শনিবার, ২৪ জুলাই 2021 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   নগর - মহানগর -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
করোনা রোগীদের সেবায় ফ্রি অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্ভোধন করলেন মেয়র মহিউদ্দিন

দুলাল কৃষ্ণ নন্দী, পটুয়াখালী প্রতিনিধি :
পটুয়াখালী পৌরসভা এলাকার নাগরিকদের জন্য কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের স্বাস্থ্য সেবা সহায়তায় বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ কার্যক্রমের জন্য অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্বোধন করেছেন মেয়ের মহিউদ্দিন আহম্মেদ।

গতকাল রাতে পৌরভবনের দোতালায় উদ্ভোধন অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন পটুয়াখালী চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র সহসভাপতি সাবেক পৌর কমিশনার খন্দকার ফরহাদ জামান বাদল।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মেয়র পতœী সুমী আক্তার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবুল কালাম আজাদ, পৌরসভার মেডিকেল অফিসার ডাঃ ইকরামুল নাহিদ, স্যানিটারী ইন্সপেক্টর শারমিন আক্তার, বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা ভবানী শংকর, যুবলীগ নেতা মোঃ রেজাউল কবির সোয়েবসহ পৌরসভার কর্মকর্তা ও কাউন্সিলরবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন মুসলিমপাড়া জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা আব্দুল কাদের।

উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের আলো’র জেলা প্রতিনিধি এম নিয়াজ মোর্শেদ এর মাতা শাসকষ্ট জনিত অসুস্থ থাকায় তাকে একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার হস্তান্তর করা হয়।

করোনা আক্রান্তদের অক্সিজেন সরবরাহের জন্য ০১৩১৩১০০০৯৩ হটলাইন এ যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আটটি সিলিন্ডার ও দুইটি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর নিয়ে এই অক্সিজেন ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু করেন এবং বিতরণের জন্য চারটি ইঞ্জিন চালিত রিক্সা ২৪ ঘন্টার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রয়োজনে পৌরসভার পিকআপভ্যান ব্যবহার করা হবে। এখন থেকে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের জন্য হট লাইনে ফোন করলেই পৌছে যাবে বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার। পৌরশহরে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেশী হওয়ায় মানবিক সহায়তা হিসাবে পৌর মেয়র এই উদ্যোগ গ্রহণ করেন।

করোনা রোগীদের সেবায় ফ্রি অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্ভোধন করলেন মেয়র মহিউদ্দিন
                                  

দুলাল কৃষ্ণ নন্দী, পটুয়াখালী প্রতিনিধি :
পটুয়াখালী পৌরসভা এলাকার নাগরিকদের জন্য কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের স্বাস্থ্য সেবা সহায়তায় বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ কার্যক্রমের জন্য অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্বোধন করেছেন মেয়ের মহিউদ্দিন আহম্মেদ।

গতকাল রাতে পৌরভবনের দোতালায় উদ্ভোধন অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন পটুয়াখালী চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র সহসভাপতি সাবেক পৌর কমিশনার খন্দকার ফরহাদ জামান বাদল।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মেয়র পতœী সুমী আক্তার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবুল কালাম আজাদ, পৌরসভার মেডিকেল অফিসার ডাঃ ইকরামুল নাহিদ, স্যানিটারী ইন্সপেক্টর শারমিন আক্তার, বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা ভবানী শংকর, যুবলীগ নেতা মোঃ রেজাউল কবির সোয়েবসহ পৌরসভার কর্মকর্তা ও কাউন্সিলরবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন মুসলিমপাড়া জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা আব্দুল কাদের।

উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের আলো’র জেলা প্রতিনিধি এম নিয়াজ মোর্শেদ এর মাতা শাসকষ্ট জনিত অসুস্থ থাকায় তাকে একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার হস্তান্তর করা হয়।

করোনা আক্রান্তদের অক্সিজেন সরবরাহের জন্য ০১৩১৩১০০০৯৩ হটলাইন এ যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আটটি সিলিন্ডার ও দুইটি অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর নিয়ে এই অক্সিজেন ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু করেন এবং বিতরণের জন্য চারটি ইঞ্জিন চালিত রিক্সা ২৪ ঘন্টার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রয়োজনে পৌরসভার পিকআপভ্যান ব্যবহার করা হবে। এখন থেকে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের জন্য হট লাইনে ফোন করলেই পৌছে যাবে বিনামূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার। পৌরশহরে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেশী হওয়ায় মানবিক সহায়তা হিসাবে পৌর মেয়র এই উদ্যোগ গ্রহণ করেন।

বঙ্গবন্ধুর নামে ১০টি পশু কোরবানী করবেন কুয়াকাটা পৌর মেয়র
                                  

পটুয়াখালী প্রতিনিধি :
পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় বঙ্গবন্ধুর নামে কোরবানী দেয়ার উদ্দেশ্যে ৮ টি গরু ও ২ টি মহিষ কিনেছেন পৌর মেয়র আনোয়ার হাওলাদার। কোরবানীর মাংস পৌর এলাকার গরীব ও দুস্থ:দের বাড়িতে নিজ উদ্যোগে পৌছে দেবেন মেয়র।

বেশ কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন গরুর হাটে ঘুরে সাড়ে ৭ লাখ টাকায় তিনি এ মহিষ ও গরু ক্রয় করেছেন। এসব গরু মহিষ ইতিমধ্যে তিনি ৯টি ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের হাতে পৌছে দিয়েছেন। বুধবার সকালে তিনি নিজে উপস্থিত থেকে এসব গরু কোরবানী দেবেন।

এদিকে ৭ নং ওয়ার্ডের পৌর কাউন্সিলর শহীদ দেওয়ান প্রধানমন্ত্রীর নামে কোরবানী দেওয়ার উদ্দেশ্যে ৭০ হাজার টাকায় একটি গরু ক্রয় করেছেন। বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফেরাত কামনা ও প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু কামনা করে তারা এ কোরবানীর আয়োজন করেছেন।

পৌর মেয়র আনোয়ার হাওলাদার বলেন, পৌর এলকায় অনেক গরীব, দরিদ্র ও মধ্যবিত্তরা কোরবানী দিতে পারছেন না। তারা কারও কাছে মাংস চাইতেও পারেন না। পৌর এলাকার সকল মানুষ যাতে কোরবানীর মাংস খেতে পারেন এজন্য বঙ্গবন্ধুর নামে এ কোরবানী দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছি।

শ্রীমঙ্গলে আশ্রায়ণ প্রকল্প নিয়ে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবী
                                  

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি:
শ্রীমঙ্গলে আশ্রায়ণ প্রকল্প নিয়ে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন  আশিদ্রোন ইউপি’র ৬ নং ওয়ার্ড সদস্য ফারুক আহমেদ।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) সংবাদ সম্মেলনে ফারুক আহমেদ বলেন, সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর উপহার আশ্রায়ণ প্রকল্পের মোহাজিরাবাদ প্রকল্প নিয়ে সুবিধাবোগীদের কাছ থেকে আমার বিরুদ্ধে ১০ হাজার করে অর্থ নেয়ার মিথ্যাচার করছে একটি মহল। গত ৫-৬ দিন পূর্বে বেগুনবাড়ি প্রকল্পে গিয়ে গণমাধ্যম পরিচয়ে তিমির বনিক ও আরো কয়েকজন সুবিধাভোগীর কাছে গিয়ে ‘ভাঙ্গা ঘর, চাল দিয়ে পানি পড়ে’ এসব কথা শিখিয়ে বক্তব্য গ্রহন ও বিদ্যুতের লাইনের ছিদ্র খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে বড় করে ছবি তোলে। পরে শিখিয়ে দেয়া এসব বক্তব্য ও ছবি প্রচার করে প্রধানমন্ত্রীর জনগুরুত্বপূর্ণ এই প্রকল্প নিয়ে মিথ্যাচার করা হয়।

ইউপি সদস্য ফারুক আহমেদ এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এই প্রকল্প বিনামূল্যে দরিদ্র ভূমিহীনদের ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে। এখানে কারো কাছে কোন প্রকার অর্থ নেয়ার সুযোগ নেই।

তিনি বলেন, সম্প্রতি ফাহিমা নামে এক সুবিধাভোগীকে পৌর প্রেসক্লাব নামে একটি সংগঠনের অফিসে ডেকে বরাদ্দ বাতিলের ভয় দেখিয়ে তিমির বনিক ও তার অপর সহযোগী মিথ্যা তথ্যে ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। সংবাদ সম্মেলনে ওই নারী সুবিধাভোগী অভিযোগ করেন, তিমির বনিক নিজেকে ঢাকার বড় সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে গোপনে ভিডিও ধারণ করে তার আইডিতে পোস্ট দেয়। আমরা ২ ঘর পেয়েছি এমন মিথ্যা তথ্য দিয়ে ১০ হাজার টাকাও দাবী করে।
 
ফাহিমা বেগম বলেন, ২০১৬ সালে জায়গা আছে ঘর নেই এমন একটি সরকারী প্রকল্পে আমার বাবা আলী হোসেন শেখ একটি টিন শেডের ঘর বরাদ্দ পান। তিনি মারা যাবার পর সেখানে মা বসবাস করছেন। বর্তমানে আমি এবং আমার দরিদ্র ভূমিহীন ভ্যানচালক স্বামী মো. জাকির হোসেন আশ্রায়ণ প্রকল্পে একটি ঘর বরাদ্দ পাই।
 
ইউপি সদস্য সংবাদ সম্মেলনে জানান, আশ্রায়ণ প্রকল্পের জমি উদ্ধারকালে দীর্ঘদিন যাবত সেখানে হালিমা বেগম ও তার বিবাহিত ছেলে কাইয়ূম মিয়ার আলাদা দুটি পরিবারের ৩টি বসত ঘর ছিল। সরকারী খাস জমি উদ্ধার অভিযানের ফলে পরিবার দুটি গৃহহীন হয়ে পড়েন। প্রশাসন থেকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শুধু হালিমা বেগমকে একটি ঘর বরাদ্দ দেয়া হয়। এতে করে হালিমা বেগমের ছেলে কাইয়ুম মিয়া ভূমিহীনের কাতারে পড়লেও প্রশাসন থেকে তাকে কোন ঘর দেয়া হয়নি।

সাংবাদিক সম্মেলনে বীরঙ্গনা শীলা গুহসহ ১০-১২ জন সুবিধাভোগী সুবিধাভোগী উপস্থিত ছিলেন।

ফেনীতে চালু হল অনলাইন পশুর হাট
                                  

ফেনী প্রতিনিধি :
ফেনী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ফেনীতে ‘অনলাইন পশুর হাটের (onlinepashurhatfeni.com) ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপস উদ্বোধন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার(১৫ জুলাই) সকাল ১১টায়  জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ অনলাইন কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী। জেলা প্রশাসক আবু সেলিম মাহমুদ উল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায়  আরো উপস্হিত ছিলেন জেলা স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক ড. মঞ্জরুল আহসান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক গোলাম জাকারিয়া,বিভিন্ন খামারের খামারী ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।  

উদ্বোধনকালে নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি বলেন, খামারীরা অত্যন্ত সহজ পদ্ধতিতে ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করে তাদের খামারের পশুগুলো প্রদর্শনের ব্যবস্থা করবেন। এখানে ক্রেতারা প্রবেশ করে তাদের পছন্দমত পশু কিনবেন। এখানে প্রতারিত হওয়ার সুযোগ নেই। তারপরও কোন প্রতারণার অভিযোগ পেলে তাৎক্ষণিকভাবে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আনিসুল হক জানান, দেশে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় এবার উম্মুক্ত গরু বাজারের সংখ্যা অনেক কমে গেছে। অনেক খামারী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনলাইনে কোরবানীর পশুর প্রচার প্রচারণা চালালেও আশানুরূপ সাড়া পাচ্ছেনা। যথা সময়ে ক্রেতার দেখা না মেলায় দুশ্চিন্তায় পড়েছে জেলার খামারীরা। এমতাবস্থায় জেলা প্রাণী সম্পদ দপ্তর থেকে অনলাইন পশুর হাট চালু করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এখানে খামারীরা বিক্রয়যোগ্য পশুর বিভিন্ন তথ্য দিয়ে প্রদর্শন করবেন। ক্রেতারাও দেখে- শুনে স্বাচ্ছন্দের সাথে পশু ক্রয় করতে পারবেন। এ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ক্রেতা ও বিক্রেতা পর্যায়ে কোন প্রকারের প্রতারণার সুযোগ থাকবেনা।

নোয়াখালীতে শেখ রাসেল অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্বোধন
                                  

নোয়াখালী প্রতিনিধি :
নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরীর উদ্যোগে নোয়াখালীতে ‘শেখ রাসেল অক্সিজেন ব্যাংক’ এর যাত্রা শুরু হয়েছে। নোয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হবে এই অক্সিজেন ব্যাংক।

বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অক্সিজেন ব্যাংক উদ্বোধন করেন একরামুল করিম চৌধুরী এমপি। এ সময় সাংসদ এক লাখ সার্জিক্যাল মাক্সও দিয়েছেন অক্সিজেন ব্যাংককে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, নোয়াখালী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম সামছুদ্দিন জেহান, শহর আ.লীগের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবু নাছের, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক একরামুল হক বিপ্লব, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান আরমান প্রমূখ।  

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংসদ জানান, অসহায় গরিব মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এ অক্সিজেন ব্যাংকে ৫০টি সিলিন্ডার থাকবে। আজ ২০টি অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়েছি। খুব দ্রুত আরও ৩০টি সিলিন্ডার এই অক্সিজেন ব্যাংকের সাথে যুক্ত হবে। এটি পরিচালনা করবে জেলা ছাত্রলীগ। জেলার গরীব অসহায় করোনা রোগীরা এ অক্সিজেন ব্যাংকের সুবিধা পাবেন। আজ এক লাখ মাস্ক বিতরণের জন্য দিয়েছি। অল্পকিছুদিনের মধ্যে আরও এক লাখ মাস্ক বিতরণের জন্য দেওয়া হবে। একই সঙ্গে ছাত্রলীগ বিভিন্ন স্থানে নিয়মিত মাক্স বিতরণ করবেন বলেও জানান তিনি।  

এদিকে আজ বুধবার দ্বিতীয় দিনের মতো নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র শহিদ উল্যাহ খান সোহেল কর্মহীনদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরৎণ করেছেন। খাদ্য সামগ্রীতে ছিল, চাল, ডাল, তেলসহ নিত্য প্রয়োজনীয় নানা পণ্য।  

শেবাচিমের ১৫ নার্সকে শোকজ
                                  

বরিশাল ব্যুরো :
কর্তব্যকাজে অবহেলার অভিযোগে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের লোবার ওয়ার্ডের ১৫ জন সিনিয়র স্টাফ নার্সকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে নোটিশপ্রাপ্তদের লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ এইচএম সাইফুল ইসলামের স্বাক্ষরিত কারন দর্শানোর নোটিশ শোকজপ্রাপ্ত নার্সদের কাছে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে হাসপাতালের পরিচালক বলেন, হাসপাতালের ডাক্তার রাউন্ডে আসলে গত ১০ জুলাই লেবার ওয়ার্ডে দায়িত্বপালনের সময়ে নার্সদেরকে কর্তব্য কাজে পাওয়া যায়নি। তাছাড়া নার্সদের এমন দায়িত্ব অবহেলার কারণে ডেলিভারি রোগীর মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা ছিল। যা সরকারি কর্মচারী শৃঙ্খলা আপীল বিধিমালার পরিপন্থী ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

নোটিশপ্রাপ্তরা হলেন-লোবার ওয়ার্ডের সিনিয়র স্টাফ নার্স সুলেখা রানী সিকদার, রাবেয়া আক্তার, কবিতা হালাদার, দিপ্তী রানী ঘরামী, পান্না অধিকারী, ফারজানা আক্তার, অর্পিতা দাস, খাদিজা আক্তার, ত্রিবেনী রায়, মুক্তা মিস্ত্রী, রেখা বাড়ৈ, ফাহিমা আক্তার, বিউটি মন্ডল, ইন্টার্ন নার্স লুবনা আক্তার ও অপরুপা গাইন।

শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণে গণটিকা কার্যক্রম সম্ভব হয়েছে: মসিক মেয়র
                                  

তানভীর হোসাইন:
মঙ্গলবার(১৩ জুলাই) ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ অডিটোরিয়ামে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রমের আওতায় মর্ডানা টিকাদান উদ্বোধন এবং পরবর্তীতে বুথসমূহ পরিদর্শন করেন ময়মনসিংহ সিটি মেয়র ইকরামুল হক টিটু।

এ সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা, মচিম হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডাঃ ফজলুল কবীর, জাতীয় পুষ্টি সেবার লাইন ডিরেক্টর এস এম মুস্তাফিজুর রহামান, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডঃ চিত্তরঞ্জন দেবনাথ, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এইচ কে দেবনাথ, মেডিকেল অফিসার ডাঃ রেদাউর রহমান খান প্রমুখ।

পরিদর্শনকালে মেয়র টিটু বলেন, বিশ্বব্যাপী টিকার এই সংকটে আমরা আবার গণটিকা কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারছি। এটা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারনেই সম্ভব হয়েছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের মানুষ নিরাপদ এবং সুরক্ষিত।

তিনি আরো বলেন, ইতোপূর্বে আমরা অক্সফোর্ড এস্ট্রোজেনিকার টিকাদান সফলভাবে সম্পন্ন করেছি। বর্তমান গণটিকা কার্যক্রমকে সফল করার সার্বিক প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ, এসকে হাসপাতাল এবং সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে স্থাপিত মোট ৩ টি কেন্দ্রের ১২ টি বুথে এ টিকাদান কার্যক্রম পরিচালিত হবে। সাধারন মানুষ স্বাচ্ছন্দ এবং স্বস্তির সাথে এ টিকা গ্রহণ করতে পারবেন।

এ সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, টিকা নেওয়া সংক্রমণ প্রতিরোধের গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার। আমরা চাই দ্রুততম সময়ে যেন অধিক মানুষকে টিকা দেওয়া যায়।

এস্ট্রোজেনিকা টিকা যারা একটি ডোজ নিয়েছে তাদের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা আশার করছি এ মাসেই (জুলাই) এস্ট্রোজেনিকার টিকা পৌঁছাবে। আগামী মাসে এস্ট্রোজেনিকার প্রথম ডোজ নেওয়া ব্যক্তিগণ ২য় ডোজ নিতে পারবেন।

তিনি আরো বলেন, করোনা সংক্রমণ কমানোর একমাত্র উপায় হচ্ছে ট্রান্সমিশন চেইকে ভেঙে দেওয়া। আর তা সম্ভব মানুষের সাথে মানুষের সামাজিকভাবে আলাদা করার মাধ্যমে। আমারা যাদি সামাজিক দুরত্ব বজায়ে রাখি, সামাজিক অনুষ্ঠান ও জনসমাবেশ এড়িয়ে চলি, যে কাজগুলো আমাদের জীবিকার জন্য প্রয়োজন শুধু সেই কাজেই সীমাবদ্ধ থাকি তবে করোনা প্রতিরোধ করা সম্ভব। আমরা এ কাজগুলো করিনা বলেই লকডাউনের মত কঠোর বিধি নিষেধে যেতে হচ্ছে। আমরা যদি স্বাস্থ্যবিধি সঠিকভাবে মানতাম, মাস্ক পরতাম তাহলে সংক্রমণ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হত।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদক ব্যবসায়ী ছাত্রলীগ নেতা হৃদয়ের আতঙ্কে এলাকাবাসী
                                  

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :
তার নাম আশিকুর রহমান হৃদয়। তিনি বর্তমানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক-১। তবে স্থানীয়রা তাকে মাদক ব্যবসায়ী ও কিশোর গ্যাংয়ের লিডার হিসেবেই জানে। তার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের মধ্যপাড়ার শান্তিবাগ এলাকায়। আসন্ন জেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সহ-সভাপতি প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় আছেন তিনি। তার বাবার নাম রফিক মিয়া (রফিকুল ইসলাম) ও মায়ের নাম মর্জিনা বেগম ওরফে মনা বেগম।

অনুসন্ধান করে জানা গেছে, মাদক ব্যবসা তার পারিবারিক ইতিহাস। অতীতে তার বাবা-মায়ের নামেও মাদকের মামলা ছিলো। হৃদয়ের নামেও মারামরির মামলা ছিলো।

অভিযোগ আছে, তার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় মধ্যপাড়ার শান্তিবাগ এলাকার একটি কিশোর গ্যাং। গ্যাংয়ের সদস্যদের দিয়ে হৃদয় মাদক ব্যাবসা চালাচ্ছেন। কিশোর গ্যাং টিমের ভয়ে স্থানীয়রা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন। গত ২৪ জুন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযানে গ্রেফতার হওয়া ১৮ ছিনতাইকারীর মধ্যে মানিক মিয়া নামে এক ছিনতাইকারীকেও আটক করে পুলিশ। মানিক হৃদয়ের কাছের লোক হিসেবে পরিচিত।
 
হৃদয় তার নিজের গোষ্ঠী প্রভাব এবং কতিপয় রাজনৈক বড় ভাইদের ছত্রছায়ায় অপরাধ জগত নিয়ন্ত্রণ করেন বলে অভিযোগ করেন স্থানীয়রা। হৃদয় বাহিনীর ভয়ে অজানা আশঙ্কায় দিন কাটাচ্ছে স্থানীয়রা। হৃদয়ের ব্যপারে এলাকার অনেকেই ভয়ে মুখ খুলতে চান না। হৃদয় যেত এক মূর্তিমান আতঙ্কের নাম।

এ ব্যপারে অভিয্ক্তু আশিকুর রহমান হৃদয়ের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তার বাবা মায়ের বিরুদ্ধে মাদকের যে মামলাগুলো ছিলো সেগুলো ষড়যন্ত্রমূলক। এগুলোর সাথে তারা কখনো জড়িত ছিলো না। তবে বর্তমানে তার মা সমিতির ব্যবসা করেন। যার দ্বারা ভালো টাকা ইনকাম হচ্ছে।

হৃদয় নিজের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসার অভিযোগ অস্বীকার করেন। তবে কিশোর গ্যাংয়ের অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, “রাজনীতি করতে হলে কিছু পোলাপান লাগে”।

এ বিষয়ে সংবাদ না করার জন্য হৃদয় এ প্রতিবেদককে বিশেষ সুবিধা দেওয়ার প্রস্তাবও করেন।

এ ব্যপারে জানতে চাইলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আক্তার হোসেন বলেন, ‘হৃদয় একজন মাদক ব্যবসায়ী। এলাকায় বখাটে ও উশৃঙ্খল যুবক হিসেবে সে পরিচিত। ইতোপূর্বে তার বাবা-মা মাদক ব্যবসা করতেন। গত কিছুদিন আগে মধ্যপাড়া এলাকার ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মালেক সাহেব ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে আমরা একটি মিটিং করেছিলাম মাদকের বিরুদ্ধে। সেখানে সবাই মাদকের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়েছি। আমরা এলাকা থেকে মাদক নির্মূলের জন্য যা করা দরকার তাই করবো।

এ ব্যপারে জানতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ শোভনকে একাধিক বার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

ভবনে জমে থাকা পানিতে এডিস মশার লার্ভা; মসিকের জরিমানা
                                  

তানভীর হোসাইন:
ময়মনসিংহ নগরবাসীকে মশার উপদ্রব থেকে বাঁচাতে শুরু থেকেই কঠোর অবস্থানে রয়েছে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন। এরই ধারাবাহিকতায় নগরীর বিভিন্ন নির্মাণাধীন ভবনে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন।

সোমবার (১০ জুলাই) নগরের নতুন বাজার এলাকার নির্মাণাধীন ভবনে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যাওয়ায় ভবন মালিককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাকিল আহমেদ এ অভিযান পরিচালনা করেন।

এ সময় তিনি বলেন, নির্মাণাধীন কোন ভবনে জমে থাকা পানিতে যদি এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায় তাহলে ভবন মালিকের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ময়মনসিংহ নগরবাসীদের মশার উপদ্রব থেকে বাঁচাতে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নিবে মসিক কর্তৃপক্ষ। এ ধরনের অভিযান সবসময় অব্যাহত থাকবে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত চলাকালে উপস্থিত ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এইচ কে দেবনাথ জানান, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটুর নির্দেশ ও পরামর্শ মোতাবেক করোনা মোকাবেলা ও ভ্যাক্সিন কার্যক্রমের সাথে মশক নিধনেও গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন। ডেঙ্গু মোকাবিলায় সচেতনতা কার্যক্রমের সাথে কোন নির্মাণাধীন ভবন, বাসাবাড়ি বা প্রতিষ্ঠানে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেলে তা আইনের আওতায় আনা হচ্ছে।

প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জমে থাকা পানির যেন এডিস মশার বংশবিস্তার না ঘটতে পারে সে বিষয়ে সকলের সচেতনতা এবং সহযোগিতা কামনা করেন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মেডিকেল অফিসার ডাঃ রেদাউর রহমান খান ও ডাঃ তাসমিয়া জান্নাত, খাদ্য ও স্যানিটেশন কর্মকর্তা দীপক মজুমদার, স্যানিটারি ইন্সপেক্টর জাবেদ ইকবাল প্রমুখ ।

শেবাচিমে করোনায় ১৩ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ৬৫.৮২
                                  

বরিশাল ব্যুরো:
বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (শেবাচিম) করোনা ওয়ার্ডে আরও ১৩ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন সর্বাধিক ২৮৪জন রোগী। অপরদিকে মেডিকেল কলেজের আরটি পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় সব শেষ করোনা শনাক্ত হয়েছে ৬৫.৮২ ভাগ।

হাসপাতালের পরিচালক কার্যালয় থেকে জানা যায়, শুক্রবার করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলো মোট ২৪৪ জন রোগী। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৯ জন রোগী। একই সময়ে বিভিন্ন উপসর্গ নিয়ে ৬২ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন করোনা ওয়ার্ডে। ২২টি আইসিইউ বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন মুমূর্ষু ২২জন রোগী।

সকাল পর্যন্ত চিকিৎসাধীন ছিলেন সর্বাধিক ২৮৪ জন রোগী। যার মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৫৫ জনের। বিগত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ১৩ জন রোগী। এর মধ্যে ৪ জনের করোনা ছিলো পজিটিভ। গত বছরের মার্চে করোনা ওয়ার্ড চালুর পর একদিনে ২৮৪ জন রোগী ভর্তি থাকা এবং ১৩ জন রোগী মারা যাওয়ার ঘটনা এই প্রথম। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় করোনা ওয়ার্ডে একজন পজিটিভসহ মারা যায় ৮জন রোগী।

এদিকে, মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবের প্রকাশিত গত শুক্রবার রাতের সব শেষ রিপোর্টে ১৯৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় মধ্যে ১৩১ জনের করোনা পজিটিভ হয়েছে। শনাক্তের হার ৬৫.৮২ ভাগ।
এর আগের দিন শনাক্তের হার ছিলো ৫৩.৯৫ ভাগ। গত সোমবার রাতে প্রকাশিত পিসিআর ল্যাবের রিপোর্টে সর্বাধিক ৭৩.৯৩ ভাগ করোনা শনাক্ত হয়েছিলো। গত বছর মার্চ থেকে এ পর্যন্ত মেডিকেলের করোনা ওয়ার্ডে মোট ৮১৭ জন ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছিলো ২২৯ জনের।

শেবাচিমে সাধারণ রোগীদের আসতে নিষেধাজ্ঞা
                                  

বরিশাল ব্যুরো :
নগরীতে করোনা সংক্রমণ দিন দিন বাড়তে থাকায় প্রতিনিয়ত চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসকেরা। ফলে বিভাগের জেলা ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে সাধারণ রোগীদের দক্ষিণাঞ্চলের সর্ববৃহত চিকিৎসা সেবা কেন্দ্র বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (শেবাচিম) আসতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডাঃ বাসুদেব কুমার দাস বলেন, সারাদেশের সাথে বরিশাল নগরীতেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। তাই সবদিক বিবেচনা করে সাধারণ রোগী যাদের চিকিৎসা জেলা ও উপজেলা হাসপাতালে সম্ভব তাদের শেবাচিম হাসপাতালে আসতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, শেবাচিম হাসপাতালের আন্তঃবিভাগে গড়ে প্রতিদিন দেড় থেকে দুই হাজার রোগী ভর্তি থাকেন। এছাড়া বর্হিবিভাগেও রোগীর সংখ্যা অনেক। এরমধ্যে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় রোগীর সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে চিকিৎসা সেবা দিতে চিকিৎসকেরা হিমশিম খাচ্ছেন। এরসাথে প্রতি রোগীর সাথে কমপক্ষে দুইজন করে স্বজন থাকায় তাদের মাধ্যমেও করোনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। ফলে ইতোমধ্যে উল্লেখিত সিদ্ধান্তের বিষয়ে বিভাগের সকল জেলা সিভিল সার্জনসহ জেলা ও উপজেলা হাসপাতাল এবং উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

করোনার মধ্যেও শরীয়তপুরের আবাসিক হোটেলে চলছে অনৈতিক কর্মকান্ড
                                  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি :
শরীয়তপুরে করোনাকালীন সময়ে কোর্ট সংলগ্ন জলিল আবাসিক হোটেলে অনৈতিক কর্মকান্ডে ধরা পরা কারারক্ষীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিলেও হোটেল বন্ধ হয়নি। হরদমে চলে আসছে এই অবাসিক হোটেলে দেহ ব্যবসা। নিয়মনীতি ছাড়াই জাতীয় পরিচয়পত্র বিহীন ভাড়া দিচ্ছে হোটেল কক্ষ। ওই হোটেল কক্ষে অর্থনৈতিক কাজ করতে গিয়ে ধরা পরে নাজমুল নামক শরীয়তপুর জেলা কারাগারের এক কারারক্ষী।

স্থানীয় সূত্র ও জেলা কারাগার সূত্রে জানাগেছে, সারাদেশে যখন করোনা মহামারীর কারণে কঠোর লকডাউন পালিত হচ্ছে। আর জেলার সকল প্রতিষ্ঠান প্রায় বন্ধ। তখনো অবৈধভাবে কোর্ট সংলগ্ন স্থানীয় জলিল মটরসের মালিক আ. জলিলের মালিকানাধীন জলিল আবসিক হোটেল খোলা রেখে চলছে অনৈতিক রমরমা দেহ ব্যবসা। তারই ধারাবাহিকতায় ৬ জুলাই মঙ্গলবার বেলা ১ টায় ওই হোটেলে শরীয়তপুর জেলা কারাগারের কারারক্ষী নাজমুল-২ কোন নিয়ম নীতি ছাড়া জাতীয় পরিচয়পত্র এমনকি স্বামী-স্ত্রীর প্রমাণ ছাড়াই ওই হোটেল কক্ষ ভাড়া নেন। অনৈতিক কাজ করতে সহায়তা করে হোটেলের অভ্যর্থানায় ম্যনেজার হারুন খালাসি। ওই সময় হোটেলের ফ্লোরে ছিল যৌন উত্তেজক সিরাপ ও বক্স ভর্তি যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে স্থানীয় লোকজনের সামনে কয়েকজন সাংবাদিক হাজির হয়ে সত্যতা পায়। রুম ভাড়া নেয়া কারারক্ষী যুবক নাজমুল (৩০) বলেন, আমি শরীয়তপুর জেলা কারাগারের কারারক্ষী। আমি আমার স্ত্রীকে নিয়ে এই হোটেলে উঠেছি। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তার শশুর বাড়ির নাম্বার চাইলে তিনি অপরাধে কথা স্বীকার করেন। এদিকে ম্যানেজার হারুন খালাসি সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার ছলে ছেলে ও মেয়েকে গোপনে চলে যেতে সহযোগিতা করেন।
 
জেলা কারাগার সূত্রে আরও জানাযায়, জেলখানায় দুই জন নাজমুল চাকরি করে। একজন ভালো, আরেকজন নেশা করার দায়ে সাসপেন্ডে আছে। এই ছেলেটা দুই নাম্বার নাজমুল। এই নাজমুল ১৭ দিন হলো জেলা কারারক্ষী হিসেবে যোগদান করেছে। এসেই কিছুদিন আগে নেশা করার অপরাধে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
 
অভিযোগের বিষয়টি জানতে চাইলে ম্যানেজার হারুন খালাসি বলেন, একজন পুলিশ পরিচয়ে তার স্ত্রীকে নিয়ে হোটেলের একটি রুমে উঠে। হোটেল রেজিষ্ট্রার খাতায় একই এলাকার ঠিকানা দিয়েছে। পুরুষ লোকটি তার পরিচয়পত্র দিলেও মহিলার পরিচয়পত্র দেয়নি। বলেছে তার স্ত্রী বাড়ি থেকে আসছে। বিকেলে চলে যাবে।
 
এ ব্যাপারে আবাসিক হোটেল মালিক আ. জলিল বলেন, আবাসিক হোটেলটি আমি নতুন করেছি। আপরাধ করেছে আমার ম্যানেজার, এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না। করোনাকালীন সময় শুধু আমার আবাসিক হোটেল না, সদরের সব আবাসিক হোটেল খোলা রয়েছে। আমার কাছে মনে হয়েছে বিষয়টি একটি ষড়যন্ত্র। আমার দুর্নাম করতে কেউ এটা করেছে। আমি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব।

এ ব্যাপারে শরীয়তপুর জেল সুপার ও শরীয়তপুর সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মনদীপ ঘরাই বলেন, নাজমুলের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। হোটেলের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বৃষ্টির রাজধানী সিলেট; বছরের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে আজ
                                  

স্টাফ রিপোর্টার :
দেশের অন্যান্য স্থানের তুলনায় সিলেটে বৃষ্টিপাত তুলনামুলকভাবে বেশিই হয়ে থাকে। এবছর দেশের কোথাও উল্লেখযোগ্য বৃষ্টি না হলেও বৃষ্টির রাজধানী সিলেটে আজ তুমুল বৃষ্টি হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ভোর ৬টা থেকে আজ (বুধবার) ভোর ৬টা পর্যন্ত এ বছরের সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে সিলেটে। ১৩২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতের রেকর্ড করা হয়েছে সিলেটে। এ বৃষ্টিপাত কেবল এ মৌসুমের নয়, পুরো বছরের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতেরও রেকর্ড এটি।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, মঙ্গলবার (০৬ জুলাই) ভোর ৬টা থেকে বুধবার (০৭ জুলাই) ভোর ৬টা পর্যন্ত ১৩২ মিলিমিটারের এই বৃষ্টিপাত হয়।

কিন্তু বাস্তবতা হলো, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এক মিলিমিটারও বৃষ্টিপাত হয়নি। রাত ৯টা থেকে শুরু হয় মুষলধারে বৃষ্টি। রাতভর অবিরাম বৃষ্টিপাত হয়। পরে আজ বুধবার (০৭ জুলাই) সকাল গড়িয়ে দুপুর পার হয়েছে বৃষ্টিতে। তবে, বিকেলের দিকে আকাশ কিছুটা শান্ত হয়।

অল্প সময়ের এই বৃষ্টিই এ বছরের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত। অথচ বৃষ্টির শহর সিলেটে গত বছরের শেষভাগ থেকে এ বছরের শুরু দিকটাতে কোনো বৃষ্টিই ছিল না। আষাঢ়ের মাঝামাঝি সময় যখন পানিতে টইটম্বুর থাকার কথা সিলেটের হাওর-বাওর। কিন্তু হাওরগুলোতে এখনো সে পরিমাণ পানি নেই বলে জানিয়েছেন হাওরপারের লোকজন।

আবহাওয়া অধিদপ্তর সিলেটের আবহাওয়াবিদ মো. সাঈদ আহমদ চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, গত বছরের নভেম্বর-ডিসেম্বর আর এ বছরের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি মাসেও বৃষ্টির ছিটেফোটোও ছিল না। মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ১৩২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এরমধ্যে অধিকাংশ বৃষ্টি হয়েছে রাত ৯টা থেকে পরদিন বুধবার ভোর ৬টা পর্যন্ত। এছাড়া ভোর ৬টার পর থেকে ১২টা পর্যন্ত আরো ১৬ দশমিক ২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। আগের রাত ১২টা পর্যন্ত মাত্র ৩ ঘণ্টার ব্যবধানে ৬৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছিল।

তিনি বলেন, জুনে ২২ দিন বৃষ্টি হওয়ার কথা। হয়েছে ২৮ দিন। কিন্তু দিন বেশি হলেও তুলনামূলকভাবে বৃষ্টিপাত ছিল কম। আর সারাবছরে ৭১ দিন বৃষ্টি হওয়ার কথা থাকলেও হয়েছে ৭৫ দিন। তাও বৃষ্টি পরিমাণে কম হয়েছে। এছাড়া গত বছরের নভেম্বরে মাত্র দশমিক ০৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। ডিসেম্বরে বৃষ্টির দেখা মিলেনি। একইভাবে এ বছরের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে বৃষ্টি হয়নি।

আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্র জানায়, এ বছরের জানুয়ারিতে ৯ দশমিক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হওয়ার কথা সেখানো বৃষ্টিপাতের রেকর্ড শূণ্যের কোটায়। ফেব্রুয়ারিতে ৩৬ দশমিক ২ মিলিমিটার বৃষ্টি হওয়ার কথা থাকলেও পুরো মাসটি ছিল বৃষ্টিহীন। মার্চে ১৫৫ দশমিক ৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হওয়ার কথা থাকলেও ১২৭ দশমিক ৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়। এপ্রিলে ১৭৫ দশমিক ৬ মিলিমিটারের স্থলে ১৪২ দশমিক ৩ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয় সারা মাসে। মে মাসে ৫৬৯ দশমিক ৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতের স্থলে ৩৬৪ দশমিক ৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়। জুনে ৮১৮ দশমিক ৪ মিলিমিটারের স্থলে ৬৭০ দশমিক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়।

ফেনীর হাসপাতালে বাড়ছে রোগীর চাপ, দেখা দিয়েছে অক্সিজেন সংকট
                                  

ফেনী প্রতিনিধি :
ফেনী ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে অক্সিজেনের চাহিদাও। হাসপাতালে অক্সিজেনের চাহিদা মেটাতে হিমশিম খাচ্ছেন হাসপাতাল সংশ্লিষ্টরা। গত দুই মাস আগেও জেলা সদর হাসপাতালে যে পরিমাণ অক্সিজেনের চাহিদা ছিল, এখন করোনায় আক্রান্ত রোগী বেড়ে যাওয়ায় চাহিদা চার গুণ বেড়েছে।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, মঙ্গলবার পর্যন্ত ৩০ শয্যার বিপরীতে হাসপাতালে ১শ’ ৫ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন। আইসিইউতে ১০টি শয্যার সবকটিতে রোগী রয়েছে। সবমিলিয়ে ৭৭ জনকে অক্সিজেন দেয়া হচ্ছে।আরটিপিসিআর ল্যাবের পরীক্ষায় ৩৭ জন পজেটিভ রোগীই ভর্তি রয়েছে। সূত্র আরো জানায়, ভর্তি রোগীদের ৪শ’ সিলিন্ডারে অক্সিজেন দেয়া হবে। এর মধ্যে ১৩শ’ লিটারের ৩২০টি ও ৬ হাজার ৮শ’ লিটারের সিলিন্ডার রয়েছে।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: ইকবাল হোসেন ভূঞা  জানান, যে হারে রোগী বাড়ছে, তা অব্যাহত থাকলে সরবরাহে সংকট দিন দিন তীব্র থেকে তীব্রতর হবে এবং পরিস্থিতি জটিল আকার ধারণ করতে পারে। তিনি আরো জানান, শ্বাসকষ্টের যেসব রোগীদের প্রতিমিনিটে ৪০-৪৫ লিটার প্রয়োজন অক্সিজেন সংকটের কারনে ১৫ লিটার দেয়া হচ্ছে। চাহিদানুযায়ী অক্সিজেন দিতে পারলে অনেক রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

ফেনী শহরে করোনা রোগীদের জন্য অক্সিজেন সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান রানা ট্রেডার্সের মালিক দিলদার হোসেন রানা জানান, গত একমাস আগেও প্রতিদিন ৫০-৬০টি সিলিন্ডার ভর্তি অক্সিজেন বিক্রি হতো। এখন প্রতিদিন দুইশটির মতো সিলিন্ডার বিক্রি হচ্ছে। এদিকে ইউনিসেফ এর অর্থায়নে হাসপাতালে ১১ হাজার লিটার ধারণক্ষমতাসম্পন্ন তরল অক্সিজেন সংরক্ষণের ট্যাংক  নির্মাণ করা হয়েছে। আগামী সপ্তাহের মধ্যে সেটি উদ্বোধন করা হবে বলে জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ।

জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির আহবায়ক ও জেলা প্রশাসক আবু সেলিম মাহমুদ উল হাসান বলেন, জেলায় করোনা রোগীদের জন্য অক্সিজেনের সংকট খুব দ্রুত সময়ে কেটে যাবে। এ লক্ষ্যে জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ যৌথভাবে  কাজ করছে।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ঘন্টায় ১শ’ ৭৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৯৮ জনের শনাক্ত হয়েছে। ফেনী জেলায় এখন পর্যন্ত ৫ হাজার ৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। মোট সুস্থ হয়েছেন ৪০০৯ জন। করোনায় মোট মারা গেছেন সিভিল সার্জন ডা: সাজ্জাদ হোসেনসহ ৮০ জন।

বরিশালে রিমান্ডে নারী নির্যাতন, মেডিকেল রিপোর্টে মেলেনি আলামত
                                  

বরিশাল ব্যুরো :

বরিশালের উজিরপুর মডেল থানায় হত্যা মামলার নারী আসামিকে রিমান্ডে নিয়ে শারীরিক এবং যৌন নির্যাতনের ঘটনার অভিযোগ উঠে। এ ঘটনায় ইতোমধ্যে থানার দুই ওসিকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। পাশাপাশি একজন সার্কেল এএসপি এবং থানার ওসিসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলাও করেছেন ওই নারী।

এছাড়া অভিযোগ ওঠা পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত চলছে। ঠিক সেই মুহুর্তে নারী আসামি মিনতি বিশ্বাস ওরফে মিতু অধিকারীকে রিমান্ডে নিয়ে যৌন নির্যাতনের ঘটনাটি ভিন্ন দিকে মোড় নিতে শুরু করেছে। ওই নারীর করা শারিরিক ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগের সত্যতা মেলেনি মেডিকেল রিপোর্টে। এমনকি আঘাতের যে চিহ্ন দেখা গেছে তাও অনেক পুরানো বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই রিপোর্টে।

বরিশাল শেবাচিম হাসপাতাল থেকে গত ৩ জুলাই আদালত এবং পুলিশের কাছে পাঠানো মেডিকেল রিপোর্ট থেকে বুধবার দুপুরে এ তথ্য জানা গেছে। ওই হাসপাতালের গাইনী বিভাগের ইউনিট-২ এর একজন নারী ইন্ডোর মেডিকেল অফিসার এ মেডিকেল রিপোর্ট তৈরি করেছেন।

তবে মেডিকেল রিপোর্টে কি আছে বিষয়টি সম্পর্কে অবগত নন বলে দাবি করেছেন শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ এইচএম সাইফুল ইসলাম। তাছাড়া ঘটনাটি বিচার এবং তদন্তাধীন থাকায় এ নিয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

সূত্রমতে, শেবাচিম হাসপাতাল থেকে পাঠানো তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে মিনতি বিশ্বাস ওরফে মিতু অধিকারীর দুই কনুই, গোড়ালিসহ ছয়টি স্থানে ছয় থেকে আটটি আঘাত রয়েছে। তবে সবগুলোই অনেক পুরনো আঘাত। সবমিলিয়ে আঘাতের গুরুত্ব সিম্পল (নরমাল) বলে মেডিকেল রিপোর্টে উল্লেখ করেছেন চিকিৎসক।

মেডিকেল রিপোর্টের বিষয়ে শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ এইচএম সাইফুল ইসলাম বলেন, আদালত নির্দেশে দিয়েছে একজন নারী চিকিৎসক দিয়ে ওই ভিকটিমের পরীক্ষা করে ২৪ ঘন্টার মধ্যে রিপোর্ট দিতে। নির্দেশনা অনুযায়ী নারী চিকিৎসক দিয়ে পরীক্ষা করা হয়েছে। ওই চিকিৎসক মেডিকেল রিপোর্ট খামে ভরে আমাকে দিয়ে গেছেন। তিনি যেভাবে দিয়েছেন সেভাবেই আদালতে পাঠিয়েছি। সুতরাং রিপোর্টে কি আছে সেটা আমার দেখার সুযোগ হয়নি।

এ ব্যাপারে বরিশাল জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ শাহজাহান হোসেন বলেন, একজনের নামে অভিযোগ আসতেই পারে। কিন্তু সব অভিযোগ কি সত্য হয়? অবশ্যই অভিযোগের প্রমাণ থাকতে হয়। তারপরেও উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশে উজিরপুরের দুই ওসিকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। একজন এএসপি এবং দু’জন ওসিসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ডিআইজি কার্যালয় থেকে পুরো ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে। পাশাপাশি এ ঘটনায় বিভাগীয় মামলা হয়েছে। আশা করছি সুষ্ঠু তদন্তে সবকিছু পরিস্কার হয়ে যাবে। তিনি আরও বলেন, আমাদের কোন অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা মিললে অবশ্যই তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ইতিপূর্বে মিতু অধিকারীর আরও দু’জন স্বামী ছিলো। কিন্তু তাদের সাথে মিতুর কোন যোগাযোগ নেই। মিতু বাবা ও মায়ের পরিবার ছেড়ে জামবাড়ি গ্রামে পাঁচশ’ টাকায় ঘর ভাড়া নিয়ে একা বসবাস করেন। বাসুদেব চক্রবর্তী নামের যাকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার সাথে দীর্ঘদিন থেকে মিতুর পরকীয়ার সম্পর্ক চলে আসছিল। বাসুদেব ট্রাক চালক ছিলেন। পরকীয়ার সূত্র ধরে বাসুদেবের কাছ থেকে মিতু বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নেয়। সম্প্রতি বাসুদেব ট্রাক চালোনার কাজ ছেড়ে দেন। এরপর থেকেই তাদের দু’জনের মধ্যে সম্পর্কের দূরত্ব সৃষ্টি হয়।

সূত্রমতে, গত ২৬ জুন উজিরপুর উপজেলার জামবাড়ি এলাকার পরকীয়া প্রেমিকা মিতুর ভাড়াটিয়া বাসার পাশ থেকে বাসুদেব চক্রবর্তীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় বাসুদেবের ভাই বরুন চক্রবর্তী বাদী হয়ে ২৭ জুন উজিরপুর মডেল থানায় নিহতের পরকীয়া প্রেমিকা মিনতি বিশ্বাস মিতুকে একমাত্র আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। ২৮ জুন থানা পুলিশ মিতুকে গ্রেফতার করে। ২৯ জুন পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বরিশালের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট উজিরপুর আমলী আদালত মিতুকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ড শেষে গত ২ জুলাই মিতুকে আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উজিরপুর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মাইনুল ইসলাম।

আদালতে দাঁড়িয়ে বিচারকের কাছে পুলিশের বিরুদ্ধে শারিরিক ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ করেন মিতু অধিকারী। আদালতের বিচারক মিতুর অভিযোগ শুনে তাকে যথাযথ চিকিৎসা প্রদান এবং নির্যাতনের বিষয়ে ২৪ ঘন্টার মধ্যে মেডিকেল প্রতিবেদন দিতে বলেন শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালককে।

প্রশাসনের কঠোর নজরদারিতে মানিকগঞ্জে লকডাউন চলছে
                                  

মানিকগঞ্জ  প্রতিনিধি :
সারাদেশে উদ্বেগজনক হারে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় চলছে বিশেষ ধাপে কঠোর লকডাউন। প্রশাসন কঠোর অবস্থানের মধ্য দিয়ে ৭ দিনের লকডাউনের আজ চলছে চতুর্থ দিন। মানিকগঞ্জে  প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের মধ্য দিয়ে চলছে লকডাউন।

জেলার প্রধান মার্কেটগুলো সকাল থেকেই লকডাউনের কারণে বন্ধ রয়েছে। তবে খোলা রয়েছে কাঁচাবাজার, ওষুধের দোকানসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীর দোকান।

পাশাপাশি লকডাউন বাস্তবায়নে  জেলার বিভিন্ন উপজেলা এলাকায় প্রশাসন কঠোর অবস্থান নিয়েছে। যানবাহন ও মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রিত করতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হচ্ছে। অন্যদিকে মানিকগঞ্জ শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে পুলিশ কাজ করছেন।

আজ রবিবার (০৪ জুলাই) সকালের দিকে সরেজমিনে দেখা গেছে, এলাকার কিছু মানুষ নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনাকাটা করতে বের হয়েছে। কিছু রিকশা ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল করতে দেখা গেছে। তবে যাত্রীবাহী বাস ও বড় সব যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম বলেন, করোনা সংক্রমণ রোধে জেলার বিভিন্ন পয়েন্টে বাসকল-সহ পুলিশের কঠোর অবস্থানে রয়েছে। আমাদের টহল অব্যাহত আছে এবং থাকবে। আর রাস্তায় প্রয়োজন ছাড়া কোন গাড়ি চলতে দেওয়া হচ্ছে না।


   Page 1 of 50
     নগর - মহানগর
করোনা রোগীদের সেবায় ফ্রি অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্ভোধন করলেন মেয়র মহিউদ্দিন
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুর নামে ১০টি পশু কোরবানী করবেন কুয়াকাটা পৌর মেয়র
.............................................................................................
শ্রীমঙ্গলে আশ্রায়ণ প্রকল্প নিয়ে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবী
.............................................................................................
ফেনীতে চালু হল অনলাইন পশুর হাট
.............................................................................................
নোয়াখালীতে শেখ রাসেল অক্সিজেন ব্যাংকের উদ্বোধন
.............................................................................................
শেবাচিমের ১৫ নার্সকে শোকজ
.............................................................................................
শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণে গণটিকা কার্যক্রম সম্ভব হয়েছে: মসিক মেয়র
.............................................................................................
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদক ব্যবসায়ী ছাত্রলীগ নেতা হৃদয়ের আতঙ্কে এলাকাবাসী
.............................................................................................
ভবনে জমে থাকা পানিতে এডিস মশার লার্ভা; মসিকের জরিমানা
.............................................................................................
শেবাচিমে করোনায় ১৩ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ৬৫.৮২
.............................................................................................
শেবাচিমে সাধারণ রোগীদের আসতে নিষেধাজ্ঞা
.............................................................................................
করোনার মধ্যেও শরীয়তপুরের আবাসিক হোটেলে চলছে অনৈতিক কর্মকান্ড
.............................................................................................
বৃষ্টির রাজধানী সিলেট; বছরের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে আজ
.............................................................................................
ফেনীর হাসপাতালে বাড়ছে রোগীর চাপ, দেখা দিয়েছে অক্সিজেন সংকট
.............................................................................................
বরিশালে রিমান্ডে নারী নির্যাতন, মেডিকেল রিপোর্টে মেলেনি আলামত
.............................................................................................
প্রশাসনের কঠোর নজরদারিতে মানিকগঞ্জে লকডাউন চলছে
.............................................................................................
করোনায় ঋণগ্রস্থ লেখক বিক্রি করতে চান নিজের কিডনি!
.............................................................................................
কুষ্টিয়ার মানবিক চিকিৎসক করোনাযোদ্ধা ডাঃ তাপস কুমার সরকার
.............................................................................................
মাদারীপুরে ঢিলেঢালা লকডাউন: স্বাস্থ্যবিধি মানছে না মানুষ
.............................................................................................
অসহায় ৩ পরিবারকে সেলাই মেশিন দিল শুভসংঘ
.............................................................................................
বরগুনায় নদীতে আবর্জনা ফেলার প্রতিবাদে মানববন্ধন
.............................................................................................
পটুয়াখালীতে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে সাংবাদিক ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা
.............................................................................................
সিসি ক্যামেরার আওতায় আসছে সিরাজগঞ্জ শহর
.............................................................................................
কারাগারে হেফাজত নেতা মাওলানা ইকবালের মৃত্যু
.............................................................................................
রোজিনাকে হেনস্থাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি কুষ্টিয়ার সাংবাদিকদের
.............................................................................................
ফিলিস্তিনিদের উপর হামলার প্রতিবাদে ঝিনাইদহে মানববন্ধন
.............................................................................................
বিনামুল্যে অক্সিজেন পাবে ঝিনাইদহ পৌরবাসী
.............................................................................................
নারায়ণগঞ্জে দগ্ধ পরিবারের পাশে লিপি ওসমান
.............................................................................................
গণপরিবহন চালুর দাবিতে খুলনায় বিক্ষোভ
.............................................................................................
খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় বগুড়ায় বিএনপির দোয়া মাহফিল
.............................................................................................
ঝিনাইদহে লকডাউনে ১০ হাজার কর্মহীন পরিবারের মাঝে এমপির উপহার বিতরণ
.............................................................................................
বাগেরহাটে সাংবাদিকদের সাথে জেলা প্রশাসকের মত বিনিময়
.............................................................................................
বরিশালে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ
.............................................................................................
ঝিনাইদহ জেলা শহরে কঠোর লকডাউন; উপজেলা শহরে ঢিলেঢালা ভাব
.............................................................................................
বগুড়া পৌর সভার প্যানেল মেয়র হলেন পরিমল, আলহাজ্ব ও শিরিন
.............................................................................................
স্বাস্থবিধি মেনে না মানায় সিরাজগঞ্জে ৯০ জনকে জরিমানা
.............................................................................................
টাঙ্গাইল কালচারাল অফিসার হত্যার প্রতিবাদে ঝিনাইদহে মানববন্ধন
.............................................................................................
বগুড়ায় স্বাধীনতা দিবস পালিত: ১৩ হাজার ৫’শ বর্গফুটের পতাকা প্রদর্শন
.............................................................................................
গণহত্যা দিবস উপলক্ষে বরিশাল বিসিক শিল্প মালিক সমিতির আলোচনা সভা
.............................................................................................
টঙ্গীতে ঝুট গুদামে ভয়াবহ আগুন, ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা
.............................................................................................
সৌদি আগ্রাসনে ইয়েমেনে ৫ শতাধিক চিকিৎসাকেন্দ্র ধ্বংস
.............................................................................................
গাজীপুরে সেফহোম থেকে ১৪ কিশোরী পালিয়েছে
.............................................................................................
আখাউড়ায় ট্রেনে কাটা পড়ে যুবক নিহত
.............................................................................................
দ.কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিলেন
.............................................................................................
পাহাড়ি মাটির নিচে মিলল ১৯৪৭ সালের মর্টারশেল
.............................................................................................
মামা বাড়ী বেড়াতে গিয়ে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
.............................................................................................
বিসিকের নতুন মালিক সমিতির কমিটিকে স্বাগত জানাল শিল্প মালিকরা; পুরাতন কমিটির দুর্নীতি তদন্তের দাবি
.............................................................................................
কুষ্টিয়ায় নয়ন জোয়ার্দ্দারকে আটক নিয়ে পুলিশের প্রেস ব্রিফিংয়ে হট্টগোল
.............................................................................................
বসুরহাটে ১৪৪ ধারা জারি
.............................................................................................
ভিপি মিরু হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন ও শোক র‌্যালি
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT