাতাসে ছড়াতে পারে করোনা, খতিয়ে দেখছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা
করোনা শনাক্তদের তালিকায় বিশ্বে ৮ম বাংলাদেশ: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা
‘করোনার ভ্যাক্সিন পেতে আড়াই বছর লাগবে’
৩৭০ শয্যার ‘করোনা সেন্টার’ চালু হচ্ছে বিএসএমএমইউতে
বাংলাদেশের ‘গ্লোব বায়োটেক’ করোনার টিকা আবিষ্কার করেছে, কাল সংবাদ সম্মেলন
ডেক্সামিথাসোন ব্যবহারে সতর্ক হই
রোগী যখন থ্যালাসিমিয়া আক্রান্ত
   'স্বাস্থ্য' - এর আরো খবর
                ফটোগ্যালারী
                শিক্ষা
ছাত্র হত্যা মামলায় পদ হারালেন ইবি কর্মচারী
ইবি ছাত্রলীগকর্মীর সচেতনতামূলক কার্যক্রম
রাবির ইমেরিটাস অধ্যাপক এবিএম হোসেন আর নেই
বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র হত্যা: ইবি কর্মচারী গ্রেফতার
প্রাথমিকে ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ আসছে
ইবি’র দুই শিক্ষকের পেনশনের চেক প্রদান
এসএসসি পর্যন্ত কোন বিভাগ থাকছে না
   'শিক্ষা' - এর আরো খবর

                চিত্র-বিচিত্র
করোনায় রূপ নিল পকোড়া
ব্যাংকঋণ না পেয়ে কিডনি বিক্রির বিজ্ঞাপন!
গরু-মহিষের আবাসিক হোটেল!
যুবতী থেকে এক রাতেই যুবকে পরিণত, একনজর দেখতে লোকজনের ভিড়!
প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ ‘হেয়ার স্ট্রেটনার’ দিয়ে পোড়ালেন তরুণী
যেখানে চলে প্রকাশ্যে নারী কেনাবেচা!
   'চিত্র-বিচিত্র' - এর আরো খবর
                নগর - মহানগর
জামালপুরে করোনা টেস্ট ফি বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন
চাঁদপুর পৌর এলাকায় ১৯ হাজার ২শ লোক পাচ্ছে বিশেষ ওএমএস সুবিধা
ডা: আব্দুর রকিব খান হত্যার প্রতিবাদে ঝিনাইদহে মানববন্ধন
করোনাযুদ্ধে প্রাণ দিলেন আরেক পুলিশ সদস্য
ঝিনাইদহে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত
   'নগর - মহানগর' - এর আরো খবর
                রাজধানী
যেসব প্রতিষ্ঠানে করোনা টেস্টের অনুমোদন বাতিল করলো স্বাস্থ্য অধিদপ্তর
এবার এইচএসসি পাশ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার আটক, হাসপাতাল সিলগালা
রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না আগামীকাল
বুড়িগঙ্গায় লঞ্চ দুর্ঘটনায় ময়ূরী ২ এর মালিকসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা
করোনায় মারা গেলেন সাদেক হোসেন খোকার ছোট ভাই
   'রাজধানী' - এর আরো খবর
                গ্রাম বাংলা
বিজয়নগরে লোহর নদী পরিদর্শনে পানি উন্নয়ন বিভাগ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রাস্তা নির্মাণে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ
মাদারীপুরে ভেজাল খাদ্য কারাখানায় এনএসআই’র অভিযান
সাভারে অটোরিকশাচালককে ছুরিকাঘাতে খুন
ঝিনাইদহে ইয়ামাহা রাইডার্স ক্লাব ও এসিআই মটরসের উদ্যেগে মাস্ক বিতরণ
কোরবানির হাট কাঁপাতে আসছে নাগরপুরের খোকা বাবু
   'গ্রাম বাংলা' - এর আরো খবর

                সিলেট
ছাতকে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হলেও বেড়েছে দুর্ভোগ
সিলেটের কানাইঘাট ও গোয়াইনঘাটে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি
সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাথে ডিসি’র ভার্চুয়াল কনফারেন্স
বৃহত্তর জৈন্তায় গ্যাস সংযোগের দাবিতে জমিয়তে উলামার মানববন্ধন
সুনামগঞ্জের লক্ষাধিক বানবাসি মানুষ চরম খাদ্য সংকটে
মৌলভীবাজারের বড়লেখায় পুলিশের অভিযানে ৮ জুয়াড়ী গ্রেফতার
   'সিলেট' - এর আরো খবর
                চট্রগ্রাম
রাঙামাটিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুই শ্রমিকের মৃত্যু
নারীদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যে সরকার বদ্ধপরিকর: দীপংকর তালুকদার এমপি
চট্টগ্রামে ব্যাপক বৃষ্টি হতে পারে, পাহাড়ধসের আশঙ্কা আবহাওয়া অধিদপ্তরের
রাঙামাটি পিসিআর ল্যাব স্থাপনের কার্যক্রম পরিদর্শনে সচিব পবন চৌধুরী
বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নারী নিহত
রাঙামাটিতে নতুন করোনা শনাক্ত ২২, মোট আক্রান্ত ৪১৮
   'চট্রগ্রাম' - এর আরো খবর
                কৃষি
লটকনের বাম্পার ফলন: নরসিংদীতে চাষীর মুখে আনন্দের হাসি
নরসিংদীতে সবজির ন্যায্য দাম পাওয়ায় কৃষকরা খুশি
সমন্বিত সবজি চাষে সচ্ছল কৃষক
উচ্চ ফলনশীল ধানের ৩ টি নতুন জাত উদ্ভাবন করেছে ‘ব্রি’
দিনাজপুরে ধান কাটা শুরু
অভয়নগরে বোরো বীজ ধানের সংকট
   'কৃষি' - এর আরো খবর
                পরিবেশ
গাছ লাগাও জীবন বাঁচাও
লক্ষীপুরে পরিবেশ দূষণকারী ইটভাটার ছড়াছড়ি
শব্দ দূষণ মানব দেহের জন্য নিরব ঘাতক
বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ ৮ লাখ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ
বাংলাদেশের জাতীয় দুর্যোগ নদীভাঙন: পর্ব- ২
‘নদী রক্ষায় ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে’
   'পরিবেশ' - এর আরো খবর

                আইন - অপরাধ
সাহেদের তথ্য চেয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও বাংলাদেশ ব্যাংকে দুদকের চিঠি
ডিবিতে হস্তান্তর ডা. সাবরিনার মামলা
২ মামলায় সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি
ফরিদপুরের রুবেল-বরকত আরও ২ দিনের রিমান্ডে
৩ দিনের রিমান্ডে ‘প্রতারক’ ডা. সাবরিনা
দুই প্রতারকের ব্যাংক হিসাব জব্দ
রূপপুর পারমাণবিকের ভূয়া গেটপাস তৈরীকারী ২ প্রতারক গ্রেফতার
ডা. সাবরিনার রিমান্ড চাইবে পুলিশ
নিম্ন আদালতের সব কোর্টে আত্মসমর্পণ করা যাবে
   'আইন - অপরাধ' - এর আরো খবর
                মানবাধিকার
ফেব্রুয়ারিতে ৪৮ নারী-শিশু ধর্ষণের শিকার
অটোরিকশা থেকে নামিয়ে নারী চিকিৎসককে গণধর্ষণ
৫ সন্তানের জনকের ঠাই হল রাস্তায়
গাজীপুরে শিশু ধর্ষণ, আ.লীগ নেতার বাধায় মামলা দিতে পারছে না পরিবার
রংপুরে ডিবির বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ
যশোরে মামলা তুলে না নেওয়ায় শিক্ষককে গাছে বেধে নির্যাতন
ডিমলার প্রতিবন্ধি ফিরোজ বাঁচতে চায়
বড়লোকের ছেলে সাথে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে লাগাতার ধর্ষণ
   'মানবাধিকার' - এর আরো খবর
                সম্পাদকীয়
দুর্ঘটনা প্রতিরোধই কাম্য
ক্রীড়াঙ্গনে কলঙ্কের ছাপ
দায়ীদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিন
একটি বিলম্বিত বোধদয়ের অবিশ্বাস্য কালক্ষেপণ
বন্যা পরিস্থিতির অবনতি
বাণিজ্য বাড়ছে ভারতে
রাজধানীতে যানজট জলজট : নগরবাসীর ভোগান্তি দূর করুন
গণপরিবহনে বিড়ম্বনা
   'সম্পাদকীয়' - এর আরো খবর
                শিল্প সাহিত্য
বাংলা ভাষা প্রতিষ্ঠায় মুসলমানদের অবদান
কবি নয়, কবিতা হতে চাই
হায়রে বাঙালি
চিবুকের কালো তিল
মা দিবসে কবি আলম হােসেনের অসাধারণ কবিতা
বল্টু
দানেই সুখ!
অতি চালাকের গলায় দড়ি
কোভিড-১৯ ও একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের ভাঙন
জসিম উদ্দিনের ‘কবর’ কবিতাটি করোনা ভার্সনে রূপান্তর!
   'শিল্প সাহিত্য' - এর আরো খবর

                সম্পাদকীয়
দুর্ঘটনা প্রতিরোধই কাম্য
ক্রীড়াঙ্গনে কলঙ্কের ছাপ
দায়ীদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিন
একটি বিলম্বিত বোধদয়ের অবিশ্বাস্য কালক্ষেপণ
বন্যা পরিস্থিতির অবনতি
বাণিজ্য বাড়ছে ভারতে
রাজধানীতে যানজট জলজট : নগরবাসীর ভোগান্তি দূর করুন
   'সম্পাদকীয়' - এর আরো খবর
                এক্সক্লুসিভ
চালের দাম বাড়িয়ে টাকা লুটছে অটোমিল সিন্ডিকেট
ইয়াবার চালান থামছে না
বিশেষ অভিযানে মাঠে পুলিশ
পুলিশে শুদ্ধি অভিযানের উদ্যোগ
আয়ু থাকে না বিআরটিসি বাসের
জামায়াতীদের নাগরিক মর্যাদা বদলানো দরকার
ফেলানী হত্যার আট বছর
   'এক্সক্লুসিভ' - এর আরো খবর
                ইসলাম
কুরবানি নিয়ে দারুল উলুম দেওবন্দের ভাবনা
জার্মানিতে মুসলিমরা পাচ্ছেন ডিজিটাল ধর্মীয় সেবা
কুরআনের সেই পাণ্ডুলিপি বিক্রি হলো ৭৩ কোটি টাকায়
মহিমান্বিত রজনী: লাইলাতুল কদর
বিষণ্ণ পৃথিবীতে মুক্তির মাস রমজান
১৪০০ বছর পর এবার মুসলিমদের তৃতীয় পবিত্রতম মসজিদে আকসা মুসল্লি শূন্য
আজহারীর জন্য অঝোরে কাঁদলেন আরেক বক্তা
এশার পর বিতর নামাজ পড়া আবশ্যক
   'ইসলাম' - এর আরো খবর
                জীবনশৈলী
রমজানে সুস্থ থাকুন
ঘরে বসেই নিন ত্বকের যত্ন
শবে বরাতে নানা স্বাদের হালুয়া
বাড়িতে বসেই শরীরের তাপমাত্রা পর্যবেক্ষণ করুন
শিশুর মেধা বাড়াতে পাঁচ খাবার
লিভার ভালো রাখবে যে ১০ খাবার
ভালোবেসে দিই উপহার
কর্মশক্তি যোগাবে সকালের ছোট অভ্যাস
ঠান্ডায় নাক বন্ধ হলে করণীয়
   'জীবনশৈলী' - এর আরো খবর

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Nytasoft