রবিবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   আন্তর্জাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ইরানের পরমাণু কর্মসূচির রিপোর্ট ফাঁস: নিন্দা জানাল রাশিয়া

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
ইরানের পরমাণু কর্মসূচির সম্পর্কিত আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র রিপোর্ট ফাঁসের নিন্দা জানিয়েছে রাশিয়া। বোর্ড অব গভর্নর্সের কাছে রিপোর্টটি বিতরণ করা হয়েছিল।

আইএইএ-তে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত মিখাইল উলাইয়ানভ শুক্রবার তার টুইটার পেইজে দেয়া এক পোস্টে বলেন, আবারো ইরানের পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কিত আইএইএ’র একটি গোপন রিপোর্ট গণমাধ্যমের কাছে প্রকাশিত হয়ে পড়েছে যা বোর্ড অব গভর্নর্সের কাছে বিতরণ করা হয়েছিল।

উলাইয়ানভ আরো বলেন, “এই রিপোর্ট ফাঁস হওয়ার পরপরই ইরানের রাষ্ট্রদূত তার টুইটার অ্যাকাউন্টে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে এ ধরনের রিপোর্টের গোপনীয়তা রক্ষার কৌশল জোরদার করার পরামর্শ দিয়েছেন। এটি খুব ভালো ধারণা কিন্তু তা কি কার্যকর হবে?”

এর আগে আগে আইএইএ-তে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি কাজেম গরিবাবাদি এক টুইটার বার্তায় বলেন, বোর্ড অব গভর্নর্সের সদস্যরা ইরানের পরমাণু কর্মসূচি সংক্রান্ত রিপোর্ট হাতে পাওয়ার আগেই গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে। এটি আন্তর্জাতিক এ সংস্থার দায়িত্বশীলতার মোটেই পরিচয় বহন করে না। এ সংস্থাকে অবশ্যই তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষার নিশ্চয়তা দিতে হবে।
সূত্র: পার্সটুডে

ইরানের পরমাণু কর্মসূচির রিপোর্ট ফাঁস: নিন্দা জানাল রাশিয়া
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
ইরানের পরমাণু কর্মসূচির সম্পর্কিত আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র রিপোর্ট ফাঁসের নিন্দা জানিয়েছে রাশিয়া। বোর্ড অব গভর্নর্সের কাছে রিপোর্টটি বিতরণ করা হয়েছিল।

আইএইএ-তে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত মিখাইল উলাইয়ানভ শুক্রবার তার টুইটার পেইজে দেয়া এক পোস্টে বলেন, আবারো ইরানের পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কিত আইএইএ’র একটি গোপন রিপোর্ট গণমাধ্যমের কাছে প্রকাশিত হয়ে পড়েছে যা বোর্ড অব গভর্নর্সের কাছে বিতরণ করা হয়েছিল।

উলাইয়ানভ আরো বলেন, “এই রিপোর্ট ফাঁস হওয়ার পরপরই ইরানের রাষ্ট্রদূত তার টুইটার অ্যাকাউন্টে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে এ ধরনের রিপোর্টের গোপনীয়তা রক্ষার কৌশল জোরদার করার পরামর্শ দিয়েছেন। এটি খুব ভালো ধারণা কিন্তু তা কি কার্যকর হবে?”

এর আগে আগে আইএইএ-তে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি কাজেম গরিবাবাদি এক টুইটার বার্তায় বলেন, বোর্ড অব গভর্নর্সের সদস্যরা ইরানের পরমাণু কর্মসূচি সংক্রান্ত রিপোর্ট হাতে পাওয়ার আগেই গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে। এটি আন্তর্জাতিক এ সংস্থার দায়িত্বশীলতার মোটেই পরিচয় বহন করে না। এ সংস্থাকে অবশ্যই তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষার নিশ্চয়তা দিতে হবে।
সূত্র: পার্সটুডে

চাঁদের মাটিতে পতাকা স্থাপন করল চীন
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
এবার চাঁদের মাটিতে নিজেদের পাতালা স্থাপন করল চীন। চীন দ্বিতীয় কোন দেশ যারা চাঁদের মাটিতে নিজ দেশের পতাকা স্থাপন করল। এর ৫০ বছর আগে আমেরিকা চাঁদের মাটিতে নিজেদের পতাকা স্থাপন করেছিলো।

গত বৃহস্পতিবার চীন চাঁদের মাটিতে নিজেদের অবস্থানের জানাল দিল। অনেক দেরিতে হলেও দ্বিতীয় দেশ হিসেবে চীন তাদের পতাকা চাঁদের মাটিতে স্থাপন করার সক্ষমতা অর্জন করলো। চীনের জাতীয় মহাকাশ প্রশাসন চাঁদের পৃষ্ঠে তাদের পতাকার ছবি প্রকাশ করেছে।

বৃহস্পতিবার চাঁদের পাথরের নমুনা নিয়ে ফেরার আগে মহাকাশ যান চ্যাং’ই-৫ এর ক্যামেরা দিয়ে ওই ছবিগুলো তোলা হয়েছে। মহাকাশযান চ্যাং’ই-৫ চাঁদের পৃষ্ঠের মাটি ও পাথরের নমুনা নিয়েছে।

১৯৬৯ সালে অ্যাপোলো-১১ অভিযানের সময় আমেরিকা প্রথমবার চাঁদে কোনও দেশের পতাকা স্থাপন করে। পরে ১৯৭২ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন অভিযানের সময় আমেরিকার আরও পাঁচটি পতাকা চাঁদের পৃষ্ঠে স্থাপন করা হয়।

রাষ্ট্রীয়ভাবে পরিচালিত গ্লোবাল টাইমস পত্রিকা তাদের খবরে বলেছে যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাপোলো মিশনের সময় অনুভূত হওয়া ‘উত্তেজনা এবং অনুপ্রেরণা’র কথা মনে করিয়ে দেয় চীনের পতাকাটি।

চীনের পতাকাটি দুই মিটার চওড়া এবং ৯০ সেন্টিমিটার লম্বা বলে গ্লোবাল টাইমসকে জানিয়েছেন প্রকল্পটির নেতৃত্ব দেওয়া লি ইয়ুনফেং।

চীনের প্রথম চন্দ্রাভিযানে যাওয়া মহাকাশযান চ্যাং’ই-৩ থেকে তোলা ছবিতে চাঁদের পৃষ্ঠে প্রথমবার চীনের পতাকা দেখা যায়। ২০১৯ সালে চ্যাং`ই-৪ মহাকাশযান চাঁদের অন্ধকার পৃষ্ঠেও চীনের পতাকা নিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

তবে ওই দু’বারের কোনও কোনও বারই আক্ষরিক অর্থে কাপড়ের তৈরি পতাকা ছিল না, মহাকাশযানের পৃষ্ঠে আঁকা চীনের পতাকার ছবি তোলা হয়েছিল সে সময়।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

ইসরায়েল ইরানে সন্ত্রাস চালাচ্ছে: ইরান
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
ইরানের প্রখ্যাত পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফখরিজাদেহকে হত্যার পিছনে ইসরায়েল রয়েছে বলে আগেই দাবি করেছিল ইরান। বৃহস্পতিবার রোমে একটি আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক সভায় ফের সরাসরি ইসরায়েলকে ওই ঘটনার জন্য দায়ী করেছেন ইরানের পরাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ।

আন্তর্জাতিক সম্মেলনে জাভেদ জারিফ বলেছেন, ইরানে সন্ত্রাস চালাচ্ছে ইসরায়েল। পরমাণু বিজ্ঞানীকে হত্যার ঘটনার পিছনেও তারাই রয়েছে। অথচ পৃথিবীর সমস্ত দেশ চুপ। ইসরায়েলের বিরুদ্ধে পশ্চিমা দেশগুলি কখনো কোনো কথা বলে না। ইরানের জমিতে তারা বিনা বাধায় একের পর এক সন্ত্রাসবাদী কাজকর্ম চালিয়ে যেতে পারে। এরপরেই মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলির বিরুদ্ধে সরব হন জাভেদ। বলেন, এই পরিস্থিতিতে মধ্য প্রাচ্যের মুসলিম দেশগুলিকে স্থির করতে হবে ইসরায়েলের সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে তারা ইরানের পাশে থাকবে কি না। মুখে না বললেও জাভেদ বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি সাম্প্রতিক কয়েকটি চুক্তির বিষয়ে কথা বলছেন। সম্প্রতি আরব আমিরাত এবং বাহারিন ইসরায়েলের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্কে আবদ্ধ হয়েছে। সে বিষয়টি নিয়েই সতর্ক করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

আরো একটি বিষয় স্পষ্ট করে দিয়েছেন জাভেদ। আমেরিকা তাদের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা না তুললে তারা কোনোভাবেই মাথানত করবে না। ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরে জো বাইডেন ইরান নীতি বদলাতে পারেন বলে মনে করছেন বহু বিশেষজ্ঞ। কিন্তু জাভেদের বক্তব্য, আমেরিকার কোনো কথা শুনতেই তারা রাজি নয়। একমাত্র আমেরিকা নিষেধাজ্ঞা তুললে, তাহলেই কথা হতে পারে।

বস্তুত, পরমাণু বিজ্ঞানীর হত্যার পরে ইরানের সংসদ একটি আইন তৈরি করেছে। যাতে দেশে ইউরেনিয়াম মজুত বহু গুণ বাড়ানোর কথা বলা হয়েছে। ইরান বুঝিয়ে দিয়েছে, এখন আর তারা কারো কথা শুনবে না। আমেরিকা নীতি না বদলালে তারা পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা করবে বলেও ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছে।
সূত্র : ডয়চে ভেলে

৭৬ মসজিদ বন্ধ করে দিতে পারে ফ্রান্স
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
‘ধর্মীয় চরমপন্থা’ ছড়ানো হচ্ছে এমন সন্দেহ থেকে মুসলমানদের ৭৬টি মসজিদ বন্ধ করে দেয়ার পথে হাটছে ফ্রান্স সরকার। ধর্মীয় বিচ্ছিন্নতাবাদ রোধের নামে নজিরবিহীন এমন পদক্ষেপ নিচ্ছে ম্যাক্রো সরকার। দেশটির সরকার মসজিদগুলোতে নজরদারি বাড়িয়েছে এবং তাদের সন্দেহ সত্যি প্রমাণ হলে মসজিদগুলো বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেরাল্ড দারমানিন। তবে কোন কোন এলাকার মসজিদে নরজদারি করা হবে, সে ব্যাপারে কিছু বলেননি তিনি।

বিচ্ছিন্নতাবাদী সন্দেহে অনথিভুক্ত ৬৬ জন অভিবাসীকে ফেরত পাঠানো হয়েছে জানিয়ে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেরাল্ড দারমানিন গতকাল বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) এক টুইট বার্তায় এ কথা জানান।  আরটিএল রেডিওতে তার সাক্ষাৎকারের কথা টুইট বার্তায় উল্লেখ করে তিনি জানান, আগামী দিনগুলোতে ফ্রান্সের ৭৬টি মসজিদে নজরদারি করবে সরকার। আমাদের সন্দেহ নিশ্চিত হলে আমি মসজিদগুলো বন্ধ করতে বলব।

দারমানিন মসজিদ নজদারির বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন এরই মধ্যে সরকারের কাছে পাঠিয়েছেন।

দারমানিন বলেন, ফ্রান্সের ২৬০০টিরও বেশি মুসলিম উপাসনালয়ের মধ্যে ৭৬টি মসজিদকে ফ্রান্সের রিপাবলিকান মূল্যবোধ এবং এর সুরক্ষার জন্য সম্ভাব্য হুমকি হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৬টি মসজিদ প্যারিসে আর বাকিগুলো দেশের অন্যান্য স্থানে অবস্থিত।  নতুন এ অভিযানের ফলে অনেক মসজিদ বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এছাড়া ১৮টি মসজিদের ব্যাপারে জরুরি পদক্ষেপ নেওয়া হবে। সূত্র: আল জাজিরা ও রয়টার্স।

প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতায় আসার পর থেকে গত তিন বছরে ৪৩টি মসজিদ বন্ধ হয়েছে।

গত অক্টোবরে ছাত্রদের বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু সালামের (সা.) ব্যঙ্গচিত্র দেখানোয় প্যারিসের উপশহরে স্যামুয়েল প্যাটি নামে এক শিক্ষকের শিরশ্ছেদ করা হয়। এর জের ধরে পরে নাইসের একটি গির্জায় হামলা চালিয়ে তিন ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়।

এ দু’টি ঘটনার পর ফ্রান্সে মুসলিম সংগঠন ও মসজিদগুলো চরম চাপের মুখে পড়েছে। সম্প্রতি কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।

ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন অনুমোদন দিলো যুক্তরাজ্য
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : মহামারি নভেল করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত বিশ্ব। শীতের শুরুতেই বিশ্বজুড়ে অদৃশ্য এই ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে। গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাসের প্রতিষেধকের প্রহর গুনছেন বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ। তবে অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে এবার।

বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ওষুধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ফাইজার ও জার্মান কোম্পানি বায়োএনটেক উদ্ভাবিত করোনার ভ্যাকসিন সর্বসাধারণের ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য। খবর ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির।

ফাইজার-বায়োএনটেকের উদ্ভাবিত টিকা ৯৫ শতাংশ কার্যকর বলে দাবি করা হয়েছে। কোভিড ভ্যাকসিন অনুমোদন দেওয়ার পর যুক্তরাজ্যের ওষুধ ও স্বাস্থ্যসেবা পণ্যের নিয়ন্ত্রক সংস্থা এমএইচআরএ বলেছে, এটি নিরাপদ।

করোনায় মারা গেলেন ভারতে বিজেপির এমপি
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
ভারতের গুজরাটের রাজ্যসভার সংসদ সদস্য অভয় ভরদ্বাজ (৬৬) মহামারী করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। গতকাল বিকেলে চেন্নাইয়ের এমজিএম হেলথকেয়ারে তার মৃত্যু হয়।

অভয় ভরদ্বাজ ছিলেন বিশিষ্ট আইনজীবী। চলতি বছরের জুনে বিজেপির টিকিটে রাজ্যসভায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

জানা যায়, গত আগস্ট থেকে করোনায় আক্রান্ত ছিলেন অভয় ভরদ্বাজ। অনেকটা সুস্থ হয়ে আবারো মারাত্মক নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হন তিনি। পরে ৯ অক্টোবর থেকে তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন। সংক্রমণের কারণে তার দুটি ফুসফুসই একেবারে নষ্ট হয়ে গিয়েছিল।

হাসপাতালের মেডিকেল সার্ভিসেসের অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর ডা. অনুরাধা ভাস্করণ জানান, লাইফ সাপোর্টে থাকাকালীন তার একাধিক অঙ্গ ধীরে ধীরে বিকল হতে শুরু করে। শেষ পর্যন্ত গতকাল বিকেলে তার মৃত্যু হয়।
সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

ভোট জালিয়াতির অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করলেন ট্রাম্পের ঘনিষ্ট কর্মকর্তা
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
চলতি বছর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হেরে গিয়ে শুরু থেকেই ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছেন বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে তিনি যেসব অভিযোগ তুলেছেন সে সব বিষয়ে কোন প্রমাণ খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার।

এক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান আইন প্রয়োগকারী এই কর্মকর্তা বলেন, এখন পর্যন্ত আমরা এমন কোনো জালিয়াতির প্রমাণ দেখতে পাইনি যা নির্বাচনের ফলাফল পাল্টে দিতে পারে।

পরাজয় স্বীকার না করা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জন্য তার এই অবস্থানকে বড় ধাক্কা বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ একদিকে যখন জো বাইডেনের বিজয়ের ফলাফলের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয়া হচ্ছে, একই সময়ে পরাজিত হওয়া রাজ্যগুলোয় একের পর এক মামলা করে চলেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী শিবির।

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে জো বাইডেন পেয়েছেন ৩০৬টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোট। আর ডোনাল্ড ট্রাম্প পেয়েছেন ২৩২টি। আর জনগণের ভোটে ট্রাম্পের চেয়ে ৬২ লাখ ভোট বেশি পেয়েছেন বাইডেন।

তবে ৩ নভেম্বরের নির্বাচনের পর থেকেই কোন তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই একের পর পর এক ভোট জালিয়াতির অভিযোগ করে যাচ্ছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এদিকে, উইলিয়াম বার ভোট জালিয়াতির অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে বিবৃতি দেওয়ার পরও ট্রাম্প কোন তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই টুইটারে আবারও ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছেন।

নির্বাচন নিয়ে একটি দাবি করা হয়েছে যে, ভোটিং মেশিনগুলো হ্যাক করে এমনভাবে প্রোগ্রামিং করা হয়েছে যে, সেটি ভোটের ফলাফল পাল্টে জো বাইডেনের পক্ষে নিয়ে গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসকে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে এই দাবির প্রসঙ্গে উইলিয়াম বার বলেছেন, বিচার বিভাগ এবং হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ এই দাবি তদন্ত করে এখন পর্যন্ত এর সপক্ষে কোন প্রমাণ খুঁজে পায়নি।

গত মাসেই যুক্তরাষ্ট্রের আইন কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো একটি চিঠিতে নির্বাচনে অনিয়মের বিষয়ে গ্রহণযোগ্য অভিযোগগুলো তদন্ত করে দেখার জন্য তিনি নির্দেশনা দেন।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগকে সব কিছু সমাধানের একটি মাধ্যম হিসাবে ব্যবহারের প্রবণতা রয়েছে। কেউ যদি কিছু পছন্দ না করে, তখন তারা চায় যে, বিচার বিভাগ এসে সেটার তদন্ত করতে শুরু করুক। উইলিয়াম বারকে ডোনাল্ড ট্রাম্পের অন্যতম ঘনিষ্ঠ ব্যক্তিত্ব বলে মনে করা হয়।

তার এই মন্তব্যের বিষয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারণা শিবিরের আইনজীবী রুডি জুলিয়ানি এবং জেনা এলিস একটি যৌথ বিবৃতিতে বলেছেন, `অ্যাটর্নি জেনারেলের প্রতি সম্মান রেখেই বলছি, অনিয়মের এবং পদ্ধতিগত জালিয়াতির যথেষ্ট প্রমাণের ব্যাপারে সেটা নিয়ে তদন্ত বা জ্ঞান ছাড়াই তিনি মতামত দিয়েছেন বলে মনে হচ্ছে।

উইলিয়াম বারের এই মন্তব্যের পর সিনেটে ডেমোক্রেট নেতা চাক শুমার বলেছেন, আমার ধারণা, এরপরে তিনিই হয়তো বরখাস্ত হতে চলেছেন। এর আগে নির্বাচনের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে `অত্যন্ত ভুল` মন্তব্য করার জন্য সাইবার সিকিউরিটি এবং ইনফ্রাসট্রাকচার সিকিউরিটি এজেন্সি (সিসা) প্রধান ক্রিস ক্রেবসকে বরখাস্ত করেন ট্রাম্প।

ক্রেবস এক টুইটা বার্তায় বলেছিলেন, নির্বাচনী পদ্ধতি জালিয়াতির যে অভিযোগ তোলা হয়েছে, ৫৯ জন নির্বাচনী নিরাপত্তা কর্মকর্তা একমত হয়েছেন যে, কোন ঘটনাতেই এরকম অভিযোগের ভিত্তি নেই এবং প্রযুক্তিগতভাবেও সেটা সম্ভব নয়।

করোনার ভয়ঙ্কর রূপ, একদিনে বিশ্বে আক্রান্ত প্রায় ৫ লাখ
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : শীতের শুরুতেই বিশ্বজুড়ে তাণ্ডব শুরু করেছে মহামারি নভেল করোনাভাইরাস। সংক্রমণ রোধে ফের বিধিনিষেধ আরোপ করেছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। বাংলাদেশেও এর ব্যতিক্রম নয়।

অদৃশ্য এই ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে কঠোর হয়েছে সরকার। সবার মাস্ক পরা নিশ্চিতে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। মাস্ক না পরলে সর্বোচ্চ জরিমানার পাশাপাশি জেল দেয়ার মতো কঠোর অবস্থানেও যেতে পারে বাংলাদেশ সরকার।

বিশ্বে গত একদিনে কোভিড-১৯ এ নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন  ৪ লাখ ৯৬ হাজার ২৫৬ জন; আর মারা গেছেন ৮ হাজার ২৯১ জন।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬ কোটি ৩৫ লাখ ৮৯ হাজার ৭২৫ জন। এখন পর্যন্ত অদৃশ্য এই ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ১৪ লাখ ৭৩ হাজার ৯২৬ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৪ কোটি ৩৯ লাখ ৮৪ হাজার ৭২৩ জন।

বিশ্বে আক্রান্ত ও মৃত্যুতে সবার উপরে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ৩৯ লাখ ১৯ হাজার ৮৭০ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৭৩ হাজার ৭২ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৮২ লাখ ২২ হাজার ৮৭৯ জন।

বাংলাদেশের প্রতিবেশী দেশ ভারত শনাক্তের দিক দিয়ে দ্বিতীয় ও মৃত্যুতে রয়েছে তৃতীয় স্থানে। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯৪ লাখ ৬৩ হাজার ২৫৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৩৭ হাজার ৬৫৯ জনের। দেশটিতে সুস্থ হয়েছেন ৮৮ লাখ ৮৯ হাজার ৫৮৫ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুতে বিশ্ব তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৩ লাখ ৩৬ হাজার ২৭৮ জন। মারা গেছেন ১ লাখ ৭৩ হাজার ১৬৫ জন। সুস্থ হয়েছেন ৫৬ লাখ ১ হাজার ৮০৪ জন।

এছাড়া রাশিয়ায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা  বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২ লাখ ৯৫ হাজার ৬৫৪ জনে। দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৩৯ হাজার ৮৯৫ জনের। ফ্রান্সে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ২২ লাখ ২২ হাজার ৪৮৮ জনের। মৃত্যু হয়েছে ৫২ হাজার ৭৩১ জনের।

শীতের শুরুতে বাংলাদেশেও বাড়তে শুরু করেছে মহামারি করোনার সংক্রমণ। গতকাল সোমবার একদিনে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৫২৫ জন; যা গত প্রায় তিন মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ। দেশে এখন আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৯৩২ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ৬ হাজার ৬৪৪ জন। আর সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৮০ হাজার ৭১১ জন।

স্বাধীন বাংলা/এআর

জার্মানির আকাশে ‘আগুনের গোলা’!
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
জার্মানির আকাশে উজ্জ্বল গোলাকার আগুন দেখতে পেয়েছেন অনেকেই। দেশটির বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অন্তত ৯০ জন প্রত্যক্ষদর্শী এ কথা নিশ্চিত করেছেন। তবে এ আগুনের গোলার স্থায়ীত্ব ছিল মাত্র  ৭ সেকেন্ড। বিজ্ঞানীরা এই আগুনের গোলাকে কোনো গ্রহাণুর অংশ বলে ধারণা করছেন।

বার্লিনের টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি এবং জার্মান এরোস্পেস সেন্টারের যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত ফায়ারবল নেটওয়ার্ককে সিগেন শহরের এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, এই গোলাটি পাঁচ থেকে সাত সেকেন্ড স্থায়ী ছিল৷ এরপর সেটি একসময় সবুজ রঙ ধারণ করে ছোট দুই ভাগে ভাগ হয়ে যায়৷

জার্মান এরোস্পেস সেন্টারে বিশেষজ্ঞ ডিটার হাইনলাইন জানিয়েছেন, ‘‘সম্ভবত একটি গ্রহাণুর অংশবিশেষ পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করেছিল৷’’ মধ্য জার্মানির কাসেল শহরের ওপরে এটির অবস্থান ছিল বলে মোটামুটি নিশ্চিত হয়েছেন তারা৷

টকনিক্যাল ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ইয়ুরগেন ওব্যার্স্ট জানিয়েছেন, কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই জার্মানির নানা প্রান্ত থেকে আকাশে আগুনের গোলা দেখার খবর আসতে থাকে৷

আঞ্চলিক সংবাদমাধ্যম রাইনিশে পোস্ট এক গাড়িচালকের ড্যাশবোর্ডের ক্যামেরায় ধারণ হওয়া আগুনের গোলার ছুটে যাওয়ার দৃশ্য প্রকাশ করেছে৷

উত্তর জার্মানির শ্লেসভিগ-হোলস্টাইন রাজ্য থেকে এক প্রত্যক্ষদর্শী অস্ট্রিয়ার গাহব্যার্গ পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রকে ‘সবুজ লেজওয়ালা এক উজ্জ্বল বস্তুকে পশ্চিম থেকে পূর্বের দিকে ছুটে যেতে’ দেখার কথা জানিয়েছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘আগুনের গোলার চেয়ে তার লেজ ছিল ৩-৪ গুণ বড় এবং সেটা থেকে ছোট ছোট জিনিস ছড়িয়ে পড়ছিল৷’’
সূত্র : ডয়চে ভেলে

ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানী ফাখরিজাদে`র দাফন সম্পন্ন
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদে-কে আজ (সোমবার) রাজধানী তেহরানের ইমামজাদা সালেহ`র মাজার প্রাঙ্গনে দাফন করা হয়েছে।

করোনা মহামারির মধ্যে ভীড় এড়াতে দাফন অনুষ্ঠানে কেবল এই শহীদের পরিবারের সদস্যবর্গ এবং সশস্ত্র বাহিনীর কমান্ডারেরা অংশ নেয়ার সুযোগ পেয়েছেন। এর আগে তার কর্মস্থল প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে মৃতদেহ নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখানে তার সহকর্মীদের পাশাপাশি বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা শেষ শ্রদ্ধা জানান। সেখানে উপস্থিত ছিলেন ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও গোয়েন্দামন্ত্রী ছাড়াও দেশের সশস্ত্র বাহিনীর শীর্ষ কমান্ডারেরা।

এছাড়া শহীদ ফাখরিজাদে`র মরদেহ মাশহাদে ইমাম রেজা (আ.), কোমে হজরত মাসুমা (সা. আ.)`র মাজার এবং তেহরানে ইমাম খোমেনি (রহ.)`র মাজারেও নিয়ে যাওয়া হয়।

কোমে হজরত মাসুমা (সা.আ.)`র মাজার প্রাঙ্গনে তাঁর জানাজার নামাজ পড়িয়েছেন ইরানের শীর্ষস্থানীয় আলেম আয়াতুল্লাহ হোসেইন নুরি হামেদানি।

ইরানের উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ফাখরিজাদে গত শুক্রবার রাজধানী তেহরানে অদূরে এক সন্ত্রাসী হামলায় শাহাদাৎবরণ করেন। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

`পরমাণু বিজ্ঞানী ফাখরিজাদে হত্যায় ব্যবহৃত হয়েছে ইসরাইলি অস্ত্র`
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : দখলদার ইসরাইলে তৈরি অস্ত্রের সাহায্যে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদে-কে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্রের ভগ্নাংশ বিশ্লেষণের পর এ বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে ইরানি বিশেষজ্ঞরা।

ইরানের বার্তা সংস্থা `ইরান প্রেস` আজ (সোমবার) এ তথ্য জানিয়েছে।

এই বার্তা সংস্থার খবরে বলা হয়েছে, তাদের হাতে বিশ্বাসযোগ্য তথ্য-প্রমাণ রয়েছে যাতে এটা স্পষ্ট দূরনিয়ন্ত্রিত অটোমেটিক মেশিনগানের সাহায্যে ইরানি বিজ্ঞানীকে হত্যা করা হয়েছে। দূর নিয়ন্ত্রিত মেশিনগানটি একটি নিশান ভ্যানের ওপরে বসানো ছিল এবং তা দিয়েই ফাখরিজাদে-কে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়েছে। এরপর ওই নিশান গাড়িতেও বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

দু`টি উদ্দেশ্যে নিশান ভ্যানে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে বলে খবরে উল্লেখ করা হয়েছে, প্রথমত তারা চেয়েছিল বিস্ফোরণের মাধ্যমে ড. ফাখরিজাদে`র দেহরক্ষী দলের সদস্যদের ওপর আঘাত হানতে। দ্বিতীয়ত দূর নিয়ন্ত্রিত মেশিনগান ও যন্ত্রাংশসহ সব প্রমাণ পুরোপুরি ধ্বংস করতে চেয়েছিল। কিন্তু ব্যবহৃত অস্ত্রের একাংশ উদ্ধারের পর বিশেষজ্ঞরা নিশ্চিত হয়েছেন, এটি ইহুদিবাদী ইসরাইলে তৈরি হয়েছে।

ইরান প্রেস বার্তা সংস্থা আরও জানিয়েছে, তারা নিশ্চিত হতে পেরেছে ইসরাইলি পরিকল্পনা অনুযায়ী তাদেরই অস্ত্র ব্যবহার করে হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। আর এতে সহযোগিতা করেছে ইরানবিরোধী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী এমকেও`র সদস্যরা।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ২০১৮ সালের একটি অনুষ্ঠানে ইরানবিরোধী আলোচনা করতে গিয়ে বিজ্ঞানী ফাখরিজাদে`র নাম বার বার উল্লেখ করেছিলেন। সে সময় তিনি হুমকি দিয়ে বলেছিলেন- "স্মরণ রাখবেন নামটি হচ্ছে ফাখরিজাদে" সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

‘মৃত’ ব্যক্তির চিৎকারে আতঙ্কিত হয়ে পালালেন হাসপাতালের মর্গে দায়িত্বরত কর্মীরা
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
পিটার কিগেন(৩২) নামের  এক ব্যক্তি প্রচন্ড পেট ব্যথা নিয়ে কেনিয়ার একটি হাসপাতালে ভর্তি হন। কয়েকদিন চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে মৃত ঘোষণা করে মর্গে প্রেরণ করে। মর্গে নিয়ে যাওয়ার পর পিটার নিজেকে মর্গে দেখে চিৎকার শুরু করেন। আর এতে ভয় আর আতঙ্গে পালিয়ে যান হাসপতালের মর্গে কর্মরত কর্মীরা।

দ্য সানের খবরে বলা হয়েছে, পিটারকে হাসপতাল কর্তৃপক্ষ মৃত ঘোষণা করে। এরপর তার মরদেহ সংরক্ষণের জন্য মর্গে নেয়া হয়। তখনই জেগে ওঠেন ওই ‘মৃত’ ব্যক্তি! জেগে নিজেকে মর্গে দেখেই চিৎকার করতে শুরু করেন পিটার। পিটার এ ঘটনায় হতবিহ্বল হয়ে পড়েন।
 
পিটারের পরিবার জানায়, গত মঙ্গলবার পিটার কিগেন পেটে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে কেনিয়ার কেইরিচোর কাপলাটেট হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। সেখানে ভর্তি হওয়ার দিন কয়েক পর তার পরিবারের লোকের কাছে খবর যায় পিটার মারা গেছেন। পিটারের ভাই হাসপাতালে গিয়ে মর্গ থেকে দেহ নেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র বুঝিয়ে নেন।

পিটারের ভাই জানান, কর্মকর্তারা মরদেহ সংরক্ষণের আগে মর্গে ডেকে পাঠান। সেখানে যেতেই চমকে যাই। দেখি ভাই নড়াচড়া করছে। আমি বুঝতে পারছি না একজন জীবিত ব্যক্তিকে কীভাবে মর্গে নিয়ে যাওয়া হলো।

ইসরাইলি ভয়াবহ গোপন মিশন যেভাবে হত্যা করে ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানীকে
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফখরিজাদে শুক্রবার এক ভয়াবহ হামলায় মৃত্যুবরণ করেন। এর আগে ইরানের অধিকাংশ মানুষের কোনো ধারণাই ছিলনা তার সম্পর্কে। কিন্তু ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচির ওপর যারা নজর রাখেন তারা তাকে ভালোই চেনেন। ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে বরাবরই উদ্বেগ প্রকাশ করে আসছে ইসরাইল ও যুক্তরাষ্ট্র। এরই অংশ হিসেবে ইসরাইল বছর কয়েক আগে দুঃসাহসিক গোপন গোয়েন্দা অভিযান চালায় ইরানের ভেতর।

ওই সময় ইসরাইলি গোয়েন্দারা ইরানের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে কঠোর নিরাপত্তা বেষ্টিত একটি ওয়্যারহাউজে প্রবেশ করে সেখানকার অত্যন্ত গোপনীয় একটি ভল্ট থেকে ইরানের পারমাণবিক কার্যক্রম সম্পর্কিত পাঁচ হাজার পৃষ্ঠার মতো তথ্য গোপনে সরিয়ে ফেলে। এই ঘটনার কয়েক সপ্তাহ পর ২০১৮ সালের এপ্রিলে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ইরানের পারমাণবিক তথ্য প্রকাশ করেন।  এসময় ‘এই নামটি মনে রাখবেন’ বলে মোহসেন ফাখরিযাদের ছবির দিকে ইঙ্গিত করেছিলেন। ইসরাইল তাকে ইরানের পারমাণবিক অস্ত্রের মূল কারিগর মনে করে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ইরানি মিডিয়া জানায়, ঘটনার দিন ফখরিজাদেহ ইরানের অ্যাবসার্ড শহরে তার শ্বশুর বাড়ি যাচ্ছিলেন। এসময় তার সাথে নিরাপত্তারক্ষীদের একটি দলও ছিল। হঠাৎ চৌরাস্তায় একটি নিশান গাড়ি বিস্ফোরণ ঘটায়। এ সময় বিদ্যুৎ লাইন ধ্বসে পড়ে। ফাখরিযাদের হুন্দাই সান্তা ফিয়ে গাড়িতে থাকা নিরাপত্তা কর্মীরা বেরিয়ে আসে ও নিরাপত্তা থাকা আরো একটি দল মোটর সাইকেলে করে উপস্থিত হয়। এ সময় সেখানে আগে থেকেই ওঁৎপেতে থাকা ১২ সদস্যের একটি ঘাতক দল মূহুর্মূহু গুলি চালিয়ে দ্রুত স্থান ত্যাগ করে।

ইরানের ইসলামিক বিপ্লবী গার্ডের ডকুমেন্টারি চলচ্চিত্র নির্মাতা জাভেদ মোগৌই এমনটাই জানিয়েছেন। ফাখরিযাদের শরীরে তিনটি গুলি লেগেছিল। তিনি গাড়ি থেকে পড়ে গেছিলেন এবং রাস্তায় তার রক্ত লেগেছিল। পাশের হাসপাতালের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছিল। আর রাস্তার ক্যামেরাগুলোও কাজ করছিল না, ফলে ১২ গুপ্ত ঘাতক বিনা বাধায় নিরাপদে এলাকা ত্যাগ করে। উদ্ধারকারী হেলিকপ্টারে ফাখরিযাদেকে তেহরানের হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। জাভেদ মোগৌই তার একাউন্টে লিখেন, এটা অনেকটা হলিউডের একশন মুভির মতো।

গত এক দশক ধরে ইরানে ঘটে যাওয়া রহস্যজনক বিষ প্রয়োগ, গাড়ি বোমা হামলা, গুলাগুলি ও নাশকতার পর সর্বশেষ সংযোজন যেটি ইসলামিক প্রজাতন্ত্রকে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ করেছে। এসব হামলা বেশিরভাগই ঘটে থাকে পরমাণু কর্মসূচীতে জড়িতদের সাথে। আর এর সবগুলোর পেছনে ইরানের কঠিন প্রতিপক্ষ ইসরাইলের হাত রয়েছে বলে মনে করা হয়। ২০১০ থেকে ২০১২ সালের মধ্যে ইরানের চারজন পরমাণু বিজ্ঞানী আততায়ীর হাতে প্রাণ হারিয়েছেন এবং এইসব হত্যার ঘটনায় ইসরাইল জড়িত বলে ইরান অভিযোগ করেছে।

২০২০ সালে ইরান যে পরিমাণ গুপ্তহামলা শিকার হয়েছে অন্য কোনো সময় এত ঘটেনি। ইরানের এই শীর্ষ বিজ্ঞানীকে হত্যার মধ্যদিয়ে দেশটির দৈন্যতা আবারো প্রকাশিত হলো। এর আগে গত জানুয়ারিতে ইরাক সফরে যাওয়া দেশটির শীর্ষ সেনা কর্মকর্তা কাসেম সোলাইমানি মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছিলেন। তাকেও যথাযথ নিরাপত্তা দিতে পারেনি ইরান। এরপর গেল আগস্টে ইরানে থাকা শীর্ষ আল কায়দা কামান্ডারকে তেহরানের রাস্তায় প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করে ইসরাইলি গোয়েন্দারা। এবার দেশের ভেতরেই খোদ রাজধানীর পাশেই নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার হলেন আরেক শীর্ষ বিজ্ঞানী। এর ফলে নিজ দেশের ভেতর ইরান কতটা অরক্ষিত তা আরো একবার প্রকাশ হলো।

এসব হামলার চালানোর সময় ইরানের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের প্রতিরোধ করারও ক্ষমতা ছিল না। দেশের ভেতরে ঢুকে শত্রুরা এতবার সফল হামলা চালানোর ক্ষেত্রে ইসরাইল হয়তো বেশ এগিয়ে থাকবে। এই হত্যাকাণ্ড ইরানকে বেশ বেকায়দায় ফেলেছে। এখন হয় ইরানকে এর প্রতিশোধ নিতে হবে না হলে এই কষ্ট ভুলে নতুন করে নব-নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সাথে কাজ শুরু করতে হবে। সূত্র : নিউ ইয়র্ক টাইমস

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

দাগনভূঞায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে পিটিয়ে হত্যা
                                  

ফেনী প্রতিনিধি : ফেনীর দাগনভূঞায় অপহরণের পর এক কলেজছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের নাম সামিউল আলম সামি (১৯)। শনিবার রাতে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থরায় তার মৃত্যু হয়। নিহত সামিউল আলম সামি দাগনভূঞা সরকারি ইকবাল মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র ও উপজেলার হীরাপুর গ্রামের মুজিব মুন্সীবাড়ির আফ্রিকা প্রবাসী মো. ইলিয়াছের ছেলে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় সামিউল আলম সামিকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা গাড়িতে ফেনীর বিসিকে নিয়ে যায়। সেখানে দুর্বৃত্তরা তাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে ফেলে রাখে। খবর পেয়ে মহিপাল হাইওয়ে পুলিশের একটি দল গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা স্থানাস্তর করেন।

শনিবার রাতে চিকিৎসাধীন ঢাকায় কাকরাইলস্থ ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতাল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। রোববার সন্ধ্যায় জানাজা শেষে তাকে উপজেলার মাতুভূঞা ইউনিয়নের হীরাপুরে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

নিহতের খালাতোভাই দাগনভূঞা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলমগীর অভিযোগ করেন, শুক্রবার সন্ধ্যায় সামিকে দাগনভূঞা পৌর শহরের আমান উল্যাপুরে ছকিনা ম্যানশনের সামনে থেকে ব্যাডমিন্টন খেলার সময় অপহরণ করে নিয়ে যায় অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা।  এ ঘটনায় আজ সোমবার মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।

দাগনভূঞা থানার ওসি মো. ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, নিহতের পরিবার মামলা করবে বলে আমাকে জানিয়েছে। মামলার এজাহারের সূত্র মোতাবেক আসামিদের গ্রেফতারে আমরা বদ্ধপরিকর।

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ

শ্রীলঙ্কার কারাগারে দাঙ্গায় নিহত ৬
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কারাগারে মহামারি নভেল করোনাভাইরাসের সক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় শ্রীলঙ্কার একটি কারাগারে কারারক্ষীদের সঙ্গে বন্দিদের সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন ৬জন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক। আহতদের স্থানীয় রাগামা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিবিসি জানায়, শ্রীলঙ্কার কারাগারগুলোতে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। এ কারণে আতঙ্কিত বন্দিরা নিরাপত্তা ও জামিনে মুক্তি দেওয়ার দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ করেন।  

পুলিশের মুখপাত্র আজিথ রোহানা জানিয়েছেন, মাহারা কারাগারের কারারক্ষীরা বিশৃঙ্খল পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণে বল প্রয়োগ করেছেন।

শ্রীলঙ্কার কারাগারগুলোর প্রায় এক হাজার বন্দি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।  

স্বাধীন বাংলা/এআর

‘বিজ্ঞানী হত্যার বিরুদ্ধে যথেষ্ট হিসেবি জবাব দেবে ইরান’
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক : ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের স্ট্র্যাটেজিক কাউন্সিল অন ফরেন রিলেশন্সের প্রধান কামাল খাররাজি বলেছেন, দেশের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদে হত্যার বিষয়ে যথেষ্ট হিসাব-নিকাশ করে জবাব দেবে তেহরান।

ইরানের সাবেক এ পররাষ্ট্রমন্ত্রী গতকাল (রোববার) এক বার্তায় বলেন, ইরানের জাতীয় নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্য অর্জনের ক্ষেত্রে ইরানের এই বিজ্ঞানী কোনো সুবিধাকে কাজে লাগাতে বিরত থাকেন নি।

কামাল খাররাজি বলেন, ইরানি জাতির কাছ থেকে যারা ফাখরিজাদেকে কেড়ে নিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট এবং হিসেবি জবাব দেবে তেহরান এবং এ ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই।

কামাল খাররাজি তার বার্তায় শহীদ মোহসেন ফাখরিজাদের পরিবার এবং আত্মীয় স্বজনকে গভীর সমবেদনা জানান।

গত শুক্রবার ইরানের রাজধানী তেহরানের কাছে শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদেকে সন্ত্রাসীরা বোমা হামলা ও গুলি চালিয়ে হত্যা করে। হত্যার পরপরই ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বিজ্ঞানী ফাখরিজাদের কাজের ধারা অব্যাহত রাখতে দেশের বিশেষজ্ঞদের প্রতি আহ্বান জানান। সূত্র : পার্সটুডে

স্বাধীন বাংলা/জ উ আহমাদ


   Page 1 of 209
     আন্তর্জাতিক
ইরানের পরমাণু কর্মসূচির রিপোর্ট ফাঁস: নিন্দা জানাল রাশিয়া
.............................................................................................
চাঁদের মাটিতে পতাকা স্থাপন করল চীন
.............................................................................................
ইসরায়েল ইরানে সন্ত্রাস চালাচ্ছে: ইরান
.............................................................................................
৭৬ মসজিদ বন্ধ করে দিতে পারে ফ্রান্স
.............................................................................................
ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন অনুমোদন দিলো যুক্তরাজ্য
.............................................................................................
করোনায় মারা গেলেন ভারতে বিজেপির এমপি
.............................................................................................
ভোট জালিয়াতির অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করলেন ট্রাম্পের ঘনিষ্ট কর্মকর্তা
.............................................................................................
করোনার ভয়ঙ্কর রূপ, একদিনে বিশ্বে আক্রান্ত প্রায় ৫ লাখ
.............................................................................................
জার্মানির আকাশে ‘আগুনের গোলা’!
.............................................................................................
ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানী ফাখরিজাদে`র দাফন সম্পন্ন
.............................................................................................
`পরমাণু বিজ্ঞানী ফাখরিজাদে হত্যায় ব্যবহৃত হয়েছে ইসরাইলি অস্ত্র`
.............................................................................................
‘মৃত’ ব্যক্তির চিৎকারে আতঙ্কিত হয়ে পালালেন হাসপাতালের মর্গে দায়িত্বরত কর্মীরা
.............................................................................................
ইসরাইলি ভয়াবহ গোপন মিশন যেভাবে হত্যা করে ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানীকে
.............................................................................................
দাগনভূঞায় কলেজছাত্রকে অপহরণ করে পিটিয়ে হত্যা
.............................................................................................
শ্রীলঙ্কার কারাগারে দাঙ্গায় নিহত ৬
.............................................................................................
‘বিজ্ঞানী হত্যার বিরুদ্ধে যথেষ্ট হিসেবি জবাব দেবে ইরান’
.............................................................................................
সৌদি অবস্থানে ইয়েমেনি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা : নিহত ৮
.............................................................................................
নাইজেরিয়ায় কৃষি খামারে জঙ্গি হামলায় আরও ৭০ লাশ উদ্ধার
.............................................................................................
সৌদি আরবে ব্রিটিশ সেনা মোতায়েন পরিস্থিতির কোনো পরিবর্তন ঘটাবে না: ইয়েমেন
.............................................................................................
‘পম্পেওর ইসরাইল সফরের সঙ্গে ফাখরিজাদে হত্যাকাণ্ডের যোগসূত্র রয়েছে’
.............................................................................................
আঞ্চলিক রাজধানী মেকেলে `সম্পূর্ণ দখলে` নেয়ার দাবি ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রীর
.............................................................................................
ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি প্রদেশে জঙ্গি হামলা
.............................................................................................
ইরানি পরমাণু বিজ্ঞানী হত্যার তীব্র নিন্দা জানাল সিরিয়া ও হামাস
.............................................................................................
চীন ও রাশিয়ার ৪টি সংস্থার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা আরোপ
.............................................................................................
ইরানি বিজ্ঞানী হত্যা `পাগলামি, উস্কানিমূলক এবং অবৈধ`: বার্নি স্যান্ডার্স
.............................................................................................
নাইজেরিয়ায় কৃষি খামারে ৪৩ শ্রমিককে গলা কেটে হত্যা
.............................................................................................
সেনা প্রত্যাহারের আগে সোমালিয়ায় মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী
.............................................................................................
ইরানি পরমাণু বিজ্ঞানী হত্যা: মুখ খুলল ইউরোপীয় ইউনিয়ন
.............................................................................................
পরমাণু বিজ্ঞানী হত্যার পর যে বার্তা দিলেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা
.............................................................................................
‘ফাখরিযাদে পরিচালিত প্রতিষ্ঠান থেকে প্রথম কোভিড-১৯ টেস্ট কিট উৎপাদন করেছে ইরান’
.............................................................................................
ইরানি বিজ্ঞানী হত্যায় ইসরাইলের হাত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করলেন ট্রাম্প
.............................................................................................
পরমাণু বিজ্ঞানী হত্যার বদলা নেবে ইরান
.............................................................................................
অ্যান্টি-ব্যালিস্টিক মিসাইলের পরীক্ষা চালাল রাশিয়া, আঘাত হানতে পারে মহাকাশের উপগ্রহে
.............................................................................................
কাশ্মীর সীমান্তে পাকিস্তানী বাহিনীর গুলিতে ২ ভারতীয় সৈন্য নিহত
.............................................................................................
সন্ত্রাসী হামলায় ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানী ‘মোহসিন’ নিহত
.............................................................................................
ইসরাইলি অবরোধের কারণে গাজার ক্ষতি হয়েছে ১,৭০০ কোটি ডলার: জাতিসংঘ
.............................................................................................
পারস্য উপসাগরে বিশাল মহড়া চালালো ইরান
.............................................................................................
কুয়েতে ফের ২০ হাজার বাংলাদেশির বৈধতা পাবার সুযোগ
.............................................................................................
এর্দোয়ান-বিদ্রোহীদের যাবজ্জীবন
.............................................................................................
কূটনৈতিক পথই পরমাণু সমঝোতা রক্ষার একমাত্র উপায়: পাকিস্তান
.............................................................................................
৩ ইরানিকে ফেরত দিয়ে ইসরাইলি গুপ্তচরকে নিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়ার বিমান
.............................................................................................
সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতা: একে অপরকে দোষারোপ করছে ভারত-পাকিস্তান
.............................................................................................
১২ মুসলিম দেশের বিরুদ্ধে ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে আমিরাত
.............................................................................................
ব্রাজিলে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৪১
.............................................................................................
ইসরাইলের সঙ্গে চুক্তি করে প্রকৃত নিরাপত্তা আসবে না: ইরানি প্রেসিডেন্ট
.............................................................................................
মাইকেল ফ্লিনকে ক্ষমা করলেন ট্রাম্প
.............................................................................................
কোভিড-১৯ : যুক্তরাষ্ট্রে ৬ মাসে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড
.............................................................................................
ইরানে বিশেষ বাণিজ্য প্রতিনিধি নিয়োগ করল কাতার
.............................................................................................
পাল্টা পরমাণু মোশন নিয়ে এগুচ্ছে ইরানের সংসদীয় কমিটি
.............................................................................................
বিশ্বমঞ্চে নেতৃত্ব দিতে আমেরিকা প্রস্তুত : বাইডেন
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT