শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   আন্তর্জাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ইরানি বিজ্ঞানী হত্যায় ইসরাইলের হাত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করলেন ট্রাম্প

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের শীর্ষস্থানীয় পদার্থবিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদে’র হত্যাকাণ্ডে কুখ্যাত ইহুদিবাদী গোয়েন্দা সংস্থা- মোসাদের হাত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে একজন ইসরাইলি সাংবাদিকের একটি পোস্ট রিটুইট করে ইরানি বিজ্ঞানী হত্যায় তেল আবিবের হাত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ইরানের বিশিষ্ট পদার্থবিজ্ঞানী এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের গবেষণা ও উদ্ভাবন বিষয়ক সংস্থার চেয়ারম্যান মোহসেন ফাখরিজাদে গতকাল (শুক্রবার) বিকেলে রাজধানী তেহরানের অদূরে এক নৃশংস সন্ত্রাসী হামলায় শাহাদাতবরণ করেন।

এ সম্পর্কে ট্রাম্পের রিটুইটে বলা হয়েছে, “ফাখরিজাদে’কে ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা (মোসাদ) বহু বছর ধরে হত্যার চেষ্টা করছিল।”

এছাড়া, ট্রাম্প নিজে এক টুইটার বার্তায় মোহসেন ফাখরিজাদেকে তার ভাষায় ইরানের ‘পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি’র কারিগর বলেও দাবি করেছেন। ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান সব সময় নিজের পরমাণু কর্মসূচিকে বেসামরিক হিসেবে উল্লেখ করে বলেছে, পরমাণু অস্ত্র তৈরির কোনো পরিকল্পনা তেহরানের নেই।

এদিকে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ তার অফিসিয়াল টুইটার পেজে লিখেছেন, ইরানি পদার্থবিজ্ঞানীর কাপুরুষোচিত হত্যাকাণ্ডে ইসরাইলের হাত থাকার যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে এবং এই ঘটনায় বোঝা যায়, যারা এ হত্যাকাণ্ড চালিয়েছে তারা নিজেদের অসহায়ত্বের কারণে একটা যুদ্ধ বাধানোর চেষ্টা করছে। তিনি আন্তর্জাতিক সমাজ বিশেষ করে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে তাদের নির্লজ্জ দ্বৈত নীতি পরিহার করে এই ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানানোর আহ্বান জানান। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

ইরানি বিজ্ঞানী হত্যায় ইসরাইলের হাত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করলেন ট্রাম্প
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের শীর্ষস্থানীয় পদার্থবিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদে’র হত্যাকাণ্ডে কুখ্যাত ইহুদিবাদী গোয়েন্দা সংস্থা- মোসাদের হাত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে একজন ইসরাইলি সাংবাদিকের একটি পোস্ট রিটুইট করে ইরানি বিজ্ঞানী হত্যায় তেল আবিবের হাত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ইরানের বিশিষ্ট পদার্থবিজ্ঞানী এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের গবেষণা ও উদ্ভাবন বিষয়ক সংস্থার চেয়ারম্যান মোহসেন ফাখরিজাদে গতকাল (শুক্রবার) বিকেলে রাজধানী তেহরানের অদূরে এক নৃশংস সন্ত্রাসী হামলায় শাহাদাতবরণ করেন।

এ সম্পর্কে ট্রাম্পের রিটুইটে বলা হয়েছে, “ফাখরিজাদে’কে ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা (মোসাদ) বহু বছর ধরে হত্যার চেষ্টা করছিল।”

এছাড়া, ট্রাম্প নিজে এক টুইটার বার্তায় মোহসেন ফাখরিজাদেকে তার ভাষায় ইরানের ‘পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি’র কারিগর বলেও দাবি করেছেন। ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান সব সময় নিজের পরমাণু কর্মসূচিকে বেসামরিক হিসেবে উল্লেখ করে বলেছে, পরমাণু অস্ত্র তৈরির কোনো পরিকল্পনা তেহরানের নেই।

এদিকে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ তার অফিসিয়াল টুইটার পেজে লিখেছেন, ইরানি পদার্থবিজ্ঞানীর কাপুরুষোচিত হত্যাকাণ্ডে ইসরাইলের হাত থাকার যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে এবং এই ঘটনায় বোঝা যায়, যারা এ হত্যাকাণ্ড চালিয়েছে তারা নিজেদের অসহায়ত্বের কারণে একটা যুদ্ধ বাধানোর চেষ্টা করছে। তিনি আন্তর্জাতিক সমাজ বিশেষ করে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে তাদের নির্লজ্জ দ্বৈত নীতি পরিহার করে এই ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানানোর আহ্বান জানান। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

পরমাণু বিজ্ঞানী হত্যার বদলা নেবে ইরান
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী মহসেন ফকিরজাদেহ হত্যার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বদলা নেওয়ার অঙ্গীকার করেছে ইরান। এই হত্যাকাণ্ডের জন্য ইসরায়েলকে দায়ী করছে তেহরান।

বিবিসি জানিয়েছে, দামাভান্দ এলাকার আবজার্দে এ পরমাণু বিজ্ঞানীর বহনকারী গাড়ি লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা।হামলায় আহত মহসেনকে হাসপাতালে নিয়ে গেলেও বাঁচানো যায়নি।

এই হামলার ঘটনায় বজ্রের শক্তিতে হামলাকারীদের পাল্টা আঘাত করার অঙ্গীকার করেছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনির সামরিক উপদেষ্টা হোসেইন দেহাগান।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভাদ জারিফ হত্যাকাণ্ডের জন্য ইসরায়েলকে দায়ী করে এই হামলার নিন্দা জানানোর জন্য বিশ্বকে আহ্বান জানিয়েছেন। টুইটারে জারিফ লিখেছেন, সন্ত্রাসীরা প্রখ্যাত এক ইরানি বিজ্ঞানীকে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় ইসরায়েলের হাত রয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এদিকে, ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানী হত্যায় ইসরায়েলের হাত রয়েছে বলে তেহরান অভিযোগ করলেও এ প্রসঙ্গে ইসরায়েল কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

পরমাণু বিজ্ঞানী ফকিরজাদেহ এমন এক সময়ে হত্যার শিকার হয়েছেন- যখন ইরান পরমাণু অস্ত্র তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় সমৃদ্ধকৃত ইউরেনিয়ামের মজুদ বাড়াচ্ছে দাবি করে উদ্বেগ প্রকাশ করছে কয়েকটি পশ্চিমা দেশ। অবশ্য ইরান বারবারই বলে আসছে তাদের পরমাণু কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ।

উল্লেখ্য, ২০১০ সাল থেকে ২০১২ সালের মধ্যে ইরানের চার পরমাণু বিজ্ঞানী হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন। তেহরান এসব হত্যাকাণ্ডে ইসরায়েল জড়িত বলে অভিযোগ করে আসছে।

স্বাধীন বাংলা/এআর

অ্যান্টি-ব্যালিস্টিক মিসাইলের পরীক্ষা চালাল রাশিয়া, আঘাত হানতে পারে মহাকাশের উপগ্রহে
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : রাশিয়া সফলতার সঙ্গে একটি অ্যান্টি-ব্যালিস্টিক মিসাইল সিস্টেমের পরীক্ষা চালিয়েছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার এ ঘোষণা দিয়েছে।

পশ্চিমা গণমাধ্যম দাবি করছে যে, রাশিয়ার এই ক্ষেপণাস্ত্র পশ্চিমা দেশগুলোর উপগ্রহ ধ্বংস করতে সক্ষম।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, এই অ্যান্টি ব্যালেস্টিক মিসাইল সিস্টেম এরইমধ্যে রাশিয়ায় অ্যারোস্পেস ফোর্স ব্যবহার শুরু করেছে।

রাশিয়ার ফার্স্ট আর্মি অব স্পেশাল এয়ার অ্যান্ড অ্যান্টি-ব্যালিস্টিক মিসাইল ডিফেন্সের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল আন্দ্রে দেমিন জানান, এই অ্যান্টি ব্যালেস্টিক মিসাইল সিস্টেমে ক্ষেপণাস্ত্রের বৈশিষ্ট্যই রয়েছে এবং পরীক্ষার সময় একই সঙ্গে তা কয়েকটি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম হয়।

অন্য এক রিপোর্টে জানানো হচ্ছে যে, এই মিসাইল সিস্টেম ঘণ্টায় ছয় হাজার মাইল পথ পাড়ি দিতে পারবে। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

কাশ্মীর সীমান্তে পাকিস্তানী বাহিনীর গুলিতে ২ ভারতীয় সৈন্য নিহত
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
বিরোধপূর্ণ জম্মু-কাশ্মির সীমান্তে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর গুলিবর্ষণে ২ ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন জম্মু ভিত্তিক প্রতিরক্ষা মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল দেবেন্দর আনন্দ। আজ শুক্রবার তিনি এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, রাজৌরি জেলার সুন্দেরবানী সেক্টরে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী অস্ত্রবিরতি চুক্তি লংঘন করে গুলিবর্ষণ করলে নায়েক প্রেম বাহাদুর খতরি এবং রাইফেল ম্যান সুখবীর সিং নামে দু’জন ভারতীয় সেনা নিহত হন।

তবে ভারতীয় সেনারা পাল্টা এবং যথোপযুক্ত জবাব দিয়েছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

এরআগে, গতকাল বৃহস্পতিবার পাকিস্তানী সেনাবাহিনী কিরনি, কসবা, দিগওয়ার, মালটি ও দালান সেক্টরে সামরিক চৌকি ও বেসামরিক আবাসিক এলাকা টার্গেট করে হালকা ও বড় অস্ত্রের সাহায্যে ব্যাপক গোলাগুলিবর্ষণ করে। পাক বাহিনীর গোলাগুলিতে কিরনির সেক্টরে সেনাবাহিনীর সুবেদার পদমর্যাদার স্বতন্ত্র সিং এবং একজন বেসামরিক ব্যক্তি গুরুতর আহত হন। আহত সেনা কর্মকর্তাকে উধমপুর কমান্ড হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

সূত্র : পার্সটুডে

সন্ত্রাসী হামলায় ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানী ‘মোহসিন’ নিহত
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
গুপ্ত সন্ত্রাসী হামলায় ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানী ও ‘ইরানের বোমার জনক’ খ্যাত মোহসিন ফখরিজাদেহ নিহত হয়েছেন। শুক্রবার রাজধানী তেহরানের পূর্বাঞ্চলে এ ঘটনা ঘটেছে বলে দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন নিশ্চিত করেছে। সংবাদ সংস্থা ফার্স জানিয়েছে, বিজ্ঞানী মহসিন ফখরিজাদেহকে তেহরান থেকে কিছুটা উত্তরের ছোট শহর আবজার্দে হত্যা করা হয়েছে।

এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি।

 

দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুহাম্মাদ জাভেদ জারিফ এ হামলাকে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসী হামলা বলে উল্লেখ্য করেছেন।

নিরাপত্তা কর্মীদের বরাতে তেহরানের আধা সরকারি সংবাদ সংস্থা তাসনিম জানিয়েছে, সন্ত্রাসীরা প্রথমে গুলি করে পরে গাড়িতে বিস্ফোরণ ঘটায়।  

ইরানের সশস্ত্র বাহিনী বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘দুর্ভাগ্যবশত, চিকিৎসক দল তাকে বাঁচাতে পারলো না। বছরের পর বছর নিজের কাজ আর সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়া বিজ্ঞানী ও তার ম্যানেজার কয়েক মিনিট আগে শহীদ হন।’

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদ মাধ্যম ইরনা জানিয়েছে, হামলায় তার নিরাপত্তায় থাকা কর্মীরাও আহত হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

.... আল-জাজিরা জানাচ্ছে, মহসিন ফখরিজাদেহের হত্যা নিয়ে মন্তব্য করেনি ইসরায়েল। তবে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু একবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন, ‘তার (মহসিন) নামটি মনে রাখবেন।’

এক দশক ধরে ইরানের শীর্ষস্থানীয় পরমাণু বিজ্ঞানীদের ‘টার্গেট কিলিংয়ের’ জন্য অভিযুক্ত ইসরায়েল। নিজেরা গোপনে পারমাণবিক অস্ত্রের মজুত করলেও ইরানের সেই সক্ষমতা অর্জনকে হুমকি হিসেবে দেখে দেশটি। ২০১০ থেকে ২০১২ এই দুই বছরে ইরানের চারজন শীর্ষস্থানীয় পরমাণু বিজ্ঞানীকে হত্যা করা হয়। ইরানের অভিযোগ পশ্চিমাদের মদদে ইসরায়েলের গোপন ঘাতক বাহিনী তাদেরকে হত্যা করেছে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি ভোরে ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে দু’টি গাড়িতে হেলিকপ্টার থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে ইরানের কুদস ব্রিগেডের কমান্ডার মেজর জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যা করে মার্কিন সেনারা।

ইসরাইলি অবরোধের কারণে গাজার ক্ষতি হয়েছে ১,৭০০ কোটি ডলার: জাতিসংঘ
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার ওপর ২০০৭ সালে ইহুদিবাদী ইসরাইল কঠোর অবরোধ আরোপ করার পর থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ১,৭০০ কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে।

জাতিসংঘ কনফারেন্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বা আঙ্কটাডের এক রিপোর্টে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আঙ্কটাডের গ্লোবালাইজেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ-এর পরিচালক রিচার্ড কজুল রাইট বলেন, অন্য কোন কিছুর দিকে তাকানোর সময় নেই বরং গাজার মানুষের জন্য উন্নয়ন হওয়াটা জরুরি।

ইহুদিবাদী ইসরাইল গাজার ওপর ২০০৭ সাল থেকে সর্বাত্মক অবরোধ আরোপ করে এবং ২০০৮ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৩টি যুদ্ধ পরিচালনা করেছে। ইহুদিবাদী ইসরাইলের সামরিক আগ্রাসন এবং অবরোধের কারণে গাজার দারিদ্র্য বেড়েছে স্বাভাবিক অবস্থার চেয়ে অন্তত চার গুণ।
গাজার ওপর ইসরাইলের আগ্রাসন

আঙ্কটাডের রিপোর্ট অনুযায়ী, সারাবিশ্বে সবচেয়ে খারাপ অর্থনীতির ভেতরে রয়েছে গাজা। পাশাপাশি ইহুদিবাদী ইসরাইল সামরিক আগ্রাসন চালানোর সময় গাজা উপত্যকার বেসামরিক জনগণকে যেমন হত্যা করেছে তেমনি বেসামরিক স্থাপনা এবং হাজার হাজার কারখানা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ওপর বোমা হামলা চালিয়েছে।

ইসরাইলি অবরোধ এবং আগ্রাসনের কারণে যে ক্ষতির রিপোর্ট তুলে ধরা হয়েছে তা প্রকৃতপক্ষে পূর্ণাঙ্গ চিত্র নয় বরং একটি অংশমাত্র। এতে শুধুমাত্র অর্থনৈতিক ক্ষতির দিকটি তুলে আনা হয়েছে। কিন্তু সামরিক আগ্রাসন এবং অবরোধের কারণে আরো যে সমস্ত ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তার অর্থ হলো অনেক বেশি। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

পারস্য উপসাগরে বিশাল মহড়া চালালো ইরান
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : ইরানের ইসলামি বিপ্লব গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বাসিজ পারস্য উপসাগরীয় উপকূলবর্তী অঞ্চলএবং কৌশলগত দিক দিয়ে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হরমুজ প্রণালী এলাকায় বিশাল নৌ মহড়া চালিয়েছে।

গতকাল (বৃহস্পতিবার) বাসিজ মহড়া চালায় এবং এতে আইআরজিসি’র নৌ শাখার কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল আলিরেজা তাংসিরি উপস্থিত ছিলেন। মহড়ায় বাসিজের যোদ্ধারা এক হাজারের বেশি হালকা এবং মধ্যমমানের ভারী নৌযান ব্যবহার করেন।

ইরানে ‘জাতীয় বাসিজ সপ্তাহ’ উদযাপনের শেষ দিনে পারস্য উপসাগরে এই মহড়া চালানো হয়। এর মাধ্যমে বাসিজ স্বেচ্ছাসেবীদের নৌযুদ্ধের প্রস্তুতি জোরদার হলো।

১৯৭৯ সালে ইরানের ইসলামি বিপ্লব বিজয় লাভ করার পর বিপ্লবের প্রতিষ্ঠাতা আয়াতুল্লাহ খোমেনির নির্দেশে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বাসিজ প্রতিষ্ঠা করা হয়। সংগঠনটি ইরানের তৃণমূল পর্যায়ের জনগণের মধ্যে ঐক্য এবং সমন্বয় ধরে রাখার কাজ করে। এছাড়া বিপ্লবের আদর্শ রক্ষার ক্ষেত্রে দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠানগুলোকে গুরুত্বপূর্ণ সমর্থন দিয়ে আসছে।

গতকালের বাসিজের মহড়া সর্ম্পকে রিয়ার অ্যাডমিরাল আলী রেজা তাংসিরি বলেন, মহড়ার মাধ্যমে আঞ্চলিক দেশগুলোর কাছে শান্তি, বন্ধুত্ব এবং টেকসই নিরাপত্তার বার্তা দেয়া হয়েছে। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীনবাংলা/জ উ আহমাদ

কুয়েতে ফের ২০ হাজার বাংলাদেশির বৈধতা পাবার সুযোগ
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : খনিজ তেলসমৃদ্ধ মধ্যপ্রাচ্যের ধনী দেশ কুয়েত সরকার শর্ত সাপেক্ষে আবারো ২০ হাজার বাংলাদেশীসহ লক্ষাধিক অবৈধ বিদেশী শ্রমিককে বৈধতা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। সরকার নির্ধারিত জরিমানা পরিশোধ করে আগামী ১ থেকে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে আকামা নবায়ন কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে।

ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কাসহ বিভিন্ন দেশের লক্ষাধিক অবৈধ বিদেশী শ্রমিক কুয়েতে অবস্থান করছে। এর মধ্যে বাংলাদেশীর সংখ্যা কম করে হলেও ২০ হাজার হবে।

কুয়েত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে গত মঙ্গলবার দেশটির ইংরেজি দৈনিক কুয়েত টাইমসের প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি বছরের ১ জানুয়ারি অথবা তার আগে যেসব বাংলাদেশিসহ বিদেশি কর্মী অবৈধ হয়েছেন তাদের জন্যই দ্বিতীয় দফা সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছে কুয়েত সরকার।

করোনা মহামারী শুরু হওয়ার আগে কুয়েত সরকার প্রথমবার অবৈধ বিদেশি অভিবাসীদের জন্য সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছিল। এরপর দ্বিতীয় দফা মঙ্গলবার আবারো বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কা, ফিলিপাইনসহ শ্রমবান্ধব দেশগুলোর অবৈধ শ্রমিকদের জন্য সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছে।

অবৈধ শ্রমিকদের অবস্থানের মেয়াদ ছয় মাস থেকে দুই বছর বা তারো বেশি সময় যদি হয়ে থাকে, সেই ক্ষেত্রে সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতর একজন কর্মীর জরিমানা সর্বোচ্চ এক লাখ ৬২ হাজার টাকা (৬০০ দিনার) নির্ধারণ করেছে। তবে যাদের মেয়াদ কম তাদের ক্ষেত্রে প্রতিদিন দুই দিনার করে (এক দিনার ২৭০ টাকা) জরিমানা আদায় করার নিয়ম করা হয়েছে। যার যতদিন হবে তাকে তত দিনই দুই দিনার করে জরিমানার অর্থ জমা দিয়ে বৈধ হতে হবে।

অনেক সময় মামলা জটিলতার কারণে কোম্পানির মালিকরাই কর্মীদের আকামা নবায়ন করান না। ১ ডিসেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে অবৈধ কর্মীদের বৈধতার সুযোগ দেয়া হয়েছে। এরপরও যারা সুযোগ নিতে পারবেন না তারা পরে পুলিশি অভিযানে ধরা পড়লে তাদের প্রথমে কুয়েতের কারাগারে নেয়া হবে। জেল জরিমানার পর তাদের দেশে ফেরত পাঠাবে সরকার। ওই কর্মী যাতে আর কোনো দিন কুয়েতে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য বিমানবন্দরে ফিঙ্গারপ্রিন্ট রেখে দেয়াসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের কথা প্রকাশিত ওই সংবাদে উল্লেখ করা হয়েছে।

এ দিকে কুয়েতে যেসব শ্রমিক কোম্পানি অথবা মালিকের কাজ বাদ দিয়ে অন্য কোথাও লুকিয়ে কাজ করছেন তাদের পাকড়াও করতে চিরুনি অভিযান শুরু করেছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এর মধ্যে সিটি ও ফাহিল এলাকায় বেশি অভিযান হচ্ছে। ধরপাকড় অভিযানে দিশেহারা হয়ে পড়ছে বৈধ-অবৈধ বাংলাদেশী কর্মীরা। এমনটি জানিয়েছেন সেখানকার প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

স্বাধীনবাংলা/জ উ আহমাদ

এর্দোয়ান-বিদ্রোহীদের যাবজ্জীবন
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এর্দোয়ানের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করার দায়ে ৩৩৭ জন সাবেক সেনা কর্মীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হলো।

তুরস্কের সেনাবাহিনীর একাংশ বিদ্রোহ ঘোষণা করে এর্দোয়ানকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দিতে চেয়েছিল। রাজধানী আঙ্কারার কাছে একটি বিমানঘাঁটির ৫০০ জন বিদ্রোহ করেছিলেন ২০১৬ সালে। কামান, হেলিকপ্টার, যুদ্ধবিমান নিয়ে তাঁরা গুরুত্বপূর্ণ সরকারি প্রতিষ্ঠান দখল করার চেষ্টা করেছিলেন। সেই সংঘর্ষে নিহত হয়েছিলেন ২৫০ জন।

সংবাদসংস্থা এএফপি-র কাছে আদালতের নির্দেশের কপি এসেছে, তাতে দেখা যাচ্ছে এর্দোয়ানকে হঠানোর চক্রান্ত করার জন্য ৩৩৭ জন সাবেক পাইলট ও অন্যদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

সরকারের অভিযোগ ছিল, অ্যামেরিকায় থাকা মুসলিম ধর্মগুরু ও ব্যবসায়ী ফতেউল্লাহ গুলেনের সমর্থকেরা এই বিদ্রোহের পিছনে ছিলেন। মোট ৪৭৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছিল। তার মধ্যে ৩৬৫ জন জেলে আছেন। সরকারি সংবাদসংস্থা জানিয়েছে, যে ৩৩৭ জনের যাবজ্জীবন হয়েছে, তাঁরা ভবিষ্যতে ছাড়া পাবেন না। তাঁদের ক্ষমা করাও যাবে না। এর মধ্যে ২৫ জন এফ ১৬ পাইলটও আছেন। বিমান বাহিনীর সাবেক কম্যান্ডার অ্যাকিন ওজতুর্কের নেতৃত্বে ওই বিদ্রোহ হয়। এর্দোয়ানকে মারার চেষ্টা হয়। সংসদ সহ অন্য সরকারি ভবনে বোমা ফেলা হয়েছিল। সেই সময়ের সেনা প্রধান ও বর্তমানে প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে কয়েক ঘণ্টার জন্য আটক করে রাখা হয়েছিল।

বিদ্রোহ ব্যর্থ হওয়ার পর ব্যাপক ধরপাকড় শুরু হয়। গুলেনের সঙ্গে যুক্ত সন্দেহে দুই লাখ ৯২ হাজার মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়। এক লাখ লোক এখনো জেলে। তাঁদের বিচার চলছে।

আগামী মাস থেকে তুরস্কের বিরুদ্ধে যাতে ইইউ নিষেধাজ্ঞা জারি করে, তার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে ফ্রান্স। কিন্তু গ্রিস ও সাইপ্রাস ছাড়া এখনো বাকি ইইউ দেশগুলি তুরস্কের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারির সমর্থনে সেভাবে এগিয়ে আসেনি।  তুরস্ককে এর আগে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হতে পারে বলে সতর্ক করে দেয়া হয়েছিল। কিন্তু এর্দোয়ান সেই হুমকিকে গুরুত্ব দেননি। এ বার ইইউ পার্লামেন্টে বিষয়টি আলোচনা হবে। এই অবস্থায় ফ্রান্স বলেছে, তুরস্ক সংঘাত না সহযোগিতা কী করতে চায়, তা আগে ঠিক করুক। সূত্র : ডয়চে ভেলে

স্বাধীনবাংলা/জ উ আহমাদ

কূটনৈতিক পথই পরমাণু সমঝোতা রক্ষার একমাত্র উপায়: পাকিস্তান
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : পাকিস্তান বলেছে, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান এবং ছয় জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে ২০১৫ সালে  সমঝোতা সই হয়েছিল তা রক্ষার একমাত্র উপায় হচ্ছে কূটনৈতিক পন্থা অবলম্বন করা। গতকাল (বৃহস্পতিবার) সাপ্তাহিক সংবাদ ব্রিফিংয়ে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জাহিদ হাফিজহ চৌধুরী সাংবাদিকদের কাছে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলে যে উত্তেজনা বিরাজ করছে তা নিরসনের জন্য সংলাপের দৃষ্টিভঙ্গি গ্রহণ করা জরুরি। এক্ষেত্রে ইরানের সঙ্গে অন্য পক্ষগুলোর আলোচনাকে সমর্থন জানায় পাকিস্তান।

জাহিদ চৌধুরী বলেন, “আমরা বিশ্বাস করি আলোচনার মাধ্যমে পরমাণুর সমঝোতা-কেন্দ্রিক সঙ্কটের সমাধান করলে তাতে সর্বোচ্চ ইতিবাচক ফলাফল আসতে পারে। এক্ষেত্রে পাকিস্তান অতীতে মধ্যস্থতার ভূমিকা পালন করেছে এবং চলমান উত্তেজনা নিরসনে আমরা আবারও একই ধরনের ভূমিকা পালন করতে প্রস্তুত রয়েছি।”

এর আগে গত ১৩ নভেম্বর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দেশটির একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, “যদি আমেরিকার নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নেন তাহলে তাতে পাকিস্তানের স্বার্থ রক্ষিত হবে। পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমেরিকা পরমাণু সমঝোতায় ফিরে এলে পাকিস্তান এবং ইরানের মধ্যে বাণিজ্য বাড়ানোর নতুন সুযোগ তৈরি হবে। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীনবাংলা/জ উ আহমাদ

৩ ইরানিকে ফেরত দিয়ে ইসরাইলি গুপ্তচরকে নিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়ার বিমান
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : দখলদার ইসরাইলের গুপ্তচর কাইলি মুর গিলবার্টের মুক্তির বিনিময়ে তিন জন ইরানি ব্যবসায়ী মুক্তি পেয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার একটি বিমান ইরানের তিন নাগরিককে তেহরানে পৌঁছে দেওয়ার পর কাইলি মুর গিলবার্টকে সঙ্গে করে নিয়ে গেছে। কাইলি মুর গিলবার্ট অস্ট্রেলিয়া ও ব্রিটেনের নাগরিক।

তবে কাজ করতেন দখলদার ইসরাইলে গুপ্তচর বাহিনী আমানের হয়ে। ইরানের যে তিনজন নাগরিক মুক্তি পেয়েছেন তাদেরকে নিষেধাজ্ঞা ভেঙে ব্যবসা করার মিথ্যা অভিযোগে আটক করা হয়েছিল।

মুক্তিপ্রাপ্ত ইসরাইলি গুপ্তচর প্রথমে খ্রিষ্টান ধর্মের অনুসারী ছিলেন, পরে তিনি ইহুদিবাদীদের সঙ্গে যোগ দেন। ইসলাম নিয়ে গবেষণার কথা বলে তিনি প্রথমে ইরানে ধর্ম ও মাজহাব বিষয়ক বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে সম্পর্ক গড়েন।

ইরানে প্রথম সফরে তিনি কোনো ধরণের গুপ্তচরবৃত্তি করার চেষ্টা করেননি। কিন্তু পরবর্তীতে তার আসল কাজ শুরু হয়।

ইরানের গোয়েন্দা বাহিনী গবেষকবেশী নারীর লক্ষ্য-উদ্দেশ্য ও তৎপরতা সম্পর্কে বিশদ তথ্য সংগ্রহ করার পর ২০১৮ সালের ২১ সেপ্টেম্বরে তাকে গ্রেপ্তার করে। এরপর আদালতে অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।
দুই বছর কারাভোগের পর ইরান সরকার তাদের তিন নাগরিকের বিনিময়ে তাকে মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতা: একে অপরকে দোষারোপ করছে ভারত-পাকিস্তান
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : পাকিস্তানের অভ্যন্তরের সন্ত্রাসবাদ উস্কে দেয়ার জন্য ভারতকে দায়ী করে জাতিসংঘে একটি অভিযোগপত্র দায়ের করেছে ইসলামাবাদ। সন্ত্রাসবাদে সমর্থন দেয়ার জন্য পাকিস্তানকে অভিযুক্ত করে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে প্রচারপত্র বিলি করার একদিন পর ইসলামাবাদ এই অভিযোগপত্র দায়ের করে।

ভারত যখন আগামী দুই বছরের জন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করতে যাচ্ছে তার আগ মুহূর্তে দেশটির বিরুদ্ধে পাকিস্তান গত মঙ্গলবার সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতা করার জন্য আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আনল। আগামী ১ জানুয়ারি থেকে ভারত জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হিসেবে কাজ করবে।

জাতিসংঘে নিযুক্ত পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি মুনির আকরাম বিশ্ব সংস্থার মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ভারতের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দায়ের করেন এবং তিনি বলেন, পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ভারতের সন্ত্রাসবাদ এবং ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপের বিষয়টি বিশ্বসম্প্রদায়কে বিবেচনায় নিতে হবে। পাশাপাশি ভারত যে অবৈধ এবং আগ্রাসী তৎপরতা চালাচ্ছে সেগুলো প্রতিরোধের ব্যবস্থা করতে হবে। এ সময় তিনি আন্তর্জাতিক আইন, জাতিসংঘ সনদ ও নিরাপত্তা পরিষদে পাস হওয়া বিভিন্ন প্রস্তাব লঙ্ঘনের জন্য ভারতকে অভিযুক্ত করেন।

তবে পাকিস্তানের সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে জাতিসংঘে ভারতীয় মিশনের মুখপাত্র অত্যন্ত কঠোর ভাষায় বলেছেন যে, পাকিস্তান হচ্ছে সন্ত্রাসবাদের কেন্দ্রবিন্দু। এর আগে সোমবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত যে কাগজপত্র বিতরণ করেছে তাতে অভিযোগ করা হয়েছে, পাকিস্তান থেকে চার সন্ত্রাসী গত সপ্তাহে একটি সুড়ঙ্গ পথে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে অনুপ্রবেশ করেছে এবং এসব সন্ত্রাসী ভারতীয় সেনা টহল দলের উপর হামলা চালিয়েছে।

পাকিস্তান এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলছে যে, মুসলিম অধ্যুষিত কাশ্মীর অঞ্চলের জনগণের ওপর ভারত যে দমন-পীড়ন ও হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে তা থেকে বিশ্ববাসীর মনোযোগ অন্যদিকে ঘুরিয়ে দিতে নয়য়াদিল্লি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এসব ভিত্তিহীন অভিযোগ করছে। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

১২ মুসলিম দেশের বিরুদ্ধে ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে আমিরাত
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : সংযুক্ত আরব আমিরাত বিশ্বের ১৩টি দেশের নাগরিকদের জন্য নতুন ভিসা ইস্যু করবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই ১৩টি দেশের মধ্যে কেনিয়া বাদে ১২টিই মুসলিম প্রধান দেশ।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বিজনেস পার্কের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর দিয়েছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের এ সিদ্ধান্ত গত ১৮ নভেম্বর থেকে কার্যকর হয়েছে আল-জাজিরা টেলিভিশন চ্যানেল জানিয়েছে।

যেযযসব দেশ আমিরাতের ভিসা নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়েছে সেগুলো হলো -ইরান, তুরস্ক, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, কেনিয়া, সোমালিয়া, আলজেরিয়া, লেবানন, সিরিয়া, ইরাক, লিবিয়া, তিউনিশিয়া এবং ইয়েমেন। আমিরাত সরকার বলছে, তালিকাভুক্ত এসব দেশের লোকজন কর্মসংস্থানের জন্য কিংবা ভিজিট ভিসার জন্য দরখাস্ত করতে পারবে না।

এ ব্যাপারে আমিরাত সরকার দেশটির ইমিগ্রেশন অথরিটির কাছে যে পরিপত্র জারি করেছে তাতে কথা পরিষ্কার নয় যে, নিষেধাজ্ঞার ক্ষেত্রে কোনো দেশের জন্য কোনরকম ছাড় আছে কিনা।

একটি সূত্র দাবি করেছে, আমিরাত সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে মূলত নিরাপত্তাগত উদ্বেগ থেকে। তবে ওই সূত্র এ কথা পরিষ্কার করতে পারে নি যে, আমিরাত সরকার কি ধরনের ঝুঁকি অনুভব করছে। সূত্রটি আশা করছে- অল্প সময় পরেই ভিসা নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হবে।

গত সপ্তাহে পাকিস্তান সরকার জানিয়েছিল- পাকিস্তানসহ কয়েকটি দেশের নাগরিকদের জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাত নতুন ভিসা ইস্যু করা বন্ধ করে দিয়েছে। ইসলামাবাদ বলেছে, কেন ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলো তা নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছ থেকে তথ্য জোগাড়ের চেষ্টা করছে তারা।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, যেসব নাগরিক আগে থেকেই সংযুক্ত আরব আমিরাতের ভিসাধারী তারা দেশটিতে প্রবেশ করতে পারবেন। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

ব্রাজিলে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৪১
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলের দক্ষিণপূর্বাঞ্চলে বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে অন্তত ৪১ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ১০ জন।

বুধবার সাও পাওলো রাজ্যে থেকে ৩৪০ কিলোমিটার দূরের তাগুয়াই শহরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সাও পাওলো পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। খবর আল-জাজিরা।

সাও পাওলো পুলিশ জানায়, বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই ৩৭ জন নিহত হয়েছেন। আর আহতের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পর সেখানে ৪ জনের মৃত্যু হয়।

সংঘর্ষে বাস-ট্রাক টুকরো টুকরো হয়ে গেছে। বাসের সামনে থেকে শেষপ্রান্ত পর্যন্ত ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

ভয়াবহ দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের পরিবার, আত্মীয়-স্বজন এবং বন্ধুবান্ধবের প্রতি সমাবেদনা জ্ঞাপন করেছেন সাও পাওলোর গভর্নর জোও ডোরিয়া।

স্বাধীন বাংলা/এআর

ইসরাইলের সঙ্গে চুক্তি করে প্রকৃত নিরাপত্তা আসবে না: ইরানি প্রেসিডেন্ট
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি আঞ্চলিক দেশগুলোকে লক্ষ্য করে বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে কথিত শান্তি চুক্তি করে নিরাপত্তা আসবে না। তিনি ইসরাইলকে ‘ক্রিমিনাল’ আখ্যা দিয়ে বলেন, “তারাই হচ্ছে পুরো মধ্যপ্রাচ্যে নিরাপত্তাহীনতা এবং অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির মূল হোতা।”

ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে কয়েকটি আরব রাষ্ট্র সম্পর্ক স্বাভাবিক করার ঘটনায় ইরানি প্রেসিডেন্ট দুঃখ প্রকাশ করেন।

গতকাল বুধবার কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আলে সানির সঙ্গে টেলিফোন আলাপে এসব কথা বলেছেন প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। তিনি বলেন, বাইরের শক্তি আঞ্চলিক দেশগুলোতে যে  হস্তক্ষেপ করছে এবং তাদের ওপর প্রভাব বিস্তার করে রেখেছে তা থেকে বের হয়ে আসতে হবে এবং জ্ঞান-বুদ্ধি, বিচক্ষণতা, যুক্তি এবং আন্তরিক সংলাপের মাধ্যমে আঞ্চলিক সহযোগিতা বাড়াতে হবে।

প্রেসিডেন্ট রুহানি সুস্পষ্ট করে বলেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে ইহুদিবাদী ইসরাইলকে আঞ্চলিক ঘটনাবলীতে যুক্ত করার কারণে নিরাপত্তাহীনতা এবং অস্থিতিশীলতা বাড়বে। তিনি আরো বলেন, সত্যিই খুব আশ্চর্যজনক যে, কোনো কোনো প্রতিবেশী দেশ মনে করছে ক্রিমিনাল ইহুদিবাদী সরকারের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করলে তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে অথচ ইসরাইল হচ্ছে পুরো অঞ্চল এবং মুসলিম দেশগুলোর শত্রু। তিনি বলেন, আঞ্চলিক দেশগুলোকে তাদের নিজেদের সমস্যা নিজেদেরকেই সমাধান করতে হবে এবং আমি নিশ্চিত আগামী মাসগুলোতে পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে আঞ্চলিক পরিস্থিতি অনেক ভালো হবে।

প্রেসিডেন্ট রুহানি আশা প্রকাশ করেন, আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে নতুন ঘটনাবলী ও মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলের জন্য কোনো কোনো দেশের শত্রুতাপূর্ণ নীতির পরিবর্তন আসবে এবং জোরালো আঞ্চলিক সংলাপ ও সমঝোতায় পৌঁছানোর ক্ষেত্রে একটা সুযোগ সৃষ্টি হবে। গতকালের ফোনালাপে প্রেসিডেন্ট রুহানি ইরানের সঙ্গে কাতারের সম্পর্ক এবং ক্রমবর্ধমান বন্ধুত্বের প্রশংসা করে বলেন, ইরান আঞ্চলিক দেশগুলোর সঙ্গে অত্যন্ত হৃদ্যতাপূর্ণ সম্পর্ক চায়।

ফোনালাপে কাতারের আমির ইরানি প্রেসিডেন্টকে দোহা সফরের আমন্ত্রণ জানান এবং জবাবে প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন এ সফর একটি উপযুক্ত সময়ে অনুষ্ঠিত হবে। ফোনালাপে কাতারের আমির তেহরান ও দোহার মধ্যকার বর্তমান সম্পর্ককে কৌশলগত বলে মন্তব্য করেন এবং এই সম্পর্ক দু দেশের জনগণের স্বার্থ রক্ষায় ভূমিকা রাখবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ইরানের সঙ্গে এরইমধ্যে কাতারের যে সমস্ত চুক্তি হয়েছে তা বাস্তবায়নে দোহা সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাবে বলেও জানান শেখ তামিম বিন হামাদ আলে সানি। তিনি বলেন, আঞ্চলিক নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে যেকোনো চুক্তিতে ইরানকে অবশ্যই একটি পক্ষ হিসেবে রাখতে হবে। তিনি আশা করেন, চলমান আন্তর্জাতিক ঘটনাবলীর পেক্ষাপটে ইরান ও পারস্য উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যে আলোচনা শুরু হবে। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

মাইকেল ফ্লিনকে ক্ষমা করলেন ট্রাম্প
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ নিয়ে তদন্তে মিথ্যা বলার দায় স্বীকার করে নেওয়ায় সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিনকে ক্ষমা করে দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগের তদন্তে এফবিআইয়ের কাছে মিথ্যা বলেছিলেন ফ্লিন।

ক্ষমা কারার পর টুইটারে ট্রাম্প লিখেছেন, মাইকেল ফ্লিনকে পুরোপুরি ক্ষমা করে দেওয়া হয়েছে। এই ঘোষণার দেওয়ার জন্য নিজেকে সম্মানিত মনে করছেন ট্রাম্প।

ফ্লিনকে ক্ষমা করার বিষয়ে বুধবার হোয়াইট হাউস একটি বিবৃতি দিয়েছে। এই বিবৃতিতে ফ্লিনকে একজন নিরপরাধ ভুক্তভোগী হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে।

হোয়াইট হাউসের বিবৃতিতে বলা হয়,  ২০১৬ সালের নির্বাচনের ফল উল্টে দেওয়ার সমন্বিত চেষ্টায় নিয়োজিত পক্ষপাতদুষ্ট সরকারি কর্মকর্তাদের ষড়যন্ত্রের শিকার ফ্লিন।

স্বাধীন বাংলা/এআর


   Page 1 of 207
     আন্তর্জাতিক
ইরানি বিজ্ঞানী হত্যায় ইসরাইলের হাত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করলেন ট্রাম্প
.............................................................................................
পরমাণু বিজ্ঞানী হত্যার বদলা নেবে ইরান
.............................................................................................
অ্যান্টি-ব্যালিস্টিক মিসাইলের পরীক্ষা চালাল রাশিয়া, আঘাত হানতে পারে মহাকাশের উপগ্রহে
.............................................................................................
কাশ্মীর সীমান্তে পাকিস্তানী বাহিনীর গুলিতে ২ ভারতীয় সৈন্য নিহত
.............................................................................................
সন্ত্রাসী হামলায় ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানী ‘মোহসিন’ নিহত
.............................................................................................
ইসরাইলি অবরোধের কারণে গাজার ক্ষতি হয়েছে ১,৭০০ কোটি ডলার: জাতিসংঘ
.............................................................................................
পারস্য উপসাগরে বিশাল মহড়া চালালো ইরান
.............................................................................................
কুয়েতে ফের ২০ হাজার বাংলাদেশির বৈধতা পাবার সুযোগ
.............................................................................................
এর্দোয়ান-বিদ্রোহীদের যাবজ্জীবন
.............................................................................................
কূটনৈতিক পথই পরমাণু সমঝোতা রক্ষার একমাত্র উপায়: পাকিস্তান
.............................................................................................
৩ ইরানিকে ফেরত দিয়ে ইসরাইলি গুপ্তচরকে নিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়ার বিমান
.............................................................................................
সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতা: একে অপরকে দোষারোপ করছে ভারত-পাকিস্তান
.............................................................................................
১২ মুসলিম দেশের বিরুদ্ধে ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে আমিরাত
.............................................................................................
ব্রাজিলে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৪১
.............................................................................................
ইসরাইলের সঙ্গে চুক্তি করে প্রকৃত নিরাপত্তা আসবে না: ইরানি প্রেসিডেন্ট
.............................................................................................
মাইকেল ফ্লিনকে ক্ষমা করলেন ট্রাম্প
.............................................................................................
কোভিড-১৯ : যুক্তরাষ্ট্রে ৬ মাসে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড
.............................................................................................
ইরানে বিশেষ বাণিজ্য প্রতিনিধি নিয়োগ করল কাতার
.............................................................................................
পাল্টা পরমাণু মোশন নিয়ে এগুচ্ছে ইরানের সংসদীয় কমিটি
.............................................................................................
বিশ্বমঞ্চে নেতৃত্ব দিতে আমেরিকা প্রস্তুত : বাইডেন
.............................................................................................
চূড়ান্ত লড়াইয়ের দিকে টিগ্রে, জাতিসংঘ উদ্বিগ্ন
.............................................................................................
খাশোগি হত্যা মামলায় আরো ৬ সৌদি নাগরিককে সন্দেহের তালিকায় নিল তুর্কি আদালত
.............................................................................................
আফগানিস্তানের বামিয়ান শহরে জোড়া বোমা হামলায় নিহত ১৭
.............................................................................................
বিহারে শপথ অনুষ্ঠানে ‘হিন্দুস্তান’ শব্দে আপত্তি, ‘মিম’ বিধায়ককে পাকিস্তানে চলে যাওয়ার
.............................................................................................
নেতানিয়াহুর গোপন বৈঠকের কথা অস্বীকার করেছে সৌদি
.............................................................................................
ইরানকে ৭,০০০ কোটি ডলার থেকে বঞ্চিত করেছি: পম্পেও
.............................................................................................
নেতানিয়াহু-সালমান বৈঠক ঘিরে বিতর্ক
.............................................................................................
তুরস্কের জাহাজে তল্লাশি: ইইউ, জার্মানি ও ইতালির রাষ্ট্রদূতদের তলব
.............................................................................................
বাইডেনকে রাষ্ট্রীয়ভাবে বিজয়ী ঘোষণা; ক্ষমতা হস্তান্তর শুরু করতে রাজি হয়েছেন ট্রাম্প
.............................................................................................
বাইডেন মন্ত্রিসভার সম্ভাব্য ৬ সদস্যের আনুষ্ঠানিক নাম ঘোষণা
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রের মডার্নার প্রতি ডোজ করোনা টিকার দাম ২৫ থেকে ৩৭ ডলার
.............................................................................................
অ্যান্টনি ব্লিনকেনকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বানাতে পারেন বাইডেন
.............................................................................................
মহানবী (সা.)-এর জন্মভূমিতে খুনি নেতানিয়াহুর সফর, ব্যাখ্যা চাইল হামাস
.............................................................................................
সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী হলেন শীর্ষ কূটনীতিক ফয়সাল মিকদাদ
.............................................................................................
তৃতীয় করোনা ঢেউয়ের সতর্কতা জারি ডাব্লিউএইচও-র
.............................................................................................
ইরানের সঙ্গে নয়া চুক্তি সই করুন : বাইডেনের প্রতি সৌদি আরবের আহ্বান
.............................................................................................
‘আমেরিকার সর্বোচ্চ চাপ প্রতিরোধ করছে ইরান কিন্তু ওয়াশিংটনের ক্ষমতা কমছে’
.............................................................................................
মধ্যপ্রাচ্যে আবারো আমেরিকা বি-৫২ বোমারু বিমান মোতায়েন করেছে
.............................................................................................
‘ইরানের পরমাণু সমঝোতাকে ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত করা যাবে না’
.............................................................................................
গাজার উত্তরাঞ্চলে হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বিমান
.............................................................................................
পেনসিলভানিয়ায় ট্রাম্পের মামলা খারিজ
.............................................................................................
ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক প্রতিষ্ঠাকে সম্পূর্ণভাবে সমর্থন করে সৌদি আরব: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
‘মার্কিন দূতাবাসে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন কেন’
.............................................................................................
‘বাইডেনের জন্য পরমাণু সমঝোতায় ফেরার পথ কঠিন করে তুলেছেন ট্রাম্প’
.............................................................................................
‘ইসরাইলকে নিঃশর্তভাবে এনপিটিতে যোগ দিতে হবে’
.............................................................................................
ইরানের বিরুদ্ধে সব অপশন খোলা: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর হুমকি
.............................................................................................
করোনায় আক্রান্ত হয়ে ট্রাম্প জুনিয়র কোয়ারেন্টাইনে
.............................................................................................
ট্রাম্প নির্লজ্জভাবে গণতন্ত্রের ক্ষতি করছেন : বাইডেন
.............................................................................................
ইউরোপে প্রতি ১৭ সেকেন্ডে একজন করে মারা যাচ্ছে : ডাব্লিউএইচও
.............................................................................................
ইরানে হামলা হলে মধ্যপ্রাচ্যে সর্বাত্মক যুদ্ধ বেধে যাবে: জেনারেল দেহকান
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT